• banlag
  • newspaper
  • epaper

ঢাকা , রবিবার, ২২ জুলাই ২০১৮

 

ভাসুক কালো জাগুক আলো

নিউজ আপলোড : ঢাকা , রবিবার, ১৫ এপ্রিল ২০১৮

সংবাদ :
  • সংবাদ জাতীয় ডেস্ক
image

দেশব্যাপী শনিবার (১৪ এপ্রিল) অসাম্প্রদায়িক বাঙালির সবচেয়ে বড় উৎসব বাংলা নববর্ষ পহেলা বৈশাখকে বরণ করতে সব বয়সের মানুষ মেতে ওঠে। আবহমান গ্রাম বাংলার ঐতিহ্য গরুর গাড়ি, পাল্কি, ঢেঁকি, লাঙ্গল, মই, ঘুড়ি, ঢাক-ঢোল ও বাদ্য এবং রংবেরঙের ফেস্টুন, মুখোশসহ মঙ্গল শোভাযাত্রা বের করে বিভিন্ন সামাজিক সাংস্কৃতিক সংগঠন। বিস্তারিত সংবাদ প্রতিনিধিদের পাঠানো খবরে-

বালিয়াকান্দি (রাজবাড়ী)
রাজবাড়ীর বালিয়াকান্দি উপজেলা প্রশাসনের উদ্যোগে বর্ণাঢ্য আয়োজনের মধ্য দিয়ে বাংলা নববর্ষ ১৪২৫ উদযাপিত হয়েছে। বর্ষবরণ উপলক্ষে শনিবার সকালে উপজেলা পরিষদ চত্বর থেকে বের করা হয় মঙ্গল শোভাযাত্রা। শোভাযাত্রাটি শহরের প্রধান প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ শেষে বালিয়াকান্দি অফিসার্স ক্লাব মিলনায়নে শেষ হয়। পরে শিশুপার্কে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোঃ মাসুম রেজার সভাপতিত্বে বক্তৃতা করেন উপজেলা চেয়ারম্যান আবুল কালাম আজাদ, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান খোদেজা বেগম, বালিয়াকান্দি থানার পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) আবুল কালাম ভুঞা, উপজেলা কৃষি অফিসার সাখাওয়াত হোসেন, উপজেলা প্রকৌশলী সজল কুমার দত্ত, বালিয়াকান্দি ইউপি চেয়ারম্যান নায়েব আলী সেখ প্রমুখ। এ সময় বিভিন্ন সংগঠনের শিল্পীদের পরিবেশনায় সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান উপভোগ করেন। এছাড়াও বালিয়াকান্দি পাইলট বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়, বালিয়াকান্দি পাইলট উচ্চ বিদ্যালয়, বালিয়াকান্দি কলেজ ও বিভিন্ন সাংস্কৃতিক, সামাজিক সংগঠন বর্ণাঢ্য অনুষ্ঠানের মধ্যে দিয়ে বাংলা নববর্ষ উদযাপন করেছে।

বদলগাছী (নওগাঁ)
নওগাঁর বদলগাছীতে বিশাল উৎসব উদ্দীপনার মধ্য দিয়ে পহেলা বৈশাখ উদযাপন হয়েছে। শনিবার বাংলা নববর্ষকে বরণ করতে বদলগাছী উপজেলা প্রশাসন ও বদলগাছী শিল্পকলা এ্যাকাডেমি, বৈশাখী সাংস্কৃতি গোষ্ঠী, বদলগাছী মডেল পাইলট উচ্চ বিদ্যালয় , বিভিন্ন রাজনৈতিক মহল, বণিক সমিতি, কৃষক, বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠান ও আদিবাসীসহ নতুন বাংলা ১৪২৫ সাল কে স্বাগত জানাতে বিভিন্ন কর্মসূচি গ্রহন করেন। কর্মসূচির মধ্যে উপজেলা প্রশাসনের আয়োজনে সকাল ৯টায় উপজেলা প্রশাসন চত্তর থেকে এক বর্ণাঢ্য মঙ্গল শোভাযাত্রা বের হয়। মঙ্গল শোভাযাত্রাতে গ্রাম বাংলার ঐতিহ্যবাহি গরু গাড়ি, পালকী, হুকা, লাঙ্গল, জেলে, বর-বধু সহ বিভিন্ন সাজে সেজেছিল বদলগাছীর জন সাধারণ। আর এই মঙ্গল শোভাযাত্রাটি শহরের প্রধান প্রধান সড়ক প্রদক্ষিন করে বদলগাছী মডেল পাইলট উচ্চ বিদ্যালয় প্রাঙ্গণে গিয়ে শেষ হয়। মঙ্গল শোভাযাত্রা শেষে মডেল পাইলট উচ্চ বিদ্যালয় প্রাঙ্গণে উপজেলা প্রশাসন ও শিল্প কলা এ্যাকাডেমি, বদলগাছী মডেল পাইলট উচ্চ বিদ্যালয় ও বৈশাখী সাংস্কৃতি গোষ্ঠী এক পান্থা ভাতের আয়োজন করেন। উক্ত পান্তা ভাতে বদলগাছীর সর্ব স্তরের জনসাধারণ অংশগ্রহণ করেন।

