• banlag
  • newspaper
  • epaper

ঢাকা , মঙ্গলবার, ২২ জানুয়ারী ২০১৯

 

ঐক্যফ্রন্টে ভাঙনের আলামত

গণফোরামের দুই বিজয়ী প্রার্থীর শপথ নেয়ার ইঙ্গিত, শরিকদের মধ্যে মতভেদ

নিউজ আপলোড : ঢাকা , রবিবার, ০৬ জানুয়ারী ২০১৯

সংবাদ :
  • অমিত হালদার

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের পর নির্বাচিত সংসদ সদস্যদের শপথ গ্রহণ নেয়া না নেয়াকে কেন্দ্র করে জাতীয় ঐক্যফ্রন্টে ভাঙনের আলামত পাওয়া যাচ্ছে। নির্বাচনে গণফোরামের বিজয়ী দুই প্রার্থীর শপথ নেয়ার ব্যাপারে ইতিবাচক সিদ্ধান্ত নিয়েছেন দলীয় প্রধান ড. কামাল হোসেন। অন্যদিকে ধানের শীষ প্রতীকে নির্বাচিত প্রার্থীদের শপথ না নেয়ার সিদ্ধান্তের কথা জানিয়েছেন বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। শপথ না নেয়ার সিদ্ধান্ত বিএনপি সরাসরি জানালেও নির্বাচনে গণফোরাম থেকে বিজয়ী দুজন সংসদ সদস্য হিসেবে শপথ নেয়ার সিদ্ধান্তে ঐক্যফ্রন্টের শরিকদের মধ্যে মতভেদ দেখা দিয়েছে। চমক সৃষ্টি করে জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট ভেঙে যাবে কি-না তা নিয়ে জনমনে প্রশ্ন উঠেছে।

একাদশ সংসদ নির্বাচনকে কেন্দ্র করে একটি চমক সৃষ্টি করে বিএনপি, গণফোরাম, নাগরিক ঐক্য ও জেএসডির সমন্বয়ে গঠিত হয় জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট। শুরু থেকেই বিএনপির অন্যতম জোটসঙ্গী যুদ্ধাপরাধীর দল জামায়াতকে নিয়ে বিতর্ক সৃষ্টি হয়। এক পর্যায়ে জামায়াতকে বাইরে রেখে ড. কামাল হোসেনের নেতৃত্বে গঠিত হয় জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট। তবে বিএনপি নির্বাচনে জামায়াতকে ধানের শীষ প্রতীকে মনোনয়ন দেয়ার অসন্তোষ শুরু হয় ঐক্যফ্রন্টে। নির্বাচনের পর নির্বাচনের ফল প্রত্যাখ্যান করে পুনর্নির্বাচনের দাবি তোলে জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট। এর পর বিজয়ীদের শপথ নেয়া নিয়ে সংশয় দেখা দেয়।

শনিবার (৫ জানুয়ারি) রাজধানীর শিশু কল্যাণ পরিষদ মিলনায়তনে গণফোরামের কেন্দ্রীয় কমিটির বর্ধিত সভা শেষে সংবাদ সম্মেলনে ড. কামাল বলেন, গণফোরাম থেকে নির্বাচিতদের শপথ নেয়ার বিষয়ে আমরা ইতিবাচক মনোভাব পোষণ করছি। তিনি বলেন, বিরোধী দল থেকে তারা নির্বাচিত হয়েছেন। নির্বাচনে গণফোরামের দু’জন তীব্র প্রতিযোগিতার মধ্য দিয়ে নির্বাচিত হয়েছেন। এটা তাদের অর্জন। তাদের অভিনন্দন জানাই। তারা এই অর্জন ধরে রেখে ইতিবাচক ভূমিকা রাখার চেষ্টা করবে। আমরা তাদের শপথ নেয়ার বিষয়ে ইতিবাচক। গণফোরাম থেকে জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের প্রার্থী হিসেবে ‘ধানের শীষ’ প্রতীক নিয়ে মৌলভীবাজার-২ আসনে জয়ী হয়েছেন সাবেক আওয়ামী লীগ নেতা ও ডাকসু ভিপি সুলতান মোহাম্মদ মনসুর এবং সিলেট-২ আসনে ঐক্যফ্রন্ট প্রার্থী হিসেবে জয়ী গণফোরামের মুকাব্বির খান দলীয় প্রতীক ‘উদীয়মান সূর্য’ নিয়ে জয়লাভ করেন।

সংবাদ সম্মেলনে সাংবাদিকরা প্রশ্ন করেন, বিএনপি যেহেতু শপথ না নেয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে, তাদের প্রতীকে ভোট করে গণফোরাম সদস্য শপথ নিলে তা দুই দলের মধ্যে অনৈক্য সৃষ্টি করবে কি না? উত্তরে ড. কামাল বলেন, আমার মনে হয় না। সংবাদ সম্মেলনে সুলতান মনসুর এবং সুব্রত চৌধুরী, জগলুল হায়দার আফ্রিকসহ গণফোরামের কেন্দ্রীয় নেতারাও ছিলেন।

ধানের শীষ প্রতীক নিয়ে গণফোরাম থেকে জয়ী সুলতান মোহাম্মদ মনসুর শনিবার সংবাদকে বলেন, আমরা জনগণের প্রতিনিধি হিসেবে জয়ী হয়েছি। আমরা শপথ নেয়ার বিষয়ে ইতিবাচক। এতে ঐক্যফ্রন্টের মধ্যে অনৈক্য সৃষ্টি করবে কি না? এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, এ বিষয়ে আমি কিছু বলব না।

