• banlag
  • newspaper
  • epaper

ঢাকা , শনিবার, ২৮ নভেম্বর ২০২০

 

চিঠিপত্র : মানসিক স্বাস্থ্যের গুরুত্ব

নিউজ আপলোড : ঢাকা , সোমবার, ১৯ অক্টোবর ২০২০

মতামতের জন্য সম্পাদক দায়ী নয়

মানসিক স্বাস্থ্যের গুরুত্ব

করোনা মহামারীর কারণে বিশ্বজুড়ে মানসিক স্বাস্থ্য মারাত্মক বিপর্যয়ের সম্মুখীন। বিশেষজ্ঞদের মতে, করোনার সেকেন্ড ওয়েভ আসবে আর সেটা হবে মানসিক স্বাস্থ্য বিষয়ক। তাই মানসিক স্বাস্থ্য সমস্যা করোনা মহামারীর মতো বৈশ্বিক সমস্যা। করোনার করাল গ্রাসে সবচেয়ে বেশি ক্ষতিগ্রস্থ স্বাস্থ্যখাত। স্বাস্থ্য ঝুঁকি, প্রিয়জন হারানোর ভয়, অর্থনৈতিক অনিশ্চয়তা ইত্যাদি অতিরিক্ত চাপ সৃষ্টি হওয়ার ফলে মানুষের মানসিক স্বাস্থ্য ব্যাপকহারে ক্ষতির মুখে পড়েছে।

মানসিক স্বাস্থ্য হলো মানুষের মন, আচরণগত, আবেগপূর্ণ স্বাস্থ্য। শারীরিক সুস্থতার সঙ্গে মানসিক সুস্থতাও জরুরি। মানসিক চাপে শারীরিক স্বাস্থ্যেও ব্যাপক ক্ষতি হয়, শরীর দুর্বল হয়ে পড়ে, কাজ করার ক্ষমতা কমে যায়। চীনের উহান, ইতালি, নিউইয়র্কে গবেষণায় প্রায় ৩০ শতাংশ মানুষ পিটিএসডিতে (পোস্ট ট্রমাটিক স্ট্রেস ডিজঅর্ডার) ভুগবেন বলে প্রতিবেদনে প্রকাশ পায়। তাই এটাকে তুচ্ছতাচ্ছিল্য না করে গুরুত্ব সহকারে নিতে হবে। আর এদেশে মানসিক স্বাস্থ্য সম্পর্কে অসচেতনতা একটি বড় উদ্বেগের বিষয়। তাই সরকারি বেসরকারি মহলকে জরুরিভিত্তিতে পদক্ষেপ নিতে হবে। মানসিক চিকিৎসায় বিনিয়োগ বাড়াতে হবে। মানসিক স্বাস্থ্য সম্পর্কে জনসচেতনতা বাড়াতে বিভিন্ন সভা, সেমিনার, মিডিয়াতে প্রচারণা চালাতে হবে। এদেশে মানসিক রোগ নিয়ে পড়াশোনা করা হলেও পেশা হিসেবে কেউ নিতে চাই না ফলে প্রতি দুই লক্ষ মানুষের জন্য বিশেষজ্ঞ চিকিৎসক রয়েছেন মাত্র একজন। আবার সাধারণ মানুষের মতো অনেক চিকিৎসক বুঝেন না যে মানুষটি মানসিক রোগে আক্রান্ত। ফলে রোগী ব্যাপক স্বাস্থ্য ঝুঁকির মধ্যে পড়ে। সময় মতো ব্যবস্থা না নেয়ার কারণে অনেকে অন্যের ক্ষতির সঙ্গে সঙ্গে নিজের ক্ষতি করে বসে এমনকি আত্মহত্যার মতো জঘন্য কাজে উৎসাহী হয়ে উঠে। এজন্যই এই মহামারীর সময়ে প্রতিদিনের সংবাদ পত্রে আত্মহত্যার খবর পাওয়া যায়। এই মিছিল কোনোভাবেই থামছে না। বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার মতে, বিশ্বে প্রতি ৪০ সেকেন্ডে একজন করে আত্মহত্যায় প্রাণ হারান। একমাত্র মানসিক স্বাস্থ্যের ওপর গুরুত্ব দিলে এই হার কমিয়ে আনা সম্ভব।