চাঁপাইনবাবগঞ্জ
নানা আয়োজনের মধ্যদিয়ে পুরাতন বছরের সকল গ্লানি মুছে বাংলা নববর্ষকে বরণ করতে চাঁপাইনবাবগঞ্জে সব বয়সের মানুষ উৎসবে মেতে উঠে। অসাম্প্রদায়িক বাঙালির সবচেয়ে বড় উৎসব পহেলা বৈশাখ। বর্ষবরণ উপলক্ষে জেলা প্রশাসনের উদ্যোগে ঢাক-ঢোল, ও বাদ্য’র মধ্যদিয়ে মঙ্গল শোভাযাত্রা বের করে।

শনিবার সকালে জেলা প্রশাসক কার্যালয় চত্বরের সামনে থেকে শোভাযাত্রাটি নাচ-গান, হাসি-আনন্দে বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষিন শেষে শিশু পার্কের আম্রকাননে গিয়ে শেষ হয়। শোভাযাত্রায় জেলা প্রশাসক মো. মাহমুদুল হাসান, পুলিশ সুপার টিএম মোজাহিদুল ইসলাম, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) এরশাদ হোসেন খা্নঁ, অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট মো. দেলোয়ার হোসেন, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (রাজস্ব) আবু হায়াত মো. রহমতুল্লাহ, সদর উপজেলা নির্বাহী অফিসার আলমগীর হোসেন, পৌর মেয়র মোহাম্মদ নজরুল ইসলাম উপস্থিত ছিলেন।

বর্ণিল সাজে সজ্জিত হয়ে শোভাযাত্রায় অংশগ্রহন করে চাঁপাইনবাবগঞ্জ পৌরসভা, বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠান, সামাজিক ও সাংস্কৃতিক সংগঠন। আবহমান গ্রাম বাংলার সেই ঐতিহ্য গরু গাড়ি, পাল্কি, গ্রামের বধূ, ঢেঁকি, লাঙ্গল, মই, ঘুড়িসহ রংবেরং এর ফেস্টুন শোভাযাত্রাকে আকর্ষণীয় করে তোলে। পরে বর্ষবরণের মূল আয়োজন সংগীত, আবৃত্তি ও নৃত্য পরিবেশিত হয়।

শিল্পীদের রং তুলিতে তাদের বিভিন্ন স্থানে পহেলা বৈশাখের আল্পনা এঁকে শুভেচ্ছা জানায়।

সাম্প্রদায়িক বাংলাদেশ গড়ার প্রত্যয়ে বিপুল উৎসাহ উদ্দীপনার মধ্যদিয়ে বাংলাদেশ মেডিকেল এ্যাসোসিয়েশন চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলা শাখা নবাবগঞ্জ ক্লাবে বাঙালির প্রাণের উৎসব বর্ষবরণ ১৪২৫ পালন করে। সেখানে গ্রাম বাংলার বিভিন্ন খাবার পরিবেশন করা হয়। এদিকে, সাধারণ পাঠাগারের উদ্যোগে সকালে দই, চিড়া ও মিষ্টি খাবারের আয়োজন করা হয় এবং সঙ্গীত ও নৃত্য পরিবেশিত হয়। এসময় সাধারণ পাঠাগার ও নাগরিক কমিটি সোনামনির পাঠাশালার সেই রফিক চা ওয়ালাকে ক্রেস্ট দিয়ে সংবর্ধনা প্রদান করেন। দিনভর বর্ষবরণে বিভিন্ন সামাজিক সংগঠন নানান অনুষ্ঠানের আয়োজন করে।

