• banlag
  • newspaper
  • epaper

ঢাকা , মঙ্গলবার, ২৬ মার্চ ২০১৯

 

সরকারি ক্রয় প্রক্রিয়ায় স্বচ্ছতা প্রতিষ্ঠা করতে হবে

নিউজ আপলোড : ঢাকা , সোমবার, ২৫ ফেব্রুয়ারী ২০১৯

আইসিটি প্রকল্পের অধীনে শিক্ষা উপকরণ কেনার প্রক্রিয়া নিয়ে প্রশ্ন উঠেছে। জানা গেছে, উন্মুক্ত দরপত্র প্রক্রিয়া ই-জিপির পরিবর্তে ডিরেক্ট প্রকিউরমেন্ট মেথড (ডিপিএম) পদ্ধতিতে শিক্ষা উপকরণ কেনার তোড়জোড় শুরু হয়েছে। এ সংক্রান্ত একটি প্রস্তাব মন্ত্রিসভা কমিটিতে অনুমোদনের জন্য পাঠানো হয়েছে। প্রকল্পের পরামর্শকের মতামত উপেক্ষা করে পছন্দের প্রতিষ্ঠানকে কাজ দিতেই এ উদ্যোগ নেয়া হয়েছে বলে গুরুতর অভিযোগ উঠেছে। শিক্ষা উপকরণ কেনা নিয়ে সংশ্লিষ্ট দুটি মন্ত্রণালয়, অধিদফতর এবং প্রকল্পের কর্মকর্তাদের মধ্যে স্বার্থের দ্বন্দ্ব দেখা দিয়েছে, মতবিরোধ চলছে। এ নিয়ে গত রোববার সংবাদ-এ বিস্তারিত প্রতিবেদন প্রকাশ করা হয়েছে।

দেশের প্রায় সাড়ে ৩১ হাজার উচ্চ মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে একটি করে মাল্টি মিডিয়া ক্লাসরুম স্থাপনের লক্ষ্যে আইসিটি প্রকল্প গ্রহণ করেছে সরকার। সাড়ে ১৩শ’ কোটি টাকার বেশি বরাদ্দ দেয়া প্রকল্পের প্রথম পর্যায়ের কাজ ইতোমধ্যে শেষ হয়েছে। প্রথম পর্যায়ে কেনাকাটার সময়ও অনিয়ম-দুর্নীতির অভিযোগ উঠেছিল। দেশে যত ধরনের অনিয়ম-দুর্নীতি সংঘটিত হয় তার মধ্যে সরকারি ক্রয় প্রক্রিয়ার দুর্নীতি অন্যতম। প্রায়ই অভিযোগ ওঠে, প্রকল্পের কেনাকাটা পছন্দের প্রতিষ্ঠান থেকে করা হয়েছে। নিম্নমানের পণ্যের বিপরীতে উচ্চমূল্য পরিশোধের অভিযোগ পাওয়া যায়। সরকারি কেনাকাটায় স্বচ্ছতা আনতে সরকার ই-জিপি পদ্ধতি চালু করেছে। এ পদ্ধতিতে শিক্ষা উকরণ না কিনে ডিপিএস পদ্ধতি কেন অনুসরণ করা হচ্ছে সেটা একটা প্রশ্ন। আর প্রথম পর্যায়ের কেনাকাটা নিয়ে যখন অভিযোগ উঠেছে এবারও কেন বিতর্কিত প্রক্রিয়া অবলম্বন করা জরুরি হয়ে পড়ল সেটা জানতে হবে।

সরকারি কেনাকাটা নিয়ে বিভিন্ন মন্ত্রণালয় বা দফতরের কর্মকর্তাদের স্বার্থের দ্বন্দ্বের খবর উদ্বেগজনক। সরকারি কেনাকাটা করতে হবে জনস্বার্থে। এখানে কোন কর্তাব্যক্তির স্বার্থের উদ্ভব ঘটার সুযোগ নেই। আমরা বলতে চাই, আইসিটি প্রকল্পের অধীনে শিক্ষা উপকরণ কেনার ক্ষেত্রে অনিয়ম-দুর্নীতি রোধ করতে হবে। এক্ষেত্রে প্রকল্প পরামর্শকের মতকে প্রাধান্য দিতে হবে। আমরা মনে করি, ই-জিপি পদ্ধতিতে শিক্ষা উপকরণ কেনা হলে একদিকে সরকারি ক্রয়ে স্বচ্ছতা প্রতিষ্ঠা পাবে অন্যদিকে বিতর্কেরও অবসান হবে।

