• banlag
  • newspaper
  • epaper

ঢাকা , রবিবার, ২২ জুলাই ২০১৮

 

মাদক ব্যবসায়ীদের বিরুদ্ধে কঠোর হুঁশিয়ারি-র‌্যাব ডিজি

নিউজ আপলোড : ঢাকা , সোমবার, ১৪ মে ২০১৮

সংবাদ :
  • নিজস্ব বার্তা পরিবেশক
image

মাদক ব্যবসায়ী, মাদকসেবী ও মাদক বহনকারীদের প্রতি কঠোর হুঁশিয়ারি জানিয়েছেন র‌্যাবের মহাপরিচালক বেনজীর আহমেদ। তিনি বলেন, মাদক প্রতিরোধে আইনি ব্যবস্থায় যত কাঠামো আছে তার সর্বোচ্চ প্রয়োগ করবে র‌্যাব। এছাড়া কারও কাছে মাদক থাকলে তা র‌্যাবের ক্যাম্পের পাশে ফেলে যাওয়ার অনুরোধ করেন তিনি। সোমবার (১৪ মে) রাজধানীর কারওয়ান বাজারে র‌্যাবের মিডিয়া সেন্টারে এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি এসব কথা বলেন।

বেনজীর আহমেদ বলেন, গত ৩ মে প্রধানমন্ত্রী মাদকের বিরুদ্ধে র‌্যাবকে সোচ্চার হওয়ার কথা বলার পর থেকে ৪ মে থেকে ১৩ মে মাদকের বিরুদ্ধে বিশেষ অভিযান শুরু করে র‌্যাব। গত ৯ দিনে র‌্যাব ১ হাজার ৪১৫ জন মাদকসেবীদের বিভিন্ন মেয়াদে কারাদণ্ড দিয়েছে। ২০ লাখের বেশি টাকা জরিমানা করেছে। প্রায় ১৫ কোটি টাকা মূল্যের মাদক জব্দ করেছে। ৩৮১ জনের বিরুদ্ধ মামলা করা হয়েছে। এছাড়া র‌্যাব শুরুর পর থেকে এ পর্যন্ত ৬৮ হাজার ৪৯৮ জন মাদক ব্যবসায়ীকে গ্রেফতার করেছে। এই সময় প্রায় ১ হাজার ৭০০ কোটি টাকার মাদকদ্রব্য উদ্ধার করেছে। মাদকদ্রব্য উদ্ধারে র‌্যাব নিয়মিত ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা ও জরিমানা করা অব্যাহত রেখেছে।

মাদকসেবী ও ব্যবসায়ীদের মাদক সেবন না করা ও ব্যবসা না করার আহ্বান জানিয়ে তিনি বলেন, আমরা চাইব, যারা মাদক সেবন করবেন, তারা আর মাদক নেবেন না, যারা ব্যবসা করেন তারা মাদক বিক্রি বন্ধ করবেন। কারও কাছে মাদক থাকলে তা র‌্যাবের ক্যাম্পের পাশে ফেলে যান। ফেলে রেখে এলে আমরা তা সহজেই ধ্বংস করতে পারব। মাদকের হাত থেকে নিস্তার পেতে সবাইকে একসঙ্গে কাজ করতে হবে। আইনজীবী, বিচারক সবার কাছে সাহায্য চাই, মাদক ব্যবসায়ীরা যাতে আইনের অপব্যবহার করতে না পারে। মাদক নিয়ন্ত্রণ আইন হালনাগাদ করার কাজ চলছে বলে জানান তিনি।