ফেনী
ফেনীতে বর্ণাঢ্য শোভাযাত্রার মাধ্যমে বাঙালির প্রাণের উৎসব পহেলা বৈশাখ শুরু হয়েছে। গতকাল শনিবার সকালে জেলা প্রশাসনের আয়োজনে ফেনী সরকারী পাইলট উচ্চ বিদ্যালয় মাঠ থেকে বর্ণাঢ্য শোভাযাত্রা বের হয়ে শহরের প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ করে পিটিআই মাঠে গিয়ে শেষ হয়। শোভাযাত্রা শেষে একই মাঠে চারদিন ব্যাপী মেলার উদ্বোধন ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। জেলা প্রশাসক মনোজ কুমার রায়ের সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি ছিলেন সংরক্ষিত মহিলা আসনের সংসদ সদস্য জাহান আরা বেগম সুরমা। বিশেষ অতিথি ছিলেন পুলিশ সুপার এসএম জাহাঙ্গীর আলম সরকার, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ মাহবুবুল আলম মজুমদার, ফেনী সরকারি কলেজের অধ্যক্ষ প্রফেসর আবুল কালাম আজাদ, ফেনী সদর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আবদুর রহমার বিকম, সিভিল সার্জন ডা. হাসান শাহরিয়ার কবীর, জেলা পরিষদের প্রধান নির্বাহী শারমিন জাহান, কেন্দ্রী মহিলা আওয়ামী লীগ নেত্রী রোকেয়া প্রাচী, ফেনী জজ কোর্টের পাবলিক প্রসিকিউটর (পিপি) হাফেজ আহাম্মদ, ফেনী পৌরসভার প্যানেল আশ্রাফুল আলম গীটার, জেলা ক্রীড়া সংস্থার সাধারণ সম্পাদক আমির হোসেন বাহার প্রমুখ। জেলা প্রশাসনের আয়োজনে শোভাযাত্রায় ফেনী প্রেসক্লাব, ফেনী সরকারি কলেজ, ফেনী বিশ্ববিদ্যালয়, ফেনী সরকারী পাইলট উচ্চ বিদ্যালয়, ফেনী সরকারি বালিকা উচ্চ বিদ্যায়, রামপুর সরকারি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়, জিএ একাডেমী, শাহীান একাডেমি, আর্য্য সাংস্কৃতিক কেন্দ্র, অনুরণন, আবৃত্তি চর্চা কেন্দ্র, পুবালি সাংস্কৃতিক কেন্দ্র, উদীচীসহ প্রায় শতাধিক বিভিন্ন সংগঠনের হাজার হাজার মানুষ। এছাড়াও বৈশাখের রং লাগাও’ নামে শিশু একাডেমির আয়োজনে শিশুদের হস্তাক্ষর কর্ণার ছিল বাড়তি আনন্দ। মেলায় বিভিন্ন স্টলে দেশীয় ঐতিহ্যবাহী খাবারের পাশাপাশি বিভিন্ন ধরনের স্টল রয়েছে।

ইবি (কুষ্টিয়া)
পুরাতনকে পেছেনে ফেলে নিজ ঐতিহ্য ও সংস্কৃতিকে ধারণ করে নতুন বর্ষকে বরণ করে নিয়েছে বাঙালি জাতি। সারাদেশের ন্যায় ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয় (ইবি) পরিবারও মেতে উঠেছে এ প্রাণের উৎসবে। বশৈাখ বরণকে কেন্দ্র করে পুরো ক্যাম্পাস সেজেছে নতুন আঙ্গিকে নুতন রঙে। ক্যাম্পাসের প্রধান ফটক, প্রশাসন ভবন, ডায়না চত্বর, অনুষদ ভবন, ব্যবসায় প্রশাসন অনুসদ ববন, মীর মশাররফ হোসেন একাডেমিক ভবনসহ সর্বত্র সুদৃশ্য আল্পনায় সজ্জিত। এছাড়া বাঙালির ইতিহাস ঐতিহ্যকে ব্যবহার করে তৈরি মেলার ফটকটি সবার নজড় কাড়ছে। এটি অনুষ্ঠানে দিয়েছে একটি ভিন্ন মাত্রা। বাংলা নববর্ষকে বরণ করতে বিশ্ববিদ্যালয়ে মঙ্গল শোভাযাত্রা, বৈশাখী ও বিজ্ঞান মেলার উদ্বোধন, আলোচনা সভা ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়েছে। ক্যাম্পাস সূত্রে জানা যায়, বর্ষবরণ উপলক্ষে শনিবার সকাল ১০টায় উপাচার্য অধ্যাপক ড. হারুন উর রশিদ আসকারীর নেতৃত্বে মঙ্গল শোভাযাত্রা অনুষ্ঠিত হয়। বিশ^বিদ্যালয় প্রশাসন ভবনের সামনে থেকে বিভিন্ন বিভাগ, হল, সামাজিক, রাজনৈতিক ও স্বেচ্ছাসেবী সংগঠনের অংশগ্রহণে এ শোভাযাত্রায় শুরু হয়। এসময় মঙ্গল শোভাযাত্রায় উপস্থিত ছিলেন উপ-উপাচার্য অধ্যাপক ড. শাহিনুর রহমান, কোষাধ্যক্ষ অধ্যাপক ড. সেলিম তোহা, বিভিন্ন অনুষদীয় ডিন, বিভাগীয় সভাপতি, হল প্রভোস্ট, প্রক্টর অধ্যাপক ড. মাহবুবর রহমান, ছাত্র উপদেষ্টা অধ্যাপক ড. রেজওয়ানুল ইসলাম, পরিবহন প্রশাসক অধ্যাপক ড. আনোয়ার হোসেন, ছাত্রলীগের সভাপতি শাহিনুর রহমান, সাধারণ সম্পাদক জুয়েল রানা হালিমসহ বিভিন্ন বিভাগের শিক্ষক-শিক্ষার্থী ও কর্মকর্তা-কর্মচারী। মঙ্গল শোভাযাত্রাটি ক্যাম্পাসের প্রধান প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ শেষে বাংলামঞ্চে গিয়ে শেষ হয়। এর আগে বৈশাখী উদযাপন উপলক্ষে তিন দিনব্যাপী বৈশাখী মেলা ও বিজ্ঞান মেলার উদ্বোধন করা হয়।

