• banlag
  • newspaper
  • epaper

ঢাকা , শনিবার, ২২ সেপ্টেম্বর ২০১৮

 

বঙ্গোপসাগরের পানি ১ মিটার বাড়লে প্লাবিত হবে উপকূলবর্তী ১৬ শতাংশ স্থান : বিশেষজ্ঞদের আশঙ্কা

নিউজ আপলোড : ঢাকা , মঙ্গলবার, ১৫ মে ২০১৮

সংবাদ :
  • নিজস্ব বার্তা পরিবেশক
image

বিশ্বের তাপমাত্রা বেড়ে যাওয়ার কারণে হিমায়িত বরফ গলে যাচ্ছে। যা আমাদের দেশে চলে আসছে বলে আশঙ্কা করছেন বিশেষজ্ঞরা। তারা বলেছেন, বঙ্গোপসাগরের পানির উচ্চতা বেড়ে যাচ্ছে লক্ষ করছি। ধারণা করছি, সমুদ্রের পানি ১ মিটার বেড়ে গেলে বাংলাদেশের উপকূলবর্তী ১৬ শতাংশ স্থান প্লাবিত হবে। যারফলে প্রায় ৩ কোটি মানুষ আক্রান্ত হবে। আমাদের জীব বৈচিত্র ধ্বংস হয়ে যাবে। এতো বিশাল জনগোষ্টিকে কোথাও সড়িয়ে নেয়া সম্বব নয়। তাই বিশ্ব জলবায়ু মোকাবেলা এখনই করতে হবে।

মঙ্গলবার (১৫ মে) ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউশন বাংলাদেশের (আইইবি) কাউন্সিল কক্ষে (নতুন ভবন) অনুষ্ঠিত ‘ক্লাইমেট চেঞ্জ ভালনারেবলেটিস এন্ড রেসপন্স অ্যাট আইক্রো এন্ড মাইক্রো লেভেলস’ শীর্ষক সেমিনারে বক্তারা এমন অভিমত প্রকাশ করেন। আইইবি’র ৭০তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে এই সেমিনার আয়োজন করে আইইবির ঢাকা কেন্দ্র। ঢাকা কেন্দ্রের চেয়ারম্যান প্রকৌশলী মো. ওয়ালিউল্লাহ সিকদার সভাপতিত্বে সেমিনারে বক্তব্য দেন আইইবির প্রেসিডেন্ট প্রকৌশলী মো. আবদুস সবুর, ভাইস-প্রেসিডেন্ট (প্রশাসন ও অর্থ) প্রকৌশলী মোঃ নূরুজ্জামান ও সম্মানী সাধারণ সম্পাদক প্রকৌশলী খন্দকার মনজুর মোর্শেদ। স্বাগত বক্তব্য দেন আইইবি ঢাকা কেন্দ্রের সম্মানী সম্পাদক প্রকৌশলী মো. শাহাদাৎ হোসেন (শীবলু)। এতে মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন অধ্যাপক ড. প্রকৌশলী এস. আই. খান।

অধ্যাপক ড. প্রকৌশলী এস. আই. খান বলেন, বর্তমান বিশে^ নানা ধরনের দূর্যোগ দেখা যায়। কিছু কিছু দূর্যোগ হলো প্রাকৃতিক কারণে। যেমন ভূমিকম্প, বন্যা, বজ্রপাত ইত্যাদি। বাংলাদেশ সব কয়টি দূর্যোগ মোকাবেলা করে আসছে। বর্তমানে সবচেয়ে বড় দূর্যোগ হলো মানুষের তৈরী জলবায়ু পরিবর্তন। আমরা জানি যে, মানুষের বিভিন্ন কাজের কারণে বায়ুমন্ডলের গ্যাস বেড়ে যাচ্ছে। গ্যাস বেড়ে যাওয়ার কারণে বায়ু মন্ডলে উষ্ণতা বেড়ে যাচ্ছে যে, গ্যাসগুলোর কারণে পৃথিবীর তাপমাত্রা বাড়ছে তাকে গ্রীন হাউজ বলে থাকি। যদিও গ্রীন হাউজ এর জন্য বাংলাদেশের কোন ভূমিকা নেই। যাদের ভূমিকা রয়েছে তার মধ্যে চীন,যুক্তরাষ্ট্র, ভারত, ইউরোপ তারা ৮০% গ্রীন হাউজ গ্যাস তৈরী করে থাকে। এর জন্য উন্নয়নশীল দেশগুলোকে বেশী ক্ষতিগ্রস্ত হতে হয়।

তিনি আরও বলেন, বিশে^র তাপমাত্রা বেড়ে যাওয়ার কারণে হিমায়িত বরফ গলে যাচ্ছে। যা আমাদের দেশে চলে আসছে। বঙ্গোপসাগরের পানির উচ্চতা বেড়ে যাচ্ছে লক্ষ করছি। আমরা ধারণা করছি সমুদ্রের পানি ১ মিটার বেড়ে গেলে বাংলাদেশের উপকূলবর্তী ১৬ শতাংশ স্থান প্লাবিত হবে। যার ফলে প্রায় ৩ কোটি মানুষ আক্রান্ত হবে। আমাদের জীব বৈচিত্র ধ্বংস হয়ে যাবে। এতো বিশাল জনগোষ্টিকে কোথাও সড়িয়ে নেয়া সম্বব নয়। তাই বিশ্ব জলবায়ু মোকাবেলা এখনি করতে হবে। আমরা নানা ভাবে এটি মোকাবেলা করেতে পারি। আমাদের প্রাথমিক, মাধ্যমিক এবং উচ্চমাধ্যমিক পাঠ্য বইতে যুক্ত করতে পারি। সেগুলো আমার তুলে ধরতে পারি। এগুলো ছাত্র ছাত্রীদের শিক্ষা দিতে পারি।

