• banlag
  • newspaper
  • epaper

ঢাকা , সোমবার, ২৬ অক্টোবর ২০২০

 

সর্বোচ্চ শাস্তি মৃত্যুদণ্ডের বিধান রেখে ধর্ষকের বিচার ৬ মাসের মধ্যে শেষ করতে হবে

নিউজ আপলোড : ঢাকা , সোমবার, ১২ অক্টোবর ২০২০

সংবাদ :
  • সংবাদ অনলাইন ডেস্ক
image

ধর্ষণের সর্বোচ্চ শাস্তি মৃত্যুদণ্ডের ‘নারী ও শিশু নির্যাতন দমন (সংশোধন) অধ্যাদেশ, ২০০০’ এর খসড়া চূড়ান্ত অনুমোদন দিয়েছে মন্ত্রিসভা। এই আইনে মামলা শুরু থেকে বিচার কাজ ছয় মাসে অর্থাৎ ১৮০ দিনে শেষ করার কথা বলা হয়েছে। বিচারক বদলি হলেও মামলার ধারাবাহিকতা অব্যাহত থাকবে। মঙ্গলবার (১৩ অক্টোবর) এ বিষয়ে রাষ্ট্রপতি অধ্যাদেশ জারি করবেন। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সভাপতিত্বে সোমবার (১২ অক্টোবর) ভার্চুয়াল মন্ত্রিসভা বৈঠকে এই আইনের সংশোধনের প্রস্তাব অনুমোদন দেয়া হয়। প্রধানমন্ত্রী তার গণভবন কার্যালয় থেকে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে যুক্ত হন। আর সচিবালয় থেকে মন্ত্রিসভার সদস্যরা যুক্ত ছিলেন।

মন্ত্রিসভার বৈঠক শেষে আইন, বিচার ও সংসদবিষয়ক মন্ত্রী আনিসুল হক এ তথ্য জানিয়ে বলেন, ‘সংশোধিত আইন মন্ত্রিসভা বৈঠকে অনুমোদন দেয়া হয়েছে। সংশোধিত আইন অনুযায়ী সর্বোচ্চ শাস্তি মৃত্যুদণ্ড, যাবজ্জীবনও থাকছে। মঙ্গলবারই সংশোধিত আইনের অধ্যাদেশ জারি করা হবে।’ পরে প্রেস ব্রিফিং এই আইনের বিষয়ে বিস্তারিত তুলে ধরেন মন্ত্রিপরিষদ সচিব খন্দকার আনোয়ারুল ইসলাম।

নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইন অনুযায়ী, বর্তমানে ধর্ষণের সর্বোচ্চ শাস্তি যাবজ্জীবন কারাদণ্ড। সম্প্রতি দেশজুড়ে ধর্ষণ ও নারী নির্যাতন বিরোধী আন্দোলন এবং ধর্ষণকারীদের সর্বোচ্চ শাস্তি মৃত্যুদণ্ড করার দাবি উঠে, এ প্রেক্ষিতেই সরকার আইন সংশোধনের উদ্যোগ নিয়েছে।

গত কিছু দিনের ঘটনার পরিপ্রেক্ষিতে মহিলা ও শিশুবিষয়ক মন্ত্রণালয় থেকে নারী ও শিশু নির্যাতনমূলক অপরাধগুলো কঠোরভাবে দমনের জন্য নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনের ৯(১) উপধারা পরিবর্তনের সিদ্ধান্ত নেয় জানিয়ে মন্ত্রিপরিষদ সচিব বলেন, ‘এই উপধারায় বিধান ছিল-যদি কোন পুরুষ কোন নারী বা শিশুকে ধর্ষণ করেন, তা হলে তিনি যাবজ্জীবন সশ্রম কারাদণ্ডে দণ্ডনীয় হবেন এবং এর অতিরিক্ত অর্থদণ্ডেও দণ্ডনীয় হবেন। এটার পরিপ্রেক্ষিতে মন্ত্রণালয় থেকে প্রস্তাব আসে নারী বা শিশু ধর্ষণ একটি জঘন্য অপরাধ, সমাজে নারী বা শিশু নির্যাতন কঠোরভাবে দমনের লক্ষ্যে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনের ৯(১) উপধারায় অধীন ধর্ষণের অপরাধের জন্য মৃত্যুদণ্ড অথবা যাবজ্জীবন সশ্রম কারাদণ্ড প্রদানের লক্ষ্যে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইন-২০০০ সংশোধন করা প্রয়োজন।’