ঝালকাঠি
ঝালকাঠিতে বর্নাঢ্য আয়োজনে ১৪২৫ বাংলা নতুন বছরকে বরণ করলো ঝালকাঠিবাসী। সকাল ৬টায় শহরের স্থানীয় শিশুপার্কের মঞ্চে প্রভাতি অনুষ্ঠানমালায় নতুন বাংলা বছর বরণ করা হয়। জেলা প্রশাসনের আয়োজনে সাংস্কৃতিক সংগঠনের পাশাপাশি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান ও সামাজিক সংগঠন অনুষ্ঠানে অংশ নেয়। সকাল ৮টায় ঝালকাঠি জেলা প্রশাসক মো. হামিদুল হক এর নেতৃত্বে শিশু পার্ক থেকে বর্ষ বরণের মঙ্গল শোভাযাত্রা বের হয়ে শহরের মূল মূল সড়ক প্রদক্ষিণ শেষে একইস্থানে এসে মিলিত হয়। এতে ঝালকাঠির পুলিশ সুপার মো. জোবায়েদুর রহমানসহ নানা শ্রেণী-পেশার হাজারো মানুষ অংশগ্রহণ করেন। ব্যানার ফেস্টুন আর বাঙালি সংস্কৃতির নানা অনুসঙ্গে ছেয়ে যায় মঙ্গল শোভাযাত্রার মিছিল। এছাড়াও জেলা প্রশাসনের আয়োজনে স্থানীয় শিশুপার্কে মাঠে আয়োজন করা হয়েছে তিনদিনের বৈশাখী মেলা বাঙালির মেলা।

খাগড়াছড়ি
খাগড়াছড়ি পার্বত্য জেলায় বাংলা নববর্ষ ও বৈসাবি উপলক্ষে শরৎ স্মৃতি পাঠাগারের উদ্যোগে ‘সবুজ প্রাণের মিলন মেলায়, এসো সবাই সম্প্রতি ছড়াই’, ‘শরৎ স্মৃতি পাঠাগার মানুষ গড়ার হাতিয়ার’, ‘পাঠাগার চাই মাঠ চাই, বিকশিত জীবন চাই’ সব সেøাগানকে সামনে রেখে আয়োজন করা হল বর্ণাঢ্য মঙ্গল শোভাযাত্রা, চিত্রাঙ্কন প্রতিযোগিতা, তৈলাক্ত বাঁশ বাওয়ার খেলা, হাঁড়ি ভাঙ্গা খেলা, মিউজিক্যাল চেয়ার।

সকাল ১০টায় মঙ্গল শোভাযাত্রাটি শুরু হয়। মঙ্গল শোভাযাত্রাটি শরৎ স্মৃতি পাঠাগার থেকে শুরু হয়ে শাপলা চত্বর, কলা বাগান মোড়, কল্যাণপুর মোড় ঘুরে এসে চমক ভবনের সামনে এসে শেষ হয়। এরপর চিত্রাঙ্কন প্রতিযোগিতাসহ নানা ধরনের আয়োজন শুরু হয়। সেখানে উপস্থিত ছিলেন শরৎ স্মৃতি পাঠাগারের উপদেষ্টা শাহাদাত হোসেন, সভাপতি নাজির হোসেন, সম্পাদক প্রশান্ত কুমার বৈদ্যসহ সদস্যগণ উপস্থিত ছিলেন। পরে প্রতিযোগীদের মধ্যে পুরস্কার বিতরণের মধ্য দিয়ে আনুষ্ঠানিকতা শেষ হয়। অরিন্দম স্বাক্ষরিত প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়।

লক্ষ্মীপুর
বর্ণাঢ্য মঙ্গল শোভাযাত্রা, সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান ও আলোচনা সভার মধ্য দিয়ে লক্ষ্মীপুরে বর্ষবরণ (বাংলা ১৪২৫) করা হয়েছে। এ উপলক্ষে সকালে জেলা প্রশাসনের উদ্যেগে কালেক্টরেট ভবন প্রাঙ্গণ থেকে এক বর্ণাঢ্য শোভাযাত্রা বের হয়ে শহরের প্রধান প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ শেষে জেলা স্টেডিয়াম মাঠে গিয়ে শেষ হয়। শোভাযাত্রায় বাঙালির ঐতিহ্যবাহী গরুরগাড়ি, পালকী ও কামার-কুমার সমপ্রদায়সহ দেশীয় সংস্কৃতির বিভিন্ন দিক শোভা পায়। পরে স্টেডিয়াম মাঠে বর্ষবরণ উপলক্ষে এক আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। এতে প্রধান অতিথি ছিলেন বেসামরিক বিমান পরবিহন ও পর্যটন মন্ত্রী একেএম শাহজাহান কামাল। এ সময় উপস্থিত ছিলেন, লক্ষ্মীপুর জেলা প্রশাসক অঞ্জন চন্দ্র পাল, পুলিশ সুপার আসম মাহতাব উদ্দিন, জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি গোলাম ফারুক পিংকু, সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট নুর উদ্দিন চৌধুরী নয়ন, পৌর মেয়র আবু তাহের, সদর উপজেলা চেয়ারম্যান এক এম সালাহ উদ্দিন টিপুসহ জেলার বিভিন্ন পেশাজীবী সংগঠনের নেতৃবৃন্দ।

