• banlag
  • newspaper
  • epaper

ঢাকা , রোববার, ২৯ নভেম্বর ২০২০

 

করোনা মোকাবিলায় বহুমুখী পদক্ষেপ নিন

নিউজ আপলোড : ঢাকা , বুধবার, ২৮ অক্টোবর ২০২০

দক্ষিণ এশিয়ায় করোনাভাইরাস মোকাবিলায় বহুমুখী পদক্ষেপ গ্রহণের আহ্বান জানিয়েছেন বিশেষজ্ঞরা। গতকাল মঙ্গলবার বিকেলে ‘দ্য মাল্টিলেটারেল রেসপন্স টু কোভিড-নাইনটিন পারেসপেকটিভ ফ্রম সাউথ এশিয়া’ শীর্ষক সভায় এ আহ্বান জানান তারা। সভাটি যৌথভাবে আয়োজন করে সেন্টার ফর পলিসি ডায়ালগ (সিপিডি) এবং অর্গানাইজেশন ফর ইকোনমিক কো-অপারেশন অ্যান্ড ডেভেলপমেন্ট (ওইসিডি)। ভার্চুয়াল এ আলোচনায় দক্ষিণ এশিয়ার বিভিন্ন দেশের প্রতিনিধিরা অংশ নেন। সভায় বক্তারা বলেন, বিশ্বের এখন প্রয়োজন কার্যকর বহুমুখী উন্নয়ন অর্থনৈতিক ব্যবস্থা। ২০৩০ সালের লক্ষ্যমাত্রা অর্জনের জন্য করোনাভাইরাস মহামারীর ক্ষতি পুনরুদ্ধারে উন্নয়নশীল দেশগুলোর সহযোগিতা প্রয়োজন। করোনাভাইরাসের আগেও নির্ধারিত লক্ষ্যের থেকে অর্থনৈতিক পার্থক্য ছিল ২ দশমিক ৫ ট্রিলিয়ন মার্কিন ডলার। বর্তমানে কোনো দেশ ২০৩০ সালের সব লক্ষ্য পূরণের পর্যায়ে নেই। দক্ষিণ এশিয়ার দেশগুলোতেও বড় ধরনের অর্থনৈতিক পার্থক্য রয়েছে। এসব দেশের সরকার ব্যবস্থা করোনার সময় দ্বিমুখী সমস্যা মোকাবিলা করছে। একদিকে রাজস্ব আয় বাড়ানোর চ্যালেঞ্জ, অন্যদিকে সামাজিক ব্যয় বৃদ্ধি। এসব চ্যালেঞ্জ মোকাবিলায় রাষ্ট্রগুলোর অবশ্যই বড় ধরনের আর্থিক সহায়তা দরকার।

বিশেষজ্ঞদের উল্লিখিত বক্তব্যের সঙ্গে আমরাও একমত পোষণ করি। আমরাও মনে করি, করোনা পরবর্তী সময়ে নতুন করে ঘুরে দাঁড়ানোর সামর্থ্য দক্ষিণ এশিয়ার অনেক দেশেরই নেই। মহামারীর নেতিবাচক প্রভাব এরই মধ্যে দেশগুলোর অর্থনৈতিক পরিকাঠামো বিপর্যস্ত করে তুলেছে। উন্নয়নশীল দেশগুলোর বিনিয়োগ পরিস্থিতি ও রফতানি আয় নিম্নমুখী, কলকারখানা বন্ধ, অধিকাংশ প্রতিষ্ঠানে শ্রমিক ছাঁটাই অব্যাহত রয়েছে, এ কারণে বেকারত্বের সংখ্যাও ক্রমশ বাড়ছে। সংকটের আরও গভীরতর রূপ সামনে আসে যখন দেখা যায়, করোনা দুর্যোগের আগে যে পরিবারগুলোর আয় জাতীয় দারিদ্র্যসীমার বেশ উপরে ছিল, তাদের অধিকাংশই দারিদ্র্যসীমার নিচে নেমে এসেছে। এ প্রেক্ষাপটে পূর্বের অর্থনৈতিক সামর্থ্যে ফিরে আসা নির্ভর করছে সংকটকালীন সময়ে সরকারের গৃহীত পদক্ষেপগুলো কতটা দ্রুত, নির্ভরযোগ্য ও জুতসই তার ওপর।

