• banlag
  • newspaper
  • epaper

ঢাকা , বৃহস্পতিবার, ১৪ নভেম্বর ২০১৯

 

বাড়ছে মশা বাড়ছে মৃতের সংখ্যা নেই কোন কার্যকর উদ্যোগ

নিউজ আপলোড : ঢাকা , মঙ্গলবার, ০৬ আগস্ট ২০১৯

সংবাদ :
  • নিজস্ব বার্তা পরিবেশক
image

দেশে অ্যাডিস মশার ছড়াছড়িতে ডেঙ্গুজ্বর মহামারি আকারে ছড়িয়ে পড়ে মানুষের মৃত্যু বাড়লেও মশক নিবারনী দফতরের কর্তাব্যক্তিরা নাকে তেল দিয়ে গুমাচ্ছেন। মশক নিয়ন্ত্রণ অধিদফতরের মশা মারার ওষুধের ড্রামগুলো খালি পড়ে আছে গত কয়েক বছর ধরে। কর্মকর্তা-কর্মচারীদের কেউ কর্তব্যস্থলে দায়িত্ব পালন না করেই মাসে মাসে বেতন-ভাতা তুলছে। মশা নিবারন দফতরকেই অ্যাডিস মশার উৎপন্নস্থল হিসেবে দেখা গেছে।

অন্যদিকে ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশন উত্তর সিটি করপোরেশন থেকে মশার ওষুধ ধার নিয়ে স্বল্প পরিসরে ছিটাচ্ছে। ডেঙ্গুর প্রকোপ বাড়লেও অ্যাডিস মশা নির্মূলে দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের ওষুধ ছিটানোর পরিমাণ বাড়েনি। বরং সল্প পরিসরে ওষুধ ছিটিয়ে ব্যাপক ওষুধ দেয়া হচ্ছে বলে প্রচার চালাচ্ছে ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশন। মঙ্গলবার (৬ আগস্ট) দুর্নীতি দমন কমিশনের এনফোর্সমেন্ট টিম অভিযান চালিয়ে এসব দৃশ্য দেখাতে পায়। হট লাইনে পাওয়া অভিযোগের ভিত্তিত্বে এ অভিযান চালায় দুদক।

দুদক সূত্র জানায়, মশক নিয়ন্ত্রণে দায়িত্ব সঠিকভাবে পালন না করার অভিযোগে ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশন এবং মশক নিবারন দফতরে (লালবাগ, ঢাকেশ^রী মন্দির এলাকায়) একই টিমের মাধ্যমে দুইটি পৃথক অভিযান পরিচালনা করেছে দুদক। দুদক অভিযোগকেন্দ্রে (হটলাইন- ১০৬) আগত এক অভিযোগের প্রেক্ষিতে প্রধান কার্যালয় থেকে মঙ্গলবার এ অভিযান পরিচালিত হয়। দুদক টিম প্রথমে ঢাকা মশক নিবারনী দফতর এ অভিযান পরিচালনা করে। মশক নিবারনী দফতরের প্রধান কর্মকর্তাকে দফতরে অনুপস্থিত পাওয়া যায়। দফতরে মজুদকৃত মশা নিয়ন্ত্রণে ব্যবহৃত ঔষধের ড্রাম খালি অবস্থায় পাওয়া যায়। যা অস্বাস্থ্যকর এবং মশার বিস্তারে সহায়ক প্রতীয়মান হয়। গোডাউনে অস্বাস্থ্যকর পরিবেশ এবং মশার অবাধ বিস্তারর ও বিচরণ লক্ষ্য করে দুদক টিম।

পরবর্তীতে টিম ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের মশক নিধন কার্যক্রম পর্যবেক্ষণ করে। টিম জানতে পারে, মশা নিধনে ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশন উত্তর সিটি করপোরেশনের নিকট হতে মশার ওষুধ ধার নিয়ে ব্যবহার করছে। দুদক টিম আরও লক্ষ্য করে, দেশব্যাপী ডেঙ্গুর প্রকোপ ভয়াবহ হারে বাড়লেও পূর্বে যে হারে ওষুধ ব্যবহার করা হতো সেই একই হারেই এখনও ওষুধ ব্যবহার করা হচ্ছে। এর প্রেক্ষিতে গত চার বছরে কী পরিমাণ মশার ওষুধ ক্রয় করা হয়েছে এবং সেগুলো কী হারে ব্যবহার করা হয়েছে তা আগামীকালের ভিতরে জানানোর জন্য ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনকে অনুরোধ করেছে অভিযান পরিচালনাকারী টিম।

