• banlag
  • newspaper
  • epaper

ঢাকা , মঙ্গলবার, ২১ মে ২০১৯

 

বিমান ছিনতাইয়ের চেষ্টা : নিরাপত্তা বেষ্টনী অতিক্রম করল কীভাবে

নিউজ আপলোড : ঢাকা , মঙ্গলবার, ২৬ ফেব্রুয়ারী ২০১৯

গত বৃহস্পতিবার দেশের আকাশে বাংলাদেশ বিমানের দুবাইগামী যাত্রীবাহী একটি ফ্লাইট ছিনতাইয়ের চেষ্টা ব্যর্থ হয়েছে। হযরত শাহজালাল (রহ.) আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর থেকে ময়ূরপঙ্খী উড়োজাহাজ উড্ডয়নের পর এক অস্ত্রধারী যাত্রী তা নিয়ন্ত্রণে নেয়ার চেষ্টা করে। এ সময় বিমানটি ১৫ হাজার ফুট উপর দিয়ে চট্টগ্রাম যাচ্ছিল। প্রথমে কেবিন ক্রু ও পরে পাইলটকে জিম্মি করে এ অস্ত্রধারী যুবক। কিন্তু পাইলট কৌশলে সন্ধ্যা পৌনে ৬টার দিকে উড়োজাহাজটি চট্টগ্রাম হযরত শাহ আমানত আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে অবতরণ করান। উড়োজাহাজটি অবতরণের পর শাহ আমানতের সব কার্যক্রম বন্ধ করে দেয়া হয় এবং আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যরা বিমানটি ঘিরে ফেলেন। এর কিছুক্ষণ পর অভিযানে নামে কমান্ডো বাহিনী। কমান্ডো অভিযান শুরুর মাত্র ৮ মিনিটের মধ্যে সন্ধ্যা ৭টা ২৪ মিনিটে ৭৩৭ উড়োজাহাজটি জিম্মিদশা থেকে মুক্ত হয়। নিহত হয় বিমান ছিনতাইয়ের চেষ্টাকারী অস্ত্রধারী সেই যুবক।

কোনরকম ক্ষয়ক্ষতি ছাড়াই বিমান ছিনতাই ঘটনার অবসান ঘটেছে এটা ইতিবাচক, তবে একাধিক নিরাপত্তা বেষ্টনী পেরিয়ে ছিনতাইকারী কী করে অস্ত্র নিয়ে বিমানে ওঠল সেটাই সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ প্রশ্ন। এর সঙ্গে বিমান বন্দরের নিরাপত্তার দায়িত্বরত কেউ জড়িত আছে কিনা সেটাও খুঁজে দেখা দরকার।

অবশ্য দীর্ঘদিন থেকেই আন্তর্জাতিক বিভিন্ন সংস্থা নিরাপত্তা নিয়ে সিভিল এভিয়েশনকে সতর্ক করে আসছিল। কিন্তু এখন পর্যন্ত নিরাপত্তা আন্তর্জাতিক মানে উন্নীত হয়েছে এমনটা কোন মহলই নিশ্চিত করেনি। ম্যানুয়াল পদ্ধতিতে মানুষের শরীর হাতিয়ে পরীক্ষা-নিরীক্ষাই করা হয়। বিশ্বমানের নিরাপত্তা নিশ্চিতে যে পদক্ষেপ নেয়ার প্রয়োজন ছিল তা এখনও করা হয়নি। শুধু শাহজালাল নয়, দেশের অন্যান্য বিমানবন্দরের নিরাপত্তা নিয়ে অনেক দিন ধরেই প্রশ্ন রয়েছে। কক্সবাজার বিমানবন্দর দিয়ে ইয়াবা আদান-প্রদানও ধরা পড়েছে বিভিন্ন সময়। অভ্যন্তরীণ বিমানবন্দরগুলো অনেকটাই অরক্ষিত বলে মনে করছেন নিরাপত্তা বিশ্লেষকরা।

