• banlag
  • newspaper
  • epaper

ঢাকা , শুক্রবার, ২৩ ফেব্রুয়ারী ২০১৮

 

রবার্ট জুয়েলিক অপদার্থ-বাজে লোক: মুহিত

নিউজ আপলোড : ঢাকা , সোমবার, ০৫ ফেব্রুয়ারী ২০১৮

image

‘ঢাকা আন্তর্জাতিক বাণিজ্য মেলা-২০১৮’-এ অংশগ্রহণকারী প্রতিষ্ঠানসমূহের মধ্যে সর্বোচ্চ ভ্যাট প্রদানকারী প্রতিষ্ঠানকে ভ্যাট সম্মাননা সনদ ও পুরস্কার বিতরণ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে বিশ্ব ব্যাংকের সাবেক প্রেসিডেন্ট রবার্ট বি জুয়েলিককে ‘একটা অপদার্থ, ভয়ঙ্কর ধরনের বদমায়েশ ও অত্যন্ত বাজে লোক’ বলে মন্তব্য করেছেন অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত। সোমবার (৫ ফেব্রুয়ারি) জাতীয় রাজস্ব বোর্ড সম্মেলন কক্ষে এ অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। আবুল মাল আবদুল মুহিত বলেন, রবার্ট বি জুয়েলিকের ষড়যন্ত্রের কারণেই পদ্মা সেতুর অর্থায়ন আটকে যায়। যা পরবর্তীতে প্রমাণিত হয়েছে।

তিনি উল্লেখ করেন, ‘বিশ্ব ব্যাংকের ওই প্রেসিডেন্টের কারণেই আমরা চারজন মানুষ অপদস্থ হয়েছিলাম। মসিউর রহমানকে পদত্যাগ করতে হয়েছিল। সাবেক যোগাযোগ মন্ত্রী আবুল হোসেনকেও সরিয়ে দেওয়া হয়। আমি তখন বার বার বলেছিলাম, এটা ষড়যন্ত্র। কিন্তু সেটা তখন আমলে নেওয়া হয়নি।’

অর্থমন্ত্রী যখন বিশ্ব ব্যাংকের সাবেক প্রেসিডেন্টের সমালোচনা করছিলেন, তখন তার পাশে বসা ছিলেন প্রধানমন্ত্রীর অর্থনৈতিক বিষয়ক উপদেষ্টা ড. মসিউর রহমান, সাবেক যোগাযোগ মন্ত্রী সৈয়দ আবুল হোসেন ও এনবিআর চেয়ারম্যান মো. মোশাররফ হোসেন ভূঁইয়া।

আবুল মাল আবদুল মুহিত বলেন, ‘‘ওই সময় প্রধানমন্ত্রী প্রথম বুঝতে পেরেছিলেন। তিনিই প্রথম বললেন, ‘এটা ষড়যন্ত্র, বিশ্ব ব্যাংকের কাছে থেকে অর্থ নেওয়া বন্ধ করে দেন।’ আমি তখন রাজি হইনি। আমার চিন্তা ছিল এই অভিযোগ মিথ্যা প্রমাণ করতেই হবে। একই সঙ্গে বিশ্ব ব্যাংকের এ ধরনের মিথ্যা অভিযোগ প্রত্যাহার করে নিতে হবে।’’

অর্থমন্ত্রী বলেন, অভিযোগ মিথ্যা প্রমাণের এ যুদ্ধ আমরা অনেক দিন চালিয়ে গেলাম। পরবর্তীতে আরেকজন নতুন প্রেসিডেন্ট এলেন। তিনি এসে ওই বছরের জানুয়ারিতে পদ্মা সেতু প্রকল্পে অর্থায়ন করার কথা বললেন, তবে তখন পদ্মা সেতু নিয়ে নতুন করে ফিজিবিলিটি স্টাডি করার কথা জানালে, আমরাই বিশ্বব্যাংকের অর্থ নেওয়া থেকে সরে এলাম। কারণ, ওই অর্থ নিতে গেলে সময়ক্ষেপণ হবে। আরও প্রায় বছর খানেক বেশি লাগবে।

‘তখন আমরা বললাম, এটা বাতিল হোক। আমরা নিজেদের অর্থেই করে ফেলবো। কারও কাছে যাবো না। তখনই পদ্মা সেতু নিজ অর্থায়নে করার একটা সিদ্ধান্ত নেওয়া হলো। এটা নিয়ে এত ঝামেলা হয়েছে যে আর কারও কাছে সহায়তা চাইলাম না।’

