• banlag
  • newspaper
  • epaper

ঢাকা , বুধবার, ২৫ এপ্রিল ২০১৮

 

প্রধানমন্ত্রীর সুনির্দিষ্ট ঘোষণা না এলে কোটা সংস্কার আন্দোলন চলবে

নিউজ আপলোড : ঢাকা , মঙ্গলবার, ১০ এপ্রিল ২০১৮

সংবাদ :
  • আবদুল্লাহ আল জোবায়ের
image

কোটা সংস্কারের দাবিতে ঢাবি টিএসসির সামনে আন্দোলনকারীদের বিক্ষোভ সমাবেশ-সংবাদ

সরকারি চাকরিতে কোটা ব্যবস্থার সংস্কার নিয়ে প্রধানমন্ত্রীর সুনির্দিষ্ট ঘোষণা না আসা পর্যন্ত অনির্দিষ্টকালের জন্য ক্লাস-পরীক্ষা বর্জন ও অবরোধ অব্যাহত রাখার ঘোষণা দিয়েছে আন্দোলনকারীরা। মঙ্গলবার (১০ এপ্রিল) সন্ধ্যা পৌনে ৬টায় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) কেন্দ্রীয় গ্রন্থাগারের সামনে এক সংবাদ সম্মেলনে এ ঘোষণা দেন আন্দোলনকারীরা। সরকারি চাকরিতে বিদ্যমান কোটা সংস্কারের দাবিতে আন্দোলনকারীদের ‘রাজাকারের বাচ্চা’ ঘোষণা দেয়ায় কৃষিমন্ত্রী মতিয়া চৌধুরীর বক্তব্য প্রত্যাহার এবং পরবর্তী কর্মসূচি ঘোষণা করতে এ সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করা হয়।

সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন কোটা সংস্কার আন্দোলনের কেন্দ্রীয় কমিটির যুগ্ম আহ্বায়ক রাশেদ খান, নুরুল হক নুর, বিন ইয়ামিন মোল্লা, মাহফুজ খান প্রমুখ। এ সময় বক্তব্য রাখেন রাশেদ খান ও নুরুল হক নুর।

রাশেদ খান বলেন, কোটা সংস্কারের সুনির্দিষ্ট ঘোষণা না আসা পর্যন্ত আমরা অহিংস আন্দোলন চালিয়ে যাব। সবাই যেভাবে রাজপথে অবস্থান করছে, সেভাবেই থাকবে। যে গণজোয়ার সৃষ্টি হয়েছে সুনির্দিষ্ট ঘোষণা না আসা পর্যন্ত তা বন্ধ হবে না।

তিনি বলেন, জাতীয় সংসদে কৃষিমন্ত্রী মতিয়া চৌধুরী কোটা সংস্কার আন্দোলনকারীদের রাজাকার বলা এবং আগামী বাজেটের পরে কোটা সংস্কারে হাত দেয়া হবে বলে অর্থমন্ত্রীর বক্তব্যের পর আমাদের মনে হয়েছে, কোটা সংস্কার নিয়ে সহসাই কোন ঘোষণা আসবে না। তাই আমরা আগামী ৭ মে পর্যন্ত আন্দোলন স্থগিত রাখার সিদ্ধান্ত থেকে সরে আসছি। কোটা সংস্কার নিয়ে প্রধানমন্ত্রীর সুনির্দিষ্ট ঘোষণা না আসা পর্যন্ত আমরা সারাদেশের সব কলেজ-বিশ^বিদ্যালয়ে অনির্দিষ্টকালের জন্য ক্লাস-পরীক্ষা বর্জনের ঘোষণা দিচ্ছি।

এ সময় নুরুল হক নুর বলেন, সরকারের কাছে আমাদের তিনটি দাবি। তা হলো- কোটা সংস্কার নিয়ে প্রধানমন্ত্রীর সুনির্দিষ্ট ঘোষণা দিতে হবে, আন্দোলনে গ্রেফতারকৃতদের মুক্তি দিতে হবে এবং আন্দোলনে আহতদের চিকিৎসা দিতে হবে। তিনি প্রধানমন্ত্রীর কাছে কোটা সংস্কারের সুনির্দিষ্ট ঘোষণা দিয়ে শিক্ষার্থীদের বিপদের হাত থেকে বাঁচানোর আহ্বান জানান।

এ সময় কোটা সংস্কারের দাবিতে বিভক্ত আন্দোলনকারীরাও তাদের সঙ্গে যোগ দেয়। ফলে প্রায় দুই সহস্রাধিক শিক্ষার্থী ঢাবি কেন্দ্রীয় গ্রন্থাগারের সামনে জড়ো হয় সংবাদ সম্মেলন শেষ হলে সেখানে একটি ড্রোন উড়তে দেখা যায়। তবে কেন এবং কিভাবে এটি এসেছে বা কারা এনেছে তা জানা যায়নি।

