• banlag
  • newspaper
  • epaper

ঢাকা , মঙ্গলবার, ১৯ ফেব্রুয়ারী ২০১৯

 

গায়েব হওয়া কয়লা সিস্টেম লসের নামে দুর্নীতি

তদন্ত করে অপরাধীদের ধরতে পারে দুদক

নিউজ আপলোড : ঢাকা , সোমবার, ১১ ফেব্রুয়ারী ২০১৯

বড়পুকুরিয়া কোল মাইনিং কোম্পানি লিমিটেড (বিসিএমসিএল) গায়েব হওয়া প্রায় দেড় লাখ টন কয়লাকে সিস্টেম লস হিসেবে দেখিয়েছে। গত ডিসেম্বরে অনুষ্ঠিত কোম্পানির সাধারণ সভার বার্ষিক প্রতিবেদনে ‘কয়লা উৎপাদন, বিক্রয় ও মজুদ বিবরণী’ হিসেবে এ তথ্য উপস্থাপন করা হয়। উক্ত সভার কার্যপত্রের অনুমোদন দিয়েছেন পেট্রোবাংলার চেয়ারম্যান মো. রুহুল আমীন। গত বছর জুলাইয়ে উক্ত কোম্পানির গায়েব হওয়া কয়লাকে সিস্টেম লস হিসেবে দেখানো হয়েছিল। পেট্রোবাংলা তখন সেটা মেনে নেয়নি। এ নিয়ে গত রোববার একটি জাতীয় দৈনিক প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে।

কয়লার অভাবে গত বছর জুলাইয়ে বড়পুকুরিয়া তাপবিদ্যুৎ কেন্দ্রের উৎপাদন বন্ধ হয়ে যায়। এরপর বিদ্যুৎ উন্নয়ন বোর্ডের (পিডিবি) অনুসন্ধানে জানা যায় যে, ২৩০ কোটি টাকা মূল্যের কয়লা গায়েব হয়ে গেছে। এ ঘটনায় দেশজুড়ে সমালোচনার মুখে সরকারি-বেসরকারি অন্তত চারটি তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়। প্রধানমন্ত্রী কয়লা উধাওয়ের ঘটনা তদন্ত করে দেখার নির্দেশ দেন। জ্বালানি প্রতিমন্ত্রী অভিযোগ করে বলেছিলেন, কয়লা নিয়ে বহুদিন ধরেই দুর্নীতি চলছে। পেট্রোবাংলার এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছিল, কয়লা গায়েবের দায় সংশ্লিষ্ট কোম্পানির সাবেক সব এমডিকেই নিতে হবে। এখন কোম্পানির বার্ষিক প্রতিবেদনে গায়েব হওয়া কয়লাকে সিস্টেম লস হিসেবে দেখানো এবং সভার কার্যপত্রে পেট্রোবাংলার চেয়ারম্যানের অনুমোদনে প্রশ্ন উঠেছে যে, সরকার কোম্পানির অবস্থানকেই মেনে নিচ্ছে কিনা।

কয়লা গায়েবের ঘটনাকে উক্ত কোম্পানি শুরু থেকেই সিস্টেম লস হিসেবে দেখানোর চেষ্টা করছে। কিন্তু বিশেষজ্ঞরা বলছেন, কোন সিস্টেম লসেই প্রায় দেড় লাখ টন কয়লা হাওয়া হয়ে যাবে না। বোঝা যাচ্ছে, সিস্টেম লস দেখিয়ে সংশ্লিষ্টরা পার পেতে যাচ্ছে। প্রশ্ন হচ্ছে, কয়লা দুর্নীতির অভিযোগ তদন্তের পর্যায়ে একে সিস্টেম লস হিসেবে দেখানো যায় কিনা। দেড় লাখ টন কয়লা কী হয়েছে সেটা সুষ্ঠু তদন্তের মাধ্যমে উঠে আসুক এবং সে অনুযায়ী ব্যবস্থা নেয়া হোক সেটা আমাদের দাবি।