নাটোর
জেলা প্রশাসনের আয়োজনে বিভিন্ন কর্মসূচির মধ্য দিয়ে নাটোরে বাংলা নববর্ষ পালিত হয়েছে। এ উপলক্ষে শনিবার (১৪ এপ্রিল) সকালে শহরের কানাইখালী মাঠ থেকে এক বর্ণাঢ্য শোভাযাত্রা বের করা হয়। বিভিন্ন সংগঠন, শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বিভিন্ন প্রতীক, গ্রামীণ ঐতিহ্য মহিষের গাড়ি, ঘোড়াগাড়ি নিয়ে শোভাযাত্রায় অংশ নেয়। শোভাযাত্রায় স্থানীয় সংসদ সদস্য শফিকুল ইসলাম, জেলা প্রশাসক শাহিনা খাতুন, জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান অ্যাডভোকেট সাজেদুর রহমান খান ও পুলিশ সুপার বিপ্লব বিজয় তালুকদার সহ প্রশাসনের কর্মকর্তাবৃন্দ ও রাজনৈতিক নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন। শোভাযাত্রাটি শহরের প্রধান সড়ক প্রদক্ষিন করে নাটোর রাজবাড়ী চত্বরে গিয়ে শেষ হয়। সেখানে মুক্তমঞ্চে আয়োজন করা হয় আলোচনা সভা ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের। সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে স্থানীয় শিল্পীরা নববর্ষকে বরণ করে নিতে পরিবেশন করে বৈশাখী সঙ্গীত। এ ছাড়া একই স্থানে আয়োজন করা হয় তিন দিনব্যাপী গ্রামীণ মেলা।

চিলমারী (কুড়িগ্রাম)
কুড়িগ্রামে চিলমারীতে বর্ণাঢ্য আয়োজনের মধ্যদিয়ে বাঙালির বর্ষবরণ ও পহেলা বৈশাখ উৎসব পালন করা হয়। এ উপলক্ষে শনিবার সকাল সাড়ে আটটায় চিলমারী উপজেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে একটি মঙ্গল শোভাযাত্রা শহরের প্রধান প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ করে। এ সময় বিভিন্ন সামাজিক, সাংস্কৃতিক ও পেশাজীবী সংগঠন পৃথকভাবে উৎসব পালন করে। মঙ্গল শোভাযাত্রা শেষে উপজেলা পরিষদ চত্বরে উপজেলা নির্বাহী অফিসার মির্জা মুরাদ হাসান বেগের সভাপতিত্বে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। সভায় উপজেলা চেয়ারম্যান শওকত আলী সরকার বীরবিক্রম, উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান মো. আব্দুল কুদ্দুছ সরকার, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান মোছা. মর্জিনা বেগম জেলী, জেলা পরিষদ সদস্য মো. রেজাউল করিম লিচু, চিলমারী মডেল থানার ওসি (তদন্ত) মো. রাজু সরকার ও সাপ্তাহিক যুগের খবর সম্পাদক এস, এম নুরুল আমিন সরকার প্রমুখ বক্তব্য রাখেন। পরে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে উপজেলা শিল্পকলা একাডেমীর শিল্পীরা সংগীত পরিবেশন করেন। বৈশাখ উপলক্ষে উপজেলার বিভিন্ন এলাকায় উৎসবের পাশাপাশি দোকানে দোকানে হালখাতা, মেলা, সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান ও ঘুড়ি উৎসবে মেতে ওঠে সকল শ্রেণী-পেশার মানুষ।

দশমিনা (পটুয়াখালী)
পটুয়াখালীর দশমিনা উপজেলায় শনিবার (১৪ এপ্রিল) ১লা বৈশাখ ১৪১৫ বাংলা নববর্ষকে সাদরে বরণ করা হয়। এই উপলক্ষ্যে উপজেলা পরিষদ চত্বরে ৩ দিনব্যাপী বৈশাখী মেলার উদ্বোধন করা হয়। বাংলা নববর্ষ উদযাপন উপলক্ষে আয়োজিত বৈশাখী মেলার আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা এস.এম.ফরিদ উদ্দিন।

উপজেলা প্রশাসনের উদ্যোগে আয়োজিত অনুষ্ঠানের শুরুতেই সকাল ৮টায় পান্তা ইলিশ, সকাল ১০টায় বর্ণাট্য শোভাযাত্রা এবং দিনব্যাপী সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। এছাড়া বাংলা নববর্ষকে বরন করার জন্য উপজেলার বিভিন্ন সামাজিক, সাংস্কৃতিক ও রাজনৈতিক সংগঠন ব্যাপক কর্মসূচির আয়োজন করে। এদিকে তরঙ্গ খেলাঘর আসর এবং সদর ইউপি চেয়ারম্যান ও জেলা আওয়ামী লীগ নেতা এডভোকেট ইকবাল মাহমুদ লিটনের পক্ষ থেকে উপজেলার বিভিন্ন সড়কে মঙ্গল শোভাযাত্রা বের হয়।

