• banlag
  • newspaper
  • epaper

ঢাকা , মঙ্গলবার, ২৬ মার্চ ২০১৯

 

তেলভিত্তিক বিদ্যুৎকেন্দ্র থেকে সরে আসতে চায় সরকার : বিদ্যুৎ প্রতিমন্ত্রী

নিউজ আপলোড : ঢাকা , রবিবার, ১০ মার্চ ২০১৯

সংবাদ :
  • নিজস্ব বার্তা পরিবেশক
image

বিদ্যুৎ, জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদ বিপু, যতদ্রুত সম্ভব লিকুইড ফুয়েল (তেলভিত্তিক বিদ্যুৎ উৎপাদন) থেকে আমাদের বের হয়ে আসতে হবে। সমস্য হচ্ছে, বড় বিদ্যুৎকেন্দ্রগুলো উৎপাদনে আসতে সময় লাগছে। আর চাইলেও ভূমি সল্পতার কারণে কয়লাভিত্তিক বিদ্যুৎকেন্দ্র নির্মাণ সম্ভব নয়। তাই এখনো তেলভিত্তিক বিদ্যুৎকেন্দ্র চালাতে হচ্ছে। ১০ মার্চ রোববার সকালে রাজধানীর গুলশানে ‘খাজানা গার্ডেনিয়া গ্র্যান্ড হল’এ সেন্টার ফর পলিসি ডায়ালগ (সিপিডি) আয়োজিত ‘পাওয়ার এন্ড এনার্জি সেক্টর : ইমিডিয়েট ইস্যুজ এন্ড চ্যালেঞ্জেস’ শীর্ষক সংলাপে

সিপিডি’র চেয়ারম্যান অধ্যাপক রেহমান সোবহানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে মূল আলোচনায় বিদ্যুৎ ও জ্বালানি খাতের বিশেষজ্ঞদের মধ্যে ব্র্যাক ইউনিভার্সিটির উপ-উপাচার্য অধ্যাপক ড. ম. তামিম, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) ভূতত্ত্ব বিভাগের অধ্যাপক ড. বদরুল ইমাম ও ডেফোডিল ইউনিভার্সিটির প্রকৌশল বিভাগের ডিন অধ্যাপক ড. এম. শামসুল আলম বক্তব্য রাখেন। সিপিডির ফেলো অধ্যাপক মোস্তাফিজুর রহমানের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন প্রতিষ্ঠানের গবেষণা পরিচালক ড. খন্দকার গোলাম মোয়াজ্জেম। বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশ এন্টারপ্রাইজ ইন্সটিটিউটের প্রেসিডেন্ট অ্যাম্বাসেডর ফারুক সোবহান। উন্মুক্ত আলোচনায় অংশ নেন বাংলাদেশে নিযুক্ত অস্ট্রেলিয়ার রাষ্ট্রদূত জুলিয়া নিব্লেটর, নরওয়ের রাষ্ট্রদূত সিডলে ব্লেকেন-সহ বিদ্যুৎ ও জ্বালানি খাতের সরকারি সাবেক কর্মকর্তা, ব্যবসায়ী সংগঠনের নেতা ও বিদ্যুৎ খাতের বেসরকারি প্রতিষ্ঠানের প্রতিনিধিরা।

বিদ্যুৎ প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদ বিপু বলেন, ২০২১ সালের মধ্যে মধ্যম আয়ের এবং ২০৪১ সালের মধ্যে উন্নত দেশ হওয়ার যে ঘোষণা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা দিয়েছেন তা বাস্তবায়নে বিদ্যুৎ-জ্বালানি খাতের উন্নয়ন অতি গুরুত্বপূর্ণ। আমার জায়গা থেকে আমি দ্রুত সার্বিক উন্নয়নের চেষ্টা করছি। তিনি বলেন, জ্বালানি নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে সমন্বিত পরিকল্পনা গ্রহণ করা সময়ের দাবী। ২০৪০ সালের মধ্যে ৬০ হাজার মেগাওয়াট বিদ্যুৎ উৎপাদনে প্রায় ৭১ বিলিয়ন ডলার বিনিয়োগ প্রয়োজন। প্রতিমন্ত্রী বলেন, কয়লা দিয়ে হাত ময়লা করে (কয়লা দিয়ে বিদ্যুৎ উৎপাদন করে নিজেদের উন্নয়ন করে) বিশ্বের উন্নত দেশগুলো এখন আমাদের ক্লিন (পরিবেশ বান্ধব) হতে বলছে। প্রতিমন্ত্রী বলেন, সাশ্রয়ি মূল্যে নিরবচ্ছিন্ন বিদ্যুৎ প্রদান আমাদের অন্যতম চ্যালেঞ্জ। সবাই কম মূল্যে বিদ্যুৎ ও জ্বালানি চায় অথচ কয়লাভিত্তিক বিদ্যুৎ নিয়ে সমালোচনা করে। নেপাল থেকে জলবিদ্যুৎ আমদানির প্রক্রিয়া এগিয়ে চলছে।

অধ্যাপক ড. ম. তামিম বলেন, আমরা অনেক দিন হলো সমুদ্রসীমা বিজয় অর্জন করেছি। কিন্তু এখন পর্যন্ত সেভাবে তেল-গ্যাস অনুসন্ধান হয়নি। কয়লাভিত্তিক বিদ্যুৎ কেন্দ্রের কথা বলা হচ্ছে। অনেকগুলো চুক্তি করা হয়েছে, সেখানে মাত্র দুটির কাজ চলছে। আর অন্যগুলো আলোচনার মধ্যে সীমাবদ্ধ। এখান থেকে দ্রুত বের হয়ে আসতে হবে।