জেএফকে, হিথ্রো, দুবাই, ইস্তাম্বুলসহ বিশ্বের অর্ধশতাধিক বিমানবন্দর এখন রেড লেভেলের নিরাপত্তা বজায় রাখে। কোন ধরনের ঝুঁকি এ বিমানবন্দরগুলো নেয় না। আধুনিক নিরাপত্তাবলয়ের মাধ্যমে পণ্য ও মানুষের চলাচল পর্যবেক্ষণ করা হয়। সামান্যতম সন্দেহ হলে তাৎক্ষণিকভাবে ব্যবস্থা নিয়ে থাকে এ বিমানবন্দরগুলো। জেএফকে ও দুবাই বিমানবন্দরে অটোমেটিক স্ক্যানারে পুরো শরীরের তল্লাশি হয়। নিরাপত্তার জন্য সজাগ রাখা হয় বিশেষভাবে প্রশিক্ষিত কুকুর। লাগেজ ও যাত্রীদের সন্দেহ হলেই কুকুর দিয়ে পরীক্ষা করা হয়। যত দিন যাচ্ছে নিরাপত্তা ব্যবস্থারও আধুনিকায়ন হচ্ছে। এর বিপরীতে বাংলাদেশের শাহজালালসহ বিভিন্ন বিমানবন্দরে আদিম যুগের নিরাপত্তা তল্লাশি ব্যবহার করা হয়। সময়ের সঙ্গে তাল মিলিয়ে যে পদক্ষেপ নেয়া দরকার তার কোনোটাই পরিলক্ষিত হয় না। এসব কারণে অস্ট্রেলিয়াসহ বেশ কয়েকটি দেশ বাংলাদেশ থেকে পাঠানো কোন পার্সেল সরাসরি গ্রহণ করে না। অনিয়মের জন্য ঢাকার শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের নিরাপত্তা উন্নতির পরামর্শক হিসেবে দায়িত্ব নিয়েছিল ব্রিটিশ নিরাপত্তা সংস্থা।

বাংলাদেশের বিমানবন্দরের নিরাপত্তা নিয়ে প্রশ্ন আছে। এমনকি বাংলাদেশকে কালো তালিকাভুক্ত করার ঘটনাও আছে। এমন সময় চট্টগ্রামের ঘটনা নিরাপত্তার ক্ষেত্রে আরেক দফা ঝুঁকি তৈরি করবে। একটি আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর থেকে কোন যাত্রী বিমানে অস্ত্র নিয়ে উঠে যাবেন, এটা কোনভাবেই মেনে নেয়া যায় না। আর দুবাইগামী ফ্লাইটের ওই যাত্রী ঢাকার হযরত শাহজালাল (রহ.) আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর থেকেই উড়োজাহাজে উঠেছিলেন। তাই তার কাছে যদি অস্ত্র থেকে থাকে সেটা হযরত শাহজালাল (রহ.) বিমানবন্দরের নিরাপত্তা শিথিলতার কারণেই হয়েছে। বিমান বন্দরের নিরাপত্তা রক্ষার দায়িত্বে যারা নিয়োজিত তাদের অবশ্যই জবাবদিহির মুখোমুখি করা উচিত। এক্ষেত্রে কারও দোষ প্রমাণিত হলে তার বিরুদ্ধে আইন মোতাবেক কঠোর ব্যবস্থা নিতে হবে।

বড় ধরনের নিরাপত্তা ঝুঁকি নিয়ে বিমানবন্দর পরিচালনা করা হলে আন্তর্জাতিক অঙ্গনে নানাবিধ সংশয় তৈরি হতে পারে। এক্ষেত্রে কোনো রকমের ঝুঁকি না নিয়ে সর্বাধুনিক নিরাপত্তা ব্যবস্থা নিশ্চিত করা বাঞ্ছনীয়। আমরা আশা করবো, সরকার বিষয়টিকে গুরুত্ব সহকারে দেখবে এবং উন্নত বিশ্বের আধুনিক বিমানবন্দরগুলোর আদলে দেশের প্রতিটি বিমানবন্দরের নিরাপত্তা ব্যবস্থা ঢেলে সাজাবে।