মঙ্গলবার অধ্যাদেশ জারির বিষয়ে মন্ত্রিপরিষদ সচিব বলেন, ‘যেহেতু বর্তমানে সংসদের অধিবেশন নেই এবং আশুব্যবস্থা গ্রহণ খুবই জরুরি হয়ে পড়েছে সেজন্য মহামান্য রাষ্ট্রপতির কাছে যদি সন্তোষজনকভাবে প্রতীয়মান হয় তাহলে তিনি সংবিধানের ৯৩(১) প্রদত্ত ক্ষমতাবলে অধ্যাদেশ প্রণয়ন ও জারি করতে পারবেন।’

লেজিসলেটিভ বিভাগের ভেটিংয়ের প্রেক্ষিতে চূড়ান্ত অনুমোদন দেয়া হয়েছে জানিয়ে খন্দকার আনোয়ারুল ইসলাম বলেন, ‘সংশোধিত আইন অনুযায়ী ৯(১) উপধারায় ‘যাবজ্জীবন সশ্রম কারাদণ্ড’ শব্দগুলোর পরিবর্তে ‘মৃত্যুদণ্ড বা যাবজ্জীবন সশ্রম কারাদণ্ড’ শব্দগুলো প্রতিস্থাপিত হবে।’

ধর্ষণের ‘ডেফিনেশনের’ (সংজ্ঞা) পরিবর্তনের বিষয়ে মন্ত্রিসভায় কোন আলোচনা হয়নি জানিয়ে মন্ত্রিপরিষদ সচিব বলেন, ‘২০০০ সালের নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনের ১১ (গ), ২০ (৭) উপধারা সংশোধন করতে হবে। ধর্ষণ ছাড়া সাধারণ জখম হলে কম্পাউন্ড করা যাবে। আগের আইনে ১৯৭৪ সালের শিশু আইনের রেফারেন্স ছিল। ২০০৩ সালে শিশু আইন প্রচলন করা হয়। এ বিষয়টি সংশোধন করা হচ্ছে।’

ধর্ষণের মামলার বিচার কার্যক্রম কতদিনের মধ্যে সম্পন্ন করা হবে-জানতে চাইলে মন্ত্রিপরিষদ সচিব বলেন, ‘আগের আইনের ২০(৩) ধারায় এটা আছে, ১৮০ দিনের মধ্যে হবে। নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালে বিচার হবে। এখানে বিচার পদ্ধতি মেনশন করা আছে। নারী শিশু নির্যাতন ট্রাইব্যুনাল এটি করবে এবং শেষ করতে হবে ১৮০ দিনের মধ্যে। বিচারক যদি কোন কারণে বদলি হয়ে যান সেক্ষেত্রেও বিলম্ব হয় অনেক সময়। তবে কোন বিচারক চলে গেলে তিনি মামলা যে অবস্থায় রেখে যাবেন সে অবস্থা থেকে মামলা চালিয়ে যেতে হবে।’

শুধু আন্দোলনের পরিপ্রেক্ষিতে এই আইনে পরিবর্তন আনা হচ্ছে না জানিয়ে খন্দকার আনোয়ারুল ইসলাম বলেন, ‘অনেকগুলো দেশের আইন চেক করে দেখেছে আমাদের আইন মন্ত্রণালয় ও মহিলাবিষয়ক মন্ত্রণালয়। আর বর্তমান পরিস্থিতি ও বাস্তবতা সবকিছু মিলেই এটা হয়েছে। শুধু আন্দোলনের জন্য তো জিনিসটা আসেনি। সরকারের মধ্য থেকেও এটার পক্ষে একটা প্রচারণা আসছে। মানুষের অ্যাওয়ারনেসের কারণে হয়তো এটা আসছে, সেটা হতে পারে।’

মন্ত্রিপরিষদ সচিব বলেন, ‘এই আইনে বলা হয়েছে আরোপিত অর্থদণ্ডকে, প্রয়োজনবোধে, ট্রাইব্যুনাল অপরাধের কারণে ক্ষতিগ্রস্ত ব্যক্তির জন্য ক্ষতিপূরণ হিসেবে গণ্য করিতে পারিবে এবং অর্থদণ্ড বা ক্ষতিপূরণের অর্থ দণ্ডিত ব্যক্তির কাছ হইতে বা তাহার বিদ্যমান সম্পদ হইতে আদায় করা সম্ভব না হইলে, ভবিষ্যতে তিনি যে সম্পদের মালিক বা অধিকারী হইবেন সেই সম্পদ হইতে আদায়যোগ্য হইবে এবং এইরূপ ক্ষেত্রে ওই সম্পদের ওপর অন্যান্য দাবি অপেক্ষা ওই অর্থদণ্ড বা ক্ষতিপূরণের দাবি প্রাধান্য পাইবে। এটা যাতে আরেকটু প্রমিনেন্টলি আসে ট্রায়ালে, সেটা চিন্তা করা হবে।’

