• banlag
  • newspaper
  • epaper

ঢাকা , মঙ্গলবার, ২১ মে ২০১৯

 

রাজধানী কি এবারও জলাবদ্ধ হয়ে পড়বে

নিউজ আপলোড : ঢাকা , বৃহস্পতিবার, ০৪ এপ্রিল ২০১৯

রাজধানীর অনেক এলাকা আগামী বর্ষাতেও জলাবদ্ধ হয়ে পড়তে পারে বলে আশঙ্কা করছেন বিশেষজ্ঞরা। ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনে এ সমস্যা প্রকট আকার ধারণ করতে পারে। সিটি করপোরেশনের কর্তাব্যক্তিরাও বিষয়টি স্বীকার করেছেন। ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনেও জলাবদ্ধতার আশঙ্কা রয়েছে। নবনির্বাচিত মেয়র আতিকুল ইসলাম জলাবদ্ধতা নিরসনের অঙ্গীকার করেছেন। তবে এ কাজে তিনি কতটা সফল হবেন সেটা নিয়ে জনমনে সংশয় রয়েছে।

সাধারণত ২৪ ঘণ্টায় ৪০ মিলিমিটারের নিচে বৃষ্টি হলে রাজধানীতে জলাবদ্ধতা দেখা দেয় না। কিন্তু এক-দুই ঘণ্টার বৃষ্টিতেই রাজধানীর অনেক এলাকা জলাবদ্ধ হয়ে পড়ে। কোন কোন বছর সারা দিনে দেড়শ’ মিলিমিটার বৃষ্টি হওয়ারও রেকর্ড রয়েছে। আবহাওয়া বিশেষজ্ঞরা বলছেন, এবার বৃষ্টি বেশি হতে পারে। কাজেই রাজধানীতে জলাবদ্ধতা তৈরি হওয়ার জোর আশঙ্কা রয়েছে। আওয়ামী লীগের গত মেয়াদে সংশ্লিষ্ট মন্ত্রী প্রতিশ্রুতি দিয়ে বলেছিলেন, আগামীতে রাজধানীতে জলাবদ্ধতা হবে না। সেই প্রতিশ্রুতি মোতাবেক কাজ করা হয়নি। কিছু একটা নির্মাণ করা হয়েছে বটে তবে তা প্রয়োজনের তুলনায় নগণ্য। নর্দমা পরিষ্কার করে ময়লা নর্দমার পাশেই ফেলে রাখা হয়। একদিক দিয়ে বক্স কালভার্ট পরিষ্কার করা হলে আরেক দিক দিয়ে তা ভরাট হয়ে যায়। রাজধানীর খাল বা জলাধারগুলো উদ্ধার করা যায়নি। নদী উদ্ধারে অভিযান চলছে তবে উচ্ছেদ হওয়া ভবনের ধ্বংসাবশেষ নদীতেই ফেলা হচ্ছে। রাজধানীজুড়ে চলছে বিভিন্ন সংস্থার উন্নয়ন কাজ। বর্ষা যত এগিয়ে আসছে রাস্তা খোঁড়াখুঁড়ি তত বাড়ছে। সব মিলিয়ে রাজধানীতে জলাবদ্ধতার মোক্ষম পরিবেশ তৈরি হয়েছে।

প্রতি বছরই জলাবদ্ধতা নিরসনে কোটি কোটি টাকা খরচ করে একেকটি প্রকল্প নেয়া হয়। অভিযোগ রয়েছে, রাজনৈতিক বিবেচনায় দলীয় লোক দিয়ে এসব প্রকল্প বাস্তবায়ন করা হয়। লোক দেখানো কাজ করে নানা কায়দায় প্রকল্পের টাকা লুটপাট করার অভিযোগ রয়েছে। অনিয়ম-দুর্নীতির কারণে স্বল্প মেয়াদেও জলাবদ্ধতা নিরসন করা যাচ্ছে না। স্বল্প মেয়াদে সাফল্য পেতে হলে প্রকল্প বাস্তবায়নে অনিয়ম-দুর্নীতি দূর করতে হবে। দীর্ঘমেয়াদে জলাধার ও খাল উদ্ধারের বিকল্প নেই। রাজধানীতে ২ শতাংশ জলাধার কোনমতে টিকে আছে। সরকার ড্যাপ বাস্তবায়ন করেনি। এটা দেখে প্রশ্ন জাগে যে, রাজধানীকে বাসযোগ্য করার কাজে সরকার কতটা আন্তরিক। আমরা বলতে চাই, অবিলম্বে ড্যাপ বাস্তবায়ন করতে হবে। তাহলে রাজধানীর জলাবদ্ধতার সংকটসহ অনেক সংকটই দূর হবে। পাশাপাশি জলাবদ্ধতা নিরসনের কাজে নিয়োজিত সংশ্লিষ্ট সব কর্তৃপক্ষের মধ্যে সমন্বয় সাধন করতে হবে।