এর আগে মঙ্গলবার বেলা ১১টার দিকে ঢাকা বিশ^বিদ্যালয়ের (ঢাবি) কেন্দ্রীয় গ্রন্থাগারের সামনে আন্দোলন চলমান রাখার পক্ষের সঙ্গে আন্দোলন স্থগিত রাখার পক্ষের অংশের কথাকাটাকাটি হয়। পরে আন্দোলন চলমান রাখার পক্ষের অংশ বেলা সাড়ে ১১টার দিকে টিএসসি সংলগ্ন রাজু ভাস্কর্যের পাদদেশে অবস্থান নেয়। সেখান থেকে তারা সারাদিন সেøাগানে স্লোগানে আন্দোলন চাঙ্গা রাখে। এ সময় তারা আশপাশের রাস্তা বন্ধ করে দিলে এ রাস্তায় যান চলাচল বন্ধ হয়ে যায়। বেলা ২টার দিকে চারুকলার সামনে পুলিশ কয়েক রাউন্ড টিয়ারশেল নিক্ষেপ করে। তবে এতে কেউ হতাহত হয়নি। সবশেষে বিকেল পৌনে ৬টায় মতিয়া চৌধুরীর বক্তব্য প্রত্যাহার দাবি এবং পরবর্তী কর্মসূচি ঘোষণার জন্য সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করলে আন্দোলনকারীরা আবার এক হয়ে যায়। সংবাদ সম্মেলন শেষে শিক্ষার্থীরা পুরো ক্যাম্পাসে মিছিল করে আবার রাজু ভাস্কর্যে এসে অবস্থান নেয়। এই রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত শিক্ষার্থীরা এখানেই অবস্থান করছিল।

উপাচার্যের বাসভবনে হামলায় জড়িত নয় ঢাবি শিক্ষার্থীরা : সরকারি চাকরিতে কোটা সংস্কারের দাবিতে আন্দোলনরত ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) কোন শিক্ষার্থী বিশ^বিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক মো. আখতারুজ্জামানের বাসভবনে আক্রমণ করেনি বলে দাবি করেছেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষকরা। মঙ্গলবার বেলা ১১টায় ঢাবির অপরাজেয় বাংলার পাদদেশে আয়োজিত এক মানববন্ধনে শিক্ষকরা এসব কথা বলেন। ঢাবি উপাচার্য ভবনে হামলা ও উপাচার্যকে সপরিবারে হত্যাচেষ্টার প্রতিবাদে ঢাকা বিশ^বিদ্যালয় শিক্ষক সমিতি এই মানববন্ধনের আয়োজন করে। মানববন্ধনে বিশ্ববিদ্যালয়ের শতাধিক শিক্ষক অংশগ্রহণ করেন।

মানববন্ধনে শিক্ষকরা বলেন, যদি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা উপাচার্যের বাসভবনে হামলা করত তাহলে হামলার জন্য তাদের এত প্রক্রিয়ার মধ্যে দিয়ে যেতে হত না। ঢাবি শিক্ষার্থীরা এ হামলায় অংশ নেয়নি তার প্রমাণ এই যে, তারা উপাচার্যের বাসভবন চিনেন। কিন্তু হামলাকারীরা উপাচার্যের বাসভবন চিনে না বলেই তারা প্রথমে প্রো-উপাচার্যের ভবনে (যেখানে বর্তমান উপাচার্য দীর্ঘদিন ছিলেন) হামলা চালায়। পরবর্তীতে তারা রোকেয়া হলের পেছনের গেট দিয়ে উপাচার্য ভবনে ঢোকার চেষ্টা করে। তবে এক্ষেত্রেও তারা ব্যর্থ হয়ে শেষে উপাচার্যের বাসভবনে হামলা চালায়। এতেই প্রমাণ হয় তারা ঢাকা বিশ^বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী নন। হামলাকারীরা সবাই বহিরাগত।