অধ্যাপক ড. বদরুল ইমাম বলেন, সাগরে তেল-গ্যাস অনুসন্ধানে মাল্টি-ক্লায়েন্ট সার্ভের সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। যার ফলাফল আসতে অনেক সময় লাগবে। অথচ সাগরের একই অঞ্চলে ভারত ও মিয়ানমার সরাসরি অনুসন্ধান করে তেল-গ্যাসের সন্ধান পেয়েছে। এসব বিষয় ভেবে দেখতে হবে।

অধ্যাপক ড. এম. শামসুল আলম বলেন, বিইআরসি কেন আইন মেনে গণশুনানি করতে পারছে না। আমরা বলেছি তারা নিরপেক্ষ নয়। ১০টি মামলা ঝুলছে তাদের নামে। যখন দৈনিক ১ হাজার মিলিয়ন ঘনফুট (এমএমসিএফ) এলএনজি আসবে তখন ঘাটতি দাঁড়াবে ৩১ হাজার কোটি টাকা এমন হিসেব দিয়ে গ্যাসের দাম বাড়ানোর প্রস্তাব করা হয়েছে। অথচ যখন ৫০০ এমএমসিএফডি আসে তখন বলা হয়েছিল ঘাটতি সাড়ে ৪ হাজার কোটি টাকা। ভোক্তার ঘরে না দিয়েই কোনো যুক্তিতে গ্যাসের দাম বৃদ্ধির শুনানি হচ্ছে। তিনি বলেন, ভারত ৬ ডলার দিয়ে এলএনজি কিনতে পারলে আমরা কেনো ১০ ডলার দিয়ে কিনব। বিদ্যুৎ ও জ্বালানি খাতের ঘাটে ঘাটে দুর্নীতি হচ্ছে মন্তব্য করে এসব রুখতে প্রতিমন্ত্রীর প্রতি অনুরোধ জানান তিনি।

মূল প্রবন্ধে বাংলাদেশের বিদ্যুৎ ও জ্বালানি খাতের সাফল্য-ব্যর্থতা, সম্ভাবনা ও করণীয় বিভিন্ন দিক উঠে আসে। অংশগ্রহণকারীদের বক্তব্যে সরকারি-বেসরকারি বিদ্যুৎ কেন্দ্রের মধ্যে সমতা, বিদ্যুৎ খাত ও অন্যান্য খাতে তরলীকৃত প্রাকৃতিক গ্যাস (এলএনজি) ব্যবহারের ভারসাম্য, একক প্রতিষ্ঠানের উপর নির্ভরতা হ্রাস, প্রতিবেশি দেশ সমূহ তেকে বিদ্যুৎ ও জ্বালানি আমদানির ভারসাম্য ইত্যাদি বিষয় আলোচনায় স্থান পায়।

আমিত্ত্বও একটি বড় সমস্যা : দুদক চেয়ারম্যান

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক

image

দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) চেয়ারম্যান ইকবাল মাহমুদ বলেছেন, বাংলাদেশের অনেক সমস্যার মধ্যে আমিত্ত্বও একটি বড় সমস্যায় পরিণত হয়েছে।

বিজিবি’র সকল ইউনিটে যথাযোগ্য মর্যাদায় মহান স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবস উদযাপিত

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক

image

বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ (বিজিবি) প্রতি বছরের ন্যায় এবারও বিপুল উৎসাহ, উদ্দীপনা ও যথাযোগ্য

১৮ জনকে ওএসডি এবং ২৬ জনকে পদায়নের মাধ্যমে শিক্ষা প্রশাসনে রদবদল

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক

image

শিক্ষা প্রশাসনে বড় রদবদল করেছে সরকার। ১৮ জনকে ওএসডি (বিশেষ ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা) এবং ২৬ জনকে নতুন পদে পদায়ন করা হয়েছে।

sangbad ad

সশস্ত্র বাহিনী বিভাগের তত্ত্বাবধানে নারী শান্তি ও নিরাপত্তা শীর্ষক সেমিনার অনুষ্ঠিত

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক

image

মিরপুর সেনানিবাসস্থ ডিফেন্স সার্ভিসেস কমান্ড এন্ড স্টাফ কলেজে (ডিএসসিএসসি) নারী

বিমানবন্দরের নিরাপত্তা বাড়ানো হবে-স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক

image

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খাঁন কামাল জানিয়েছেন, বিমানবন্দরের নিরাপত্তা আরও

আইএমইডিকে শক্তিশালী করার নির্দেশ প্রধানমন্ত্রীর

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক

image

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা প্রকল্পের তদারকি নিশ্চিত করতে বাস্তবায়ন, পরিবীক্ষণ ও মূল্যয়ন

সেনাবাহিনী প্রধানের সাথে ভারতীয় ইষ্টার্ণ কমান্ড এর জিওসি-ইন-সি’র সাক্ষাৎ

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক

image

বাংলাদেশ সফররত ভারতীয় ইষ্টার্ণ কমান্ড এর জিওসি-ইন-সি লেফটেন্যান্ট জেনারেল মনোজ

লোটে শেরিং আসছেন

কুটনৈতিক বার্তা পরিবেশক

image

ভুটানের প্রধানমন্ত্রী লোটে শেরিং আগামী এপ্রিলের দ্বিতীয় সপ্তাহে ঢাকা সফরে আসছেন। প্রধানমন্ত্রী

অস্ট্রেলিয়া ভ্রমনে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের সতর্কবার্তা

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক

image

নিউ জিল্যান্ডে ভ্রমণ সতর্কতা জারির পর এবার অস্ট্রেলিয়ার ক্ষেত্রেও একই সতর্কতা জারি

sangbad ad