• banlag
  • newspaper
  • epaper

ঢাকা , শুক্রবার, ২৬ এপ্রিল ২০১৯

 

স্থানীয় সরকার ব্যবস্থাকে এমপিদের প্রভাব মুক্ত করুন

নিউজ আপলোড : ঢাকা , মঙ্গলবার, ০৫ ফেব্রুয়ারী ২০১৯

উপজেলা নির্বাচনের প্রাক্কালে স্থানীয় সরকারের ওপর সংসদ সদস্যদের (এমপি) প্রভাব নিয়ে আবার কথা উঠেছে। গত শনিবার (২ ফেব্রুয়ারি) রাজধানীতে আয়োজিত এক আলোচনা সভায় এ নিয়ে কথা বলেছেন বিশেষজ্ঞরা। বক্তারা বলেছেন, স্থানীয় সরকারগুলো জনগণের পরিবর্তে এমপিদের প্রতি দায়বদ্ধ হয়ে পড়েছে। তারা এমপিদের ভূমিকা পুনর্বিবেচনার কথা বলেন। এ নিয়ে গণমাধ্যমে বিস্তারিত প্রতিবেদন প্রকাশিত হয়েছে।

স্থানীয় সরকারের ওপর এমপিদের প্রভাব নিয়ে অতীতে অনেক আলোচনা হয়েছে। অনেকে বলেন, বাংলাদেশে যেভাবে স্থানীয় সরকারের ওপর সংসদ সদস্যরা প্রভাব বিস্তার করেন তা বিশ্বে নজিরবিহীন। স্থানীয় সরকারের প্রতিটি স্তরেই তারা অযাচিত প্রভাব বিস্তার করেন। এর ফলে গণতন্ত্রের মূল ধারণা প্রশ্নবিদ্ধ হয়ে পড়েছে। গণতান্ত্রিক রীতি অনুযায়ী সব জনপ্রতিনিধির জবাবদিহিতা থাকবে জনগণের কাছে। দেশে রাজনৈতিক বাস্তবতা হচ্ছে, স্থানীয় সরকারের সব স্তরের জনপ্রতিনিধিরা স্থানীয় এমপির আজ্ঞাবাহীতে পরিণত হয়েছেন। এমপিরা হয়ে উঠেছেন ডিজিটাল দেশের ডিজিটাল সামন্ত প্রভু। স্থানীয় পর্যায়ের সব কাজেই তারা নাক গলান। অথচ তাদের মূল কাজ হচ্ছে সংসদে আইন প্রণয়ন করা। কিন্তু ক’জন এমপি কাজটি যথাযথভাবে করেন সে প্রশ্ন রয়েছে। সংসদে কণ্ঠভোট দেয়া, সরকারের স্তুতি আর বিরোধী দলের সমালোচনা করা ছাড়া তাদের আর কোন কাজ আছে কিনা সেটা এক প্রশ্ন। তাদের যদি এলাকার উন্নয়ন করার এতই আগ্রহ তাহলে তারা ইউপি, উপজেলা, জেলা, পৌর, সিটি নির্বাচন করলেই পারেন- সংসদ নির্বাচন করার দরকার কী!

এমপিদের প্রভাবের কারণে সরকারের বিকেন্দ্রিকরণ বাধাগ্রস্ত হচ্ছে। স্থানীয় সরকারগুলোর অর্থ, সম্পদ, ক্ষমতা, দায়িত্ব প্রভৃতি একটি আইনি কাঠামোতে এনে বিকেন্দ্রিকরণের যে প্রতিশ্রুতি সরকার দিয়েছিল তা বাস্তবায়ন করা হয়নি। বরং নানা কৌশলে এমপিদের ক্ষমতা বা কর্তৃত্বের আওতা বাড়ানো হচ্ছে। দলীয় প্রতীকে স্থানীয় সরকার নির্বাচনের নিয়ম করার পর তাদের কর্তৃত্ব আরও বেড়েছে। এ অবস্থায় প্রশ্ন উঠেছে যে, স্থানীয় সরকারের আদৌ কোন প্রয়োজন আছে কিনা বা সরকার আদৌ বিকেন্দ্রিকরণ করতে চায় কিনা।