গত বৃহস্পতিবার (৩ জানুয়ারি) আওয়ামী লীগ এবং জাতীয় পার্টিসহ তাদের রাজনৈতিক মিত্রদের সবাই সংসদ সদস্য হিসেবে শপথ নিলেও উপস্থিত ছিলেন না ঐক্যফ্রন্ট থেকে ভোটে বিজয়ী বিএনপির পাঁচজন এবং গণফোরামের দুজন। নির্বাচনের পর বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর একাধিকবার বলেছেন, শপথ তো পার হয়ে গেছে, প্রত্যাখ্যান করলে শপথ থাকে নাকি আর? আমরা শপথ নিচ্ছি না, পরিষ্কার করে বললাম। তার দুদিন পর শনিবার গণফোরামের এক বৈঠকে শপথ নেয়ার ব্যাপারে ইতিবাচক সিদ্ধান্ত পাওয়া গেল।

ঐক্যফ্রন্ট গঠনের পর প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে সংলাপে খালেদা জিয়ার মুক্তির বিষয়টিতে সবচেয়ে বেশি গুরুত্ব দেয়ার কথা মির্জা ফখরুল বললেও ড. কামাল বলেছিলেন, দলীয় স্বার্থের চেয়ে জাতীয় স্বার্থই এখানে গুরুত্বপূর্ণ। পরে ৭ দফা দাবি পূরণে নির্বাচন কমিশনের আশ্বাসে ড. কামাল আশ্বস্ত হওয়ার কথা জানালেও বিএনপির মহাসচিবের কথায় ছিল ভিন্ন সুর। তবে ভোটের পর দুজনে একসঙ্গে সংবাদ সম্মেলনে এসে পুনর্নির্বাচনের দাবি তোলেন। বৃহস্পতিবার জোটের নেতারা একসঙ্গে ইসিতে গিয়ে স্মারকলিপিও দিয়েছিলেন। এর পরই শপথ নিয়ে ভিন্নমত তৈরি হলো।

জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের এক নেতা নাম প্রকাশ না করার শর্তে বলেন, গণফোরামের ২ জনসহ ৭ জনের বিষয়ে একাধিকবার অনানুষ্ঠানিক বৈঠক হয়েছে। কিন্তু শপথ না নেয়ার বিষয়ে বিএনপি এখনও অনড় থাকায় বিষয়টির সুরাহা হয়নি। মূলত গণফোরামের সঙ্গে কোন ঐক্যমতে পৌঁছাতে না পারায় বৃহস্পতিবার শপথ নেয়া হয়নি। এ ব্যাপারে ফের জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের বৈঠক হতে পারে। শপথ নেয়ার বিষয়ে বিএনপির একাধিক নেতার কাছে জানতে চাইলে কথা বলতে অপরাগতা প্রকাশ করেন তারা।

এককভাবে উপজেলা নির্বাচন করবে আওয়ামী লীগ

ফয়েজ আহমেদ তুষার

image

জোটগতভাবে একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন করলেও আসন্ন (পঞ্চম) উপজেলা

নির্বাচন বাতিলে ঐক্যফ্রন্টের আবেদন আমলে নেয়নি ইসি

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক

নির্বাচন বাতিলের দাবি করে জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের করা আবেদন আমলে নেয়নি নির্বাচন

আবার সংলাপ : দলগুলোকে চিঠি দিয়ে আমন্ত্রণ জানাবেন প্রধানমন্ত্রী

ফয়েজ আহমেদ তুষার ও ইকবাল মজুমদার তৌহিদ

image

প্রধানমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনা রাজনৈতিক দলগুলোর সঙ্গে আবারও সংলাপে বসবেন। আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় সূত্রে জানা

sangbad ad

গণতন্ত্রের স্বার্থে বিএনপিকে সংসদে যোগদানের আহ্বান প্রধানমন্ত্রীর

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক

image

প্রধানমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনা গণতন্ত্রের স্বার্থে জনমতের প্রতি সম্মান

এখন নালিশই বিএনপির অবলম্বন : কাদের

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক

image

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, আন্দোলনে

এমিলির মন্ত্রিত্ব মুন্সীগঞ্জবাসীর প্রত্যাশা

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক

image

আওয়ামী লীগ নেতৃত্বাধীন সরকারের টানা দশ বছরে মুন্সীগঞ্জ থেকে কোন সংসদ সদস্য মন্ত্রিত্ব

ঐক্যফ্রন্টের নির্বাচিত প্রার্থীরা শপথ গ্রহন করবেন : ১৪ দলের আশা প্রকাশ

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক

image

জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট ও তাদের প্রধান শরীক বিএনপি থেকে যারা সংসদ সদস্য নির্বাচিত

বিএনপির রাজনৈতিক ভবিষ্যৎ ও নেতৃত্ব নিয়ে জল্পনা-কল্পনা

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে বিএনপির ভরাডুবির পর দলটির রাজনৈতিক ভবিষ্যৎ

নেতাদের ভুলে বিএনপির ভরাডুবি : কাদের

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক

image

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের

sangbad ad