সরকারি-বেসরকারি বিভিন্ন পরিবহনে মাদকের চোরাচালান হয় জানিয়ে বেনজীর বলেন, এসব পরিবহন কোথায় কী কাজে ব্যবহার করা হয়, তার খেয়াল রাখতে হবে। মাদককে জাতীয় সমস্যা উল্লেখ করে তিনি বলেন, ছাত্র, শিক্ষক, অভিভাবক, রাজনৈতিক নেতা, ধর্মীয় নেতা, ইমাম, সকল শ্রেণি পেশার মানুষকে মাদকের শিকড় উৎপাটনের জন্য কাজ করতে হবে। পত্রিকা বা টেলিভিশনকে মাদকের সংবাদ প্রচার করতে হবে। আপনারা মাদকের খবর ছাপলে বা প্রচার করলে আমরা সে অনুযায়ী ব্যবস্থা নেব। র‌্যাবের অ্যাপ, ওয়েবসাইট, ফেসবুক পেজ হটলাইনের মাধ্যমে মাদকের খবর র‌্যাবকে দেওয়ার আহ্বান জানান তিনি। মাদক ব্যবসায়ীদের একটি সমন্বিত তালিকা করা হযেছে। এই তালিকা ধরে আমরা কাজ করছি।

পশুর হাটে নিরাপত্তার জন্য র‌্যাব-পুলিশের পরিকল্পনা

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক

image

পবিত্র ঈদুল আজহাকে কেন্দ্র করে রাজধানীতে বসবে ২১টি পশুর হাট। হাটগুলোতে

আমি এই সংবর্ধনা বাংলার মানুষকে উৎসর্গ করলাম

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক

image

প্রধানমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনা বলেছেন, আমি জনগণের সেবক। জনগণের জন্যই কাজ করে যাব। জনগণের পাওয়াই আমার পাওয়া

প্রধানমন্ত্রীকে সংবর্ধনায় বন্ধ থাকবে যেসব সড়ক

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক

image

সাড়ে নয় বছরের শাসন আমলে অনন্য সফলতার জন্য প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে ঐতিহাসিক গণসংবর্ধনা প্রদান করা হবে। শনিবার (২১ জুলাই) বিকেল

sangbad ad

সাড়ে নয় বছরের শাসন আমলে অনন্য সফলতার জন্য প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা পাচ্ছেন গণসংবর্ধনা

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক

image

বর্তমান সরকারের টানা সাড়ে নয় বছরের শাসন আমলে বাংলাদেশের ধারাবাহিক

জনগণই দু’দেশের সম্পর্কের ঘনিষ্ঠতার মূল ভিত্তি : হর্ষবর্ধন শ্রিংলা

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক

image

ভারত-বাংলাদেশের জনগণই দুই দেশের সম্পর্কের ঘনিষ্ঠতার মূল ভিত্তি বলে মন্তব্য করেছেন ভারতীয় হাইকমিশনার

হাঙ্গেরীতে রসাটমের নিউক্লিয়ার কিডস প্রোগামে বাংলাদেশের অংশগ্রহণ

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক

রাশিয়ার রাষ্ট্রীয় পারমাণবিক শক্তি কর্পোরেশন ‘রসাটম’ এর আয়োজনে হাঙ্গেরীতে অনুষ্ঠিতব্য ‘ ১০ম নিউক্লিয়ার কিডস’ প্রোগামে বাংলাদেশ

মায়ানমারের বিরুদ্ধে আইসিসির রুলিং চায় বাংলাদেশ

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক

image

রোহিঙ্গাদের বলপূর্বক বাংলাদেশে অনুপ্রবেশ করানোর কারণে মিয়ানমারের বিরুদ্ধে ইন্টান্যাশনাল ক্রিমিনাল কোর্ট (আইসিসি) এর কাছে রুলিং চেয়েছে

কোটা সংস্কার কমিটিকে দ্রুত প্রতিবেদন দেয়ার অনুরোধ কেন্দ্রীয় ১৪ দলের

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক

কোটা পদ্ধতি সংস্কারের বিষয়ে মন্ত্রিপরিষদ সচিবের নেতৃত্বে গঠিত কমিটিকে দ্রুত প্রতিবেদন দেয়ার অনুরোধ জানিয়েছে আওয়ামী লীগ নেতৃত্বাধীন জোট

রোহিঙ্গাদের নেয়ার কোন লক্ষণ দেখছি না-স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক

image

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল বলেছেন, মায়ানমার কর্তৃপক্ষ রোহিঙ্গাদের ফিরিয়ে নেয়ার বিষয়ে ইতিবাচক ভঙ্গিতে কথা বলে এসেছে। কিন্তু বাস্তবে

sangbad ad