আগের আইনে যাবজ্জীবন ছিল, সেই শাস্তিও দেয়া যায়নি, এখন সর্বোচ্চ শাস্তি মৃত্যুদণ্ড করে কি লাভ হবে-জানতে চাইলে মন্ত্রিপরিষদ সচিব বলেন, ‘যেভাবে প্রমোশন ক্যাম্পেইন হচ্ছে, এটাও তো একটা প্রমোশনের জায়গা। এটা অবশ্যই সাধারণ মানুষের মধ্যে ইতিবাচক প্রভাব ফেলবে। যারা ক্রাইম করে তারা অন্তত দুইবার চিন্তা করবে যে, এটাতে তো মৃত্যুদণ্ড আছে। এখন তো আর যাবজ্জীবন কারাদণ্ড নয়। ১৮০ দিন তো দীর্ঘ সময়ও নয়। ডেফিনেটলি এটার পজেটিভ ইম্প্যাক্ট হবে।’

সম্প্রতি দেশের বিভিন্ন স্থানে বেশ কয়েকটি ধর্ষণের ঘটনা ঘটেছে। এরমধ্যে গত ৪ অক্টোবর নোয়াখালীতে এক নারীকে (৩৭) বিবস্ত্র করে নির্যাতনের এক ভিডিও সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ভাইরাল হয়। এই ঘটনা ভাইরাল হওয়ার পর দেশজুড়ে সমালোচনার ঝড় ওঠে। জড়িতদের অধিকাংশকে গ্রেফতার করে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী। ধর্ষণ ও নারী নির্যাতনের বিরুদ্ধে সারাদেশে প্রতিবাদের ঝড় উঠেছে। আন্দোলনকারীরা ধর্ষণকারীদের সর্বোচ্চ শাস্তি মৃত্যুদণ্ড করার দাবি জানিয়েছে।

আ. লীগ কখনোই সাম্প্রদায়িক ভেদাভেদকে প্রশ্রয় দেয়নি: পলক

সংবাদ অনলাইন ডেস্ক

image

আওয়ামী লীগের অসাম্প্রদায়িক চেতনা দেশে সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতির আবহ সৃষ্টি করেছে এমন মন্তব্য করে তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক বলেছেন, আওয়ামী লীগ কখনোই সাম্প্রদায়িক ভেদাভেদকে প্রশ্রয় দেয়নি বরং জাতি-ধর্ম-বর্ণভেদে সকল মানুষকে এক করে দেখার পাশাপাশি সমঅধিকার নিশ্চিত করেছে। আওয়ামী লীগের সমঅধিকার ও অসাম্প্রদায়িক চেতনা বোধ এদেশে ঈদ, পূজা, বড়দিনসহ সকল উৎসবকে সার্বজনীন করেছে।

রোহিঙ্গা সংকট সমাধানে জাপান ও মিশরের সহযোগীতা চাইলেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক

image

রোহিঙ্গা সংকট সমাধানে জাপান ও মিশরের সহযোগীতা চাইলেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. একে আব্দুল মোমেন। গতকাল রোববার পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে দুইদেশের রাষ্ট্রদূতের সাথে পৃথক বৈঠকে এই অঞ্চলে শান্তি, নিরাপত্তা ও স্থিতিশীলতার জন্যই রোহিঙ্গাদের নিজভূমিতে ফেরানোর ওপর জোর দিয়ে এই সহযোগীতার কথা ব্যক্ত করেন তিনি।

