• banlag
  • newspaper
  • epaper

ঢাকা , বৃহস্পতিবার, ২১ জুন ২০১৮

 

প্রত্যেক জেলা শহরে এক বা একাধিক শিশু আদালত থাকবে

নিউজ আপলোড : ঢাকা , সোমবার, ২৬ ফেব্রুয়ারী ২০১৮

image

সব জেলা শহরে শিশু আদালত গঠন করতে এ সংক্রান্ত আইন সংশোধনীর প্রস্তাবে সায় দিয়েছে সরকার। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সভাপতিত্বে সোমবার প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে মন্ত্রিসভার বৈঠকে শিশু (সংশোধন) আইন- ২০১৮’ এর খসড়ার চূড়ান্ত অনুমোদন দেওয়া হয়।

পরে সচিবালয়ে এক প্রেস ব্রিফিংয়ে মন্ত্রিপরিষদ সচিব মোহাম্মদ শফিউল আলম বলেন, “২০১৩ সালে শিশু আইন প্রণয়ন করা হয়। এখানে একটু সমস্যা হচ্ছিল, শিশু আদালত গঠন নিয়ে ক্রাইসিস তৈরি হয়েছে।

“এই ক্রাইসিসকে দূর করার জন্য এই সংশোধনীটি প্রস্তাব করা হয়েছে। এখানে আদালতের এখতিয়ারকে সম্প্রসারণ করা হয়েছে। যাতে কোনো অবস্থাতেই মামলা থেমে না থাকে বা কেউ যেন বিলম্বিত বিচার ব্যবস্থার শিকার না হয়।”

শফিউল বলেন, প্রত্যেক জেলা শহরে শিশু আদালত নামে এক বা একাধিক আদালত থাকবে। বর্তমানে এই আদালত আলাদাভাবে নেই, এই আইন সংশোধন হওয়ার পর থাকবে।

আইনের সংশোধনী কার্যকর হলে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনের অধীন গঠিত সব নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনাল শিশু আদালত হিসেবে গণ্য হবে বলেও জানান মন্ত্রিপরিষদ সচিব।

“তবে কোনো জেলায় এমন আদালত না থাকলে ওই জেলার জেলা ও দায়রা জজ শিশু আদালত হিসেবে গণ্য হবে।”

মন্ত্রিসভা বৈঠকে বাংলাদেশ কর্মচারী কল্যাণ বোর্ড (সংশোধন) আইন, ২০১৮’ এর খসড়া চূড়ান্ত অনুমোদন দেওয়া হয়েছে।

শফিউল বলেন, “এটি ২০০৪ সালের আইন, সংশোধনীগুলো তেমন গুরুত্বপূর্ণ নয়। কর্মকর্তা-কর্মচারী নির্বিশেষে সবাই কর্মচারী নামে অবহিত হবেন, এটা একটা সংশোধনী।

“এখানে ক্ষমতা অর্পণের একটি বিষয় এসেছে। চাঁদার শিডিউলে চাঁদা দেওয়া হয়, সেটা যাতে ওনারা বোর্ডের মাধ্যমে সিদ্ধান্ত নিয়ে সময়ে সময়ে হ্রাস-বৃদ্ধি করতে পারেন, তার ক্ষমতা চাওয়া হয়েছে, এটাই মূলত মূল প্রস্তাব।”

মন্ত্রিপরিষদ সচিব বলেন, “কল্যাণ তহবিলের মাসিক চাঁদা দেওয়া হত মূল বেতনের এক শতাংশ বা সর্বোচ্চ ৫০ টাকা। এখন সর্বোচ্চ ১৫০ টাকা করার প্রস্তাব করা হয়েছে। যৌথ বীমার সর্বোচ্চ মাসিক প্রিমিয়াম ৪০ টাকা থেকে বাড়িয়ে ১০০ টাকা করার প্রস্তাব করা হয়েছে।”

প্রস্তাবিত আইনে মাসিক কল্যাণ ভাতা এক হাজার টাকা থেকে বাড়িয়ে দুই হাজার টাকা, সাধারণ চিকিৎসা অনুদান সর্বোচ্চ ২০ হাজার থেকে বাড়িয়ে ৪০ হাজার টাকা, দাফনের জন্য পাঁচ হাজার টাকা থেকে বাড়িয়ে ১০ হাজার টাকা এবং যৌথ বীমার এককালীন অনুদান এক লাখ টাকা থেকে বাড়িয়ে দুই লাখ টাকা করার প্রস্তাব করা হয়েছে বলেও জানান শফিউল আলম।