দৈনিক সংবাদ : মঙ্গলবার, ২৬ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, ৬ এর পাতায় প্রকাশিত

সমাজ ও ব্যক্তির জন্য সৃষ্টি হচ্ছে ভয়াবহ সংকট

দেশে সংস্কৃতিচর্চার সুযোগ দিন দিন কমছে। সরকারি সাংস্কৃতিক প্রতিষ্ঠানগুলোতে পেশাদারি, জবাবদিহি ও আন্তরিকতার অভাব। সংস্কৃতি

দেশের বাঁধগুলোর সক্ষমতা বাড়াতে হবে সংস্কারের লক্ষ্যে মনিটরিং করুন

ঘূর্ণিঝড় ফণী বাংলাদেশ অতিক্রম করে গেছে। ভারতের ওড়িশা উপকূলে আঘাত হানার পর পশ্চিমবঙ্গ হয়ে বাংলাদেশে প্রবেশ করে ঘূর্ণিঝড়।

পরিবহন সেক্টরকে মাফিয়ামুক্ত করুন

সাত দফা দাবিতে পরিবহন শ্রমিকদের ডাকা ধর্মঘটে গত সোমবার দিনভর দুর্ভোগ পোহাতে হয়েছে সাধারণ মানুষকে। সকাল থেকে সন্ধ্যা পর্যন্ত

sangbad ad

জঙ্গিবাদের হুমকি মোকাবিলায় ঐক্য গড়ে তুলুন

মধ্যপ্রাচ্যভিত্তিক জঙ্গিগোষ্ঠী ইসলামিক স্টেট (আইএস) বাংলাদেশ ও পশ্চিমবঙ্গে হামলার পরিকল্পনা করছে বলে অভিযোগ উঠেছে। গত বৃহস্পতিবার

গণধর্ষণ মামলার চার্জশিট প্রশ্নবিদ্ধ পুলিশের ভূমিকা

সুবর্ণচরে গণধর্ষণের শিকার নারীর অভিযোগ ছিল একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে নিজের পছন্দের প্রতীকে ভোট দেয়ায় তার ওপর নির্যাতন হয়েছে

বিদ্যুৎ সঞ্চালন ও বিতরণ ব্যবস্থা ত্রুটিমুক্ত করতে হবে

চাহিদার চেয়ে বেশি বিদ্যুৎ উৎপাদন সক্ষমতা থাকলেও বিদ্যুৎ বিভাগ মানসম্মত বিতরণ ব্যবস্থা নিশ্চিত করতে না পারায়

রমজানে দ্রব্যমূল্য নিয়ন্ত্রণে চাই কঠোর মনিটরিং

আসন্ন রমজানে দ্রব্যমূল্য সহনীয় পর্যায়ে থাকবে বলে আশ্বস্ত করেছেন বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু

ই-বর্জ্য ব্যবস্থাপনায় রিসাইক্লিংয়ে পরিকল্পিত ও স্থায়ী উদ্যোগ নিন

ইলেকট্রনিক পণ্যের ব্যবহার বাড়ছে। একই সঙ্গে বাড়ছে ইলেকট্রনিক বা ই-বর্জ্যরে পরিমাণও। এসব ই-বর্জ্যরে দূষণ থেকে প্রাণ ও প্রকৃতিকে রক্ষা

বর্ষার আগেই ঢাকাডুবি কেন নগর কর্তৃপক্ষ কী করছে

চৈত্র মাসেই বৃষ্টির পানি জমে সয়লাব হয়ে যাচ্ছে রাজধানী ঢাকার বেশিরভাগ এলাকার রাস্তা

sangbad ad