• banlag
  • newspaper
  • epaper

ঢাকা , বৃহস্পতিবার, ২৫ এপ্রিল ২০১৯

 

রোজার মাসে ভোগ্যপণ্যের বাজার নিয়ন্ত্রণে রাখুন

নিউজ আপলোড : ঢাকা , শনিবার, ০৬ এপ্রিল ২০১৯

রমজান সামনে রেখে এরই মধ্যে অস্থির হয়ে উঠতে শুরু করেছে ভোগ্যপণ্যের বাজার। বিভিন্ন নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্যের দাম কোন কারণ ছাড়াই হঠাৎ করে ওঠানামা করছে। রোজার মাসে তেল, চিনি, ছোলা, পেঁয়াজ, ডালসহ বিশেষ কয়েকটি ভোগ্যপণ্যের চাহিদা বেড়ে যায়। চাহিদা অনুযায়ী সরবরাহ স্বাভাবিক রাখা একটি চ্যালেঞ্জের বিষয় হয়ে দাঁড়ায়। সুযোগটি কাজে লাগায় এক শ্রেণীর মুনাফালোভী ব্যবসায়ী। তারা খাদ্যপণ্যের দাম বাড়িয়ে দেয়। অভিযোগ রয়েছে, একশ্রেণীর অসাধু ব্যবসায়ীর সিন্ডিকেট আর ব্যবসায়ীদের মজুদ-প্রবণতার কারণে তৈরি কৃত্রিম সংকট এ পরিস্থিতির জন্য দায়ী। এ পরিস্থিতিতে দিশেহারা হয়ে পড়েছেন মধ্যম সারির ব্যবসায়ী ও সাধারণ ক্রেতারা। রোজা আসতে প্রায় এক মাস বাকি থাকলেও সে সময় বাজার পরিস্থিতি কী হবেÑ এ নিয়ে শঙ্কা সৃষ্টি হয়েছে।

সাধারণত রোজার সময় বিশ্ববাজার স্থিতিশীল থাকলেও আমাদের দেশে ঘটে এর উল্টো। এ সময় ব্যবসায়ীরা সুযোগ বুঝে দাম বাড়ানোর একটা পরিস্থিতি তৈরি করে রাখেন। ভোক্তারাও মানসিকভাবে প্রস্তুতি নিয়ে থাকে যে রমজানে কিছু পণ্যের দাম বাড়বেই। এ জন্য বেশি বিক্রি হলেও যে কম দামে পণ্য বিক্রি করা সম্ভব সে পথে বিক্রেতারা হাঁটেন না।

এবার অবশ্য ব্যবসায়ীরা আশ্বাস দিয়েছেন, রমজানে ভোগ্যপণ্যের দাম বাড়বে না। স্বয়ং প্রধানমন্ত্রী ব্যবসায়ীদের অনুরোধ করেছেন রমজান মাসে যেন ভোগ্যপণ্যের মূল্য বাড়ানো না হয়। সরকারের পক্ষ থেকেও বলা হয়েছে, রমজানে পণ্যের দাম নিয়ন্ত্রণে থাকবে। রমজান মাস ঘিরে অসাধু ব্যবসায়ীদের মুনাফালোভী ব্যবসা বন্ধে এবারও প্রস্তুত হচ্ছে সরকারি বিপণন সংস্থা ট্রেডিং করপোরেশন অব বাংলাদেশ (টিসিবি)। এ মাসটিতে ভোজ্যতেল, চিনি, মসুর ডাল, ছোলা এবং খেজুর ন্যায্য দামে খোলা বাজারে বিক্রি করবে টিসিবি। কিন্তু প্রশ্ন হলো, রমজানের এক মাস আগ থেকেই যদি ভোগ্যপণ্যের দাম বাড়ানো হয়, তবে কি আর রোজার সময় দাম বাড়ানোর প্রয়োজন পড়বে?

