• banlag
  • newspaper
  • epaper

ঢাকা , মঙ্গলবার, ১৯ জানুয়ারী ২০২১

 

চিঠিপত্র : মোরেলগঞ্জের পানগুছি নদীর উপর সেতু চাই

নিউজ আপলোড : ঢাকা , শুক্রবার, ০৬ নভেম্বর ২০২০

মতামতের জন্য সম্পাদক দায়ী নয়

মোরেলগঞ্জের পানগুছি নদীর উপর সেতু চাই

বাগেরহাট জেলার সর্ববৃহৎ উপজেলা মোরেলগঞ্জ। এই মোরেলগঞ্জ উপজেলার বুক চিরে বয়ে চলেছে পানগুছি নদী। এই নদীটি স্রোতঃস্বিনী ও গভীর। বাগেরহাট-শরণখোলা সড়কের মধ্যবর্তী মোরেলগঞ্জ উপজেলা সদরের পাশ দিয়ে বয়ে চলছে এ নদী। এ দু’উপজেলার প্রায় পাঁচ লাখ মানুষ জেলা সদরসহ ঢাকা, খুলনা ও চট্টগ্রামসহ বিভিন্ন স্থানে যাতায়াতে পানগুছি নদী পার হতে হয়। যানবাহন পারাপারে ফেরীর ব্যবস্থা থাকলেও সাধারণ মানুষসহ স্কুল কলেজগামী ছাত্রছাত্রীরা ইঞ্জিনচালিত ট্রলারে করে পারাপার হয়। এভাবে পার হতে গিয়ে প্রায়শ দুর্ঘটনায় পতিত হয়ে মর্মান্তিক দুর্ঘটনার শিকার হতে হয় এলাকাবাসীকে। ২০১৭ সালের ২৮ মার্চ ট্রলার এক ডুবির ঘটনায় সলিল সমাধি হয় ২১ জনের। এভাবে ঘটতেই থাকে প্রায়শ দুর্ঘটনা। এছাড়া, বিশ্ব ঐতিহ্য সুন্দরবনের শরণখোলা রেঞ্জ এলাকার প্রাকৃতিক সৌন্দর্যমন্ডিত কটকা, কচিখালী, দুবলারচরসহ বিভিন্ন পর্যটন স্থানে যেতে এ সড়ক ব্যবহার করে থাকে দেশি ও বিদেশি পর্যটকরা। কিন্তু স্বাধীনতার ৫০ বছর পরও এ নদীতে নির্মাণ হয়নি সেতু। পানগুছি নদীতে সেতু না থাকায় চরম দুর্ভোগে পড়েছেন এই উপজেলাবাসী। চরম বিপাকে পড়েছেন সাধারণ মানুষ ও স্কুল-কলেজের শিক্ষার্থীরা। তাই জনদুর্ভোগ লাঘবে এ নদীতে সেতু নির্মাণ করা জরুরি।

গত বছর মার্চ মাসে পানগুছি নদীতে সেতু নির্মাণের প্রস্তাবিত স্থান পরিদর্শন করেছে কুয়েতের রাষ্ট্রীয় সংস্থা কুয়েত ফান্ড ফর আরব ইকোনমিক ডেভেলপমেন্টের (কেইএইডি) চার সদস্যের একটি প্রতিনিধিদল। সেতু নির্মাণে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের নির্দেশের পর এ সংক্রান্ত ফাইল এখন আন্তর্জাতিক সম্পর্ক বিভাগে দাতা সংস্থার ফান্ডের অপেক্ষায় ফাইলবন্দি অবস্থায় রয়েছে। এখনও আশার আলো দেখেনি দক্ষিণাঞ্চলের জনগণ। ট্রলারে যাতায়াত করতে বাধ্য হওয়ায় অনেকেই এখন শঙ্কিত ও উদ্বিগ্ন। এলাকাবাসীর প্রাণের দাবি পানগুচি নদীতে সেতু নির্মাণ। তাই সড়ক পরিবহন ও সেতু মন্ত্রণালয়ের প্রতি অনুরোধ, জনদুর্ভোগ লাঘবে অচিরেই পানগুছি নদীতে সেতু নির্মাণ করা হোক।

