• banlag
  • newspaper
  • epaper

ঢাকা , শুক্রবার, ২০ সেপ্টেম্বর ২০১৯

 

রোজার মাসে ভোগ্যপণ্যের বাজার নিয়ন্ত্রণে রাখুন

নিউজ আপলোড : ঢাকা , শনিবার, ০৬ এপ্রিল ২০১৯

রমজান সামনে রেখে এরই মধ্যে অস্থির হয়ে উঠতে শুরু করেছে ভোগ্যপণ্যের বাজার। বিভিন্ন নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্যের দাম কোন কারণ ছাড়াই হঠাৎ করে ওঠানামা করছে। রোজার মাসে তেল, চিনি, ছোলা, পেঁয়াজ, ডালসহ বিশেষ কয়েকটি ভোগ্যপণ্যের চাহিদা বেড়ে যায়। চাহিদা অনুযায়ী সরবরাহ স্বাভাবিক রাখা একটি চ্যালেঞ্জের বিষয় হয়ে দাঁড়ায়। সুযোগটি কাজে লাগায় এক শ্রেণীর মুনাফালোভী ব্যবসায়ী। তারা খাদ্যপণ্যের দাম বাড়িয়ে দেয়। অভিযোগ রয়েছে, একশ্রেণীর অসাধু ব্যবসায়ীর সিন্ডিকেট আর ব্যবসায়ীদের মজুদ-প্রবণতার কারণে তৈরি কৃত্রিম সংকট এ পরিস্থিতির জন্য দায়ী। এ পরিস্থিতিতে দিশেহারা হয়ে পড়েছেন মধ্যম সারির ব্যবসায়ী ও সাধারণ ক্রেতারা। রোজা আসতে প্রায় এক মাস বাকি থাকলেও সে সময় বাজার পরিস্থিতি কী হবেÑ এ নিয়ে শঙ্কা সৃষ্টি হয়েছে।

সাধারণত রোজার সময় বিশ্ববাজার স্থিতিশীল থাকলেও আমাদের দেশে ঘটে এর উল্টো। এ সময় ব্যবসায়ীরা সুযোগ বুঝে দাম বাড়ানোর একটা পরিস্থিতি তৈরি করে রাখেন। ভোক্তারাও মানসিকভাবে প্রস্তুতি নিয়ে থাকে যে রমজানে কিছু পণ্যের দাম বাড়বেই। এ জন্য বেশি বিক্রি হলেও যে কম দামে পণ্য বিক্রি করা সম্ভব সে পথে বিক্রেতারা হাঁটেন না।

এবার অবশ্য ব্যবসায়ীরা আশ্বাস দিয়েছেন, রমজানে ভোগ্যপণ্যের দাম বাড়বে না। স্বয়ং প্রধানমন্ত্রী ব্যবসায়ীদের অনুরোধ করেছেন রমজান মাসে যেন ভোগ্যপণ্যের মূল্য বাড়ানো না হয়। সরকারের পক্ষ থেকেও বলা হয়েছে, রমজানে পণ্যের দাম নিয়ন্ত্রণে থাকবে। রমজান মাস ঘিরে অসাধু ব্যবসায়ীদের মুনাফালোভী ব্যবসা বন্ধে এবারও প্রস্তুত হচ্ছে সরকারি বিপণন সংস্থা ট্রেডিং করপোরেশন অব বাংলাদেশ (টিসিবি)। এ মাসটিতে ভোজ্যতেল, চিনি, মসুর ডাল, ছোলা এবং খেজুর ন্যায্য দামে খোলা বাজারে বিক্রি করবে টিসিবি। কিন্তু প্রশ্ন হলো, রমজানের এক মাস আগ থেকেই যদি ভোগ্যপণ্যের দাম বাড়ানো হয়, তবে কি আর রোজার সময় দাম বাড়ানোর প্রয়োজন পড়বে?

বাড়তি মুনাফার জন্য সাধারণ মানুষকে দুর্ভোগে ফেলা অবশ্যই নিন্দনীয়। রোজার সময় বাজার নিয়ন্ত্রণে রাখতে হলে বৈদেশিক মুদ্রার বাজার স্থিতিশীল রাখতে সরকারের পদক্ষেপ নেয়া উচিত। শুধু ব্যবসায়ীদের সঙ্গে বৈঠক করে বাজার নিয়ন্ত্রণ করা যাবে না। সরকারকে অসাধু ব্যবসায়ীদের বিরুদ্ধে কঠোর হতে হবে। অবৈধভাবে পণ্য মজুদকারীদের কোন ছাড় দেয়া যাবে না। কঠোরভাবে বাজার পর্যবেক্ষণ ও অবৈধ পণ্য মজুদের বিরুদ্ধে নিয়মিত অভিযান পরিচালনা পরিস্থিতির উন্নতি ঘটাতে পারে। অসাধু ব্যবসায়ীদের সিন্ডিকেটের বিরুদ্ধে সরকারের দীর্ঘমেয়াদি পরিকল্পনা নেয়া উচিত। বাজার সম্পর্কে অভিজ্ঞ ও দক্ষ লোকদের নিয়ে একটি বিশেষ কমিটি গঠন করা যেতে পারে, যারা এ সময়টায় বাজারের প্রতি নজর রাখবে এবং করণীয় সম্পর্কে সরকারকে অভিহিত করবে। এছাড়া মিল মালিক, পাইকারি ও খুচরা বাজারের ব্যবসায়ীদের দিকে নজর বাড়াতে হবে। বাজার সরবরাহ ব্যবস্থা ঠিক রাখা গেলে পণ্যের দাম অস্বাভাবিক হারে বাড়বে না।