ইতোমধ্যে বাংলাদেশসহ অন্যান্য দেশের সরকারগুলো তাদের অর্থনীতিতে নিম্নমুখিতা প্রতিরোধ করার চেষ্টা করছে। তবে, তারল্য সংকট যেন বড় ধরনের সমস্যা তৈরি না করে এবং বৈশ্বিক মন্দা যেন আগামী দিনের হতাশায় পরিণত না হয় সেজন্য জরুরি ভিত্তিতে আরও সুসংহত রাজস্ব, আর্থিক এবং বাণিজ্য ব্যবস্থার দিকে যেতে হবে। এক্ষেত্রে সাধারণ বা প্রথাগত রাজস্ব নীতি কাজে আসবে না, এখন ব্যাকরণ ভাঙতে হবে। একই সঙ্গে সমষ্টিক অর্থনীতির ভারসাম্য বজায় রাখার প্রয়োজনীয়তাও রয়েছে। এতে বিপর্যয় প্রতিহত করা সহজ হবে। শুল্ক ও কোটা মুক্ত প্রবেশাধিকার, কারিগরি সহায়তা এবং অতি ক্ষুদ্র ক্ষুদ্র ও মধ্যম সারির এন্টারপ্রাইজগুলোতে আরও অর্থায়নের সুযোগ সৃষ্টি করার মাধ্যমে ঘাটতি মেটানো সম্ভব। এজন্য বৈশ্বিক সংস্থা ও উন্নত অর্থনীতির দেশগুলোকে সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দিতে হবে।

বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্যবিরোধীদের কাছে নতিস্বীকার করা চলবে না

দেশে কোন ভাস্কর্য তৈরি হলে টেনেহিঁচড়ে ফেলে দেয়ার হুমকি দিয়েছেন হেফাজতে ইসলামের নব্য আমির জুনায়েদ বাবু নগরী।

করোনার দ্বিতীয় ঢেউ মোকাবিলায় চাই সমন্বিত পদক্ষেপ

বিনামূল্যে মাস্ক বিতরণের উদ্যোগ নিতে সরকারকে পরামর্শ দিয়েছেন বিশেষজ্ঞরা। তাদের মতে, করোনা মোকাবিলায় গোটা সরকারব্যবস্থাকে যুক্ত করা দরকার।

সুনির্দিষ্ট নীতিমালা ও কর্মপরিকল্পনা থাকা জরুরি

প্রায় ১০ কোটি করোনাভাইরাস ভ্যাকসিন পাওয়ার আশ্বাস মিলেছে। গ্লোবাল অ্যালায়েন্স ফর ভ্যাকসিন অ্যান্ড ইমিউনাইজেশনস (গ্যাভি) ৬ কোটি ৮০ লাখ ও ভারতের সিরাম ইনস্টিটিউট তিন কোটি টিকা দেয়ার আশ্বাস দিয়েছে।

sangbad ad

তদন্ত করে রহস্য উদ্ঘাটন করুন

আবার আগুন লাগল রাজধানীর কালশীর বাউনিয়াবাদের বস্তিতে। এ নিয়ে গত ১১ মাসে সেখানে দুবার অগ্নিকান্ডের ঘটনা ঘটল। কিন্তু এসব অগ্নিকান্ড কেন ঘটছে, তার তদন্ত হচ্ছে না।

গণঅভ্যুত্থান, জাতীয় স্বাস্থ্যনীতি এবং বিএমএ

image

আজ যে সময়ে আমরা শহীদ ডা. মিলনকে স্মরণ করছি তখন গোটা বিশ্ব করোনাভাইরাসের ভয়াল থাবায় অনেকটা পর্যুদস্ত, বিপর্যস্ত অর্থনীতি, অনিশ্চিত ভবিষ্যৎ।

আদিয়স ‘দিয়োস ভিভো’ ম্যারাডোনা

বিশ্ব ফুটবলের অবিসংবাদিত তারকা আর্জেন্টিনার ফুটবলার দিয়েগো ম্যারাডোনা (৬০) গতকাল বুধবার নিজ বাসায় হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন।

এসএমই খাতে ঋণপ্রবাহ বাড়ান নারী উদ্যোক্তাদের উৎসাহিত করুন

ক্ষুদ্র ও মাঝারি শিল্প প্রতিষ্ঠানগুলো (এসএমই) দেশের কর্মসংস্থানের বড় ক্ষেত্রে পরিণত হচ্ছে।

করোনা বর্জ্য ব্যবস্থাপনায় গুরুত্ব দিন

আত্মঘাতী হয়ে উঠছে করোনাভাইরাস (কোভিড-১৯) সংক্রমণ রোধে ব্যবহৃত স্বাস্থ্য সুরক্ষাসামগ্রী।

কাগজের দাম নিয়ে কারসাজি কাম্য নয়

হঠাৎ করেই বই ছাপার কাগজের দাম বাড়িয়ে দিয়েছে দেশীয় কাগজ কলগুলো।

sangbad ad