• banlag
  • newspaper
  • epaper

ঢাকা , বৃহস্পতিবার, ০১ অক্টোবর ২০২০

 

মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রীকে পররাষ্ট্রমন্ত্রীর চিঠি

ইরান-মার্কিন বিরোধেও কি বাংলাদেশ জড়িত থাকবে

নিউজ আপলোড : ঢাকা , মঙ্গলবার, ২৮ মে ২০১৯

মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী মাইক পম্পেওকে লেখা এক চিঠিতে বাংলাদেশের পররাষ্ট্রমন্ত্রী একে আবদুল মোমেন বলেছেন, ইন্দো-প্যাসিফিক স্ট্র্যাটেজির সঙ্গে আছে ঢাকা। গত রোববার প্রকাশিত একটি জাতীয় দৈনিকের প্রতিবেদন থেকে জানা গেছে এ তথ্য। চিঠিতে আরও বলা হয়েছে, বাংলাদেশ অবাধ ও মুক্ত ইন্দো প্যাসিফিক স্ট্র্যাটেজিতে বিশ্বাস করে। বাংলাদেশ অন্তর্ভুক্তিমূলক শান্তিপূর্ণ এবং সংরক্ষিত ইন্দো-প্যাসিফিক অঞ্চল চায়। যেখানে আন্তর্জাতিক নিয়ম-নীতি ও আদেশ মেনে এ অঞ্চলের সবার উন্নতির সুযোগ তৈরি হবে। পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের ঊর্ধ্বতন এক কর্মকর্তা গণমাধ্যমকে বলেছেন, এর মধ্যদিয়ে বাংলাদেশ তার অবস্থান পরিষ্কার করেছে।

গণমাধ্যমে চিঠির যে সরাংশ প্রকাশিত হয়েছে তাতে ইন্দো-প্যাসিফিক স্ট্র্যাটেজি প্রশ্নে বাংলাদেশের অবস্থানে স্পষ্ট না হয়ে ঘোলাটে হয়েছে বলে আমরা মনে করি। পররাষ্ট্রমন্ত্রী চিঠিতে অন্তর্ভুক্তিমূলক, শান্তিপূর্ণ এবং সুরক্ষিত ইন্দো-প্যাসিফিক অঞ্চল কামনা করেছেন। এ অঞ্চলের শান্তি আর সুরক্ষার প্রশ্নটি আপাতত তোলা থাক। উক্ত স্ট্র্যাটেজি অন্তর্ভুক্তিমূলক হয়েছে কিনা সেটা আমরা জানতে চাই। চীন, ইরান, পাকিস্তানের মতো দেশগুলো এ কৌশলে যুক্ত হয়নি। কাজেই একে অন্তর্ভুক্তিমূলক বলা যায় না এবং এর মধ্যে দিয়ে এ অঞ্চলের সবার উন্নতির সুযোগও তৈরি হয়নি। এ অবস্থায় উক্ত স্ট্র্যাটেজির সঙ্গে থাকার ঘোষণা পররাষ্ট্রমন্ত্রী দেন কী করে সেটা ভেবে আমরা বিস্মিত হই। তিনি কি বিষয়টি বুঝে চিঠি লিখেছেন।

চীনের ওয়ান বেল্ট ওয়ান রোডের পাল্টা কৌশল হিসেবে ইন্দো-প্যাসিফিক স্ট্র্যাটেজি প্রণয়ন করা হয়েছে বলে অনেকে মনে করেন। চীন আর উত্তর কোরিয়াকে লক্ষ্য করে যুক্তরাষ্ট্র দীর্ঘদিন ধরে এ অঞ্চলে আধিপত্য বাড়াতে চাচ্ছে। এ অঞ্চলকে ঘিরে তৎপর একাধিক শক্তির কোনটার পক্ষ বাংলাদেশ নেবে, নাকি নিরপেক্ষ থাকবেÑ সেটা একটা প্রশ্ন। যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে যেমন, চীনের সঙ্গেও তেমন বাংলাদেশের মিত্রতার ইতিহাস দীর্ঘ। এ অবস্থায় বাংলাদেশের কারও পক্ষ গ্রহণ করা সমীচীন নয় বলে আমরা মনে করি। ওয়ান বেল্ট ওয়ান রোডের ক্ষেত্রে যেমন, ইন্দো-প্যাসিফিক স্ট্র্যাটেজির ক্ষেত্রেও তেমন পক্ষপাতমুক্ত থাকতে হবে। কিন্তু মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রীকে বাংলাদেশের পররাষ্ট্রমন্ত্রী যে চিঠি দিয়েছেন তাতে বাংলাদেশের নিরপেক্ষতা প্রশ্নবিদ্ধ হয়ে পড়ে। প্রশ্ন উঠতেই পারে, বাংলাদেশের পররাষ্ট্রমন্ত্রীর এ চিঠি ইরান-মার্কিন বিরোধ বা যুদ্ধে বাংলাদেশ কি মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের পক্ষাবলম্বন করবে? এর মধ্যে দিয়ে বাংলাদেশ কোন বিশেষ শিবির যোগ দিল কিনা সে প্রশ্ন উঠতে পারে।