নবাবগঞ্জ (দিনাজপুর)
দিনাজপুরের নবাবগঞ্জে ১লা বৈশাখে বর্ষ বরণ অনুষ্ঠান নানা আয়োজনের মাধ্যমে আনন্দ ঘন পরিবেশে অনুষ্ঠিত হয়েছে। উপজেলা প্রশাসনের আয়োজনে বর্ষ বরণে পান্তা ভাত ভোজন, মঙ্গল শোভাযাত্রা, হাসপাতাল ও এতিমখানায় ঐতিহ্যবাহী বাঙালি খাবার পরিবেশন এবং আলোচনা সভা ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়। বেলা সাড়ে ৯টায় উপজেলা পরিষদ চত্বর থেকে মঙ্গল শোভা যাত্রা বের হয়ে উপজেলা সদরের প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ শেষে পুনরায় উপজেলা পরিষদ চত্বরের আমতলায় মিলিত হয়। সেখানে উপজেলা নির্বাহী অফিসার মশিউর রহমানের সভাপতিত্বে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। সভায় প্রধান অতিথি হিসাবে বক্তব্য রাখেন সংসদ সদস্য শিবলী সাদিক। এরপর অনুষ্ঠিত হয় সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান।

লালপুর (নাটোর)
নাটোরের লালপুরে ব্যাপক উৎসাহ ও উদ্দীপনার মধ্য দিয়ে শনিবার (১৪ এপ্রিল) বাংলা নতুন বছর ১৪২৫ এর ১লা বৈশাখ উদযাপিত হয়েছে। লালপুর উপজেলা প্রশাসন, বিভিন্ন সেবামূলক সংগঠন ও শিক্ষা প্রতিষ্ঠান সমূহে দিবসটি উপলক্ষে নানা অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়।

উপজেলা প্রশাসনের আয়োজনে অনুষ্ঠিত বর্নাঢ্য শোভাযাত্রাটি উপজেলা চত্ব্র থেকে শুরু হয়ে গোপালপুর বাজার, রেলগেটসহ গুরুত্বপূর্ণ সড়ক সমূহ প্রদক্ষিন করে।

উপজেলা নির্বাহী অফিসার নজরুল ইসলামের সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন নাটোর-১ (লালপুর-বাগাতিপাড়া) আসনের সংসদ সদস্য এ্যাড. আবুল কালাম আজাদ এমপি। এ সময় অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন লালপুর উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান হারুনার রশিদ পাপ্পু, সহকারী কমিশনার (ভূমি) মুহাঃ আবু তাহির, লালপুর থানা ওসি আবু ওবায়েদ, লালপুর উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আফতাব হোসেন ঝুলফু, সাধারন সম্পাদক ইসাহাক আলী প্রমুখ।

ফরিদপুর
সকাল ৭টা থেকে শুরু করে দিনব্যাপী নানা কর্মসূচির মধ্যে দিয়ে বাংলা নববর্ষকে বরণ করলো ফরিদপুরবাসী। সকাল সাড়ে ৮টায় জেলা প্রশাসনে আয়োজনে বর্ণাঢ্য র‌্যালী বের করে। র‌্যালিতে বিভিন্ন সামাজিক সংগঠন থেকে শুরু করে বিভিন্ন শ্রেণী-পেশার মানুষ অংশ নেয়। পরে ফরিদপুর সরকারি রাজেন্দ্র কলেজ ক্যাম্পাসে বাংলা বর্ষবরণকে কেন্দ্র করে আয়োজন করা হয় সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান।অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসাবে বক্তব্য রাখেন স্থানীয় সরকার মন্ত্রী ইঞ্জিনিয়র খন্দকার মোশাররফ হোসেন।

এসময় উপস্থিত ছিলেন, জেলা প্রশাসক উম্মে সালমা তানজিয়া, জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান

লোকমান হোসেন মৃধা, পুলিশ সুপার মো. জাকির হোসেন খান, ফরিদপুর পৌর মেয়র শেথ মাহতাব আলী মেথু, ফরিদপুর সদর উপজেলার চেয়ারম্যান খন্দকার মোহতেশাম হোসেন বাবর, জেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি অ্যাড. গুবল চন্দ্র সাহাসহ বিভিন্ন শ্রেণী-পেশার মানুষ। প্রধান অতিথি তার বক্তব্যে বলেন, বাংলাঙ্গী জাতির জন্য এই বছরটি অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ, কারণ এই বছরের জাতীয় নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। তিনি বলেন, আওয়ামী লীগকে আবার ক্ষমতায় আনতে হবে বাংলা সংস্কৃতি ও মুক্তিযুদ্ধের চেতনা বাচিয়ে রাখার জন্য।