দৈনিক সংবাদ : ৪ এপ্রিল ২০১৯, বৃহস্পতিবার, ৬ এর পাতায় প্রকাশিত

সমাজ ও ব্যক্তির জন্য সৃষ্টি হচ্ছে ভয়াবহ সংকট

দেশে সংস্কৃতিচর্চার সুযোগ দিন দিন কমছে। সরকারি সাংস্কৃতিক প্রতিষ্ঠানগুলোতে পেশাদারি, জবাবদিহি ও আন্তরিকতার অভাব। সংস্কৃতি

দেশের বাঁধগুলোর সক্ষমতা বাড়াতে হবে সংস্কারের লক্ষ্যে মনিটরিং করুন

ঘূর্ণিঝড় ফণী বাংলাদেশ অতিক্রম করে গেছে। ভারতের ওড়িশা উপকূলে আঘাত হানার পর পশ্চিমবঙ্গ হয়ে বাংলাদেশে প্রবেশ করে ঘূর্ণিঝড়।

পরিবহন সেক্টরকে মাফিয়ামুক্ত করুন

সাত দফা দাবিতে পরিবহন শ্রমিকদের ডাকা ধর্মঘটে গত সোমবার দিনভর দুর্ভোগ পোহাতে হয়েছে সাধারণ মানুষকে। সকাল থেকে সন্ধ্যা পর্যন্ত

sangbad ad

জঙ্গিবাদের হুমকি মোকাবিলায় ঐক্য গড়ে তুলুন

মধ্যপ্রাচ্যভিত্তিক জঙ্গিগোষ্ঠী ইসলামিক স্টেট (আইএস) বাংলাদেশ ও পশ্চিমবঙ্গে হামলার পরিকল্পনা করছে বলে অভিযোগ উঠেছে। গত বৃহস্পতিবার

গণধর্ষণ মামলার চার্জশিট প্রশ্নবিদ্ধ পুলিশের ভূমিকা

সুবর্ণচরে গণধর্ষণের শিকার নারীর অভিযোগ ছিল একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে নিজের পছন্দের প্রতীকে ভোট দেয়ায় তার ওপর নির্যাতন হয়েছে

বিদ্যুৎ সঞ্চালন ও বিতরণ ব্যবস্থা ত্রুটিমুক্ত করতে হবে

চাহিদার চেয়ে বেশি বিদ্যুৎ উৎপাদন সক্ষমতা থাকলেও বিদ্যুৎ বিভাগ মানসম্মত বিতরণ ব্যবস্থা নিশ্চিত করতে না পারায়

রমজানে দ্রব্যমূল্য নিয়ন্ত্রণে চাই কঠোর মনিটরিং

আসন্ন রমজানে দ্রব্যমূল্য সহনীয় পর্যায়ে থাকবে বলে আশ্বস্ত করেছেন বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু

ই-বর্জ্য ব্যবস্থাপনায় রিসাইক্লিংয়ে পরিকল্পিত ও স্থায়ী উদ্যোগ নিন

ইলেকট্রনিক পণ্যের ব্যবহার বাড়ছে। একই সঙ্গে বাড়ছে ইলেকট্রনিক বা ই-বর্জ্যরে পরিমাণও। এসব ই-বর্জ্যরে দূষণ থেকে প্রাণ ও প্রকৃতিকে রক্ষা

বর্ষার আগেই ঢাকাডুবি কেন নগর কর্তৃপক্ষ কী করছে

চৈত্র মাসেই বৃষ্টির পানি জমে সয়লাব হয়ে যাচ্ছে রাজধানী ঢাকার বেশিরভাগ এলাকার রাস্তা

sangbad ad