• banlag
  • newspaper
  • epaper

ঢাকা , রোববার, ০৯ আগস্ট ২০২০

 

বন্যার্তদের জন্য পর্যাপ্ত ত্রাণ পাঠান

ত্রাণ বিতরণ দুর্নীতিমুক্ত করুন বিশুদ্ধ পানির ব্যবস্থা রাখুন

নিউজ আপলোড : ঢাকা , বুধবার, ২৯ জুলাই ২০২০

করোনার মধ্যে বন্যা মানুষের জীবনকে দুর্বিষহ করে তুলেছে। এ সময় একদিকে ত্রাণের যেমন স্বল্পতা রয়েছে, তেমনি ত্রাণ বিতরণের অনিয়মের খবরও প্রতিনিয়ত পাওয়া যাচ্ছে। একই সঙ্গে রয়েছে বিশুদ্ধ পানীয় জলের তীব্র অভাব।

করোনা মহামারীর কারণে দেশের মানুষ গত কয়েক মাস ধরে অর্থনৈতিকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে। এ পরিস্থিতির মাঝেই বন্যার কারণে দেশের বিভিন্ন এলাকার মানুষের দুর্ভোগ আরও বৃদ্ধি পেয়েছে। বিশেষজ্ঞদের মতে, আগামী দিনগুলোতে দেশের কোনো কোনো এলাকায় বন্যা পরিস্থিতির উন্নতি হলেও এবারের বন্যা আরও বেশ কিছুদিন স্থায়ী হতে পারে। ইতোমধ্যে পানিবন্দী অনেক মানুষ বিভিন্ন রোগ-ব্যাধিতে আক্রান্ত হয়েছে বলে খবর পাওয়া গেছে। এ নিয়ে গত বুধবার গণমাধ্যমে প্রতিবেদন প্রকাশিত হয়েছে।

পাহাড়ি ঢল ও টানা বর্ষণে যমুনা ও ব্রহ্মপুত্রসহ বিভিন্ন নদ-নদীর পানি বাড়ছে দ্রুতগতিতে। নদীপারের নিম্নাঞ্চলের ফসলের ক্ষেত, বাড়িঘর, রাস্তাঘাট ও শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে পানি প্রবেশ করেছে। মানুষ হঠাৎ এই বন্যা ও কোভিড-১৯ করোনাভাইরাসের মধ্যে পড়েছেন চরম বিপাকে। কারও কারও বাড়িতে পানি উঠে সব কিছু ভিজে গেছে। পানিবন্দী পরিবারগুলোর কেউ কেউ পাশের নিকটাত্মীয়ের বাড়িতে আবার কেউ রাস্তা বা বাঁধের উঁচু স্থানে আশ্রয় নিয়েছেন। সেই সড়কও অনেক স্থানে বন্যার পানিতে ডুবে গেছে। কেউ ঘরে খাট চৌকি দিয়ে মাচাং বানিয়ে পরিবার-পরিজন নিয়ে মানবেতর জীবনযাপন করছেন। চরম বিপাকে পড়েছেন বৃদ্ধ, প্রতিবন্ধী আর শিশুরা। তিস্তা চরাঞ্চলের প্রতিটি গ্রাম পানিবন্দী হয়ে পড়েছে। অব্যাহত বন্যায় ডুবে গেছে উঠতি ফসল বাদাম ও ভুট্টাসহ নানান জাতের সবজি। ফসল নষ্ট হওয়ায় নিদারুণ অর্থ কষ্টে পড়েছেন এসব অঞ্চলের চাষিরা। অব্যাহত বন্যার কারণে রান্না করতে না পেরে অনেকেই একবেলা খেয়ে দিনাতিপাত করছেন। এসব এলাকায় শুকনো খাবার ও শিশু খাদ্যের তীব্র সংকট দেখা দিয়েছে। বন্যার সঙ্গে নদীভাঙন যুক্ত হওয়ায় চরম দুশ্চিন্তায় পড়েছেন দেশের বিভিন্ন অঞ্চলের নদীপারের মানুষ। উৎকণ্ঠায় নির্ঘুম রাত কাটাচ্ছেন নদীপারের এসব মানুষ।

প্রতি বছরই বন্যার্তদের ত্রাণ নিয়ে অনিয়ম ও দুর্নীতির খবর পাওয়া যায়। হয় ত্রাণ ঠিকমতো পৌঁছায় না অথবা ত্রাণ নিয়ে অনিয়ম দুর্নীতি হয়। বাংলাদেশ দুর্যোগ মোকাবিলায় সারা বিশ্বে অনুকরণীয় নজির গড়েছে। আর এ সাফল্যের মূলে রয়েছে সরকারি-বেসরকারি উদ্যোগ। অনেক ক্ষেত্রে দেখা গেছে, আমলাতান্ত্রিক জটিলতায় ত্রাণ কার্যক্রম শুরু করতে দেরি হয় কিন্তু বেসরকারি পর্যায়ের সাহায্য ঠিকই দুর্গতদের কাছে পৌঁছে যায়। প্রতিবারই সরকারের ত্রাণ বরাদ্দ ও বিতরণে অনিয়ম-দুর্নীতির অভিযোগ পাওয়া যায়। অনিয়ম-দুর্নীতির কারণে যেসব দুর্গত মানুষ ত্রাণ থেকে বঞ্চিত হয় তাদের ভরসা বেসরকারি পর্যায়ের ত্রাণ। প্রত্যন্ত অঞ্চলের প্রান্তিক মানুষের কাছে ত্রাণ পৌঁছে দেয়ার ক্ষেত্রেও বেসরকারি উদ্যোগ অনেক বেশি কার্যকর প্রমাণিত হয়েছে। এ অবস্থায় বেসরকারি পর্যায়ে ত্রাণ সংগ্রহ ও বিতরণকে সরকারের উৎসাহ ও সমর্থন দেয়াই বাঞ্ছনীয়।