উন্নয়নের সুফল জনগণের ঘরে ঘরে পৌঁছে দিতে হলে, উন্নয়নকে টেকসই করতে হলে বিকেন্দ্রিকরণের বিকল্প নেই। এজন্য স্থানীয় সরকারের কাঠামোকে শক্তিশালী করতে হবে। বিদ্যমান আইনগুলোর সমন্বয় সাধন করে স্থানীয় সরকারের ক্ষমতায়ন নিশ্চিত করতে হবে। পাশাপাশি এমপিদের অযাচিত কর্তৃত্ব খর্ব করা জরুরি। আমরা চাই, স্থানীয় প্রতিনিধিরা জনগণের কাছে দায়বদ্ধ থেকে তাদের কাজ করুক, এমপিরা আইন প্রণয়ন বা সংশোধনে মনোনিবেশ করুক। প্রত্যেকেই নিজের দায়িত্ব যথাযথ ভাবে পালন করলে গণতন্ত্রকে শক্তিশালী আর উন্নয়নকে টেকসই করা যাবে।

(৪ ফেব্রুয়ারি, ৬ এর পাতা : সংবাদ)

রমজানে দ্রব্যমূল্য নিয়ন্ত্রণে চাই কঠোর মনিটরিং

আসন্ন রমজানে দ্রব্যমূল্য সহনীয় পর্যায়ে থাকবে বলে আশ্বস্ত করেছেন বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু

ই-বর্জ্য ব্যবস্থাপনায় রিসাইক্লিংয়ে পরিকল্পিত ও স্থায়ী উদ্যোগ নিন

ইলেকট্রনিক পণ্যের ব্যবহার বাড়ছে। একই সঙ্গে বাড়ছে ইলেকট্রনিক বা ই-বর্জ্যরে পরিমাণও। এসব ই-বর্জ্যরে দূষণ থেকে প্রাণ ও প্রকৃতিকে রক্ষা

বর্ষার আগেই ঢাকাডুবি কেন নগর কর্তৃপক্ষ কী করছে

চৈত্র মাসেই বৃষ্টির পানি জমে সয়লাব হয়ে যাচ্ছে রাজধানী ঢাকার বেশিরভাগ এলাকার রাস্তা

sangbad ad

পুলিশের ভূমিকা খতিয়ে দেখতে হবে

ফেনীর সোনাগাজীতে মাদ্রাসাছাত্রীকে পুড়িয়ে হত্যাচেষ্টার মামলায় স্থানীয় পুলিশের ভূমিকা নিয়ে অসন্তোষ প্রকাশ করেছেন ভিকটিমের স্বজনরা।

স্বাভাবিক পুঁজিবাজার চাই অনৈতিক কারসাজি দমন করুন

দেশের পুঁজিবাজারে এখনও কারসাজি হচ্ছে বলে অভিযোগ উঠেছে। স্বার্থান্বেষী একটি গোষ্ঠী দুই স্টক এক্সচেঞ্জের সূচক সুকৌশলে নিয়ন্ত্রণ করছে এমন

দ্রুত সম্পন্ন করা রাষ্ট্রের দায়িত্ব

অর্পিত সম্পত্তি অবমুক্তির লাখো মামলা বছরের পর বছর ধরে ঝুলে আছে। মামলা নির্ধারিত সময়ে নিষ্পত্তি হচ্ছে কিনা তা মনিটর করার কেউ

রোজার মাসে ভোগ্যপণ্যের বাজার নিয়ন্ত্রণে রাখুন

রমজান সামনে রেখে এরই মধ্যে অস্থির হয়ে উঠতে শুরু করেছে ভোগ্যপণ্যের বাজার। বিভিন্ন নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্যের দাম কোন কারণ ছাড়াই

রাজধানী কি এবারও জলাবদ্ধ হয়ে পড়বে

রাজধানীর অনেক এলাকা আগামী বর্ষাতেও জলাবদ্ধ হয়ে পড়তে পারে বলে আশঙ্কা করছেন বিশেষজ্ঞরা। ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনে

প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনা বাস্তবায়ন হতে হবে

অগ্নিকান্ড রোধ এবং এর ক্ষয়ক্ষতি এড়াতে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ১৫টি নির্দেশনা দিয়েছেন। গত সোমবার সচিবালয়ে মন্ত্রিসভার নিয়মিত

sangbad ad