• banlag
  • newspaper
  • epaper

ঢাকা , বুধবার, ২৭ জানুয়ারী ২০২১

 

সঞ্চয়পত্রের মুনাফার উৎসে কর বৃদ্ধির প্রস্তাব প্রত্যাহার করুন

নিউজ আপলোড : ঢাকা , মঙ্গলবার, ১৮ জুন ২০১৯

প্রস্তাবিত বাজেটে সঞ্চয়পত্রের মুনাফার ওপর উৎসে কর ৫ শতাংশ থেকে বাড়িয়ে ১০ শতাংশ করার কথা বলা হয়েছে। উৎসে কর দ্বিগুণ করার কারণে সঞ্চয়পত্রের গ্রাহকদের আয় কমে যাবে। বাজেটের আগে অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল সঞ্চয়পত্রের মুনাফার হার না কমানোর কথা বলেছিলেন। মুনাফার হার কমানো না হলেও উৎসে কর আরোপের মাধ্যমে মূলত গ্রাহকদের মুনাফায় হাত দেয়া হলো। বাজেট বক্তৃতায় অর্থমন্ত্রী উৎসে কর দ্বিগুণ করার বিষয়টি এড়িয়ে গেছেন।

গত আওয়ামী লীগ সরকার আমলে সঞ্চয়পত্রের সুদের হার কমানোর জন্য একাধিকবার উদ্যোগ নিয়েও তা বাস্তবায়ন করা হয়নি। সঞ্চয়পত্রের সঙ্গে সামাজিক নিরাপত্তার প্রশ্ন জড়িত আছে। সঞ্চয়পত্রে যারা বিনিয়োগ করেন তাদের সিংহভাগই পেনশনভোগী, অসহায় নারী, প্রবীণ এবং নিরুপায় মানুষ। তারা সঞ্চয়পত্রের মুনাফার টাকায় জীবিকা নির্বাহ করেন, চিকিৎসার খরচ মেটান। সঞ্চয়পত্র ছাড়া বিনিয়োগের আর যেসব বিকল্প মাধ্যম আছে তাতে তাদের জীবন চালানো কঠিন। ব্যাংকে টাকা রেখে মূল্যস্ফীতিকে মোকাবিলা করা সম্ভব নয়। পুঁজিবাজার সাধারণ বিনিয়োগকারীদের সর্বস্বান্ত করার কারখানায় পরিণত হয়েছে। এ অবস্থায় সঞ্চয়পত্রের মুনাফাই মধ্য ও নিম্নবিত্তের মূল ভরসা। এখন সরকার যদি এর মুনাফায় উৎসে কর দ্বিগুণ করে তবে তারা বিপাকে পড়বেন।

আমরা সঞ্চয়পত্রের উৎসে কর না বাড়ানোর দাবি জানাই। সঞ্চয়পত্র সামাজিক নিরাপত্তায় যে ভূমিকা রাখছে সেটা বিবেচনা করে দেখতে হবে। উৎসে কর না বাড়িয়ে প্রকৃত উপকারভোগী চিহ্নিত করে শুধু তাদের কাছে সঞ্চয়পত্র বিক্রির উদ্যোগ নিতে হবে। অভিযোগ আছে, সম্পদশালীরা নামে-বেনামে কোটি কোটি টাকার সঞ্চয়পত্র কিনছেন। এমনকি মন্ত্রী-এমপিদের বিরুদ্ধেও এ অভিযোগ আছে। প্রকৃত উপকারভোগী চিহ্নিত করা কঠিন কাজ নয়। অর্থমন্ত্রী বলেছেন, সঞ্চয়পত্র কেনাবেচার ব্যবস্থাপনা আধুনিক করার কাজ চলছে। এনআইডি বাধ্যতামূলক করে সঞ্চয়পত্র কেনার ঊর্ধ্বসীমা নিয়ন্ত্রণের ব্যবস্থা করা হলে ছদ্ম উপকারভোগীদের নিয়ন্ত্রণ করা সম্ভব হবে। তখন সরকারের সঞ্চয়পত্র কেনার খরচও কমবে।