নিগার সুলতানা সুপ্তি

মোরেলগঞ্জ, বাগেরহাট।

বেকারত্ব নিরসনে ফ্রিল্যান্সিং

বাংলাদেশ পরিসংখ্যান ব্যুরো-বিবিএসের সর্বশেষ জরিপ (২০১৬-১৭) অনুযায়ী দেশে বেকার সংখ্যা ২৭ লাখ, যা অর্থনৈতিক সমৃদ্ধির ক্ষেত্রে বড় বাধা। আর এই বাধা নিরসনে সম্ভাবনার দুয়ার হতে পারে ফ্রিল্যান্সিং। একটি কম্পিউটার, ইন্টারনেট সংযোগ আর নিজের দক্ষতা দিয়েই বেকারত্ব ঘুঁচিয়ে যে কেউ সচ্ছলভাবে জীবনযাপন করতে পারবে। ফ্রিল্যান্সিং কাজের মধ্যে কম্পিউটার প্রোগ্রামিং থেকে শুরু করে ওয়েব ডিজাইন, গ্রাফিক্স ডিজাইন, সার্চ ইঞ্জিন অপটিমাইজেশন, কনটেন্ট রাইটিংসহ আরও অনেক কিছুই অন্তর্ভুক্ত। প্রযুক্তির সহজলভ্যতা থাকার কারণে যে কেউ মনোযোগ আর সঠিক নির্দেশনার সহিত বেশ কিছুদিন যদি কোন নির্দিষ্ট কাজ শেখায় সময় দেয় তাহলে এক বছরের মধ্যেই সেই ব্যক্তি নির্দিষ্ট বিষয়টি নিয়ে ফ্রিল্যান্সিং করা শুরু করে দিতে পারবে। তবে এক্ষেত্রে বিদেশি ক্রেতাদের সঙ্গে যোগাযোগ স্থাপনের জন্য ন্যূনতম ইংরেজি জানতে হবে। বিভিন্ন চাকরি বা কর্মক্ষেত্রে কাজ করার পাশাপাশি অবসর সময়েও যে কেউ করতে পারবে এই কাজ। ফ্রিল্যাসিং এর সবচেয়ে বড় সুবিধা হচ্ছে এর নির্দিষ্ট কোন কর্মঘণ্টা নেই এবং বাড়িতে বসেই এ সব কাজ করা যায়। আর এর মাধ্যমে নিজের দক্ষতা দ্বারা অনেক সচ্ছলভাবে জীবনযাপন করা যায়।

বর্তমান এই বৈশ্বিক মহামারীতে অনেক ছোটবড় কোম্পানি নিজেদের গুটিয়ে নিয়েছে, হাজার হাজার মানুষ বেকার হয়ে পড়েছে। আর এই পরিস্থিতি খুব দ্রুত স্বাভাবিকও হবে না। করোনাকালীন এই অচলাবস্থায় যেখানে বিশ্ব অর্থনীতিই মুখ থুবড়ে পড়েছে, সেখানে বাংলাদেশের মতো উন্নয়নশীল দেশের বেকার সমস্যা দূরীকরণে ফ্রিল্যান্সিং হতে পারে উত্তম সমাধান।

সবুজ হাসান রনি

চিঠিপত্র : সম্ভাবনাময় কৃষি পর্যটন

সম্ভাবনাময় কৃষি পর্যটন কৃষি পর্যটন হলো অবকাশযাপনের এমন এক ধরন যেখানে খামারগুলোতে আতিথেয়তার

চিঠিপত্র :করোনায় শিক্ষার ক্ষতি

করোনায় শিক্ষার ক্ষতি পুরো একটি শিক্ষাবর্ষ শিক্ষার্থীরা সশরীরে স্কুল, কলেজ বা বিশ্ববিদ্যালয়ের

চিঠিপত্র : নদী রক্ষায় চাই সচেতনতা

নদী রক্ষায় চাই সচেতনতা সুদূর অতীতকাল থেকে বর্তমান পর্যন্ত বিশ্বের বিভিন্ন দেশের সঙ্গে

sangbad ad

চিঠিপত্র : উদাসীন বাঙালি

উদাসীন বাঙালি বিশ্বের সাথে তাল মিলিয়ে আধুনিকতার ছোঁয়া লেগেছে বাংলাদেশও। তার সাথে বেড়েছে

চিঠিপত্র : অসহায় শিক্ষার্থীরা

অসহায় শিক্ষার্থীরা গত মার্চ মাস থেকে সব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ হয়ে আছে। অথচ

চিঠিপত্র : স্বপ্নের বাংলাদেশ

স্বপ্নের বাংলাদেশ স্বপ্ন দেখি দারিদ্র্যমুক্ত এক বাংলাদেশের। যেখানে অনাহারে-অর্ধাহারে দিন কাটাতে হবে

চিঠিপত্র : শীতার্ত মানুষের সহায়তায় এগিয়ে আসুন

শীতার্ত মানুষের সহায়তায় এগিয়ে আসুন তীব্র শীতে ফুটপাতে রাত কাটানো মানুষগুলো

চিঠিপত্র : খুলনায় বাড়ছে যানজট

খুলনায় বাড়ছে যানজট ঢাকা, চট্টগ্রামের মতো বর্তমানে খুলনাতেও তীব্র যানজটের সৃষ্টি

চিঠিপত্র : পদ্মা সেতু যেন ঐক্যের প্রতীক

যে কোন দেশের উন্নয়নের পূর্বশর্ত যোগাযোগ কাঠামোর উন্নতি। যোগাযোগ ব্যবস্থার উন্নতি হলেই একটি দেশ উন্নয়নের পরবর্তী ধাপগুলোতে প্রবেশ করতে পারে।

sangbad ad