• banlag
  • newspaper
  • epaper

ঢাকা , মঙ্গলবার, ১৬ অক্টোবর ২০১৮

 

নদীপথকে মাদকের ট্রানজিট হিসেবে ব্যবহার করতে দেয়া হবে না-নৌ মন্ত্রী

নিউজ আপলোড : ঢাকা , রবিবার, ১০ জুন ২০১৮

সংবাদ :
  • নিজস্ব বার্তা পরিবেশক
image

মাদক পাচারকারীদের কোনভাবেই নদীপথকে মাদকের ট্রানজিট হিসেবে ব্যবহার করতে দেয়া হবে না। নদীপথে মাদক পাচার রোধে নৌ পুলিশের কঠোর নজরদারি বাড়ানো হয়েছে। যদি কোন মাদক পাচারকারী নদীপথকে মাদকের রুট হিসেবে ব্যবহার করতে চায় তাহলে ওই মাদক ব্যবসায়ীর কোন অস্তিত্ব থাকবে না। রোববার (১০ জুন) নৌ পুলিশের আয়োজনে মাদকবিরোধী প্রচারাভিযান এবং নৌপথের নিরাপত্তা বিষয়ে এক সমাবেশে বক্তারা এসব কথা বলেন।

দুপুর ৩টায় সদরঘাটে নৌ পুলিশের উদ্যোগে মাদকবিরোধী প্রচারাভিযান এবং নৌপথের নিরাপত্তা নিয়ে এক সমাবেশের আয়োজন করা হয়। শেখ মারুফ মোহাম্মদ মারুফ হাসানের সভাপতিত্বে সমাবেশে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন নৌ মন্ত্রী শাজাহান খান। অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন বিশিষ্ট কলামিস্ট সৈয়দ আবুল মকসুদ, বিআইডব্লিটিএর চেয়ারম্যান কমোডর এম মোজাম্মেল হক প্রমুখ।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে নৌমন্ত্রী শাজাহান খান বলেন, বিদেশি চক্রান্তে এদেশকে ধ্বংস করতেই ইয়াবা, ফেনসিডিলসহ বিভিন্ন মাদক বাংলাদেশে পাচার হচ্ছে। মাদক এখন আমাদের জন্য ক্যান্সার হয়ে দাঁড়িয়েছে। ক্যান্সার যখন বেড়ে যায় তখন কেমোথেরাপিতে কাজ হয় না, অপারেশন করতে হয়। তেমনি মাদক নামের ক্যান্সার ভালো করতে হলে কেমোথেরাপিতে কাজ হবে না। এজন্য প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশে মাদকবিরোধী অভিযানের নামে অপারেশন শুরু হয়েছে।

নৌমন্ত্রী বলেন, মাদকের সঙ্গে অবৈধ অস্ত্র, অবৈধ অর্থের যোগসূত্র রয়েছে। আর মাদককে কেন্দ্র করেই অবৈধ অস্ত্র, অর্থ এবং সন্ত্রাসের সৃষ্টি। তাই নদীপথে যাতে কোন মাদক পাচার না হয় এ জন্য নৌপথকে নিরাপদ রাখতে নৌ পুলিশকে সব ধরনের সহযোগিতা করবে নৌ মন্ত্রণালয়।

বিশেষ অতিথির বক্তব্যে বিশিষ্ট কলামিস্ট সৈয়দ আবুল মকসুদ বলেন, মাদকে যেভাবে সমাজ ধ্বংস হচ্ছে এটা বন্ধে সরকারকেই এগিয়ে আসতে হবে। নৌ পুলিশ গঠন করে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা একটি জাতীয় দায়িত্ব পালন করেছেন। সম্মিলিতভাবে উদ্যোগ না নিলে সরকার কোনভাবেই মাদক নির্মূল করতে পারবে না। একাত্তরে সবাই যেমন একত্রিত হয়ে এদেশ থেকে পাকিস্তানিদের বিতারিত করেছে তেমনি মাদক ব্যবসায়ীদেরও বিতারিত করতে হবে।

বাণিজ্য বৈষম্য নিরসনে অন্তর্ভুক্তিমূলক অবাধ বাণিজ্যনীতি প্রণয়ন করতে হবে : স্পিকার

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক

image

স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী বলেছেন, টেকসই উন্নয়ন লক্ষ্য অর্জনে বাণিজ্যের ভূমিকা

ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের ৯টি ধারা সংশোধনে আগামী সংসদ অধিবেশনে প্রস্তাব আনার দাবি

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক

image

সংসদের আগামী অধিবেশনেই ‘ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন, ২০১৮’ এর বিতর্কিত ৯টি ধারা

পদ্মা সেতুতে রেলসংযোগ কাজের উদ্বোধন করলেন প্রধানমন্ত্রী

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক

image

দীর্ঘ অপেক্ষার পর শুরু হলো পদ্মা সেতুর রেলসংযোগ প্রকল্পের নির্মাণ কাজ। পদ্মা সেতু হয়ে

sangbad ad

দারিদ্র্য দূরীকরণে পল্লী অঞ্চলের উন্নয়নের বিকল্প নেই

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক

image

দেশের দারিদ্র্য বিমোচনে পল্লী অঞ্চলের উন্নয়নের বিকল্প নেই। পল্লী অঞ্চলের দারিদ্র্য দূরীকরণে দেশের বৃহৎ জনগোষ্ঠীকে

বাংলাদেশের মার্কিন রাষ্ট্রদূত হিসেবে শপথ নিতে যাচ্ছেন আর্ল রবার্ট মিলার

কুটনৈতিক বার্তা পরিবেশক

image

বাংলাদেশে মার্কিন রাষ্ট্রদূত হিসেবে নিয়োগর অনুমোদন পেয়েছে আর্ল মিলারের। ঢাকায় যুক্তরাষ্ট্র

সরকারি কলেজে বেসরকারি কর্মচারীদের চাকরী সরকারিকরণসহ ৫ দফা দাবি

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক

image

সরকারি কলেজে নিয়োজিত বেসরকারি কর্মচারীদের নিয়োগের তারিখ থেকে সরকারিকরণসহ ৫ দফা দাবি

রূপপুর পারমাণবিক বিদ্যুৎকেন্দ্র ভবন চলতি বছরের মধ্যেই নির্মাণ

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক

image

সরকারি প্রকল্পে বিভিন্ন মন্ত্রণালয়ের আওতাধীন বহুতল ভবন নির্মাণের কাজ দ্রুত শেষ

ট্রাফিক আইন ভঙ্গ করলে প্রভাবশালীদের পাশাপাশি আইনশৃঙ্খলা বাহিনীকেও এক বিন্দু ছাড় দেয়া হবে না : ডিএমপি কমিশনার

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক

image

সমাজের প্রভাবশালী ও দায়িত্বশীল ব্যক্তিরা আইন না মানলে সাধারণ মানুষকে আইন মানানো সম্ভব নয়। তাই

ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে ৯টি ধারা সংশোধনের দাবিতে মানববন্ধন কর্মসূচি ঘোষণা

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক

image

ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের বিতর্কিত ৯টি ধারা সংশোধনের দাবিতে মানববন্ধন করবে ‘সম্পাদক পরিষদ’। আগামী

sangbad ad