সরকারি ক্রয়ে অনিয়ম-দুর্নীতির বিরুদ্ধে দুর্নীতি দমন কমিশনকে (দুদক) কঠোর ভূমিকা পালন করতে হবে। প্রতিষ্ঠানটি চুনোপুঁটিদের দুর্নীতি নিয়ে যতটা সক্রিয়, রাঘববোয়ালদের দুর্নীতি নিয়ে ততটাই নিষ্ক্রিয়। যে কারণে দেশ থেকে দুর্নীতি উচ্ছেদ করা যাচ্ছে না। আইসিটি প্রকল্পসহ সব সরকারি প্রকল্পের কেনাকাটার অনিয়ম-দুর্নীতির অভিযোগ তদন্ত করে দুদককে আইনি ব্যবস্থা নিতে হবে।

দৈনিক সংবাদ : সোমবার, ২৫ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, ৬ এর পাতায় প্রকাশিত

স্বাধীনতা দিবস- আটচল্লিশ বছর পর

চল্লিশ বছর আগে বাংলাদেশ স্বাধীন হয়েছিল একটি সশস্ত্র মুক্তিযুদ্ধের মধ্য দিয়ে। এর আগে

গণতান্ত্রিক রাজনীতির নতুন সূচনা হোক

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় ছাত্র সংসদ (ডাকসু) নির্বাচনের পর প্রথম সভা হয়েছে গত শনিবার। বৈঠকে নবনির্বাচিত ভিপি নুরুল হক নূরসহ বাকি

নিরাপদ সড়কের প্রশ্নে গণমুখী ভূমিকা পালন করুন

রাজধানীর প্রগতি সরণিতে গত মঙ্গলবার সকালে বাসচাপায় মারা গেছেন বাংলাদেশ ইউনিভার্সিটি অব প্রফেশনালসের শিক্ষার্থী আবরার আহমেদ চৌধুরী।

sangbad ad

পাহাড়ে হত্যার রাজনীতির অবসান চাই

রাঙ্গামাটির বাঘাইছড়িতে গত সোমবার সশস্ত্র হামলায় সহকারী প্রিসাইডিং অফিসার, আনসার-ভিডিপির

উপজেলা নির্বাচনে সহিংসতা রোধে কঠোর হোন

উপজেলা নির্বাচনকে কেন্দ্র করে সংঘর্ষে জয়পুরহাটের কালাইয়ে গত শনিবার দু’জন মারা গেছে। নিহতদের

রাজধানীর বায়ুদূষণ রোধে কার্যকর পদক্ষেপ নিন

ঢাকায় বায়ুদূষণের সময় দীর্ঘ হচ্ছে। গত বছর ১৯৭ দিন রাজধানীবাসী দূষিত বাতাসে

গ্যাসের দাম না বাড়িয়ে চুরি-দুর্নীতি বন্ধ করুন

আবাসিকসহ সব ধরনের গ্যাসের দাম গড়ে প্রায় ১০৩ শতাংশ বাড়ানোর প্রস্তাব দিয়েছে

এগিয়ে যাওয়াই সব সংগঠনের কর্তব্য

অনিয়মের অভিযোগ ও বর্জনের মধ্য দিয়ে শেষ হয়েছে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রীয় ছাত্র সংসদ

আদিবাসী ও দলিত সম্প্রদায়ের সব নাগরিক অধিকার নিশ্চিত করতে হবে

দেশের আদিবাসী ও দলিত জনগোষ্ঠীর নাগরিক অধিকার ও সেবা পাওয়ার ক্ষেত্রে বৈষম্যের

sangbad ad