• banlag
  • newspaper
  • epaper

ঢাকা , সোমবার, ১৮ নভেম্বর ২০১৯

 

‘ডিপ্লোম্যাট’-এ শেখ হাসিনা: দ্য মাদার অব হিউম্যানিটি

নিউজ আপলোড : ঢাকা , রোববার, ১৫ সেপ্টেম্বর ২০১৯

সংবাদ :
  • কূটনৈতিক বার্তা পরিবেশক
image

নেদারল্যান্ডসের কূটনীতি বিষয়ক বিখ্যাত ম্যাগাজিন ‘ডিপ্লোম্যাট’ তাদের চলতি সংখ্যার প্রচ্ছদ করেছে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে নিয়ে। ‘শেখ হাসিনা: দ্য মাদার অব হিউম্যানিটি’ শিরোনামের খবর প্রকাশ করেছে ম্যাগাজিনটি। বৃহস্পতিবার (১২ সেপ্টেম্বর) হেগ শহরের একটি হোটেলে ডিপ্লোম্যাট ম্যাগাজিনের প্রকাশক মেইলিন ডি লারা এবং নেদারল্যান্ডসে নিযুক্ত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত শেখ মুহম্মদ বেলাল উপস্থিত রাষ্ট্রদূতদের সঙ্গে নিয়ে ম্যাগাজিনটির মোড়ক উন্মোচন করেন। নেদারল্যান্ডস’র বাংলাদেশ দূতাবাস থেকে পাঠানো এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, মরক্কো, তিউনিসিয়া, অ্যাঙ্গোলা, সুইডেন, ফিনল্যান্ড, লুক্সেমবার্গ, ইউক্রেন, বসনিয়া-হার্জেগোভিনা, ভ্যাটিকান, কসোভো, ব্রাজিল, কিউবা, পেরু, চিলি, ভেনিজুয়েলা এবং ইকুয়েডরের রাষ্ট্রদূত, রাশিয়ান ফেডারেশন, জর্জিয়া, আর্জেন্টিনা ও আজারবাইজানের ভারপ্রাপ্ত রাষ্ট্রদূত এবং মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র, কেনিয়া, পোল্যান্ড ও পানামা দূতাবাসের কূটনৈতিক প্রতিনিধিরা অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন।

মোড়ক উন্মোচন অনুষ্ঠানে রাষ্ট্রদূত শেখ মুহম্মদ বেলাল উপস্থিত সবাইকে অবহিত করেন কী করে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা মিয়ানমার-বাংলাদেশ সীমান্ত উন্মুক্ত করে দেওয়ার বলিষ্ঠ সিদ্ধান্ত গ্রহণ করে লাখ লাখ নির্যাতিত রোহিঙ্গার জীবন রক্ষা করেছেন, আর বিশ্ববাসীর কাছে কীভাবে তিনি ‘মাদার অব হিউম্যানিটি’ হিসেবে পরিচিতি লাভ করেছেন। প্রচ্ছদ হিসেবে শেখ হাসিনার ‘মাদার অব হিউম্যানিটি’ সংক্রান্ত খবরকে বেছে নেওয়ার জন্য ডিপ্লোম্যাট ম্যাগাজিনকে ধন্যবাদ জানিয়েছেন তিনি।

২০১৭ সালের ২৫ আগস্ট রাখাইনের কয়েকটি নিরাপত্তা চৌকিতে হামলার পর পূর্ব-পরিকল্পিত ও কাঠামোবদ্ধ সহিংসতা জোরালো করে মিয়ানমারের সেনাবাহিনী। জাতিগত নিধন থেকে বাঁচতে বাংলাদেশ সীমান্তে ভিড় করতে শুরু করে তারা। সে সময় বাংলাদেশের পক্ষ থেকে সীমান্ত উন্মুক্ত করে দেওয়া হয়। এর সুযোগ নিয়ে ৭ লাখেরও বেশি রোহিঙ্গা কক্সবাজারের শরণার্থী শিবিরে আশ্রয় নেয়। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বাংলাদেশে রোহিঙ্গা স্রোত জোরালো হওয়ার এক মাসের মাথায় মন্তব্য করেন, ‘আমরা ১৬ কোটি মানুষকে খাবার দেই। সুতরাং বিপদে পড়ে আমাদের দেশে আসা দুই-পাঁচ-সাত লাখ মানুষকে খাবার দেওয়ার ক্ষমতাও আমাদের আছে।’ তার এই ভূমিকা বিশ্বজুড়ে শংসিত হয়। তিনি খ্যাত হন ‘মাদার অব হিউম্যানিটি’ পরিচয়ে।

