• banlag
  • newspaper
  • epaper

ঢাকা , শুক্রবার, ০৩ জুলাই ২০২০

 

করোনা প্রতিরোধে

রেড জোনে ‘লকডাউন’ আগামী সপ্তাহে

সবচেয়ে খারাপ অবস্থা ঢাকার

নিউজ আপলোড : ঢাকা , শুক্রবার, ০৫ জুন ২০২০

সংবাদ :
  • নিজস্ব বার্তা পরিবেশক
image

ফাইল ছবি

দেশের বড় শহরগুলোর যেসব এলাকায় করোনায় আক্রান্ত রোগী সবচেয়ে বেশি সেসব এলাকাকে লকডাউন করার মাধ্যমে নতুন পদক্ষেপে যাচ্ছে সরকার। আগামী সপ্তাহ থেকেই এটি কার্যকরে চিন্তাভাবনা চলছে। এরই মধ্যে পুরো দেশের ইউনিয়ন পর্যন্ত ম্যাপিং করে দিয়েছে তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগ। বিশেষজ্ঞ কমিটি প্রতিদিন শনাক্ত হওয়া রোগীদের মোবাইল নম্বর ব্যবহার করে সফটওয়্যারের মাধ্যমে সারা দেশের চিত্র দেখতে পারছে। এখান থেকে সবচেয়ে বেশি আক্রান্ত এলাকাগুলোকে লকডাউন ঘোষণা করা হবে।

একটি এলাকার কত বর্গকিলোমিটার জায়গায় কতজন করোনায় আক্রান্ত হলে সেটি রেড, ইয়েলো ও গ্রিন জোন হিসেবে চিহ্নিত হবে, সেই মানদণ্ড ঠিক করছেন বিশেষজ্ঞরা। স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় বলছে, বর্তমানে দেশের বেশির ভাগ এলাকাই ‘গ্রিন’ আছে। তাই প্রথমে বড় কয়েকটি শহরের সবচেয়ে বেশি করোনায় আক্রান্ত রোগীর এলাকাকে রেড জোন ঘোষণা দিয়ে লকডাউন কার্যকর করা হবে।

স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব ও মন্ত্রণালয়ের মিডিয়া সেলের দায়িত্বপ্রাপ্ত হাবিবুর রহমান খান গতকাল বৃহস্পতিবার সাংবাদিকদের বলেন, ‘কতটুকু এলাকায় কতজন শনাক্ত হলে রেড জোন ঘোষণা করা হবে, সেটি নির্ধারণে কাজ করছে বিশেষজ্ঞ কমিটি। তারা এ বিষয়ে পরীক্ষা-নিরীক্ষা করে দেখছে।’

মন্ত্রণালয় সূত্রে জানা গেছে, যুক্তরাষ্ট্র, ব্রিটেন, কানাডাসহ বিশ্বের বিভিন্ন দেশে থাকা বাংলাদেশি অধ্যাপক, মহামারি ও জনস্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞদের পরামর্শ নিয়ে সারা দেশকে জোন বা এলাকাভিত্তিক ভাগ করার মাধ্যমে করোনাভাইরাস নিয়ন্ত্রণ পরিকল্পনার ছক চূড়ান্ত হচ্ছে। দেশের বাইরের এমন ২৫ জন বিশেষজ্ঞ দেশের বিশেষজ্ঞ কমিটিকে সহযোগিতা করছেন বলে সূত্র জানিয়েছে।