রমজান সামনে রেখে ভোগ্যপণ্যের বাজারে অস্থিরতা সৃষ্টি হওয়া এবারই প্রথম নয়। কিছু অসাধু ব্যবসায়ীর জন্য সাধারণ মানুষকে চরম দুর্ভোগ পোহাতে হয়। এ পরিস্থিতি সামলাতে হলে সরকারের কঠোর হওয়ার বিকল্প নেই।

দৈনিক সংবাদ : ৬ এপ্রিল ২০১৯, শনিবার, ৬ এর পাতায় প্রকাশিত

রোহিঙ্গা ইস্যুতে চীনের বক্তব্য ইতিবাচক

রোহিঙ্গা সংকট সমাধানে ঢাকা ও বেইজিং সম্মত হয়েছে। গত শুক্রবার চীনের রাজধানী বেইজিংয়ে দেশটির প্রেসিডেন্ট শি জিন পিংয়ের সঙ্গে

সঞ্চয়পত্রের মুনাফার উৎসে কর বৃদ্ধির প্রস্তাব প্রত্যাহার করুন

প্রস্তাবিত বাজেটে সঞ্চয়পত্রের মুনাফার ওপর উৎসে কর ৫ শতাংশ থেকে বাড়িয়ে

রোহিঙ্গা ইস্যুতে মায়ানমারের ওপর কূটনৈতিক চাপ অব্যাহত রাখতে হবে

মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, রোহিঙ্গাদের নিজ দেশে ফিরিয়ে নেয়ার ব্যাপারে সব দেশ সম্মত হলেও মায়ানমারের সাড়া পাওয়া যাচ্ছে

sangbad ad

ইরান-মার্কিন বিরোধেও কি বাংলাদেশ জড়িত থাকবে

মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী মাইক পম্পেওকে লেখা এক চিঠিতে বাংলাদেশের পররাষ্ট্রমন্ত্রী

বহুতল ভবনের ঝুঁকি দায় নিতে হবে রাজউককে

রাজধানী উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের (রাজউক) আওতাধীন অঞ্চলগুলোতে ১০ তলার বেশি এক হাজার ৮১৮টি বহুতল ভবনের বেশিরভাগেই ত্রুটি

সমাজ ও ব্যক্তির জন্য সৃষ্টি হচ্ছে ভয়াবহ সংকট

দেশে সংস্কৃতিচর্চার সুযোগ দিন দিন কমছে। সরকারি সাংস্কৃতিক প্রতিষ্ঠানগুলোতে পেশাদারি, জবাবদিহি ও আন্তরিকতার অভাব। সংস্কৃতি

দেশের বাঁধগুলোর সক্ষমতা বাড়াতে হবে সংস্কারের লক্ষ্যে মনিটরিং করুন

ঘূর্ণিঝড় ফণী বাংলাদেশ অতিক্রম করে গেছে। ভারতের ওড়িশা উপকূলে আঘাত হানার পর পশ্চিমবঙ্গ হয়ে বাংলাদেশে প্রবেশ করে ঘূর্ণিঝড়।

পরিবহন সেক্টরকে মাফিয়ামুক্ত করুন

সাত দফা দাবিতে পরিবহন শ্রমিকদের ডাকা ধর্মঘটে গত সোমবার দিনভর দুর্ভোগ পোহাতে হয়েছে সাধারণ মানুষকে। সকাল থেকে সন্ধ্যা পর্যন্ত

জঙ্গিবাদের হুমকি মোকাবিলায় ঐক্য গড়ে তুলুন

মধ্যপ্রাচ্যভিত্তিক জঙ্গিগোষ্ঠী ইসলামিক স্টেট (আইএস) বাংলাদেশ ও পশ্চিমবঙ্গে হামলার পরিকল্পনা করছে বলে অভিযোগ উঠেছে। গত বৃহস্পতিবার

sangbad ad