• banlag
  • newspaper
  • epaper

ঢাকা , বুধবার, ২৮ অক্টোবর ২০২০

 

প্রবীণদের অবহেলা নয়

নিগার সুলতানা সুপ্তি

নিউজ আপলোড : ঢাকা , মঙ্গলবার, ১৩ অক্টোবর ২০২০

image

বার্ধক্য কোন রোগ বা অসুস্থতা নয়, জীবনের সর্বশেষ পর্যায়, যা অবধারিত এবং অলঙ্ঘনীয়। মানুষের প্রথম জীবন আর শেষ জীবনের সঙ্গে অবিচ্ছেদ্য একটা মিল রয়েছে। জীবনের সূচনালগ্নে শিশু অনেক আদর-যত্নে বড় হয়ে ওঠে। ওই শিশু যখন প্রবীণ হয়, তখন তার শারীরিক ও মানসিক শক্তি কমে যায় এবং নির্ভরতার মুখোমুখি দাঁড়ায়। যদি তিনি কখনো বার্ধক্য বাঁধনে আটকে পড়েন, তখন তিনি কোনো সক্ষম ব্যক্তির সহায়তা পাওয়ার অধিকার রাখেন। এটিই সহজবোধ, দায়িত্ববোধ ও মানবাধিকারের প্রশ্ন। কিন্তু বর্তমানে একান্নবর্তী পরিবার ভেঙে সৃষ্টি হয়েছে ছোট পরিবার। স্বামী-স্ত্রী এবং একটি বা দুটি সন্তান নিয়ে গঠিত। আধুনিক সভ্যতার সব উপকরণ, ব্যক্তি বিলাসের সব উৎস দিয়ে সাজানো হয় সে সংসার। নেই কেবল প্রবীণ বাবা-মায়ের উপস্থিতি।

আমাদের প্রবীণ জনগোষ্ঠী আজ চরম দুঃখ-দুর্দশায়। অসহায় ও বঞ্চনার মধ্যে তাদের শেষ দিনগুলো পার করে দিচ্ছে। বাংলাদেশের অনেক প্রবীণ নিজেদের সন্তান-সন্ততি কর্তৃক প্রতিনিয়ত নির্যাতনের শিকার হচ্ছেন। পিতামাতার ইচ্ছার বিরুদ্ধে তাদেরকে জোর করে বৃদ্ধাশ্রমে বা অন্য কোথাও পাঠানো যাবে না মর্মে আইনের বিধানটিও লঙ্ঘন করছে। জীবিকা নির্বাহের জন্য এখনো অনেক প্রবীণকে কোনো না কোনো ধরনের কায়িক পরিশ্রম করতে হয় এবং অনেক প্রবীণকে ক্ষুধার্ত অবস্থায় নিদ্রায় যেতে হয়। তাদের প্রায় অর্ধেকই কোনো না কোনো প্রকারের পারিবারিক নির্যাতনের শিকার হচ্ছেন। প্রবীণরা আজ মোটেই ভালো নেই। তাদের অনেকেই নিজেদের বাড়িতে বা পরিবারে নানা ধরনের নির্যাতন ও দুর্ব্যবহারের সম্মুখীন হয়ে শারীরিক ও আবেগীয় নানা সমস্যায় জর্জরিত হচ্ছেন। প্রবীণদের সংখ্যা দ্রুত বৃদ্ধির সঙ্গে সঙ্গে সমাজে তাদের প্রতি দুর্ব্যবহার ও নির্যাতনের মাত্রাও যেন বেড়ে চলেছে। পশ্চিমা সংস্কৃতির নির্মম ও কলঙ্কময় উপহার প্রবীণ নিবাস ও বৃদ্ধাশ্রম ধীরে ধীরে আচ্ছন্ন করে ফেলেছে আমাদের জাতীয় জীবনকেও। হয়ে উঠেছে সমাজ জীবনের গুরুত্বপূর্ণ অনুষঙ্গ। যা মানবতার নির্মম বন্দিশালা। সেসব নিবাসে দিন দিন প্রবীণদের সংখ্যা বাড়ছে। পরিবারে অবহেলা, সন্তানের উপেক্ষায় কেউ আবার অনাকাক্সিক্ষতভাবে বৃদ্ধাশ্রমে আশ্রয় খোঁজেন। বিশ্বব্যাপী প্রবহমান মহামারী করোনা প্রবীণ জনগোষ্ঠীর জন্য অশনিসংকেত। বিশ্বব্যাপী এ পর্যন্ত করোনায় আক্রান্ত ব্যক্তি এবং মৃত্যুবরণকারী ব্যক্তির মধ্যে বিশাল সংখ্যক প্রবীণ এ ধরনের অবজ্ঞা, অবহেলা ও চিকিৎসার অভাবে প্রাণ হারিয়েছেন। তবে অবাক ব্যাপার হল, প্রবীণ ব্যক্তিদের সঙ্গে হামেশা সংগঠিত হওয়া এ ধরনের অবহেলা, নিপীড়ন বা বিকৃত আচরণকে সমাজের সবাই মামুলি, গুরুত্বহীন, ব্যক্তিগত এবং এমনকি নিয়তির স্বাভাবিক ঘটনা বলে মনে করে।