ঢাকা বিশ^বিদ্যালয় শিক্ষক সমিতির সভাপতি অধ্যাপক ড. এএসএম মাকসুদ কামালের সভাপতিত্বে এবং সাধারণ সম্পাদক অধ্যাপক শিবলী রুবাইয়াতুল ইসলামের সঞ্চালনায় মানববন্ধনে বক্তব্য রাখেন কবি ও অধ্যাপক ড. মুহাম্মদ সামাদ, সামাজিক বিজ্ঞান অনুষদের ডিন অধ্যাপক ড. সাদেকা হালিম, সাদা দলের আহ্বায়ক অধ্যাপক ড. মো. আকতার হোসেন খান, সিন্ডিকেট সদস্য ও বিশ^বিদ্যালয়ের শিক্ষক চন্দ্রনাথ পোদ্দার, সিন্ডিকেট সদস্য নীলিমা আকতার, সহকারী প্রক্টর আবদুর রহিম, ঢাবি শিক্ষক হুমায়ুন কবির, রোকেয়া হলের প্রাধ্যক্ষ জিনাত হুদা, ঢাবি শিক্ষিকা শান্তা তৌহিদা, স্বাধীনতা চিকিৎসক পরিষদের সভাপতি ইকবাল আর্সলান, সিন্ডিকেট সদস্য বাহলুল মজনুন চুন্নু, নাট্যব্যক্তিত্ব রামেন্দু মজুমদার প্রমুখ।

মানববন্ধনে রোকেয়া হলের প্রাধ্যক্ষ ও সমাজবিজ্ঞান বিভাগের শিক্ষক অধ্যাপক ড. জিনাত হুদা বলেন, হামলাকারীরা কোনভাবেই ঢাকা বিশ^বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী হতে পারে না। বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য ও তার পরিবারকে হত্যা করার জন্য পাকিস্তানের প্রেতাত্মারা আবারও জেগে ওঠেছিল।

সাদা দলের আহ্বায়ক অধ্যাপক ড. মো. আকতার হোসেন খান বলেন, উপাচার্যের বাসভবনে হামলার সঙ্গে বিশ্ববিদ্যালয়ের কোন শিক্ষার্থী জড়িত ছিল না। তিনি বলেন, আমরা হাওয়ায় তরবারি উড়াতে চাই না, আমরা দোষীদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি চাই।

বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষিকা শান্তা তৌহিদা বলেন, ‘হামলাকারীরা উপাচার্য ভবনে ঢুকে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ছবি ভাঙচুর করেছেন। তাই বলা যায়, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্যের বাসভবনে বিশ^বিদ্যালয়ের কোন শিক্ষার্থী এই ধরনের হামলা করতে পারেন না। যারা এ আন্দোলনকে রাজনৈতিক উদ্দেশ্য হাসিলের জন্য ব্যবহার করতে চান তারাই উপাচার্যের বাসভবনে হামলা চালিয়েছেন।

উপাচার্যের বাসভবনে হামলাকে রাজনৈতিক উদ্দেশ্যপ্রণোদিত হিসেবে উল্লেখ করে সমাপনী বক্তব্যে শিক্ষক সমিতির সভাপতি অধ্যাপক ড. এএসএম মাকসুদ কামাল বলেন, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ক্যাম্পাসের শান্ত পরিস্থিতি অশান্ত করতে কিছু সুবিধাবাদীরা কোটা আন্দোলনের নামে ঢাবি উপাচার্যের বাসভবনে হামলা চালিয়েছে। কোটা সংস্কার আন্দোলনকারীদের দাবিগুলোকে যৌক্তিক বলে আখ্যায়িত করেন বিশ্ববিদ্যালয়ের এই জ্যেষ্ঠ শিক্ষক। তিনি সরকারকে আগামী সাত তারিখের মধ্যে কোটা সংস্কারের জন্য আহ্বান জানান।

মানববন্ধনে শিক্ষক সমিতির সভাপতি অধ্যাপক এএসএম মাকসুদ কামাল বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক মো. আখতারুজ্জামানের বাসভবনে হামলার ঘটনাকে নিন্দনীয় ও ইতিহাসের বর্বরোচিত আখ্যায়িত করে উপাচার্যের বাসভবন পরিদর্শন করার জন্য বুধবার (১১ এপ্রিল) সকাল ১১টা থেকে দুপুর একটা পর্যন্ত বিশ্ববিদ্যালয়ের সব সাবেক শিক্ষার্থী, বিভিন্ন পত্রিকার সম্পাদক, সুশীল সমাজ ও রাজনীতিবিদদের আমন্ত্রণ জানান।