মূল প্রবন্ধে উল্লেখ্য করা হয়, ২০১৬ সাল থেকে বজ্রপাতকে প্রাকৃতিক দূর্যোগ হিসেবে ধরে নিয়েছি। বজ্রপাতের ফলে শত শত মানুষ মারা যাচ্ছে। বজ্রপাত মোকাবেলা করার জন্য বাংলাদেশ সরকার নানান পরিকল্পনা নিয়েছে। এর মধ্যে লক্ষ লক্ষ তাল গাছ লাগানোর পািরকল্পনা রয়েছে। নদীবন্দর গুলো আছে সেগুলোতে ‘লাইট নিং ডিটেক্টিভ সেনসর’ বসানোর পরিকল্পনা রয়েছে। এই সেনসর গুলো বসানোর ফলে ১০ থেকে ৬০ মিনিট আগে বজ্রপাতের সংকেত পাওয়া যাবে। যার ফলে মানুষ সাবধান হতে পারবে। বাংলাদেশে যে হাউর অঞ্চলগুলো আছে সে হাউরে লোক জন কাজ করে থাকে। কিন্তু বজ্রপাতের জন্য কোন আশ্রয় স্থল নাই। সেই জন্য বর্তমান সরকার কিছু কিছু বজ্রপাত আশ্রয় কেন্দ্র তৈরী করার পরিকল্পনা করছে। যার ফলে অল্প সময়ের নোটিশে তারা আশ্রয়কেন্দ্র আশ্রয় নিতে পারবে।

ড. প্রকৌশলী এস. আই. খান আরও বলেন, বঙ্গবন্ধু স্যাটেলইট-১ পুরোপরি ভাবে চালু হলে আগামী ছয় মাস পর থেকে বাংলাদেশে প্রাকৃতিক দূর্যোগের আগাম আভাস পাবে। পটুয়াখালি থেকে কক্সবাজার পর্যন্ত বর্ষার পানি আটকাতে ৬০ বিলিয়ন ডলার ব্যয়ে ৩০ বছর সময়ের মধ্যে জাতিসংঘ এবং বিশ্বব্যাংকের আর্থিক সহযোগিতার মাধ্যমে জাপানি প্রযুক্তি দ্বারা ‘বে ক্রস ড্যাম’ নির্মানের বিষয়ে তিনি অধিক গুরুত্ব আরোপ করেন। বাংলাদেশ সরকার এই বিষয় গুলো পর্যালোচনা করে দেখবে। এসময় অধ্যাপক ড. প্রকৌশলী এস. আই. খান গঙ্গা চুক্তির পাশাপাশি তিস্তা চুক্তির বিষয়ে ভারত সরকারের আসু সহযোগিতা কামনা করেন।

ইভিএম নিয়ে সন্দেহ দূর করতে প্রচারণা চলানোর নির্দেশ সিইসির

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক

image

প্রধান নির্বাচন কমিশনার (সিইসি) কে এম নূরুল হুদা ইলেকট্রনিক ভোটিং মেশিন (ইভিএম) নিয়ে

সংসদের ২২তম অধিবেশন সমাপ্ত

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক

image

দশম জাতীয় সংসদের ২২তম অধিবেশন বৃহস্পতিবার (২০ সেপ্টেম্বর) শেষ হয়েছে। স্পিকার ড. শিরীন

রোহিঙ্গা ক্যাম্প পরিদর্শন করলেন সেনাবাহিনী প্রধান

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক

image

সেনাবাহিনী প্রধান জেনারেল আজিজ আহমেদ বৃহস্পতিবার (২০ সেপ্টেম্বর) কক্সবাজারের

sangbad ad

উদ্বেগের মধ্যেই ডিজিটাল নিরাপত্তা বিল পাস

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক

তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি আইনের ব্যাপক সমালোচিত ৫৭ ধারাসহ কয়েকটি ধারা বাতিল করে বহুল

সাংবাদিকতা পেশাকে দেশের বৃহত্তর স্বার্থে ব্যবহারে প্রধানমন্ত্রীর আহ্বান

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক

image

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সাংবাদিকতা পেশাকে দেশের বৃহত্তর স্বার্থে ব্যবহারের আহ্বান জানিয়ে

ছয় কোম্পানির ছয় রঙের বাস চলবে

মাহমুদ আকাশ

image

ছাত্রছাত্রীদের ‘নিরাপদ সড়ক চাই’ আন্দোলনের পর রাজধানী ঢাকার গণপরিবহন

মাতৃমৃত্যু রোধে সকলকে আন্তরিকভাবে কাজ করার আহ্বান স্পিকারের

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক

image

স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী মাতৃমৃত্যু রোধে সকলকে আন্তরিকভাবে কাজ করার

৮০০০ টাকা নুন্যতম মজুরি শ্রমিক অসন্তোষের সুযোগ দেখছেন না প্রতিমন্ত্রী

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক

image

তৈরি পোশাক শিল্পের শ্রমিকদের জন্য আট হাজার টাকা ন্যূনতম মজুরি ঘোষণা নিয়ে অসন্তোষের

কঙ্গোয় শান্তি মিশনে মেডেল প্যারেড পরিদর্শন বিমানবাহিনী প্রধানের

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক

image

জাতিসংঘ শান্তিরক্ষা মিশন এলাকা ডেমোক্রেটিক রিপাবলিক অফ কঙ্গোতে বিমানবাহিনী

sangbad ad