ইতোমধ্যে বাংলাদেশ সরকার একটি আইনও প্রণয়ন করেছেন। উদ্যোগটি প্রশংসনীয় এবং যুগান্তকারী পদক্ষেপ। প্রবীণ রক্ষায় এটি মাইলফলক হয়ে থাকবে। বয়োবৃদ্ধ বাবা-মার ভরণ-পোষণ না করার অপরাধে অভিযুক্ত সন্তানকে ১০ হাজার টাকা জরিমানা ও এক মাসের কারাদন্ডের বিধান রাখা হয়েছে। বাংলাদেশ সরকার কর্তৃক বয়স্কভাতা এবং বিধবা ভাতাও প্রচলিত রয়েছে। বর্তমানে ২৭ লাখ ২২ হাজার প্রবীণ ভাতা পাচ্ছেন। তবে আইন করে কখনো বাবা-মা তথা প্রবীণদের প্রতি শ্রদ্ধা-ভালোবাসা আদায় করা যায় না। এটা মানবিক বিষয়। মানবিক বিবেকবোধ না থাকলে আইন কেবল আইনই রয়ে যাবে।

বার্ধক্য হলো জীবনচক্রের শেষ ধাপ। জীবনের নাজুক ও স্পর্শকাতর অবস্থা। বার্ধক্য প্রকৃতির স্বাভাবিক নিয়ম। মানুষের জীবনে বার্ধক্যের বাস্তবতাকে অস্বীকার করার কোনো উপায় নেই। কিন্তু এই স্বাভাবিক নিয়ম কখনো কখনো মানুষের জীবনে বয়ে আনে অনেক দুঃখ-কষ্ট। সময় ও শারীরিক অবস্থার পাশাপাশি প্রবীণদের মানসিক পরিবর্তন স্বাভাবিক। এ সময় তাদের একাকিত্ব বেড়ে যায়। তাই এ সময়ে তাদের আশপাশের মানুষের উচিত পাশে থাকা, সাহায্যের হাত বাড়ানো। মনে রাখতে হবে তাদের প্রতি দয়া নয়। অধিকারের ভিত্তিতে প্রবীণদের স্বার্থ সংরক্ষণ বিষয়টিতে নজর দিতে হবে। বিষয়টি গণমাধ্যমেও ব্যাপকভাবে প্রচার করা দরকার। তাদের মর্যাদাপূর্ণ, দারিদ্র্যমুক্ত, কর্মময় সুস্বাস্থ্য ও নিরাপদ সামাজিক জীবন নিশ্চিত করার লক্ষ্যে প্রচলিত আইনের যথাযথ প্রয়োগ এবং ভৌত-অবকাঠামোর প্রবীণবান্ধবকরণ অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ।

