• banlag
  • newspaper
  • epaper

ঢাকা , মঙ্গলবার, ১৯ ফেব্রুয়ারী ২০১৯

 

পুলিশ কেন নিরীহ জনগণকে হয়রানি করবে

নিউজ আপলোড : ঢাকা , বুধবার, ০৬ ফেব্রুয়ারী ২০১৯

দেশের নিরীহ জনগণকে কোন ধরনের হয়রানি না করতে পুলিশ সদস্যদের নির্দেশ দিয়েছেন মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। গত সোমবার (৪ ফেব্রুয়ারি) সকালে রাজধানীর রাজারবাগ পুলিশলাইনস মাঠে ‘পুলিশ সপ্তাহ-২০১৯’- এর উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রী এ নির্দেশ দেন। পুলিশ সদস্যদের উদ্দেশে তিনি বলেন, ‘আপনাদের মনে রাখতে হবে দেশের নিরীহ জনগণকে কোন ধরনের হয়রানি করা যাবে না। বরং তারা হয়রানির শিকার হলে, বিপদে পড়লে তাদের সহযোগিতা করুন।’

প্রধানমন্ত্রী পুলিশ সদস্যদের যে নির্দেশনা দিয়েছেন তা নিঃসন্দেহে সাধুবাদ পাওয়ার যোগ্য। কিন্তু প্রশ্ন হলো, পুলিশ কেন নিরীহ জনগণকে হয়রানি করবে? তাদের কাজ কি সাধারণ মানুষকে হয়রানি করা? বরং নিরীহ মানুষকে বিপদ থেকে বাঁচানো, তাদের নিরাপত্তা দেয়া এবং জানমাল রক্ষা করাই পুলিশের দায়িত্ব। অর্থাৎ পুলিশ তাদের দায়িত্ব ঠিকমতো পালন করছে না কিংবা সাধারণ মানুষদের হয়রানি করছে বলেই প্রধানমন্ত্রী এ ধরনের নির্দেশনা দিয়েছেন।

পুলিশের নানা অপকর্মের কথা আগেও শোনা গেছে, এখনও শোনা যাচ্ছে। এবং অপকমের্র খবরগুলো সমাজের স্বাভাবিক চিত্রেই পরিণত হয়েছে। একজন নাগরিকের কাছে বিপদের সময় সবচেয়ে বড় আশ্রয় পুলিশ। সেই পুলিশই যদি এমন আচরণ করে যে তার নিরাপত্তা বিঘিœত হয়, সাধারণ মানুষের মনে আতঙ্কের কারণ হয়- তাহলে এর চেয়ে দুর্ভাগ্যজনক আর কী হতে পারে!

দুষ্টের দমন শিষ্টের পালন যাদের কর্তব্য তাদের কারও কাছ থেকে কোন ধরনের দুষ্কর্ম মানুষ প্রত্যাশা করে না। পুলিশ জনগণের বন্ধু এ কথা সরকারের তরফ থেকে বারবারই বলা হয়। মানুষ পুলিশকে সেভাবেই দেখতে চায়। পুলিশ বাহিনীর বড় ঐতিহ্য রয়েছে। একাত্তরে মুক্তিযুদ্ধে পুলিশ যে ভূমিকা রেখেছে সেটা আমাদের জন্য গর্ভের বিষয়। এ বাহিনীর বহু সদস্যই নিষ্ঠাবান, ত্যাগী এবং সৎ। কিছু কিছু পুলিশের অপকর্মের কারণে গোটা বাহিনীর সুনাম নষ্ট হয়। এ ধারাটি বন্ধ করতে হবে, পুলিশকে সত্যিকার অর্থেই জনগণের বন্ধু হয়ে উঠতে হবে। সব নাগরিক আইনের চোখে সমান এ চেতনা সমভাবে কার্যকর করতে হবে।

আমরা আশা করব, প্রধানমন্ত্রীর উল্লিখিত নির্দেশনা পুলিশ বাহিনীর প্রতিটি সদস্য সঠিকভাবে মেনে চলবেন। কাউকে হয়রানি করা নয়, কারও সঙ্গে অনৈতিক ও অশোভন আচরণ করা নয়, প্রত্যেক নাগরিককে প্রয়োজনে সহায়তা করা, সাহায্য করা পুলিশের দায়িত্ব। তাহলেই পুলিশ বাহিনীর দুর্নাম ঘুচবে, সুনাম বাড়বে এবং পুলিশ হয়ে উঠবে জনগণের প্রকৃত বন্ধু। তাদের আচরণ হতে হবে বন্ধুসুলভ।

(প্রকাশিত : পাতা ৬, ৬ ফেব্রুয়ারি ২০১৯)

কিভাবে নির্মূল হবে তার উপায় কোথায়

দুর্নীতি না কমানো গেলে দেশের সব অর্জন নষ্ট হয়ে যেতে পারে বলে আশঙ্কা

পাকিস্তানকে অপ্রাসঙ্গিক করা সময়ের দাবি

ভারতশাসিত জম্মু-কাশ্মীরে সেন্ট্রাল রিজার্ভ পুলিশ ফোর্সের গাড়িবহরে বোমা হামলায়

অবিলম্বে শক্তিশালী ব্যাংক কমিশন গঠন করুন

ব্যাংকের ঋণখেলাপি ও অর্থ পাচারকারীদের গত ২০ বছরের তালিকা তৈরি করে তা দাখিলের

sangbad ad

বিজিবির গুলিতে হতাহতের ঘটনা : প্রকৃত কারণ খুঁজে বের করুন

ঠাকুগাঁওয়ের হরিপুরে বর্ডার গার্ড বাংলাদেশের (বিজিবি) গুলিতে মারা গেছে তিনজন এবং

বিদ্যুৎ খাতে স্বচ্ছতা, জবাবদিহিতা ও সুশাসন প্রতিষ্ঠা করুন বকেয়া এবং লোকসানের বোঝা যেন জনগণের ঘাড়ে না চাপে

বিদ্যুৎ, জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদ গত সোমবার জাতীয় সংসদে জানান, সরকারি, আধা সরকারি/বেসরকারি

উন্নয়নের অগ্রযাত্রায় মতপ্রকাশের স্বাধীনতা ও মানবাধিকার অপরিহার্য

বাংলাদেশের উন্নয়ন ও অগ্রযাত্রা অব্যাহত রাখার জন্য মতপ্রকাশের ও নাগরিক স্বাধীনতা জরুরি।

তদন্ত করে অপরাধীদের ধরতে পারে দুদক

বড়পুকুরিয়া কোল মাইনিং কোম্পানি লিমিটেড (বিসিএমসিএল) গায়েব হওয়া প্রায় দেড় লাখ

অবিলম্বে ব্যাংকিং কমিশন গঠন করুন

ব্যাংক খাতের বিভিন্ন অনিয়ম বন্ধে ব্যাংকিং কমিশন গঠনের দাবি উঠেছে। ব্যাংকিং খাতের অব্যাহত

আইন সবার জন্য সমান হওয়াই বাঞ্ছনীয়

নাটোর সদর উপজেলার যুবলীগ নেতা জামাল হোসেন ওরফে মিলনকে গত বৃহস্পতিবার

sangbad ad