আমরা বলতে চাই, পররাষ্ট্রমন্ত্রীকে তার চিঠির বিষয়টি সুস্পষ্ট করতে হবে। ইন্দো-প্যাসিফিক স্ট্র্যাটেজি বা এরকম যে কোন বিষয় নিয়ে পার্লামেন্টে আলোচনা হতে হবে, জনগণের মধ্যে উন্মুক্ত আলোচনা হতে হবে। জনমত যাচাই না করে কেউ কোন আঞ্চলিক কৌশল বা জোটের সঙ্গে থাকার ঘোষণা দিতে পারেন না বলে আমরা মনে করি।

দৈনিক সংবাদ : ২৮ মে ২০১৯, মঙ্গলবার, ৬ এর পাতায় প্রকাশিত

সাম্প্রদায়িক হামলার বিচারে দীর্ঘসূত্রতা কাম্য নয়

কক্সবাজারের রামু-উখিয়া এবং টেকনাফে বৌদ্ধ সম্প্রদায়ের ওপর হামলার ঘটনার বিচার ৮ বছরেও শেষ হয়নি।

খাদ্যে ট্রান্সফ্যাটের বিপদ সম্পর্কে চাই জনসচেতনতা

চিকিৎসা ও খাদ্য বিজ্ঞানীরা বলছেন, ট্রান্সফ্যাট গ্রহণ এবং হৃদরোগ ঝুঁকির উচ্চহার ব্যাপকভাবে সম্পর্কযুক্ত

প্রকল্পের ব্যয় ও সময় বাড়ানোর অপসংস্কৃতি বন্ধ হবে কবে

অভ্যন্তরীণ নৌ পরিবহন প্রকল্পের কাজই শুরু হয়নি, তার আগেই প্রকল্পের ব্যয় ও সময় বাড়ানোর উদ্যোগ নেয়া হয়েছে। আজ প্রকাশিত

sangbad ad

জনস্বার্থেই জ্বালানি তেলের দাম কমান

আন্তর্জাতিক বাজারে জ্বালানি তেলের রেকর্ড দরপতন সত্ত্বেও দেশে তেলের দাম কমছে না। গত পাঁচ বছর বিশ্ববাজারে জ্বালানি তেলের দাম

ভিয়েতনামে মানবপাচার তদন্ত করে ব্যবস্থা নিন

উচ্চবেতনে চাকরির প্রলোভন দেখিয়ে গত কয়েক বছরে ভিয়েতনামে ১২ শতাধিক বাংলাদেশিকে পাচার করা হয়েছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে।

মতপ্রকাশের বাধাগুলো দূর করুন

তথ্য অধিকার আইন হওয়ার এক দশক পেরিয়ে গেলেও দেশের খুব কম মানুষই জানে এ সম্পর্কে।

ছাত্রলীগের অন্যায়-অপরাধের শেষ কোথায়

সিলেটের মুরারিচাঁদ (এমসি) কলেজের ছাত্রাবাসে শুক্রবার (২৫ সেপ্টেম্বর) রাতে স্বামীকে বেঁধে রেখে এক তরুণীকে গণধর্ষণের ঘটনা ঘটেছে।

করোনাকালে বাল্যবিবাহ রোধে বিশেষ উদ্যোগ নিতে হবে

করোনাভাইরাস সংক্রমণের এ সময়ে দেশে বাল্যবিবাহ প্রায় দ্বিগুণ হারে বৃদ্ধি পেয়েছে বলে জানা গেছে।

স্বাধীন কমিশনগুলোর স্বাধীনতা প্রশ্নবিদ্ধ হয়ে পড়ছে

একাধিক মন্ত্রণালয়ের ওয়েবসাইটে তাদের দফতর বা সংস্থার অধীনে সংশ্লিষ্ট কমিশনকেও যুক্ত করা হয়েছে।

sangbad ad