যা থাকছে জোনভিত্তিক পদক্ষেপে

কড়া লকডাউনের মাধ্যমে চেষ্টা থাকবে রেড জোনের রোগীর সংখ্যা যাতে কোনোভাবেই না বাড়ে এবং পর্যায়ক্রমে ইয়েলো জোনে পরিণত হয়ে শেষে গ্রিন জোন হয়। অন্যদিকে ইয়েলো জোনের চিত্র যাতে রেড জোনে পরিণত না হয় এবং গ্রিন জোনকে যেন গ্রিনই রাখা যায়, তা নিশ্চিত করা। এর মধ্যে রেড জোনের বাসিন্দাদের অত্যন্ত কঠোরভাবে নিয়ন্ত্রণ করা হবে। শুধু জীবনধারণের জন্য নিত্যপ্রয়োজনীয় সহায়তা ছাড়া আর কিছু এই এলাকার মানুষের কাছে পৌঁছবে না। এখানকার কাউকে বাইরে বের হতে দেওয়া হবে না। ইয়েলো জোনে থাকবে কড়া সতর্কতা। বিশেষ প্রয়োজন ছাড়া কাউকে বাইরে বের হতে দেওয়া হবে না। প্রতিদিনই দেশের সব এলাকার চিত্র পর্যালোচনা করে রোগী বাড়ছে না কমছে, তা বের করে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নেওয়া হবে। আর গ্রিন জোনের চলাচলে তেমন কড়াকড়ি না থাকলেও স্বাস্থ্যবিধি মানতে সবাইকে বাধ্য করা হবে।

জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী ফরহাদ হোসেন বলেন, ‘সরকার সহজে আবারও সাধারণ ছুটিতে ফিরতে চায় না। অর্থনৈতিক কার্যক্রম সীমিত আকারে চালাতেই হবে।’ তিনি বলেন, ‘বিশেষজ্ঞ কমিটির কাছ থেকে জোনভিত্তিক পদক্ষেপ নেওয়ার সুপারিশ পেলেই আমরা মাঠ প্রশাসনকে প্রয়োজনীয় নির্দেশনা পাঠিয়ে দেব। বিশেষজ্ঞ কমিটি আজ (গতকাল বৃহস্পতিবার) পর্যন্ত সময় নিয়েছে। আশা করছি, আগামী সপ্তাহের মাঝামাঝি সময়ের মধ্যে জোনভিত্তিক পদক্ষেপের সিদ্ধান্ত নেওয়া সম্ভব হবে।’

গত ২৬ মার্চ থেকে টানা ৩০ মে পর্যন্ত সাধারণ ছুটির পর ৩১ মে থেকে সীমিত পরিসরে দেশব্যাপী সব কার্যক্রম পরিচালনার সিদ্ধান্ত নেয় সরকার। সরকারি-বেসরকারি সব অফিস-আদালতসহ স্বাস্থ্যবিধি মেনে গণপরিবহন চালানোর চেষ্টা চলছে। সীমিত কার্যক্রম পরিচালনার এক সপ্তাহের কার্যদিবস শেষ হলো গতকাল। এ সময়ে পাল্লা দিয়ে বেড়েছে কভিড-১৯ রোগী ও মৃতের সংখ্যা। সবচেয়ে খারাপ অবস্থা ঢাকার এর পর গাজীপুর, নারায়ণগঞ্জ ও চট্টগ্রামের। এরই মধ্যে গত সোমবার মন্ত্রিপরিষদ বিভাগে উল্লিখিত পাঁচ সিটি করপোরেশনের মেয়রদের নিয়ে তিন মন্ত্রীসহ ঊর্ধ্বতন সরকারি কর্মকর্তারা বৈঠক করে সারা দেশকে জোনভিত্তিক ভাগ করার সিদ্ধান্ত নেন।

করোনা সংকট মোকাবেলায় দ্বিপাক্ষিক-আঞ্চলিক-বহুপাক্ষিক উদ্যোগ জোরদারের পরামর্শ সাবেক কূটনীতিকদের

কূটনৈতিক বার্তা পরিবেশক

image

বৈশ্বিক মহামারি করোনায় সৃষ্ট সংকট মোকাবেলায় বিভিন্ন দ্বিপাক্ষিক, আঞ্চলিক ও বহুপাক্ষিক উদ্যোগ জোরদারের ওপর গুরুত্বারোপ করেছেন সাবেক পররাষ্ট্রসচিব ও রাষ্ট্রদূতরা।

