• banlag
  • newspaper
  • epaper

ঢাকা , শুক্রবার, ২৬ এপ্রিল ২০১৯

 

পুলিশ কেন নিরীহ জনগণকে হয়রানি করবে

নিউজ আপলোড : ঢাকা , বুধবার, ০৬ ফেব্রুয়ারী ২০১৯

দেশের নিরীহ জনগণকে কোন ধরনের হয়রানি না করতে পুলিশ সদস্যদের নির্দেশ দিয়েছেন মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। গত সোমবার (৪ ফেব্রুয়ারি) সকালে রাজধানীর রাজারবাগ পুলিশলাইনস মাঠে ‘পুলিশ সপ্তাহ-২০১৯’- এর উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রী এ নির্দেশ দেন। পুলিশ সদস্যদের উদ্দেশে তিনি বলেন, ‘আপনাদের মনে রাখতে হবে দেশের নিরীহ জনগণকে কোন ধরনের হয়রানি করা যাবে না। বরং তারা হয়রানির শিকার হলে, বিপদে পড়লে তাদের সহযোগিতা করুন।’

প্রধানমন্ত্রী পুলিশ সদস্যদের যে নির্দেশনা দিয়েছেন তা নিঃসন্দেহে সাধুবাদ পাওয়ার যোগ্য। কিন্তু প্রশ্ন হলো, পুলিশ কেন নিরীহ জনগণকে হয়রানি করবে? তাদের কাজ কি সাধারণ মানুষকে হয়রানি করা? বরং নিরীহ মানুষকে বিপদ থেকে বাঁচানো, তাদের নিরাপত্তা দেয়া এবং জানমাল রক্ষা করাই পুলিশের দায়িত্ব। অর্থাৎ পুলিশ তাদের দায়িত্ব ঠিকমতো পালন করছে না কিংবা সাধারণ মানুষদের হয়রানি করছে বলেই প্রধানমন্ত্রী এ ধরনের নির্দেশনা দিয়েছেন।

পুলিশের নানা অপকর্মের কথা আগেও শোনা গেছে, এখনও শোনা যাচ্ছে। এবং অপকমের্র খবরগুলো সমাজের স্বাভাবিক চিত্রেই পরিণত হয়েছে। একজন নাগরিকের কাছে বিপদের সময় সবচেয়ে বড় আশ্রয় পুলিশ। সেই পুলিশই যদি এমন আচরণ করে যে তার নিরাপত্তা বিঘিœত হয়, সাধারণ মানুষের মনে আতঙ্কের কারণ হয়- তাহলে এর চেয়ে দুর্ভাগ্যজনক আর কী হতে পারে!

দুষ্টের দমন শিষ্টের পালন যাদের কর্তব্য তাদের কারও কাছ থেকে কোন ধরনের দুষ্কর্ম মানুষ প্রত্যাশা করে না। পুলিশ জনগণের বন্ধু এ কথা সরকারের তরফ থেকে বারবারই বলা হয়। মানুষ পুলিশকে সেভাবেই দেখতে চায়। পুলিশ বাহিনীর বড় ঐতিহ্য রয়েছে। একাত্তরে মুক্তিযুদ্ধে পুলিশ যে ভূমিকা রেখেছে সেটা আমাদের জন্য গর্ভের বিষয়। এ বাহিনীর বহু সদস্যই নিষ্ঠাবান, ত্যাগী এবং সৎ। কিছু কিছু পুলিশের অপকর্মের কারণে গোটা বাহিনীর সুনাম নষ্ট হয়। এ ধারাটি বন্ধ করতে হবে, পুলিশকে সত্যিকার অর্থেই জনগণের বন্ধু হয়ে উঠতে হবে। সব নাগরিক আইনের চোখে সমান এ চেতনা সমভাবে কার্যকর করতে হবে।

