• banlag
  • newspaper
  • epaper

ঢাকা , মঙ্গলবার, ২১ মে ২০১৯

 

গণধর্ষণ মামলার চার্জশিট প্রশ্নবিদ্ধ পুলিশের ভূমিকা

নিউজ আপলোড : ঢাকা , রোববার, ২৮ এপ্রিল ২০১৯

সুবর্ণচরে গণধর্ষণের শিকার নারীর অভিযোগ ছিল একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে নিজের পছন্দের প্রতীকে ভোট দেয়ায় তার ওপর নির্যাতন হয়েছে। কিন্তু মামলার অভিযোগপত্রে নির্বাচনের প্রসঙ্গটি এড়িয়ে গেছে পুলিশ। তারা বলছে, পূর্বশত্রুতার কারণে ওই নারীকে গণধর্ষণ করা হয়েছে। যদিও পূর্বশত্রুতার কোন বিবরণ অভিযোগপত্রে পুলিশ উল্লেখ করেনি।

অভিযোগপত্রে পুলিশ ইচ্ছা করেই নির্বাচনের প্রসঙ্গ এড়িয়ে যাওয়ায় ন্যায়বিচার পাওয়া নিয়ে সংশয় প্রকাশ করেছেন ভুক্তভোগী নারী ও তার স্বামী। এর আগে মামলার এজাহারেও পুলিশ নির্বাচনের কথা উল্লেখ করেনি। মামলার বাদী ওই নারীর স্বামী বলেন, তিনি লেখাপড়া জানেন না। ফলে পুলিশ এজাহারে কী লিখেছে তা বুঝতে পারেননি। তাকে না জানিয়েই এজাহারে বলা হয়েছে, পূর্বশত্রুতার জের ধরে তার স্ত্রী গণধর্ষণের শিকার হয়েছে।

নির্বাচনের রাতে সুবর্ণচরে গণধর্ষণের ঘটনাটি এতটাই চাঞ্চল্য সৃষ্টি করেছিল যে, এটা কারও অজানা থাকার কথা নয়। সে সময় ধারাবাহিকভাবে প্রতিটি সংবাদ মাধ্যম এ নিয়ে রিপোর্ট করেছে। অনুসন্ধানী প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে। এসব রিপোর্টে ভিকটিমের যেসব বক্তব্য প্রকাশিত হয়েছে তাতে পূর্বশত্রুতার কোন কথা পাওয়া যায়নি। উক্ত নারী নির্বাচনকেন্দ্রিক সহিংসতার শিকার হয়েছেন। অথচ পুলিশ ভুক্তভোগীর পুরো বক্তব্যকেই পাল্টে দিয়ে ইচ্ছামাফিক বক্তব্য দিয়ে অভিযোগপত্র সাজিয়ে ফেলল। যেন অভিযোগপত্রের বিষয়টি কোন সাহিত্যকর্ম কিংবা কোন চিত্রকর্ম, এতে আপন মনের মাধুরী মিশিয়ে কাহিনীর দৃশ্যপট বদলানো যায়।

আমরা জানতে চাই, আইনের গতি পরিবর্তনের অধিকার পুলিশকে কে দিল। কোন শক্তিতে বলীয়ান হয়ে পুলিশ এ ধরনের মানবতাবিরোধী, আইনবিরোধী এবং সংবিধানপরিপন্থী কাজ করে?

প্রশ্ন হলো, দেশটা কী কোন পুলিশি রাষ্ট্র হয়ে গেছে যে, পুলিশ যেভাবে অভিযোগপত্র সাজাবে অভিযোগকারীকে তাই মেনে নিতে হবে, সেভাবেই তদন্ত হবে, বিচার হবে এবং হয়তো সেই সাজানো অভিযোগপত্রের ভিত্তিতে দোষীরা পর্যায়ক্রমে ছাড়া পেয়ে যাবে। যদি তাই হয় তবে অভিযোগকারীর বক্তব্য প্রদানের দরকার কি, কোন অপকর্ম হলে পুলিশই সিদ্ধান্ত নিক যে, সেটি অপকর্ম কিনা কিংবা তার কোন বিচার হবে কিনা।