কয়লা দুর্নীতির অভিযোগে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক) যে তদন্ত কমিটি গঠন করেছিল তার প্রতিবেদন জমা দেয়ার কথা ছিল ১৫ দিনের মধ্যে। আজ পর্যন্ত সেই প্রতিবেদন জমা দেয়া হয়নি। এক্ষেত্রে দুদক নিজেই তার আইন লঙ্ঘন করেছে। অভিযোগ রয়েছে, বড় বড় দুর্নীতি প্রতিরোধে দুদকের সক্ষমতা বা আগ্রহ নেই। ছোট দুর্নীতি বা অনিয়ম নিয়েই তারা মহাব্যস্ত। কোন শিক্ষক স্কুলে যাননি, কোন চিকিৎসক কর্মক্ষেত্রে নেই, কে উল্টোপথে গাড়ি চালালেন সেটা নিয়ে দুদক কর্মতৎপর। কিন্তু ব্যাংকের হাজার কোটি টাকা বা শত কোটি টাকার কয়লা গায়েব হলে দুদককে রাঘববোয়ালদের বিরুদ্ধে তৎপর হতে দেখা যায় না। দুদকের নিষ্ক্রিয়তার কারণে বেসিক ব্যাংকের চেয়ারম্যান বিদেশে চলে যাওয়ার সুযোগ পায়, চুরি যাওয়া কয়লা হয়ে যায় ‘সিস্টেম লস’। দুদকের গাফিলতিতে জেল খেটেছে নির্দোষ জাহালম। আমরা বলতে চাই, বাগাড়ম্বর বন্ধ করে দুদককে দুর্নীতির বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নিতে হবে। দুর্নীতি দমনের নামে চুনোপুঁটিদের ধরে জনগণের আইওয়াশ করলে চলবে না। বড়পুকুরিয়া দুর্নীতির সুরাহা করতে হবে, ব্যাংক দুর্নীতির রাঘববোয়ালদের বিরুদ্ধে কঠোর আইনি ব্যবস্থা নিতে হবে।

সোমবার, ১১ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, দৈনিক সংবাদ পত্রিকার ৬ এর পাতায় প্রকাশিত

কিভাবে নির্মূল হবে তার উপায় কোথায়

দুর্নীতি না কমানো গেলে দেশের সব অর্জন নষ্ট হয়ে যেতে পারে বলে আশঙ্কা

পাকিস্তানকে অপ্রাসঙ্গিক করা সময়ের দাবি

ভারতশাসিত জম্মু-কাশ্মীরে সেন্ট্রাল রিজার্ভ পুলিশ ফোর্সের গাড়িবহরে বোমা হামলায়

অবিলম্বে শক্তিশালী ব্যাংক কমিশন গঠন করুন

ব্যাংকের ঋণখেলাপি ও অর্থ পাচারকারীদের গত ২০ বছরের তালিকা তৈরি করে তা দাখিলের

sangbad ad

বিজিবির গুলিতে হতাহতের ঘটনা : প্রকৃত কারণ খুঁজে বের করুন

ঠাকুগাঁওয়ের হরিপুরে বর্ডার গার্ড বাংলাদেশের (বিজিবি) গুলিতে মারা গেছে তিনজন এবং

বিদ্যুৎ খাতে স্বচ্ছতা, জবাবদিহিতা ও সুশাসন প্রতিষ্ঠা করুন বকেয়া এবং লোকসানের বোঝা যেন জনগণের ঘাড়ে না চাপে

বিদ্যুৎ, জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদ গত সোমবার জাতীয় সংসদে জানান, সরকারি, আধা সরকারি/বেসরকারি

উন্নয়নের অগ্রযাত্রায় মতপ্রকাশের স্বাধীনতা ও মানবাধিকার অপরিহার্য

বাংলাদেশের উন্নয়ন ও অগ্রযাত্রা অব্যাহত রাখার জন্য মতপ্রকাশের ও নাগরিক স্বাধীনতা জরুরি।

অবিলম্বে ব্যাংকিং কমিশন গঠন করুন

ব্যাংক খাতের বিভিন্ন অনিয়ম বন্ধে ব্যাংকিং কমিশন গঠনের দাবি উঠেছে। ব্যাংকিং খাতের অব্যাহত

পুলিশ কেন নিরীহ জনগণকে হয়রানি করবে

দেশের নিরীহ জনগণকে কোন ধরনের হয়রানি না করতে পুলিশ সদস্যদের নির্দেশ দিয়েছেন

আইন সবার জন্য সমান হওয়াই বাঞ্ছনীয়

নাটোর সদর উপজেলার যুবলীগ নেতা জামাল হোসেন ওরফে মিলনকে গত বৃহস্পতিবার

sangbad ad