তিনি উল্লেখ করে বলেন অতীতের বিএনপির-জামায়াত সরকার দেশে মুক্তিযুদ্ধের চেতনা ও বাঙালি সংস্কৃতিকে ভন্ডুল করেছে। সেই সরকার মুক্তিযুদ্ধের চেতন বিশ্বাসী ছিলো না। তাই এখন থেকেই প্রতিটি বাঙালি ঘরে ঘরে বর্তমান সরকারের উন্নয়ন ও মুক্তিযুদ্ধে চেতনা বার্তা পৌছে দিতে হবে। সকলেই ঐক্যবদ্ধ থেকে দেশকে এগিয়ে নেওয়ার কাজে শেখ হাসিনার হাতকে শক্তিশালী করতে হবে। এদিকে সকালে ফরিদপুর ইঞ্জিনিয়ারিং কলেজ ও ফরিদপুর পলিটেকনিক ইন্সটিটিউট এর আয়োজেন মঙ্গল শোভা যাত্রা বের হয়। শোভাযাত্রায় শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের ছাত্র-ছাত্রী ও শিক্ষকরা অংশ নেয়। বিকাল ৫টায় রাজেন্দ্র কলেজ মাঠে অনুষ্ঠিত হবে বাংলার ঐতিহ্য হা ডু ডু ও লাঠি খেলা।

(সরাইল) ব্রাহ্মণবাড়িয়া
সরাইলে উৎসাহ উদ্দীপনা ও নানা আয়োজনে বাংলা নববর্ষ পালিত হয়েছে। গতকাল শনিবার সকালে মঙ্গল শোভাযাত্রার মাধ্যমে বাঙালির ঐতিহ্যকে লালন করে উপজেলা প্রশাসন আয়োজন করেছে। প্রীতি পান্তা ভোজ, মঙ্গল শোভাযাত্রা, মৃৎশিল্পের মেলা, নববধু সেজে পালকি নিয়ে শোভাযাত্রা, মুখোশসহ নানা উপকরণে সজ্জিত এ শোভাযাত্রাটি ছিল আকর্ষণীয়। মঙ্গল শোভাযাত্রা শেষে উপজেলা মিলনায়তনে আলোচনা সভায় উপজেলা নির্বাহী অফিসার উম্মে ইসরাতের সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি ছিলেন ব্রাহ্মণবাড়িয়া-২ আসনের সংসদ সদস্য এড: জিয়াউল হক মৃধা। বিশেষ অতিথি ছিলেন উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান এডভোকেট আব্দুর রহমান, সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার (সরাইল সার্কেল) মনিরুজ্জামান ফকির, সরাইল ডিগ্রী কলেজের অধ্যক্ষ মৃধা আহমাদুল কামাল, সরাইল সহকারী কমিশনার (ভূমি) মো. ইকবাল হোসেন, উপজেলা মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান তাহমিনা আক্তার, সরাইল উপজেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম আহবায়ক-১ উম্মে ফাতেমা নাজমা বেগম শিউলি আজাদ, যুগ্ম আহবায়ক এডঃ আব্দুর রাশেদ, সরাইল ডিগ্রী কলেজের রাষ্টবিজ্ঞান বিভাগের চেয়ারম্যান মারজিয়া সানি, জেলা জাতীয় পার্টির সহ-সভাপতি রহমত হোসেন, সরাইল সদর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আব্দুল জব্বার, আওয়ামী লীগ নেতা মাহফুজ আলী, জেলা পরিষদ সদস্য পায়েল হোসেন মৃধা, আওয়ামী লীগ নেতা জয়নাল উদ্দিন, জাতীয় পার্টির নেতা এমদাদুল হক সালেখ, জিয়াউদ্দিন লাভলু, মজিদ বক্স প্রমুখ। এছাড়া সরাইল উপজেলার বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে ব্যাপক আয়োজনে নববর্ষ বরণ অনুষ্ঠিত হয়েছে।

