• banlag
  • newspaper
  • epaper

ঢাকা , বুধবার, ২৭ মার্চ ২০১৯

 

আদিবাসী ও দলিত সম্প্রদায়ের সব নাগরিক অধিকার নিশ্চিত করতে হবে

নিউজ আপলোড : ঢাকা , মঙ্গলবার, ১২ মার্চ ২০১৯

দেশের আদিবাসী ও দলিত জনগোষ্ঠীর নাগরিক অধিকার ও সেবা পাওয়ার ক্ষেত্রে বৈষম্যের শিকার হচ্ছে। ট্রান্সপারেন্সি ইন্টারন্যাশনাল বাংলাদেশের (টিআইবি) এক গবেষণা প্রতিবেদন থেকে জানা গেছে এ তথ্য। ‘বাংলাদেশের আদিবাসী ও দলিত জনগোষ্ঠী : অধিকার ও সেবার অন্তর্ভুক্তির চ্যালেঞ্জ এবং করণীয়’ শীর্ষক প্রতিবেদনটি গত রোববার প্রকাশিত হয়েছে। ২৮ জেলায় বছরব্যাপী চালানো গবেষণায় দেখা গেছে, আদিবাসী ও দলিত জনগোষ্ঠীর মানুষ শিক্ষা, স্বাস্থ্য ভূমিসহ বিভিন্ন নাগরিক অধিকার পাওয়ার ক্ষেত্রে বঞ্চনার শিকার হচ্ছে। তাদের বঞ্চনার অবসান ঘটাতে টিআইবি ১৩টি সুপারিশ করেছে।

আদিবাসী ও দলিত জনগোষ্ঠীর মানুষের বঞ্চনার খবর নতুন নয়। স্বাধীন বাংলাদেশেও তাদের প্রতি হওয়া বৈষম্যের অবসান হয়নি। অর্থনৈতিক উন্নয়নের প্রভাবে তাদের জীবনের কোন কোন ক্ষেত্রে ইতিবাচক পরিবর্তন এলেও বড় কাজের বৈষম্য রয়েই গেছে। এখনও তাদের সন্তানরা শিক্ষা গ্রহণের ক্ষেত্রে নানা প্রতিবন্ধকতার সম্মুখীন হচ্ছে। মাতৃভাষায় শিক্ষা গ্রহণের সুযোগ না পাওয়া বা নিজ ধর্ম শিক্ষা না পাওয়ার বঞ্চনা তো রয়েছেই, অনেক ক্ষেত্রে তারা স্কুলে ভর্তির ক্ষেত্রেও বাধার সম্মুখীন হয়। অভিযোগ রয়েছে, আদিবাসী ও দলিত জনগোষ্ঠীর সন্তানসম্ভবা নারীরা যথাযথ গর্ভকালীন সেবা পান না। তাদের সন্তানরা ঠিক সেবা থেকে বঞ্চিত হয়। অনেক ক্ষেত্রে চিকিৎসক ও নার্সরা অস্পৃশ্য বলে তাদের চিকিৎসাসেবা দিতে অনীহা দেখান। এ থেকে বোঝা যায়, নিজ দেশে তারা মানবেতর জীবনযাপন করছে। শরণার্থী মানুষের জীবনও এত করুণ নয়।

টিআইবির গবেষণা বলছে, দেশের বিদ্যমান আইন ও নীতিমালার নানা সীমাবদ্ধতার কারণে আদিবাসী ও দলিত সম্প্রদায়ের মানুষ বৈষম্যের শিকার হচ্ছে। অভিযোগ রয়েছে, দেশের সংবিধানও তাদের প্রতি সুবিচার করতে পারেনি। সব ধরনের বৈষম্যের অবসান ঘটিয়ে সাম্য প্রতিষ্ঠার লক্ষ্যে একাত্তরে মুক্তিযুদ্ধ হয়েছিল। একাত্তরে বাংলাদেশ স্বাধীন হলেও আদিবাসী ও দলিত সম্প্রদায় সংবিধান স্বীকৃত মৌলিক নাগরিক অধিকারগুলোই পাচ্ছে না। চাকরিতে কোটা ব্যবস্থা থাকার ফলে তাদের আর্থসামাজিক অবস্থার ইতিবাচক পরিবর্তনের সুযোগ ছিল। কোটা ব্যবস্থা বিলুপ্ত করার ফলে সেই সুযোগও রহিত হয়েছে।