সরকারিভাবে উদ্যোগ নিয়ে জেলা-উপজেলা পর্যায়ে মানসিক স্বাস্থ্য বিষয়ক বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকের পরিধি বাড়াতে হবে। শারীরিক স্বাস্থ্যের মতো মানসিক স্বাস্থ্যও গুরুত্বপূর্ণ- এ বিষয়ে প্রচারণা চালাতে হবে। বিশেষজ্ঞদের শহরকেন্দ্রিক প্রবণতা থেকে বের করে আনতে হবে। করোনা মহামারীর সেকেন্ড ওয়েব মোকাবেলা করতে সরকারের পাশাপাশি সাধারণ মানুষকেও এগিয়ে আসতে হবে। কোনোভাবেই চাপ নেয়া যাবে না। এই বিশাল অবসরকে উপভোগ্য করে তুলতে হবে। সুস্থ পৃথিবীতে কাজের চাপে হয়তো প্রিয় বই কিংবা প্রিয় সিনেমাটা দেখা হয়ে ওঠেনি এই বিশাল অবসরে, না করা কাজগুলো করে ফেলতে হবে। পরিবারের সঙ্গে সময় কাটানোর সুবর্ণ সুযোগ। নিজ নিজ ধর্মগ্রন্থ পড়া, প্রিয় বাগানটার খেয়াল রাখা হয়নি অনেক দিন, এ অবসরে তা নির্বিঘ্নে করাই যায়। আশা রাখতে হবে এই দুর্দিনের শেষ হয়ে সুদিনের দেখা মিলবে।

হাবিবা খাতুন

চিঠিপত্র : গাইবান্ধায় কৃষি বিশ্ববিদ্যালয় চাই

গাইবান্ধা একটি অবহেলিত জেলা। এই জেলার বেশিরভাগ লোকজন কৃষির উপর নির্ভরশীল।

চিঠিপত্র : পারিবারিক সহিংসতা রোধে চাই সচেতনতা

পারিবারিক সহিংসতা রোধে চাই সচেতনতা পরিবার হলো পৃথিবীর প্রাচীনতম প্রতিষ্ঠান। যেখানে প্রাচীনকাল থেকে

চিঠিপত্র : আর্সেনিক এক নীরব ঘাতক

আর্সেনিক এক নীরব ঘাতক পানির অপর নাম জীবন। গ্রামাঞ্চলে বাড়ির পাশের নলকূপের পানি

sangbad ad

চিঠিপত্র :শীতে কী হবে ছিন্নমূল মানুষের?

শীতকাল কারো জন্য সুখকর ও আশীর্বাদ হলেও অনেকের জন্য অভিশাপ। বিশেষ করে ছিন্নমূল ও বস্তিতে বসবাসরত মানুষের জন্য শীত ভয়াবহ অভিশাপ।

চিঠিপত্র :অ্যাসাইনমেন্ট পেপারের দাম বৃদ্ধি রোধ করতে হবে

কোভিড১৯ এর প্রার্দুভাবে মার্চের ১৬ তারিখ থেকে সব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ হয়ে যায়।

চিঠিপত্র : ই-বর্জ্য ব্যবস্থাপনায় নজর দিন

ই-বর্জ্য ব্যবস্থাপনায় নজর দিন বর্তমান যুগ তথ্য ও প্রযুক্তির যুগ। এই যুগে এসে মানুষ

চিঠিপত্র : ইঁদুর নিধনে কার্যকর ব্যবস্থা নিন

ইঁদুর একটি অত্যন্ত ক্ষতিকর প্রাণী। ছোট এ প্রাণীটির ক্ষতির ব্যাপকতা হিসাব করা খুবই কঠিন।

চিঠিপত্র : কেমন বাংলাদেশ চাই

কেমন বাংলাদেশ চাই সময়ের বদলের সঙ্গে সঙ্গে দেশের অবকাঠামোর পরিবর্তন হয়েছে। উন্নতির পথে

চিঠিপত্র : রাস্তাটির সংস্কার হচ্ছে না কেন?

১৯৮৮ সালের বন্যাতেও যে রংপুর মহানগরী পানিতে ডুবে যায়নি, সেই রংপুর নগরী এবারের বন্যায় পানিতে তালিয়ে ছিল বেশ কয়েকদিন।

sangbad ad