অস্বীকার করা যাবে না যে, ত্রাণ বিতরণের ক্ষেত্রে ‘স্বজনপ্রীতি’ নতুন নয়। স্থানীয় পর্যায়ে দায়িত্বপ্রাপ্তদের ‘রাজনৈতিক’ পছন্দ-অপছন্দও অনেক ক্ষেত্রে অগ্রাধিকার পায়। এক্ষেত্রে নীতি-নির্ধারণী পর্যায়ের সদিচ্ছা অনেক ক্ষেত্রে মাঠপর্যায়ে প্রতিফলিত না-ও হতে পারে। নজরদারির অভাবে এ ধরনের অনিয়ম ঘটেই চলেছে। তবে রাজনৈতিক বিবেচনায় বা স্বজনপ্রীতির মাধ্যমে যাদের ত্রাণ দেয়া হয়, তাদেরও একটি বড় অংশ হয়তো বন্যাদুর্গত। কিন্তু এর ফলে দ্বিবিধ ‘অপরাধ’ হয়। প্রথমত, সামষ্টিক সম্পদ বিতরণের ক্ষেত্রে ব্যক্তি বা গোষ্ঠীগত বিবেচনার সুযোগ নেই; দ্বিতীয়ত, এর ফলে অনেক ক্ষেত্রেই প্রকৃত প্রাপক বঞ্চিত হন।

স্থানীয় প্রশাসনকে নির্বাচিত জনপ্রতিনিধিদের নিয়ে ত্রাণ কার্যক্রম নিশ্চিত করতে হবে। প্রথমত সময়মতো এবং প্রয়োজনীয় ত্রাণ সামগ্রী পৌঁছাতে হবে। ত্রাণ নিয়ে যাতে কোন ধরনের অনিয়ম, দুর্নীতি ও স্বজনপ্রীতি না হয়, সেটি নিশ্চিত করতে হবে। বন্যার্তদের ত্রাণ ঠিকমত পৌঁছাচ্ছে কিনা এবং সবাই ত্রাণ পাচ্ছে কিনা- সেটা মনিটরিং করতে হবে। ত্রাণ প্রাপ্তি, সংরক্ষণ ও বিতরণ এই তিনটি কাজ সমন্বয় করতে হবে। ত্রাণের সঙ্গে সঙ্গে সুপেয় পানির নিয়মিত সরবরাহ অব্যাহত রাখতে হবে।

নদীভাঙন রোধে সমন্বিত পরিকল্পনা গ্রহণ করতে হবে

দেশের বিভিন্ন স্থানে নদীভাঙনে বিলীন হচ্ছে গ্রাম, বসতবাড়ি ও শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান। দেশের উত্তর ও মধ্যাঞ্চলের বন্যার পানি কমতে থাকায়

বন্যাদুর্গতদের দুর্ভোগ নিরসনে সহায়তা কার্যক্রম জোরদার করুন

রাজধানী ঢাকার নিম্নাঞ্চলেও বিস্তৃত হয়েছে বন্যা। বালু নদীর পানি প্রবাহিত হচ্ছে বিপদসীমার ওপর দিয়ে। সিটি করপোরেশনের অন্তর্ভুক্ত অনেক

দায়ীদের চিহ্নিত করে আইনি ব্যবস্থা কি নেবে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ

এবারও কোরবানির চামড়া নিয়ে কারসাজি হয়েছে বলে দাবি করছেন মৌসুমি চামড়া ব্যবসায়ীরা। কোরবানির পশুর চামড়ার দামে

sangbad ad

বৈরুতে ভয়াবহ বিস্ফোরণে নিহত শতাধিক আহত চার হাজার

গত মঙ্গলবার লেবাননের রাজধানী বৈরুতে ভয়াবহ এক বিস্ফোরণে সর্বশেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত ১৩৫ জন নিহত হয়েছেন, আহত হয়েছেন

করোনা মোকাবিলায় বিজ্ঞানভিত্তিক পরিকল্পনা গ্রহণ করতে হবে

সম্প্রতি সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী, স্বাস্থ্যমন্ত্রী এবং পরিকল্পনামন্ত্রী তাদের বক্তব্যে করোনা নিয়ন্ত্রণে বাংলাদেশের সফলতার কথা তুলে ধরেছেন

স্বাস্থ্যসেবার নতুন পরিপত্রটি বাতিল করুন

করোনাভাইরাসে আক্রান্ত রোগীদের চিকিৎসা কাজে নিয়োজিত ডাক্তার, নার্স ও অন্যান্য স্বাস্থ্যকর্মীর আবাসিক হোটেলে থাকা নিয়ে স্বাস্থ্য

মোকাবিলায় প্রস্তুত থাকতে হবে

দেশে বন্যা পরিস্থিতির ধীরে ধীরে উন্নতি হচ্ছে। তবে চলতি মাসের শেষের দিকে আবারও বন্যা দেখা দিতে পারে। আবহাওয়া অধিদফতর

প্রাথমিকে শিক্ষার্থী ঝরে পড়া প্রসঙ্গে

প্রাথমিক স্তরে শিক্ষার্থী ঝরে পড়ার হার গত কয়েক বছর ধরে একই বৃত্তে ঘুরপাক খাচ্ছে। প্রাথমিক...

স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলতে আইনের প্রয়োগ চাই

ঈদুল আজহাকে কেন্দ্র করে দেশে নভেল করোনাভাইরাসের সংক্রমণ আরও বিস্তৃত হতে পারে বলে বিশেষজ্ঞরা আশঙ্কা করছেন। কোরবানির...

sangbad ad