• banlag
  • newspaper
  • epaper

ঢাকা , বৃহস্পতিবার, ২২ অক্টোবর ২০২০

 

খাদ্যে ট্রান্সফ্যাটের বিপদ সম্পর্কে চাই জনসচেতনতা

নিউজ আপলোড : ঢাকা , বুধবার, ৩০ সেপ্টেম্বর ২০২০

চিকিৎসা ও খাদ্য বিজ্ঞানীরা বলছেন, ট্রান্সফ্যাট গ্রহণ এবং হৃদরোগ ঝুঁকির উচ্চহার ব্যাপকভাবে সম্পর্কযুক্ত। মুখরোচক বেকারিপণ্য, ফ্রেঞ্চ ফ্রাই, বিস্কুট, চানাচুর, চিপস, বার্গারসহ তেলে ভাজা অনেক কিছু এ প্রজন্মের নিত্যদিনের খাবার। আর এসব খাবারে লুকিয়ে আছে ট্রান্সফ্যাট নামের ‘নীরব ঘাতক’। ট্রান্সফ্যাটের প্রধান উৎস পারশিয়ালি হাইড্রোজেনেটেড অয়েল (পিএইচও), যা ডালডা বা বনস্পতি ঘি নামে পরিচিত। বিভিন্ন খাদ্যপণ্যে এই ডালডার ব্যবহার ক্রমাগত বাড়ছে। বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (ডাব্লিউএইচও) সম্প্রতি ট্রান্সফ্যাটজনিত হৃদরোগে মৃত্যুর সর্বাধিক ঝুঁকিপূর্ণ যে ১৫টি দেশের তালিকা প্রকাশ করেছে, এর মধ্যে বাংলাদেশ অন্যতম। ট্রান্সফ্যাটের স্বাস্থ্যঝুঁকি বিবেচনা করে ডাব্লিউএইচও ২০২৩ সালের মধ্যে বিশ্বব্যাপী খাদ্য থেকে শিল্পোৎপাদিত ট্রান্সফ্যাট নির্মূলকে অগ্রাধিকার দিলেও বাংলাদেশে এখনও এটি নিয়ন্ত্রণে কাজই শুরু হয়নি।

উদ্বেগের বিষয় হলো, বাংলাদেশে ট্রান্স ফ্যাট নির্মূল সংক্রান্ত কোন নীতিমালা নেই। নীতিমালা করার বিষয়েও তেমন কোন উদ্যোগ নেই, কোন মাথাব্যথা নেই। এ কারনেই খাদ্যদ্রব্যে ট্রান্স ফ্যাটের পরিমাণ গ্রহণযোগ্য মাত্রার চেয়ে বেশি থেকে যাচ্ছে, যা হৃদরোগজনিত অকাল মৃত্যুঝুঁকি বাড়িয়ে দিচ্ছে। আমরা জানতে চাই, ট্রান্স ফ্যাট নির্মূলে কেন সুনির্দিষ্ট নীতিমালা হচ্ছে না? জনস্বাস্থ্যে মারাত্মক বিপর্যয়ের আশঙ্কা সত্ত্বেও নির্বিকার বসে থাকার কারণ কি? এই উদাসীনতার কারণে যারা স্বাস্থ্যঝুঁকিতে পড়ছেন, যাদের জীবন বিপন্ন হচ্ছে তাদের ক্ষতিপূরণ হবে কি দিয়ে? এর দায় কে নেবে?

খাদ্যে ট্রান্সফ্যাট নির্মূলে জরুরি ভিত্তিতে একটি নীতিমালা তৈরি করা দরকার। শুধু নীতিমালা করলেই হবে না, বিশ্বের অন্যান্য দেশ যেভাবে এর বাস্তবায়ন করছে, সেভাবেই এর বাস্তবায়নে মনোযোগ দিতে হবে। দেশে হৃদরোগ ঝুঁকি কমিয়ে আনতে দ্রুততম সময়ের মধ্যে ডব্লিউএইচও’র পরামর্শ অনুযায়ী সব ধরনের ফ্যাট, তেল এবং খাদ্যদ্রব্যে ট্রান্সফ্যাটের সর্বোচ্চসীমা মোট ফ্যাটের ২ শতাংশ নির্ধারণ করে আইন প্রণয়ন এবং কার্যকর করা অত্যন্ত জরুরি। পাশাপাশি সহায়ক পদক্ষেপ হিসেবে মোড়কজাত খাবারের পুষ্টিতথ্য তালিকায় ট্রান্সফ্যাটের সীমা উল্লেখ বাধ্যতামূলক করা, উপকরণ তালিকায় পিএইচও’র মাত্রা উল্লেখ বাধ্যতামূলক করা, ফ্রন্ট অব প্যাকেজ লেবেলস বাধ্যতামূলক করা যা খাদ্যদ্রব্যে ট্রান্সফ্যাটের উপস্থিতি নির্দেশ করবে এবং ‘ট্রান্সফ্যাট-মুক্ত’ বা ‘স্বল্পমাত্রার ট্রান্সফ্যাট’ এ জাতীয় স্বাস্থ্যবার্তা ব্যবহারে বিধি-নিষেধ আরোপ করতে হবে। এসব পদক্ষেপ গ্রহণ এবং বাস্তবায়ন করা হলে হৃদরোগজনিত অসুস্থতা ও মৃত্যু কাক্সিক্ষত মাত্রায় হ্রাস পাবে এবং অসংক্রামক রোগ সংক্রান্ত টেকসই উন্নয়নের লক্ষ্য অর্জন সহজ হবে।