পাট শিল্পের সম্ভাবনা

পাটকে সোনালি আঁশ বলা হয়। পাট বাংলার ঐতিহ্য। এই শিল্পের সঙ্গে জড়িয়ে আছে আমাদের এক সফল ইতিহাস এবং মিশে আছে আমাদের নিজস্বতা। এদেশের অর্থনীতিতে বহু বছর ধরে স্বমহিমায় উজ্জ্বল ছিল পাট শিল্প।

পলিব্যাগ ও প্লাস্টিক ব্যবহারে সচেতন হোন

তথ্যপ্রযুক্তির এই যুগে সবকিছু আমাদের হাতের নাগালে থাকলেও কিছু কিছু ক্ষেত্রে আমরা সত্যই খুবই অসহায়।

বাসের রুট বিভ্রান্তির অবসান হোক

বর্তমান সময়ের একটি অন্যতম প্রধান সমস্যা বাসের রুট বিভ্রান্তি। অধিকাংশ দূরবর্তী রুটের বাস গুলোতে গন্তব্যের পরিবর্তে অন্য স্থানের নাম উল্লেখ থাকে, উদাহরণ স্বরূপ বলা যেতে পারে, রাজশাহী হতে রংপুর দূরপাল্লার বাস, অধিকাংশ রাজশাহী হতে বগুড়াগামী বাস গুলোতে ‘রাজশাহী হতে বগুড়া উল্লেখ না করে ‘রাজশাহী-বগুড়া-রংপুর’ উল্লেখ থাকে

sangbad ad

জাল সনদে চাকরি আসল সনদে বেকার

শিক্ষাই জাতির মেরুদন্ড। মানুষ শিক্ষা অর্জন করে যদি দেশ ও সমাজের কাজে না আসতে পারে তাহলে সে শিক্ষার কি মূল্য।

আসুন রাস্তা পারাপারে সতর্ক হই

image

প্রায় দিনই সড়ক দুর্ঘটনায় মারা যাচ্ছে অনেক মানুষ। সড়ক দুর্ঘটনার বিভিন্ন কারণের মধ্যে অন্যতম হচ্ছে রাস্তা পারাপার।

মোবাইল কোম্পানির অফারের বিরক্তিকর এসএমএস প্রসঙ্গে

প্রতি মুহূর্তে মোবাইল অপারেটর গুলো নানা অফারের খুদে বার্তা পাঠাচ্ছে।

চালের বাজারে কারসাজি বন্ধ করুন

image

চাল আমাদের অপরিহার্য নিত্যপ্রয়োজনীয় একটি পণ্য। আমাদের বলা হয়ে থাকে-‘মাছে-ভাতে বাঙালি’ কিন্তু এ চাল যখন জনগণের ক্রয়ক্ষমতার ঊর্ধ্বে চলে যায় তখন বেঁচে থাকাটা, জীবনধারণ করাটা প্রশ্নের সম্মুখীন হয়ে দাঁড়ায়।

বিশ্ববিদ্যালয় পড়ুয়াদের উপায় কী?

করোনা মহামারীর কারণে দীর্ঘদিন ধরে বন্ধ বাংলাদেশের সব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান। ১৭ মার্চ যে ছুটির ঘোষণা দেয়া হয়েছিল দিন, সপ্তাহ, মাসের গন্ডি পেরিয়ে আজ তা বছর ছুঁইছুঁই। কর্মক্ষেত্র চালু হলেও আগের মতোই বন্ধ শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান।

মা ইলিশ রক্ষায় দরকার কঠোর নজরদারি ও সচেতনতা

image

জাতীয় মাছ ইলিশ রক্ষায় ১৪ অক্টোবর (বুধবার), ২০২০ থেকে ৪ নভেম্বর, ২০২০ পর্যন্ত প্রজনন মৌসুমে মা ইলিশ ধরা বন্ধ থাকবে।