করোনায় একদিনে আরও ৪২ জনের মৃত্যু : নতুন শনাক্ত ৩১১৪

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক

image

দেশে করোনাভাইরাসে (কোভিড-১৯) সংক্রমণ ও মৃত্যু বেড়েই চলেছে। গত ২৪ ঘণ্টায় করোনার সংক্রমণে ৪২ জনের মৃত্যু হয়েছে। নতুন শনাক্ত হয়েছেন ৩ হাজার ১১৪ জন। এ নিয়ে দেশে করোনায় মোট মৃত্যু হয়েছে ১ হাজার ৯৬৮ জনের, মোট শনাক্ত হয়েছেন ১ লাখ ৫৬ হাজার ৩৯১ জন।

করোনায় ত্রাণ বিতরণ অব্যাহত রেখেছে সরকার

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক

image

করোনা পরিস্থিতিতে সৃষ্ট দুর্যোগে দেশের সাধারণ মানুষের কষ্ট লাঘবে মানবিক সহায়তা হিসেবে ত্রাণ বিতরণ অব্যাহত রেখেছে সরকার। এ পর্যন্ত সারা দেশে দেড় কোটির বেশি পরিবারকে ত্রাণ সহায়তা দেয়া হয়েছে।

sangbad ad

সাংবাদিক ফারুক কাজী আর নেই

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক

image

প্রধানমন্ত্রীর সাবেক উপ-প্রেস সচিব, সিনিয়র সাংবাদিক সভাপতি ফারুক কাজী মারা গেছেন (ইন্নালিল্লাহি ওয়া ইন্নাইলাইহি রাজিউন)।

ঢাকার ৯৮ ভাগ হোটেল-রেস্তোরা তামাক আইন মানছে না

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক

image

ঢাকার ৯৮ ভাগ হোটেল-রেস্তোরা তামাক নিয়ন্ত্রণ আইন মানছে না। শতকরা ২ ভাগ রেস্তোরা যথাযথভাবে আইন বাস্তবায়ন করছে।

করোনায় মারা গেলেন আগরতলা ষড়যন্ত্র মামলার আসামি খুরশীদ

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক

image

করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন আগরতলা ষড়যন্ত্র মামলার আসামি এ বি এম খুরশীদ।

অক্টোবরে ঢাকা-টরেন্টো রুটে ফ্লাইট চালু করবে বিমান

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক

image

এ বছর অক্টোবর থেকে ঢাকা-টরেন্টো রুটে সরাসরি ফ্লাইট চালু করতে যাচ্ছে বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্স। টরেন্টো থেকে বিমানের যাত্রীদের নিউইয়র্ক নিতে কানাডার রাষ্ট্রীয় এয়ারলাইন্স এয়ার কানাডার সঙ্গে চুক্তি করছে বিমান। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন বিমানের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও সিইও মো. মোকাব্বির হোসেন।

রোগী কেন ঘুরছে হাসপাতালে হাসপাতালে

বাকী বিল্লাহ

image

দেশে প্রতিদিন করোনা রোগী বাড়ছে। হাসপাতালগুলোতে রোগী ভর্তি ও আইসিইউ সিট এরপরও খালি আছে। স্বাস্থ্য অধিদফতর থেকে ২ জুলাই

বিএনপির এমপিরা বাজেটের কপি ছিঁড়ে সংসদ অবমাননা করেছেন : ওবায়দুল কাদের

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক

image

আওয়ামী লীগের সাধালণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, বিএনপির এমপিরা (সংসদ সদস্য) বাজেট প্রত্যাখ্যান করার নামে অনুমোদিত বাজেটের কপি ছিড়ে ফেলে দিয়ে সংসদের প্রতি চরম অবমাননা করেছেন।

sangbad ad