বাড়তি মুনাফার জন্য সাধারণ মানুষকে দুর্ভোগে ফেলা অবশ্যই নিন্দনীয়। রোজার সময় বাজার নিয়ন্ত্রণে রাখতে হলে বৈদেশিক মুদ্রার বাজার স্থিতিশীল রাখতে সরকারের পদক্ষেপ নেয়া উচিত। শুধু ব্যবসায়ীদের সঙ্গে বৈঠক করে বাজার নিয়ন্ত্রণ করা যাবে না। সরকারকে অসাধু ব্যবসায়ীদের বিরুদ্ধে কঠোর হতে হবে। অবৈধভাবে পণ্য মজুদকারীদের কোন ছাড় দেয়া যাবে না। কঠোরভাবে বাজার পর্যবেক্ষণ ও অবৈধ পণ্য মজুদের বিরুদ্ধে নিয়মিত অভিযান পরিচালনা পরিস্থিতির উন্নতি ঘটাতে পারে। অসাধু ব্যবসায়ীদের সিন্ডিকেটের বিরুদ্ধে সরকারের দীর্ঘমেয়াদি পরিকল্পনা নেয়া উচিত। বাজার সম্পর্কে অভিজ্ঞ ও দক্ষ লোকদের নিয়ে একটি বিশেষ কমিটি গঠন করা যেতে পারে, যারা এ সময়টায় বাজারের প্রতি নজর রাখবে এবং করণীয় সম্পর্কে সরকারকে অভিহিত করবে। এছাড়া মিল মালিক, পাইকারি ও খুচরা বাজারের ব্যবসায়ীদের দিকে নজর বাড়াতে হবে। বাজার সরবরাহ ব্যবস্থা ঠিক রাখা গেলে পণ্যের দাম অস্বাভাবিক হারে বাড়বে না।

রমজান সামনে রেখে ভোগ্যপণ্যের বাজারে অস্থিরতা সৃষ্টি হওয়া এবারই প্রথম নয়। কিছু অসাধু ব্যবসায়ীর জন্য সাধারণ মানুষকে চরম দুর্ভোগ পোহাতে হয়। এ পরিস্থিতি সামলাতে হলে সরকারের কঠোর হওয়ার বিকল্প নেই।

দৈনিক সংবাদ : ৬ এপ্রিল ২০১৯, শনিবার, ৬ এর পাতায় প্রকাশিত

রমজানে দ্রব্যমূল্য নিয়ন্ত্রণে চাই কঠোর মনিটরিং

আসন্ন রমজানে দ্রব্যমূল্য সহনীয় পর্যায়ে থাকবে বলে আশ্বস্ত করেছেন বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু

ই-বর্জ্য ব্যবস্থাপনায় রিসাইক্লিংয়ে পরিকল্পিত ও স্থায়ী উদ্যোগ নিন

ইলেকট্রনিক পণ্যের ব্যবহার বাড়ছে। একই সঙ্গে বাড়ছে ইলেকট্রনিক বা ই-বর্জ্যরে পরিমাণও। এসব ই-বর্জ্যরে দূষণ থেকে প্রাণ ও প্রকৃতিকে রক্ষা

বর্ষার আগেই ঢাকাডুবি কেন নগর কর্তৃপক্ষ কী করছে

চৈত্র মাসেই বৃষ্টির পানি জমে সয়লাব হয়ে যাচ্ছে রাজধানী ঢাকার বেশিরভাগ এলাকার রাস্তা

sangbad ad

পুলিশের ভূমিকা খতিয়ে দেখতে হবে

ফেনীর সোনাগাজীতে মাদ্রাসাছাত্রীকে পুড়িয়ে হত্যাচেষ্টার মামলায় স্থানীয় পুলিশের ভূমিকা নিয়ে অসন্তোষ প্রকাশ করেছেন ভিকটিমের স্বজনরা।

স্বাভাবিক পুঁজিবাজার চাই অনৈতিক কারসাজি দমন করুন

দেশের পুঁজিবাজারে এখনও কারসাজি হচ্ছে বলে অভিযোগ উঠেছে। স্বার্থান্বেষী একটি গোষ্ঠী দুই স্টক এক্সচেঞ্জের সূচক সুকৌশলে নিয়ন্ত্রণ করছে এমন

দ্রুত সম্পন্ন করা রাষ্ট্রের দায়িত্ব

অর্পিত সম্পত্তি অবমুক্তির লাখো মামলা বছরের পর বছর ধরে ঝুলে আছে। মামলা নির্ধারিত সময়ে নিষ্পত্তি হচ্ছে কিনা তা মনিটর করার কেউ

রাজধানী কি এবারও জলাবদ্ধ হয়ে পড়বে

রাজধানীর অনেক এলাকা আগামী বর্ষাতেও জলাবদ্ধ হয়ে পড়তে পারে বলে আশঙ্কা করছেন বিশেষজ্ঞরা। ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনে

প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনা বাস্তবায়ন হতে হবে

অগ্নিকান্ড রোধ এবং এর ক্ষয়ক্ষতি এড়াতে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ১৫টি নির্দেশনা দিয়েছেন। গত সোমবার সচিবালয়ে মন্ত্রিসভার নিয়মিত

নববর্ষ উদযাপনে কোন বিধি-নিষেধ নয়

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় (ঢাবি) কর্তৃপক্ষ নিরাপত্তার কথা বিবেচনা করে পহেলা বৈশাখের দিন বিকাল ৫টার পর ক্যাম্পাস এলাকায় প্রবেশে নিষেধাজ্ঞা জারি

sangbad ad