আমরা আশা করব, প্রধানমন্ত্রীর উল্লিখিত নির্দেশনা পুলিশ বাহিনীর প্রতিটি সদস্য সঠিকভাবে মেনে চলবেন। কাউকে হয়রানি করা নয়, কারও সঙ্গে অনৈতিক ও অশোভন আচরণ করা নয়, প্রত্যেক নাগরিককে প্রয়োজনে সহায়তা করা, সাহায্য করা পুলিশের দায়িত্ব। তাহলেই পুলিশ বাহিনীর দুর্নাম ঘুচবে, সুনাম বাড়বে এবং পুলিশ হয়ে উঠবে জনগণের প্রকৃত বন্ধু। তাদের আচরণ হতে হবে বন্ধুসুলভ।

(প্রকাশিত : পাতা ৬, ৬ ফেব্রুয়ারি ২০১৯)

রমজানে দ্রব্যমূল্য নিয়ন্ত্রণে চাই কঠোর মনিটরিং

আসন্ন রমজানে দ্রব্যমূল্য সহনীয় পর্যায়ে থাকবে বলে আশ্বস্ত করেছেন বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু

ই-বর্জ্য ব্যবস্থাপনায় রিসাইক্লিংয়ে পরিকল্পিত ও স্থায়ী উদ্যোগ নিন

ইলেকট্রনিক পণ্যের ব্যবহার বাড়ছে। একই সঙ্গে বাড়ছে ইলেকট্রনিক বা ই-বর্জ্যরে পরিমাণও। এসব ই-বর্জ্যরে দূষণ থেকে প্রাণ ও প্রকৃতিকে রক্ষা

বর্ষার আগেই ঢাকাডুবি কেন নগর কর্তৃপক্ষ কী করছে

চৈত্র মাসেই বৃষ্টির পানি জমে সয়লাব হয়ে যাচ্ছে রাজধানী ঢাকার বেশিরভাগ এলাকার রাস্তা

sangbad ad

পুলিশের ভূমিকা খতিয়ে দেখতে হবে

ফেনীর সোনাগাজীতে মাদ্রাসাছাত্রীকে পুড়িয়ে হত্যাচেষ্টার মামলায় স্থানীয় পুলিশের ভূমিকা নিয়ে অসন্তোষ প্রকাশ করেছেন ভিকটিমের স্বজনরা।

স্বাভাবিক পুঁজিবাজার চাই অনৈতিক কারসাজি দমন করুন

দেশের পুঁজিবাজারে এখনও কারসাজি হচ্ছে বলে অভিযোগ উঠেছে। স্বার্থান্বেষী একটি গোষ্ঠী দুই স্টক এক্সচেঞ্জের সূচক সুকৌশলে নিয়ন্ত্রণ করছে এমন

দ্রুত সম্পন্ন করা রাষ্ট্রের দায়িত্ব

অর্পিত সম্পত্তি অবমুক্তির লাখো মামলা বছরের পর বছর ধরে ঝুলে আছে। মামলা নির্ধারিত সময়ে নিষ্পত্তি হচ্ছে কিনা তা মনিটর করার কেউ

রোজার মাসে ভোগ্যপণ্যের বাজার নিয়ন্ত্রণে রাখুন

রমজান সামনে রেখে এরই মধ্যে অস্থির হয়ে উঠতে শুরু করেছে ভোগ্যপণ্যের বাজার। বিভিন্ন নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্যের দাম কোন কারণ ছাড়াই

রাজধানী কি এবারও জলাবদ্ধ হয়ে পড়বে

রাজধানীর অনেক এলাকা আগামী বর্ষাতেও জলাবদ্ধ হয়ে পড়তে পারে বলে আশঙ্কা করছেন বিশেষজ্ঞরা। ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনে

প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনা বাস্তবায়ন হতে হবে

অগ্নিকান্ড রোধ এবং এর ক্ষয়ক্ষতি এড়াতে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ১৫টি নির্দেশনা দিয়েছেন। গত সোমবার সচিবালয়ে মন্ত্রিসভার নিয়মিত

sangbad ad