এ ধরনের অনাচার কোনভাবেই গ্রহণযোগ্য নয়। আইনকে আইনের গতিতেই চলতে দেয়া উচিত। এটাও মনে রাখা জরুরি যে, পুলিশ প্রশাসন পক্ষপাতদুষ্ট হলে এবং এ প্রক্রিয়ায় আইনের দিক পরিবর্তনের চেষ্টা করা হলে তা কারও জন্য শুভ ফল বয়ে আনবে না।

সুবর্ণচরের গণধর্ষণের ঘটনাটিকে যারা নিছক পূর্বশত্রুতার জের হিসেবে দেখাতে চাচ্ছেন তারা যদি এ কাজে সফল হন তবে সমাজে অসন্তোষ দানা বাঁধবে এবং এমন আরও অনেক অপকর্ম ঘটার আশঙ্কা তৈরি হবে, যা কোনভাবেই কাম্য নয়।

দৈনিক সংবাদ : ২৮ এপ্রিল ২০১৯, রোববার, ৬ এর পাতায় প্রকাশিত

সমাজ ও ব্যক্তির জন্য সৃষ্টি হচ্ছে ভয়াবহ সংকট

দেশে সংস্কৃতিচর্চার সুযোগ দিন দিন কমছে। সরকারি সাংস্কৃতিক প্রতিষ্ঠানগুলোতে পেশাদারি, জবাবদিহি ও আন্তরিকতার অভাব। সংস্কৃতি

দেশের বাঁধগুলোর সক্ষমতা বাড়াতে হবে সংস্কারের লক্ষ্যে মনিটরিং করুন

ঘূর্ণিঝড় ফণী বাংলাদেশ অতিক্রম করে গেছে। ভারতের ওড়িশা উপকূলে আঘাত হানার পর পশ্চিমবঙ্গ হয়ে বাংলাদেশে প্রবেশ করে ঘূর্ণিঝড়।

পরিবহন সেক্টরকে মাফিয়ামুক্ত করুন

সাত দফা দাবিতে পরিবহন শ্রমিকদের ডাকা ধর্মঘটে গত সোমবার দিনভর দুর্ভোগ পোহাতে হয়েছে সাধারণ মানুষকে। সকাল থেকে সন্ধ্যা পর্যন্ত

sangbad ad

জঙ্গিবাদের হুমকি মোকাবিলায় ঐক্য গড়ে তুলুন

মধ্যপ্রাচ্যভিত্তিক জঙ্গিগোষ্ঠী ইসলামিক স্টেট (আইএস) বাংলাদেশ ও পশ্চিমবঙ্গে হামলার পরিকল্পনা করছে বলে অভিযোগ উঠেছে। গত বৃহস্পতিবার

বিদ্যুৎ সঞ্চালন ও বিতরণ ব্যবস্থা ত্রুটিমুক্ত করতে হবে

চাহিদার চেয়ে বেশি বিদ্যুৎ উৎপাদন সক্ষমতা থাকলেও বিদ্যুৎ বিভাগ মানসম্মত বিতরণ ব্যবস্থা নিশ্চিত করতে না পারায়

রমজানে দ্রব্যমূল্য নিয়ন্ত্রণে চাই কঠোর মনিটরিং

আসন্ন রমজানে দ্রব্যমূল্য সহনীয় পর্যায়ে থাকবে বলে আশ্বস্ত করেছেন বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু

ই-বর্জ্য ব্যবস্থাপনায় রিসাইক্লিংয়ে পরিকল্পিত ও স্থায়ী উদ্যোগ নিন

ইলেকট্রনিক পণ্যের ব্যবহার বাড়ছে। একই সঙ্গে বাড়ছে ইলেকট্রনিক বা ই-বর্জ্যরে পরিমাণও। এসব ই-বর্জ্যরে দূষণ থেকে প্রাণ ও প্রকৃতিকে রক্ষা

বর্ষার আগেই ঢাকাডুবি কেন নগর কর্তৃপক্ষ কী করছে

চৈত্র মাসেই বৃষ্টির পানি জমে সয়লাব হয়ে যাচ্ছে রাজধানী ঢাকার বেশিরভাগ এলাকার রাস্তা

পুলিশের ভূমিকা খতিয়ে দেখতে হবে

ফেনীর সোনাগাজীতে মাদ্রাসাছাত্রীকে পুড়িয়ে হত্যাচেষ্টার মামলায় স্থানীয় পুলিশের ভূমিকা নিয়ে অসন্তোষ প্রকাশ করেছেন ভিকটিমের স্বজনরা।

sangbad ad