বস্ত্র আইন- ২০১৮ এর খসড়ার চূড়ান্ত অনুমোদন দিয়েছে মন্ত্রিসভা। খসড়া আইনে বস্ত্র শিল্পের নিবন্ধনের বিধান রাখা হয়েছে জানিয়ে শফিউল বলেন, বস্ত্র অধিদপ্তরের মহাপরিচালক নিবন্ধকের দায়িত্ব পালন করবেন। “সরকার প্রয়োজনে বিধির মাধ্যমে নির্ধারিত পদ্ধতিতে ও শর্তে বস্ত্র শিল্পকে প্রণোদনা দিতে পারবে আইনে সেই বিধান রাখা হয়েছে।”

গত বছর বস্ত্র খাতের রপ্তানি আয় মোট রপ্তানি আয়ের ৮৩ দশমিক ৯৫ শতাংশ ছিল বলেও জানান মন্ত্রিপরিষদ সচিব। শফিউল জানান, জাতীয় ক্রীড়া পরিষদ আইনের খসড়ার চূড়ান্ত অনুমোদন দিয়েছে মন্ত্রিসভা।

“১৯৭৪ সালে জাতীয় ক্রীড়া পরিষদ আইন প্রণয়নের পর কয়েকটি অর্ডিনেন্সের মাধ্যমে সংশোধন করা হয়। সামরিক শাসনামলে কিছু সংশোধনী হওয়ায় আদালতের নির্দেশনায় আইনটিকে নতুন করে বাংলায় করা হচ্ছে।”

শাসরিক শাসনামলে প্রণীত আইনের মধ্যে যেগুলোর প্রয়োজন আছে তা নতুন করে এবং বাংলায় রূপান্তরে উচ্চ আদালতের নির্দেশনা রয়েছে।

বিডি

ছয় বছরেও শিক্ষা আইন চূড়ান্ত হয়নি

রাকিব উদ্দিন

image

দীর্ঘ ছয় বছরেও শিক্ষা আইন চূড়ান্ত করতে পারেনি শিক্ষা মন্ত্রণালয়। গোঁজামিল দিয়ে গত বছর

নির্বাচনকালীন সরকার অক্টোবরে গঠিত হতে পারে : সেতুমন্ত্রী

image

জাতীয় সংসদ নির্বাচনের জন্য নির্বাচনকালীন সরকার চলতি বছরের অক্টোবরেই গঠিত হতে পারে। নির্বাচনকালীন

মাদক ব্যবসায়ীদের বিরুদ্ধে ১ লাখ ৬ হাজার ৫৩৬টি মামলা হয়েছে: প্রধানমন্ত্রী

image

মাদকের বিরুদ্ধে জিরো টলারেন্স নীতি গ্রহণ করে গত বছর মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তরসহ

sangbad ad

সবার দৃষ্টি গাজীপুরে

ফয়েজ আহমেদ তুষার ও অমিত হালদার

image

আলোচনা-সমালোচনায় শেষ হওয়া খুলনা সিটি নির্বাচনের পর এবার সবার দৃষ্টি গাজীপুর সিটি করপোরেশন

প্রস্তুত আ’লীগ অপ্রস্তুত বিএনপি

ফয়েজ আহমেদ তুষার ও অমিত হালদার

image

চলতি বছরের (২০১৮) ডিসেম্বরের শেষ সপ্তাহে একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন অনুষ্ঠানের লক্ষ্যে কাজ

আজিজ আহমেদ’কে সেনাপ্রধান পদে নিয়োগ

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক

image

বিজিবির সাবেক মহাপরিচালক আজিজ আহমেদ সেনাপ্রধান হিসেবে নিয়োগ পেয়েছেন। তাকে...

মানুষের নিরাপত্তা দেয়া বড় ইবাদত-ডিএমপি কমিশনার

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক

image

নিজেরা ঈদের নামাজ না পড়ে সাধারণ মানুষের নামাজের নিরাপত্তা দেয়াও বড় ইবাদত বলে মন্তব্য

স্থায়ী ঠিকানা পেল ১০০ ভিক্ষুক

সিএসএম তপন, কিশোরগঞ্জ (নীলফামারী)

image

পুনর্বাসিত ১০০ জন ভিক্ষুকের মুখে ফুটেছে হাসি। প্রধানমন্ত্রীর পক্ষ থেকে ঘর পেয়ে আনন্দে

স্পিকারের সঙ্গে সংসদের কর্মকর্তাদের ঈদ পরবর্তী শুভেচ্ছা বিনিময়

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক

image

স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী সঙ্গে সোমবার (১৮ জুন) জাতীয় সংসদ ভবনে ঈদ পরবর্তী শুভেচ্ছা বিনিময়

sangbad ad