অনেক বিশেষজ্ঞ মনে করেন, সঞ্চয়পত্রের সুদের হার কমলে বা গ্রাহকের মুনাফা কমানো গেলে সরকারের ওপর থেকে অর্থনৈতিক চাপ কমবে। আমরা জানতে চাই, খেলাপি ঋণ বা মানি লন্ডারিংয়ের চেয়ে কি সঞ্চয়পত্র সরকারের ওপর বেশি চাপ সৃষ্টি করছে। সরকারের ওপর থেকে আর্থিক চাপ কমানোর বহু উপায় রয়েছে। সঞ্চয়পত্রের মুনাফায় হাত না দিয়ে খেলাপি ঋণ আদায় করা হোক, মানি লন্ডারিং বন্ধ করা হোক।

দৈনিক সংবাদ : ১৮ জুন ২০১৯, মঙ্গলবার, ৬ এর পাতায় প্রকাশিত

আদালতের বক্তব্য হৃদয়ঙ্গম করা জরুরি

কুষ্টিয়ার পুলিশ সুপার (এসপি) এসএম তানভীর আরাফাতের উদ্দেশে হাইকোর্ট বলেছেন- এমন যাতে মানুষের মনে না হয় যে, দেশ পুলিশি রাষ্ট্রে পরিণত হয়েছে।

মধ্যস্বত্বভোগীদের দৌরাত্ম্য কমাতে হবে সরকারকেই

মধ্যস্বত্বভোগীদের দৌরাত্ম্য কমানোর জন্য ব্যবসায়ীদের অনুরোধ করেছেন বাণিজ্যমন্ত্রী।

এটা যেন দীর্ঘমেয়াদি না হয়

করোনাভাইরাস মহামারির কারণে দেশে সার্বিক দারিদ্র্যের হার দুই বছরের ব্যবধানে প্রায় দ্বিগুণ হয়েছে। দারিদ্র্যের হার গ্রামের তুলনায় বেশি

sangbad ad

শিক্ষার্থী ঝরে পড়া রোধে ব্যবস্থা নিন

করোনার কারণে ১১ মাস ধরে বন্ধ রয়েছে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান। সম্প্রতি সংক্রমণ কমে আসায় শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খোলার পরিকল্পনা করা হচ্ছে। বিশ্লেষকরা

ভূমিহীন-গৃহহীনের মুখের হাসি

দু’দিন আগেও তাদের ছিল না মাথা গোঁজার ঠাঁই, ছিল না ঠিকানা। এখন তারা ঘর পেয়েছেন।

গ্যাস সিলিন্ডারে বেলুন ফোলানো বন্ধে অভিযান চালান

স্বপ্নমাখা রঙিন বেলুনে নিজেদের দিনটি রাঙাতে চেয়েছিল শিশুগুলো। বেলুন আর উড়ানো হয়নি ওদের। সিলিন্ডার বিস্ফোরণে উড়ে গেছে দুই শিশুর প্রাণপাখি।

প্রকৃত গৃহহীনদের মাঝেই ঘর বরাদ্দ দিতে হবে

বাগেরহাটের চিতলমারীতে পুনর্বাসন প্রকল্পে ঘর বরাদ্দ দেয়া নিয়ে ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন ভূমিহীনরা।

রেজিস্ট্রি অফিসের রেকর্ড রুমের ভূত তাড়ান

যশোর জেলা রেজিস্ট্রি অফিসের রেকর্ড রুমের ভলিউমের পৃষ্ঠা গায়েব হওয়া শুরু হয়েছে আবারও।

হাওর রক্ষা বাঁধ নির্মাণে অনিয়ম দূর করুন

হাওর রক্ষা বাঁধ নির্মাণে সুনামগঞ্জে একের পর এক প্রকল্প নেয়া হচ্ছে। কিন্তু এসবের কাজ শুরুর কোন আলামত নেই।

sangbad ad