আমরা বলতে চাই- শ্রেণী, ধর্ম, বর্ণ নির্বিশেষে দেশের প্রতিটি মানুষের অধিকার নিশ্চিত করতে হবে। যেসব আইন ও নীতি মানুষে মানুষে বৈষম্য তৈরি করছে সেসব আইন ও নীতিতে পরিবর্তন আনতে হবে। আদিবাসী ও দলিত সম্প্রদায়ের সব নাগরিক অধিকার নিশ্চিত করতে প্রয়োজনে সংবিধানে পরিবর্তন আনতে হবে। এ বিষয়ে আমরা মহান সংসদের দৃষ্টি আকর্ষণ করছি। রাষ্ট্রকে মানবিক করতে, মানুষে মানুষে সাম্য প্রতিষ্ঠা করতে যা যা করা দরকার সেটাই করতে হবে।

দৈনিক সংবাদ : ১২ মার্চ ২০১৯, মঙ্গলবার, ৬ এর পাতায় প্রকাশিত

স্বাধীনতা দিবস- আটচল্লিশ বছর পর

চল্লিশ বছর আগে বাংলাদেশ স্বাধীন হয়েছিল একটি সশস্ত্র মুক্তিযুদ্ধের মধ্য দিয়ে। এর আগে

গণতান্ত্রিক রাজনীতির নতুন সূচনা হোক

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় ছাত্র সংসদ (ডাকসু) নির্বাচনের পর প্রথম সভা হয়েছে গত শনিবার। বৈঠকে নবনির্বাচিত ভিপি নুরুল হক নূরসহ বাকি

নিরাপদ সড়কের প্রশ্নে গণমুখী ভূমিকা পালন করুন

রাজধানীর প্রগতি সরণিতে গত মঙ্গলবার সকালে বাসচাপায় মারা গেছেন বাংলাদেশ ইউনিভার্সিটি অব প্রফেশনালসের শিক্ষার্থী আবরার আহমেদ চৌধুরী।

sangbad ad

পাহাড়ে হত্যার রাজনীতির অবসান চাই

রাঙ্গামাটির বাঘাইছড়িতে গত সোমবার সশস্ত্র হামলায় সহকারী প্রিসাইডিং অফিসার, আনসার-ভিডিপির

উপজেলা নির্বাচনে সহিংসতা রোধে কঠোর হোন

উপজেলা নির্বাচনকে কেন্দ্র করে সংঘর্ষে জয়পুরহাটের কালাইয়ে গত শনিবার দু’জন মারা গেছে। নিহতদের

রাজধানীর বায়ুদূষণ রোধে কার্যকর পদক্ষেপ নিন

ঢাকায় বায়ুদূষণের সময় দীর্ঘ হচ্ছে। গত বছর ১৯৭ দিন রাজধানীবাসী দূষিত বাতাসে

গ্যাসের দাম না বাড়িয়ে চুরি-দুর্নীতি বন্ধ করুন

আবাসিকসহ সব ধরনের গ্যাসের দাম গড়ে প্রায় ১০৩ শতাংশ বাড়ানোর প্রস্তাব দিয়েছে

এগিয়ে যাওয়াই সব সংগঠনের কর্তব্য

অনিয়মের অভিযোগ ও বর্জনের মধ্য দিয়ে শেষ হয়েছে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রীয় ছাত্র সংসদ

বিলম্বিত বিচার কাম্য নয়

বিলম্বিত হচ্ছে ফৌজদারি মামলার বিচার প্রক্রিয়া। সাক্ষ্য গ্রহণে বিলম্ব, নিজ হাতে বিচারককে

sangbad ad