অর্থমন্ত্রী আরও বলেন, ‘খুশির খবর হলো নিজস্ব অর্থায়নে এটি বাস্তবায়ন হচ্ছে। আমার ধারণা, আগামী বছরের মার্চ নাগাদ যান চলাচল করবে। তবে মার্চে না হলেও আগামী বছরের জুনে পদ্মা সেতু দিয়ে যান চলাচল করবে। আমাদের ওবায়দুল কাদের চেয়েছিলেন, যেন এর কাজ ডিসেম্বরেই শেষ করতে পারেন। কিন্তু সেটা সম্ভব হবে না। তবে জুন নাগাদ যান চলাচলের জন্য আমরা খুলে দিতে পারবো।’

ওই সময়ে জাতীয় রাজস্ব বোর্ড মো. মোশাররফ হোসেন ভূঁইয়া সেতু সচিব ছিলেন। তিনি বলেন, ‘ওই সময় এখানে উপস্থিত আমরা চারজনই ভিকটিম ছিলাম। পরবর্তীতে সেটা প্রমাণিত হয়েছে। বিশেষ করে কানাডার আদালতের সেই রায় বিষয়টি পরিষ্কার করে দিয়েছে।’

প্রসঙ্গত, রবার্ট বি জুয়েলিক ২০০৯ সালের জুলাই থেকে ২০১২ সালের জুন পর্যন্ত বিশ্ব ব্যাংকের প্রেসিডেন্টের দায়িত্ব পালন করেন। তার সময়ই আলোচিত পদ্মা সেতুর ১২০ মিলিয়ন ডলার সমপরিমাণ ঋণ চুক্তি আটকে যায়। পরবর্তীতে বিশ্ব ব্যাংকের টাকা না নিয়ে নিজস্ব অর্থায়নে সেতু করার ঘোষণা দেয় সরকার।

পরীক্ষামূলক সম্প্রচার

৫০ লাখ পরিবারের জন্য ১০ টাকা কেজি চাল

image

আগামী মার্চ থেকে খাদ্যবান্ধব কর্মসূচির আওতায় ১০ টাকা কেজি দরে আবার চাল বিক্রি চালু করবে সরকার।

শ্রদ্ধা শহিদদের স্মরণে

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক

image

১৯৫২ সালের আজকের এই দিনে তৎকালীন পূর্ব পাকিস্তান সরকার ঢাকায় ১৪৪ ধারা জারি করে।

ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে সাংবাদিকদের শংকিত হবার কিছু নেই বললেন প্রধানমন্ত্রী

image

ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন নিয়ে ‘শংকিত’ না হতে সাংবাদিকদের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী

sangbad ad

শতভাগ বিদ্যুৎ সংযোগের মহাপরিকল্পনা হাতে নিয়েছে সরকার : স্পিকার

প্রতিনিধি, পীরগঞ্জ (রংপুর)

image

সন্ধ্যার পর সন্তানদের লেখাপড়া নিশ্চিতে মায়েদের দাবি ছিল বিদ্যুৎ দিতে হবে, এ কথা উল্লেখ করে

আগামী নির্বাচনে খালেদা জিয়ার অংশ গ্রহণ করতে পারা না পারা আদালতের বিষয়

image

কারাবন্দী খালেদা জিয়া আগামী নির্বাচনে অংশগ্রহণ করা না করা নির্ভর করছে আদালতের উপর। এ বিষয়ে

নিরাপত্তা পরিষদের কার্যতালিকায় রোহিঙ্গা ইস্যুতে আলোচনা অব্যাহত রাখার তাগিদ বাংলাদেশের

image

নিরাপত্তা পরিষদের কার্যতালিকায় রোহিঙ্গা ইস্যুতে আলোচনা অব্যাহত রাখার তাগিদ দিয়েছেন জাতিসংঘে

প্রশ্নপত্র ফাঁস হওয়া আর ব্যাংকের ঋণ ফেরত না দেওয়া স্বাভাবিক বিষয়

পাবলিক পরীক্ষায় প্রশ্ন ফাঁস স্বাভাবিক হয়ে গেছে। এটা নিয়ন্ত্রণের বাইরে চলে গেছে। তিনি প্রশ্নপত্র ফাঁস

এমসিকিউ তুলে ফেললে প্রশ্নপত্র ফাঁস করার সুযোগ পাবেনা

image

এমসিকিউ (বহুনির্বাচনী প্রশ্ন) তুলে ফেললে সরকারকে বিব্রত করার চেষ্টাকারীরা প্রশ্নপত্র ফাঁস করার সুযোগ পাবেনা।

ঢাকা থেকে রোমের পথে প্রধানমন্ত্রী

image

চারদিনের সরকারি সফরে ইতালির রাজধানী রোমের উদ্দেশে ঢাকা ত্যাগ করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। ইন্টারন্যাশনাল

sangbad ad