এক সপ্তাহের মধ্যে দাম নিয়ন্ত্রণে না আসলে বিষয়টি দেখবে উচ্চ আদালত

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক

image

অস্বাভাবিকভাবে বেড়ে যাওয়া পিয়াজের দাম নিয়ন্ত্রণে আপাতত কোন হস্তক্ষেপ করবে না হাইকোর্ট। তবে এক সপ্তাহের মধ্যে দাম নিয়ন্ত্রণে

অর্থনৈতিক স্থিতিশীলতা বজায় রাখতে সরকারি ব্যয়ে স্বচ্ছতা ও জবাবদিহিতা নিশ্চিত করতে হবে : স্পিকার

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক

image

স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী বলেছেন, অর্থনৈতিক স্থিতিশীলতা ও গণতন্ত্র শক্তিশালী করতে সরকারি ব্যয়ে স্বচ্ছতা ও জবাবদিহিতা

সৌদি আররে নির্যাতিত নারীশ্রমিক ও তাদের পরিবারগুলোর ক্ষতিপূরণের দাবি

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক

image

সৌদি আররে নির্যাতন-নিপীড়নের শিকার নারীশ্রমিক ও তাদের পরিবারকে যথাযথ ক্ষতিপূরণ দেয়ার পাশাপাশি তাদের নিরাপত্তা নিশ্চিত

sangbad ad

সরকারি আইন কর্মকর্তা নিয়োগে স্বাধীন প্রসিকিউশন কেন নয়?

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক

image

সরকারি আইন কর্মকর্তা নিয়োগে স্বাধীন প্রসিকিউশন/অ্যাটর্নি সার্ভিস কমিশন

পদ্মা সেতুর ব্যয় তিন দফায় বেড়ে ৩০ হাজার কোটি টাকা

মাহমুদ আকাশ

image

ঋণের টাকায় নির্মাণ হচ্ছে ৬ দশমিক ১৫ কিলোমিটার দীর্ঘ স্বপ্নে পদ্মা সেতু। তবে বিদেশি নয়, স্বয়ং অর্থ মন্ত্রণালয়ের ঋণের টাকায় নির্মাণ

সার্বজনীন স্বাস্থ্যসেবা নিশ্চিতে সবাইকে একযোগে কাজ করার আহ্বান স্পিকারের

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক

image

স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী সার্বজনীন স্বাস্থ্যসেবা নিশ্চিতে সবাইকে একযোগে কাজ করার আহ্বান জানিয়েছেন। ১৬ নভেম্বর শনিবার

মুজিববর্ষে ঘরে ঘরে জ্বলবে বিদ্যুতের আলো : প্রধানমন্ত্রী

বাসস

image

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা দৃঢ় আশাবাদ ব্যক্ত করে বলেছেন, তার সরকার ২০২১ সাল নাগাদ সব উপজেলায় শতভাগ বিদ্যুতায়নের মাধ্যমে

দেশে খেলাপি ঋণের পরিমাণ ১ লাখ ১৪ হাজার ৯৭ কোটি টাকা : সংসদে অর্থমন্ত্রী

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক

image

অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল বলেছেন, গত জুন পর্যন্ত দেশে ঋেলাপি ঋণের পরিমাণ ১ লাখ ১৪ হাজার ৯৭ কোটি টাকা। এসব ঋণের মধ্যে

মানুষের কল্যাণে প্রয়োজনে বাবার মত জীবনটাও দিয়ে যাবো

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক

image

প্রধানমন্ত্রী ও সংসদ নেতা শেখ হাসিনা বলেছেন, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান দেশের মানুষের জন্য জীবন দিয়ে গেছেন।

sangbad ad