কেন্দ্রীয় মশক নিবারন দফতরে গিয়ে দেখা গেছে মশক নিবারন দফতর এখন মশা উৎপাদনের দফতরে পরিণত হয়েছে। এখানকার কর্মকর্তারা গত ১ যুগেও কোন কাজ করেনি। কাজ না করে শুধু বসে বসেই বেতনভাতা গিলেছে। মশক নিবারন দফতরে গিয়ে দেখা যায়, দেশে অ্যাডিস মশা বেড়ে গিয়ে ডেঙ্গু মহামারি আকারে ছড়িয়ে পড়লেও তাদের কোন মাথাব্যাথা নেই। ডেঙ্গুতে প্রতিদিন মৃত্যুর ঘটনা ঘটলেও অ্যাডিস মশা নির্মূলে মশক নিবারন দফতরের কি করণীয় তা নিজেরাও জানে না।

দুদক সূত্র জানায়, বিভিন্ন মাধ্যমে অভিযোগ পাওয়া গেছে মশক নিবারনের জন্য ওষুধ না এনে বরাদ্ধ হওয়া অর্থ লুটপাট করেছে কর্মকর্তা-কর্মচারীরা। এরসঙ্গে ঢাকা সিটি করপোরেশনের কর্মকর্তাসহ জনপ্রতিনিধিরাও জড়িত রয়েছে। এসব বিষয়ে ইতোমধ্যে অনুসন্ধান করছে দুদক।

মুজিববর্ষে ঘরে ঘরে জ্বলবে বিদ্যুতের আলো : প্রধানমন্ত্রী

বাসস

image

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা দৃঢ় আশাবাদ ব্যক্ত করে বলেছেন, তার সরকার ২০২১ সাল নাগাদ সব উপজেলায় শতভাগ বিদ্যুতায়নের মাধ্যমে

দেশে খেলাপি ঋণের পরিমাণ ১ লাখ ১৪ হাজার ৯৭ কোটি টাকা : সংসদে অর্থমন্ত্রী

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক

image

অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল বলেছেন, গত জুন পর্যন্ত দেশে ঋেলাপি ঋণের পরিমাণ ১ লাখ ১৪ হাজার ৯৭ কোটি টাকা। এসব ঋণের মধ্যে

মানুষের কল্যাণে প্রয়োজনে বাবার মত জীবনটাও দিয়ে যাবো

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক

image

প্রধানমন্ত্রী ও সংসদ নেতা শেখ হাসিনা বলেছেন, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান দেশের মানুষের জন্য জীবন দিয়ে গেছেন।

sangbad ad

স্পিকারের সঙ্গে আইসিআরসি প্রতিনিধি দলের সাক্ষাৎ

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক

image

স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরীর সঙ্গে সৌজন্য সাক্ষাৎ করেছেন ইন্টারন্যাশনাল কমিটি অব দ্য রেডক্রস (আইসিআরসি) প্রতিনিধি দলের প্রধান পিয়ের

প্রতিবন্ধী কল্যাণ তহবিলের মতো তৃতীয় লিঙ্গদেরও কল্যাণ তহবিল থাকা দরকার

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক

image

প্রতিবন্ধী কল্যাণ তহবিলের মতো তৃতীয় লিঙ্গদেরও একটি কল্যাণ তহবিল থাকা

নারীদের খেলাধুলায় উৎসাহিত করতে সুযোগ-সুবিধা বাড়াতে হবে : স্পিকার

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক

image

স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী বলেছেন, বাংলাদেশের প্রত্যন্ত অঞ্চলের মেয়েরা আজ খেলাধুলায় অংশগ্রহণ করছে, যা বিশ্বের নিকট

দেশে খাদ্য সংকট নেই : দু’হাজার সাত শতাধিক গুদাম খাদ্যশস্যে পূর্ণ

রাকিব উদ্দিন

image

খাদ্য মজুদের রেকর্ড গড়ছে সরকার। দেশের দুই হাজার সাত শতাধিক খাদ্য গুদাম খাদ্যশস্যে পরিপূর্ণ। মজুদ বৃদ্ধির পাশাপাশি খোলা বাজারে

নতুন সড়ক আইন প্রয়োগ আরও ৭দিন পর : কাদের

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক

image

সড়ক পরিবহনের নতুন আইন কার্যকর করার সময় আরও এক সপ্তাহ বাড়ানো হয়েছে। ৭ নভেম্বর বৃহস্পতিবার বনানীতে বাংলাদেশ সড়ক

কৃষি জমি নষ্ট করে শিল্পায়ন নয় : কৃষক লীগের সম্মেলনে প্রধানমন্ত্রী

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক

image

প্রধানমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনা বলেছেন, বাংলাদেশ কৃষিনির্ভর দেশ। কৃষকরাই বাংলাদেশকে বাঁচিয়ে রাখে। কৃষক ফসল

sangbad ad