• banlag
  • newspaper
  • epaper

ঢাকা , মঙ্গলবার, ২৬ মার্চ ২০১৯

 

অ্যান্টিবায়োটিকের যথেচ্ছ ব্যবহার রোধ করতে হবে

নিউজ আপলোড : ঢাকা , সোমবার, ০৪ মার্চ ২০১৯

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বিএসএমএমইউ) ইনটেনসিভ কেয়ার ইউনিটে (আইসিইউ) চিকিৎসাধীন রোগীদের ২৫ শতাংশই অ্যান্টিবায়োটিক রেজিস্ট্যান্স। বিশেষজ্ঞরা বলছেন, সব হাসপাতালের আইসিইউতেই একই চিত্রের দেখা মেলে। চিকিৎসাধীন অধিকাংশ রোগীর শরীরে সিংহভাগ অ্যান্টিবায়োটিক কাজ করে না। চিকিৎসকরা বলছেন, অ্যান্টিবায়েটিকের যথেচ্ছ ব্যবহারের কারণে ব্যাকটেরিয়া এক ধরনের প্রতিরোধ গড়ে তুলেছে। অ্যান্টিবায়োটিক প্রতিরোধী রূপান্তরিত ব্যাকটেরিয়া মানবস্বাস্থ্যের জন্য মারাত্মক হুমকি হয়ে দেখা দিয়েছে। এ নিয়ে গত রোববার একটি জাতীয় দৈনিক বিস্তারিত প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে।

অ্যান্টিবায়োটিকের যথেচ্ছ ব্যবহার সারা বিশ্বেই উদ্বেগের কারণ হয়ে দাঁড়িয়েছে। বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা একে বিশ্বের স্বাস্থ্য খাদ্য নিরাপত্তা এবং উন্নয়নের জন্য অন্যতম প্রধান হুমকি বলে আখ্যায়িত করেছে। বিশ্বের যে কোন দেশের যে কোন ধরনের মানুষ এত আক্রান্ত হতে পারেন। শুধু মানুষ নয়, প্রাণীকুলের বাকি সদস্যদের মধ্যেও অ্যান্টিবায়োটিক রেজিস্টেন্সি গড়ে উঠতে পারে। বাংলাদেশের অ্যান্টিবায়োটিক রেজিস্টেন্সি দ্রুত বিস্তৃত হচ্ছে। এর কারণ হচ্ছেÑ চিকিৎসক, বিক্রেতা, রোগী প্রায় সবাই কমবেশি অ্যান্টিবায়োটিকের যথেচ্ছ ব্যবহার করছেন। অনেক চিকিৎসক অপ্রয়োজনে অ্যান্টিবায়োটিক দেন বলে অভিযোগ রয়েছে। আবার রোগীর মনস্তত্ত্বের কারণেও অনেক চিকিৎসক অনীহা সত্ত্বেও এটা প্রেসক্রাইব করেন। অনেক ক্ষেত্রে রোগী নিজেই ফার্মেসি থেকে ওষুধ কিনে খান। ওষুধ বিক্রিতে বিক্রেতারাও কোন নিয়মনীতির তোয়াক্কা করেন না। ওষুধের কোর্স পূর্ণ করা বা যথাযথ মাত্রার ওষুধ সেবন সম্পর্কে অনেক রোগীই সচেতন নন। যথেচ্ছ এবং অপূর্ণাঙ্গ ব্যবহারের কারণে ব্যাকটেরিয়া হয়ে উঠছে অ্যান্টিবায়োটিক প্রতিরোধী। এর ভয়ানক দিক হচ্ছে, সাধারণ ব্যাকটেরিয়ার আক্রমণেই মানুষ অসুস্থ হয়ে পড়ছে। তার অসুস্থতা দীর্ঘ হচ্ছে চিকিৎসা ব্যয় বাড়ছে। এ কারণে বহু রোগীর মৃত্যু ত্বরান্বিত হচ্ছে।