মালিক-শ্রমিককে আলোচনায় বসতে হবে

এগারো দফা দাবিতে পূর্ব ঘোষণা অনুযায়ী গতকাল মঙ্গলবার সকাল থেকে সারা দেশে অনির্দিষ্টকালের জন্য ধর্মঘট কর্মসূচি পালন করছেন নৌযান শ্রমিককরা।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার মান ও গবেষণা দুটোই উন্নত করতে হবে

প্রতি বছর নতুন বিভাগ খোলা, শিক্ষার্থী ও শিক্ষক বাড়ানো, বিপুলসংখ্যক প্রশাসনিক কর্মী নিয়োগ- সব মিলিয়ে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কলেবরের দিক দিয়ে বিশাল আকার ধারণ করলেও শিক্ষার মান ও গবেষণার দিক দিয়ে কোন উন্নতি হয়নি বলে গতকাল মঙ্গলবার গণমাধ্যমে প্রতিবেদন প্রকাশিত হয়েছে। মূলত শিক্ষা ও সংশ্লিষ্ট ক্ষেত্রে গুণগতমানের দিক দিয়ে প্রত্যাশিত কোন উন্নতিই হয়নি।

ধর্ষকদের বিরুদ্ধে তীব্র সামাজিক আন্দোলন গড়ে তোলার নির্দেশ ইন্দিরার

সংবাদ অনলাইন ডেস্ক

image

মহিলা ও শিশু বিষয়ক প্রতিমন্ত্রী ফজিলাতুন নেসা ইন্দিরা বলেছেন, বিকৃত মস্তিস্ক, কান্ডজ্ঞানহীন বিবেক বর্জিত ও মানসিক বিকার গ্রস্তরাই ধর্ষণকারী।

sangbad ad

ধর্ষণ মামলার দ্রুত বিচার অনুকরণীয় দৃষ্টান্ত

মোংলায় শিশু ধর্ষণের এক মামলায় চার্জ গঠনের পর ৭ কার্যদিবসের মধ্যে রায় ঘোষণা করেছেন বাগেরহাট জেলা ও দায়রা জন্য আদালত।

বনাঞ্চল সুরক্ষায় কার্যকর উদ্যোগ নিতে হবে

দেশের দুই লাখ ৮৭ হাজার ৪৫২ একর বনভূমি বেদখল হয়ে আছে। প্রায় ৯০ হাজার ব্যক্তি ও প্রতিষ্ঠান অবৈধভাবে এসব জমি জবরদখল করে রেখেছেন।

বাংলাদেশকেও ঘটনার তদন্ত করতে হবে

গতকাল রোববার চুয়াডাঙ্গার দামুড়হুদায় বিএসএফের গুলিতে একজন বাংলাদেশি নাগরিক মারা গেছেন। স্থানীয় বাসিন্দারা জানিয়েছেন, দামুড়হুদা

প্লাস্টিকের পচনশীল বিকল্প বের করতে হবে

রাজধানীর চারপাশের চারটি নদীতে ৩০ হাজার টন প্লাস্টিক বর্জ্য পাওয়া গেছে, যার অর্ধেকই রয়েছে বুড়িগঙ্গায়। বিশ্বব্যাংকের অর্থায়নে

দোষীদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিন

গতকাল শনিবার সকালে ফেনীতে ধর্ষণবিরোধী লংমার্চে হামলার ঘটনা ঘটেছে। হামলার জন্য পুলিশ এবং ছাত্রলীগ-যুবলীগকে দায়ী করেছেন আন্দোলনকারীরা।

ভাসানচর প্রস্তুত, রোহিঙ্গাদের দ্রুত স্থানান্তর করুন

কক্সবাজারে বসবাসরত রোহিঙ্গাদের স্থানান্তরের জন্য ভাসানচর পুরোপুরি প্রস্তুত রয়েছে বলে প্রতিবেদন প্রকাশিত হয়েছে গণমাধ্যমে।

sangbad ad