• banlag
  • newspaper
  • epaper

ঢাকা , শুক্রবার, ২১ সেপ্টেম্বর ২০১৮

 

রোহিঙ্গার প্রত্যাবাসনে সমঝোতা স্মারক সই করেছে ইউএনএইচসিআর

নিউজ আপলোড : ঢাকা , শুক্রবার, ১৩ এপ্রিল ২০১৮

সংবাদ :
  • নিজস্ব বার্তা পরিবেশক
image

রোহিঙ্গা সমস্যা সমাধানে বাংলাদেশ এবং জাতিসংঘ শরণার্থী সংস্থা ইউএনএইচসিআরের মধ্যে সমঝোতা স্মারক স্বাক্ষরিত হয়েছে। স্বারকে প্রাধান্য পেয়েছে রোহিঙ্গাদের যাচাই-বাছাই প্রক্রিয়া, তাদের অস্থায়ী ক্যাম্পে নিয়ে যাওয়া এবং চিকিৎসা ব্যবস্থা নিশ্চিত করার পাশাপাশি মিয়ানমারে ফিরে যাওয়ার পর নিরাপত্তা বিষয় গুলো।

শুক্রবার (১৩ এপ্রিল) সুইজারল্যান্ডের জেনেভায় ইউএনএইচসিআরের সদর দফতরে এই স্মারক সই হয়েছে। বাংলাদেশের পররাষ্ট্র সচিব এম শহীদুল হক এবং ইউএনএইচসিআরের মহাপরিচালক ফিলিপো গ্র্যান্ডি নিজ নিজ পক্ষে এই সমঝোতা স্মারকে স্বাক্ষর করেন বলে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় সুত্রে জানাজায়। মন্ত্রণালয়ের কর্মকর্তারা বলেন, এই সমঝোতা স্মারক সইয়ের ফলে রোহিঙ্গাদের প্রত্যাবাসনের প্রক্রিয়াটি সহজ হবে। রোহিঙ্গারা যে স্বচ্ছায় নিজ দেশে ফেরত গেছেন, এর মাধ্যমে সেটিও নিশ্চিত হওয়া যাবে।

মন্ত্রণালয় সূত্রে জানা গেছে, সমঝোতা স্মারকে রোহিঙ্গাদের জোরপূর্বক বাস্তুচ্যুত মিয়ানমার অধিবাসী হিসাবে অভিহিত করা হয়েছে। চুক্তিতে প্রত্যাবাসন সংক্রান্ত বিষয়ে সরকার ও জাতিসংঘ শরণার্থী সংস্থার ভূমিকা ও কার্যক্রম সম্পর্কে বিশদভাবে বলা আছে। আরো বলা হয়, এর আগে ১৯৯২ সালে যখন রোহিঙ্গারা এসেছিল, তখনও আমরা ইউএনএইচসিআরের সঙ্গে একই ধরনের চুক্তি করেছিলাম। সেই চুক্তির আদলে এবং বর্তমান পরিস্থিতি বিবেচনায় নিয়ে নতুন করে সমঝোতা স্মারকটি চূড়ান্ত করে সই করা হয়েছে।

স্মারক অনুযায়ী, রোহিঙ্গাদের তথ্য সরবরাহ, কাঠামো তৈরির জন্য জমি দেওয়া ও অন্যান্য সুবিধা নিয়ে কাজ করবে সরকার। অন্যদিকে, রোহিঙ্গাদের যাচাই-বাছাই প্রক্রিয়া, তাদের অস্থায়ী ক্যাম্পে নিয়ে যাওয়া, চিকিৎসা ব্যবস্থাসহ অন্যান্য সুবিধা দেওয়ার পাশাপাশি মিয়ানমারে ফিরে যাওয়ার পর রোহিঙ্গাদের নিরাপত্তা ও সম্মানের সাথে বেঁচে থাকার বিষয়গুলো নিয়ে কাজ করবে ইউএনএইচসিআর। এর আগে, গত জানুয়ারি মাসে সরকার ও শরণার্থী সংস্থা তথ্য সরবরাহ সংক্রান্ত একটি সমঝোতা স্মারক স্বাক্ষর করেছিল, যা মূল প্রত্যাবাসন চুক্তির সহায়ক হিসাবে কাজ করবে।

উল্লেখ্য, গত বছরের ২৫ আগস্ট মিয়ানমারের রাখাইনে সামরিক বাহিনীর আক্রমণ শুরু হলে প্রাণ বাঁচাতে রোহিঙ্গারা দলে দলে বাংলাদেশে প্রবেশ করতে শুরু করেন। সেই থেকে এখন পর্যন্ত প্রায় সাত লাখ রোহিঙ্গা বাংলাদেশে এসে আশ্রয় নিয়েছেন। এর মধ্যে তাদের প্রত্যাবাসনের জন্য দুই দেশের সরকার দু’টি চুক্তি করেছে। এ নিয়ে একটি যৌথ ওয়ার্কিং গ্রুপ গঠন করা হয়েছে।

সংসদের ২২তম অধিবেশন সমাপ্ত

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক

image

দশম জাতীয় সংসদের ২২তম অধিবেশন বৃহস্পতিবার (২০ সেপ্টেম্বর) শেষ হয়েছে। স্পিকার ড. শিরীন

রোহিঙ্গা ক্যাম্প পরিদর্শন করলেন সেনাবাহিনী প্রধান

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক

image

সেনাবাহিনী প্রধান জেনারেল আজিজ আহমেদ বৃহস্পতিবার (২০ সেপ্টেম্বর) কক্সবাজারের

উদ্বেগের মধ্যেই ডিজিটাল নিরাপত্তা বিল পাস

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক

তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি আইনের ব্যাপক সমালোচিত ৫৭ ধারাসহ কয়েকটি ধারা বাতিল করে বহুল

sangbad ad

সাংবাদিকতা পেশাকে দেশের বৃহত্তর স্বার্থে ব্যবহারে প্রধানমন্ত্রীর আহ্বান

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক

image

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সাংবাদিকতা পেশাকে দেশের বৃহত্তর স্বার্থে ব্যবহারের আহ্বান জানিয়ে

ছয় কোম্পানির ছয় রঙের বাস চলবে

মাহমুদ আকাশ

image

ছাত্রছাত্রীদের ‘নিরাপদ সড়ক চাই’ আন্দোলনের পর রাজধানী ঢাকার গণপরিবহন

মাতৃমৃত্যু রোধে সকলকে আন্তরিকভাবে কাজ করার আহ্বান স্পিকারের

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক

image

স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী মাতৃমৃত্যু রোধে সকলকে আন্তরিকভাবে কাজ করার

৮০০০ টাকা নুন্যতম মজুরি শ্রমিক অসন্তোষের সুযোগ দেখছেন না প্রতিমন্ত্রী

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক

image

তৈরি পোশাক শিল্পের শ্রমিকদের জন্য আট হাজার টাকা ন্যূনতম মজুরি ঘোষণা নিয়ে অসন্তোষের

কঙ্গোয় শান্তি মিশনে মেডেল প্যারেড পরিদর্শন বিমানবাহিনী প্রধানের

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক

image

জাতিসংঘ শান্তিরক্ষা মিশন এলাকা ডেমোক্রেটিক রিপাবলিক অফ কঙ্গোতে বিমানবাহিনী

শান্তি-শৃঙ্খলা পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে রাখা একটি দেশের উন্নয়নের পূর্বশর্ত : প্রধানমন্ত্রী

image

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, শান্তি ও স্থিতিশীলতা বজায় থাকা এবং আইন-শৃঙ্খলা

sangbad ad