আশার কথা হচ্ছে, অ্যান্টিবায়োটিকের ব্যবহার সম্পর্কে ইতোমধ্যে বিশ্ব সচেতন হয়েছে দেশেও সচেতনতা তৈরি হচ্ছে। সরকার ইতোমধ্যে অ্যান্টিবায়োটিকের যথার্থ ব্যবহার নিশ্চিত করার লক্ষ্যে কিছু পদক্ষেপ নিয়েছে। আমরা চাইব, কাজগুলো সরকার দ্রুত বাস্তবায়ন করবে। এ সংক্রান্ত জাতীয় পরিকল্পনার পূর্ণাঙ্গ বাস্তবায়ন ঘটাতে হবে। ওষুধ উৎপাদন থেকে শুরু করে জোগান পর্যন্ত প্রতিটি স্তরে কঠোর নজরদারি চালু করতে হবে। বিনা প্রেসক্রিপশনে একটি অ্যান্টিবায়োটিকও যেন বিক্রি না হয় সেটা নিশ্চিত করা জরুরি। চিকিৎসকদেরকে প্রো-অ্যাক্টিভ হয়ে এর ব্যবহার সম্পর্কে রোগীদের সচেতন করতে হবে। বিনা প্রয়োজনে কেউ যেন ওষুধ না খান বা খেলে যেন কোর্স পূর্ণ করেন সেটা নিশ্চিত করতে হবে।

দৈনিক সংবাদ : ৪ মার্চ ২০১৯, সোমবার, ৬ এর পাতায় প্রকাশিত

স্বাধীনতা দিবস- আটচল্লিশ বছর পর

চল্লিশ বছর আগে বাংলাদেশ স্বাধীন হয়েছিল একটি সশস্ত্র মুক্তিযুদ্ধের মধ্য দিয়ে। এর আগে

গণতান্ত্রিক রাজনীতির নতুন সূচনা হোক

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় ছাত্র সংসদ (ডাকসু) নির্বাচনের পর প্রথম সভা হয়েছে গত শনিবার। বৈঠকে নবনির্বাচিত ভিপি নুরুল হক নূরসহ বাকি

নিরাপদ সড়কের প্রশ্নে গণমুখী ভূমিকা পালন করুন

রাজধানীর প্রগতি সরণিতে গত মঙ্গলবার সকালে বাসচাপায় মারা গেছেন বাংলাদেশ ইউনিভার্সিটি অব প্রফেশনালসের শিক্ষার্থী আবরার আহমেদ চৌধুরী।

sangbad ad

পাহাড়ে হত্যার রাজনীতির অবসান চাই

রাঙ্গামাটির বাঘাইছড়িতে গত সোমবার সশস্ত্র হামলায় সহকারী প্রিসাইডিং অফিসার, আনসার-ভিডিপির

উপজেলা নির্বাচনে সহিংসতা রোধে কঠোর হোন

উপজেলা নির্বাচনকে কেন্দ্র করে সংঘর্ষে জয়পুরহাটের কালাইয়ে গত শনিবার দু’জন মারা গেছে। নিহতদের

রাজধানীর বায়ুদূষণ রোধে কার্যকর পদক্ষেপ নিন

ঢাকায় বায়ুদূষণের সময় দীর্ঘ হচ্ছে। গত বছর ১৯৭ দিন রাজধানীবাসী দূষিত বাতাসে

গ্যাসের দাম না বাড়িয়ে চুরি-দুর্নীতি বন্ধ করুন

আবাসিকসহ সব ধরনের গ্যাসের দাম গড়ে প্রায় ১০৩ শতাংশ বাড়ানোর প্রস্তাব দিয়েছে

এগিয়ে যাওয়াই সব সংগঠনের কর্তব্য

অনিয়মের অভিযোগ ও বর্জনের মধ্য দিয়ে শেষ হয়েছে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রীয় ছাত্র সংসদ

আদিবাসী ও দলিত সম্প্রদায়ের সব নাগরিক অধিকার নিশ্চিত করতে হবে

দেশের আদিবাসী ও দলিত জনগোষ্ঠীর নাগরিক অধিকার ও সেবা পাওয়ার ক্ষেত্রে বৈষম্যের

sangbad ad