জাতির জনক বঙ্গবন্ধুর ম্যূরাল উদ্বোধন করলেন স্পিকার

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক

image

স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী বলেছেন, দেশের উন্নয়নে প্রধানমন্ত্রী কর্তৃক গৃহীত সকল পদক্ষেপ বাস্তবায়নে সম্মিলিতভাবে নিষ্ঠার সাথে কাজ করলে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের অপূর্ণ স্বপ্ন বাস্তবায়ন সম্ভব হবে। বঙ্গবন্ধুর আদর্শকে ধারণ করে তার স্বপ্নের সোনার বাংলা বিনির্মানে নিজেদের দক্ষ করে গড়ে তুলতে শিক্ষার্থীদের প্রতি আহবান জানান স্পিকার। গতকাল রংপুরের পীরগঞ্জ উপজেলা অডিটোরিয়ামে মুজিববর্ষ উপলক্ষে পীরগঞ্জ শেখ হাসিনা আদর্শ বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ম্যূরালের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসাবে ভার্চুয়ালি যুক্ত হয়ে স্পিকার এসব কথা বলেন। এসময় তিনি ম্যূরালের শুভ উদ্বোধন করেন।

sangbad ad

মুন্সিগঞ্জে সাত রোহিঙ্গাসহ ৮ জন আটক, নগদ টাকা ও ইয়াবা জব্দ

সংবাদ অনলাইন ডেস্ক

image

সাত রোহিঙ্গাসহ আট জনকে মুন্সিগঞ্জ সদর উপজেলার পঞ্চসার ইউনিয়নের মুক্তারপুর এলাকা থেকে আটক করেছে পুলিশ। আটকদের কাছ থেকে ৯০০ পিস ইয়াবা ও নগদ ৯০ হাজার টাকা জব্দ করা হয়েছে। রোববার (২৫ অক্টোবর) দুপুরে মুন্সিগঞ্জের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদর সার্কেল) খন্দকার আশফাকুজ্জামান বিষয়টি জানান।

কিশোরগঞ্জে গ্যাস সিলিন্ডার বিস্ফোরণ: দগ্ধ ১ জনের মৃত্যু

সংবাদ অনলাইন ডেস্ক

image

গ্যাসের পাইপের লিক থেকে আগুনে কিশোরগঞ্জের মিঠামইন উপজেলার একই পরিবারের নয়জন দগ্ধ হন। রোববার (২৫ অক্টোবর) দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে শেখ হাসিনা বার্ন অ্যান্ড প্লাস্টিক সার্জারি ইনিস্টিউটে চিকিৎসাধীন অবস্থায় এক নারীর মৃত্যু হয়েছে। আগুনে দগ্ধ সুফিয়া খাতুনের (৬০) শরীরে ৭৫ শতাংশ দগ্ধ হয়েছিল।

নারী নির্যাতনকারীদের জন্য আ.লীগের দরজা চিরদিনের মতো বন্ধ: কাদের

সংবাদ অনলাইন ডেস্ক

image

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের জানিয়েছেন, অপরাধীর পরিচয় অপরাধীই। নারী নির্যাতনকারীদের জন্য আওয়ামী লীগের দরজা চিরদিনের মতো বন্ধ। রাজনৈতিক ও সামাজিকভাবে অপরাধী বিশেষ করে, নারী নির্যাতনকারীদের আশ্রয়-প্রশ্রয় বন্ধ করতে হবে।

দেশে করোনায় আরও ২৩ জনের মৃত্যু, শনাক্ত ১৩০৮

সংবাদ অনলাইন ডেস্ক

image

গত ২৪ ঘণ্টায় দেশে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে আরও ২৩ জন মারা গেছেন। একই সময়ে করোনা আক্রান্ত ব্যক্তি শনাক্ত হয়েছে ১ হাজার ৩০৮ জন। এ নিয়ে দেশে করোনায় মোট মৃতের সংখ্যা ৫ হাজার ৮০৩ জন। আর মোট শনাক্তের সংখ্যা ৩ লাখ ৯৮ হাজার ৮১৫ জন।

পদ্মা সেতুর ৫.১ কিলোমিটার দৃশ্যমান

সংবাদ অনলাইন ডেস্ক

image

পদ্মা সেতুতে দ্বিতীয় দিনের প্রচেষ্টায় ৩৪তম স্প্যান ‘টু-এ’ বসানো শেষ হয়েছে। রবিবার সকাল ১০টার কিছু পরই মুন্সীগঞ্জের মাওয়া প্রান্তে ৭ ও ৮নং পিয়ারের উপর বসানো হয় স্প্যানটি। এর ফলে দৃশ্যমান হলো সেতুর ৫ হাজার ১০০ মিটার অর্থাৎ ৫.১ কিলোমিটার। ৩৩তম স্প্যান বসানোর ছয়দিনের মাথায় ৩৪তম স্প্যানটি বসানো হলো।

তথ্যমন্ত্রী করোনা মুক্ত

সংবাদ অনলাইন ডেস্ক

image

করোনাভাইরাস (কোভিড-১৯) মুক্ত হলেন তথ্যমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক ড. হাছান মাহমুদ।