কেরানীগঞ্জ (ঢাকা)
নানা আয়োজনের মধ্য দিয়ে কেরানীগঞ্জে পালিত হয়েছে বাংলা নববর্ষ। বাংলা নববর্ষ উদযাপন উপলক্ষে শনিবার (১৪ এপ্রিল) সকালে আনন্দ শোভাযাত্রার আয়োজন করেন কেরানীগঞ্জ উপজেলা পরিষদ। বর্ষবরণ উৎসব উপলক্ষে কেরানীগঞ্জ উপজেলা চত্বরে সকালে পান্তা খাওয়া, সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান ও আলোচনা সভার আয়োজন করে উপজেলা শিল্পকলা একাডেমী। কেরানীগঞ্জ উপজেলা শিল্পকলা একাডেমী আয়োজিত দিনব্যাপী সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে কেরানীগঞ্জ শিল্পকলা একাডেমীর নিয়মিত শিল্পীরা ছাড়াও নাচ-গান পরিবেশন করেন স্থানীয় বরেণ্য শিল্পীরা। উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও উপজেলা শিল্পকলা একাডেমীর সভাপতি শাহে এলিদ মাইনুল আমিনের সভাপতিত্বে ও উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা ও উপজেলা শিল্পকলা একাডেমীর সাধারণ সম্পাদক শহিদুল ইসলামের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠিত এ বৈশাখী আয়োজনে অন্যদের মধ্যে আরো উপস্থিত ছিলেন, নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ও সহকারী কমিশনার (ভূমি) পারভেজুর রহমান, উপজেলা প্রকৌশলী মোহাম্মদ শাহজাহান আলী ও কৃষি কর্মকর্তা ফখরুল আলম প্রমুখ । তেঘরিয়া ইউপি চেয়ারম্যান জজ মিয়া বাংলা নববর্ষ উপলক্ষে এলাকার জনগণকে শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন জানান। রুহিতপুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ ও কেরানীগঞ্জ মডেল থানা স্বেচ্ছাসেবকলীগ যৌথভাবে আনন্দ শোভাযাত্রার আয়োজন করে। এ সময় উপস্থিত ছিলেন রুহিতপুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ সভাপতি সোলাইমান জামান, সাধারন সম্পাদক অহিদুল হক ও মডেল থানা স্বেচ্ছাসেবক লীগ সভাপতি হারুন অর রশিদ প্রমুখ। এছাড়া কদমতলী বন্দডাকপাড়া এলাকায় স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন শিক্ষা অর্ণিবান শতাধিক গরীব-দুস্থ ও পথ শিশুর মাঝে বৈশাখের নতুন জামা, খেলনা ও দুপুরের খাবার বিতরন করে। এ সময় উপস্থিত ছিলেন সংগঠনের উপদেষ্টা ও দক্ষিন কেরানীগঞ্জ থান স্বেচ্ছাসেবকলীগ সভাপতি মিরাজুর রহমান সুমন, যুবলীগ নেতা শিপু আহমেদ, দক্ষিণ কেরানীগঞ্জ থান স্বেচ্ছাসেবকলীগ সাধারণ সম্পাদক রমজান আলী মেম্বার, আওয়ামী লীগ নেতা ফরিদ হোসেন, উপদেষ্টা রিয়াজ খান, প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি মিজানুর রহমান সবুজ প্রমুখ।

বাংলাদেশের জ্বালানি খাতে কাজ করতে চায় ব্রিটেন

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক

image

বাংলাদেশর জ্বালানি খাতে কাজ করার আগ্রহ প্রকাশ করেছে ব্রিটেন। রোববার (২২ জুলাই) সচিবালয়ে

ছাত্রলীগকে সতর্ক করেছেন প্রধানমন্ত্রী : ওবায়দুল কাদের

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক

image

তিনি নিজে এ বিষয়ে ছাত্রলীগের নেতাদের সতর্ক করে বলেছেন, এমন অভিযোগ যেন আর না শুনি

পশুর হাটে নিরাপত্তার জন্য র‌্যাব-পুলিশের পরিকল্পনা

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক

image

পবিত্র ঈদুল আজহাকে কেন্দ্র করে রাজধানীতে বসবে ২১টি পশুর হাট। হাটগুলোতে

sangbad ad

আমি এই সংবর্ধনা বাংলার মানুষকে উৎসর্গ করলাম

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক

image

প্রধানমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনা বলেছেন, আমি জনগণের সেবক। জনগণের জন্যই কাজ করে যাব। জনগণের পাওয়াই আমার পাওয়া

প্রধানমন্ত্রীকে সংবর্ধনায় বন্ধ থাকবে যেসব সড়ক

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক

image

সাড়ে নয় বছরের শাসন আমলে অনন্য সফলতার জন্য প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে ঐতিহাসিক গণসংবর্ধনা প্রদান করা হবে। শনিবার (২১ জুলাই) বিকেল

সাড়ে নয় বছরের শাসন আমলে অনন্য সফলতার জন্য প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা পাচ্ছেন গণসংবর্ধনা

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক

image

বর্তমান সরকারের টানা সাড়ে নয় বছরের শাসন আমলে বাংলাদেশের ধারাবাহিক

জনগণই দু’দেশের সম্পর্কের ঘনিষ্ঠতার মূল ভিত্তি : হর্ষবর্ধন শ্রিংলা

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক

image

ভারত-বাংলাদেশের জনগণই দুই দেশের সম্পর্কের ঘনিষ্ঠতার মূল ভিত্তি বলে মন্তব্য করেছেন ভারতীয় হাইকমিশনার

হাঙ্গেরীতে রসাটমের নিউক্লিয়ার কিডস প্রোগামে বাংলাদেশের অংশগ্রহণ

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক

রাশিয়ার রাষ্ট্রীয় পারমাণবিক শক্তি কর্পোরেশন ‘রসাটম’ এর আয়োজনে হাঙ্গেরীতে অনুষ্ঠিতব্য ‘ ১০ম নিউক্লিয়ার কিডস’ প্রোগামে বাংলাদেশ

মায়ানমারের বিরুদ্ধে আইসিসির রুলিং চায় বাংলাদেশ

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক

image

রোহিঙ্গাদের বলপূর্বক বাংলাদেশে অনুপ্রবেশ করানোর কারণে মিয়ানমারের বিরুদ্ধে ইন্টান্যাশনাল ক্রিমিনাল কোর্ট (আইসিসি) এর কাছে রুলিং চেয়েছে

sangbad ad