ইমরানকে গ্রেফতারের দাবি ছাত্রলীগের : কোটা সংস্কার আন্দোলনে এক শিক্ষার্থী নিহতের প্রোপাগা-া ছড়িয়েছেন এমন অভিযোগে গণজাগরণ মঞ্চের একাংশের মুখপাত্র ইমরান এইচ সরকারের বিরুদ্ধে তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি (আইসিটি) আইনে মামলা দায়ের এবং তাকে গ্রেফতারের দাবি জানিয়েছে ছাত্রলীগ। মঙ্গলবার দুপুরে ঢাবি অপরাজেয় বাংলা পাদদেশে আয়োজিত এক বিক্ষোভ সমাবেশে এ দাবি জানান ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় সভাপতি সাইফুর রহমান সোহাগ। ঢাবি উপাচার্যের বাসভবনে ভাঙচুর, লুটপাট এবং বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার পরিবেশ অস্থিতিশীল করার প্রতিবাদে এই বিক্ষোভ সমাবেশের আয়োজন করে ছাত্রলীগ।

সমাবেশে ছাত্রলীগের পক্ষ থেকে দুটি দাবি তুলে সোহাগ বলেন, কোটা সংস্কার আন্দোলনে নিহত হওয়ার গুজব তুলে ইমরান এইচ সরকার ফেসবুকে প্রোপাগা-া চালিয়েছে। তাই ২৪ ঘণ্টার মধ্যে তার বিরুদ্ধে আইসিটি আইনে মামলা দায়ের করে তাকে গ্রেফতার করতে হবে। এছাড়া উপাচার্য বাসভবনে হামলাকারীদের শাস্তির আওতায় আনতে হবে।

সাধারণ সম্পাদক এসএম জাকির হোসাইন বলেন, আগামী মে মাসে প্রধানমন্ত্রী কোটা সংস্কারের আশ্বাস দিয়েছেন। এরপরও যারা আন্দোলন করছে এরা বিশৃঙ্খলাকারী। এদের আন্দোলনে শিক্ষার্থীদের না যাওয়ার আহ্বান জানান তিনি।

বিক্ষোভ সমাবেশে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের সভাপতি আবিদ আল হাসান, সাধারণ সম্পাদক মোতাহার হোসেন প্রিন্স, ছাত্রলীগের ঢাকা মহানগর দক্ষিণের সভাপতি বায়েজিদ আহমেদ খান, উত্তরের সভাপতি সৈয়দ মিজানুর রহমান প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

উন্নয়নের ধারাবাহিকতা রক্ষায় সহযোগিতার হাত বাড়ান : আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়কে অর্থমন্ত্রী

সংবাদ ডেস্ক

image

স্বল্পোন্নত দেশ থেকে উত্তরণের পরবর্তী চ্যালেঞ্জ মোকাবিলায় ও উন্নয়নের ধারাবাহিকতা অব্যাহত রাখতে

বিজিবি-বিএসএফ সীমান্ত সম্মেলন শুরু

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক

image

ঢাকায় শুরু হয়েছে বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ (বিজিবি) ও ভারতের বর্ডার সিকিউরিটি ফোর্সের (বিএসএফ)

একটি মাত্র এক্সরে মেশিন তাও নষ্ট

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক

image

ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের জরুরি বিভাগে এক্সরে মেশিনটি নষ্ট। রহস্যজনক কারণে

sangbad ad

সরকার বিনা মূল্যে ১৯ ক্যাটাগরি কর্মী পাঠাবে আমিরাতে

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক

গৃহকর্মে নিয়োজিত ১৯ ক্যাটাগরির শ্রমিকদের বিনামূল্যে সংযুক্ত আরব আমিরাতে পাঠাবে সরকার।

প্রধানমন্ত্রী ও তাঁর আট দিনের সফর

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক

image

সৌদি আরব ও যুক্তরাজ্যে আট দিনের সরকারি সফর শেষে সোমবার (২৩ এপ্রিল) সকালে

তারেক লন্ডনে বসে সন্ত্রাসী কর্মকান্ড করছে : প্রধানমন্ত্রী

image

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা লন্ডনে অবস্থানরত বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানের সন্ত্রাসী

নির্বাচনকে ঘিয়ে সৃষ্ট অরাজকতার চেষ্টা কঠোরভাবে দমন করা হবে

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক

image

ডিএমপি কমিশনার আছাদুজ্জামান মিয়া বলেছেন, এ বছর নির্বাচনকে ঘিরে কোন অরাজকতা

চিনিশিল্প রক্ষায় ১০০ কোটি টাকা দিচ্ছে সরকার

অর্থনৈতিক বার্তা পরিবেশক

image

বাংলাদেশ চিনি ও খাদ্য শিল্প করপোরেশনকে (বিএসএফআইসি) ভর্তুকি হিসেবে আরও ১০০ কোটি টাকা দিচ্ছে

ছাত্রলীগকে নতুন আঙ্গিকে বিকশিত করার কাজ চলছে

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, আওয়ামী লীগ সভাপতি

sangbad ad