• banlag
  • newspaper
  • epaper

ঢাকা , রোববার, ২৫ আগস্ট ২০১৯

 

তেলভিত্তিক বিদ্যুৎকেন্দ্র থেকে সরে আসতে চায় সরকার : বিদ্যুৎ প্রতিমন্ত্রী

নিউজ আপলোড : ঢাকা , রোববার, ১০ মার্চ ২০১৯

সংবাদ :
  • নিজস্ব বার্তা পরিবেশক
image

বিদ্যুৎ, জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদ বিপু, যতদ্রুত সম্ভব লিকুইড ফুয়েল (তেলভিত্তিক বিদ্যুৎ উৎপাদন) থেকে আমাদের বের হয়ে আসতে হবে। সমস্য হচ্ছে, বড় বিদ্যুৎকেন্দ্রগুলো উৎপাদনে আসতে সময় লাগছে। আর চাইলেও ভূমি সল্পতার কারণে কয়লাভিত্তিক বিদ্যুৎকেন্দ্র নির্মাণ সম্ভব নয়। তাই এখনো তেলভিত্তিক বিদ্যুৎকেন্দ্র চালাতে হচ্ছে। ১০ মার্চ রোববার সকালে রাজধানীর গুলশানে ‘খাজানা গার্ডেনিয়া গ্র্যান্ড হল’এ সেন্টার ফর পলিসি ডায়ালগ (সিপিডি) আয়োজিত ‘পাওয়ার এন্ড এনার্জি সেক্টর : ইমিডিয়েট ইস্যুজ এন্ড চ্যালেঞ্জেস’ শীর্ষক সংলাপে

সিপিডি’র চেয়ারম্যান অধ্যাপক রেহমান সোবহানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে মূল আলোচনায় বিদ্যুৎ ও জ্বালানি খাতের বিশেষজ্ঞদের মধ্যে ব্র্যাক ইউনিভার্সিটির উপ-উপাচার্য অধ্যাপক ড. ম. তামিম, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) ভূতত্ত্ব বিভাগের অধ্যাপক ড. বদরুল ইমাম ও ডেফোডিল ইউনিভার্সিটির প্রকৌশল বিভাগের ডিন অধ্যাপক ড. এম. শামসুল আলম বক্তব্য রাখেন। সিপিডির ফেলো অধ্যাপক মোস্তাফিজুর রহমানের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন প্রতিষ্ঠানের গবেষণা পরিচালক ড. খন্দকার গোলাম মোয়াজ্জেম। বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশ এন্টারপ্রাইজ ইন্সটিটিউটের প্রেসিডেন্ট অ্যাম্বাসেডর ফারুক সোবহান। উন্মুক্ত আলোচনায় অংশ নেন বাংলাদেশে নিযুক্ত অস্ট্রেলিয়ার রাষ্ট্রদূত জুলিয়া নিব্লেটর, নরওয়ের রাষ্ট্রদূত সিডলে ব্লেকেন-সহ বিদ্যুৎ ও জ্বালানি খাতের সরকারি সাবেক কর্মকর্তা, ব্যবসায়ী সংগঠনের নেতা ও বিদ্যুৎ খাতের বেসরকারি প্রতিষ্ঠানের প্রতিনিধিরা।

বিদ্যুৎ প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদ বিপু বলেন, ২০২১ সালের মধ্যে মধ্যম আয়ের এবং ২০৪১ সালের মধ্যে উন্নত দেশ হওয়ার যে ঘোষণা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা দিয়েছেন তা বাস্তবায়নে বিদ্যুৎ-জ্বালানি খাতের উন্নয়ন অতি গুরুত্বপূর্ণ। আমার জায়গা থেকে আমি দ্রুত সার্বিক উন্নয়নের চেষ্টা করছি। তিনি বলেন, জ্বালানি নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে সমন্বিত পরিকল্পনা গ্রহণ করা সময়ের দাবী। ২০৪০ সালের মধ্যে ৬০ হাজার মেগাওয়াট বিদ্যুৎ উৎপাদনে প্রায় ৭১ বিলিয়ন ডলার বিনিয়োগ প্রয়োজন। প্রতিমন্ত্রী বলেন, কয়লা দিয়ে হাত ময়লা করে (কয়লা দিয়ে বিদ্যুৎ উৎপাদন করে নিজেদের উন্নয়ন করে) বিশ্বের উন্নত দেশগুলো এখন আমাদের ক্লিন (পরিবেশ বান্ধব) হতে বলছে। প্রতিমন্ত্রী বলেন, সাশ্রয়ি মূল্যে নিরবচ্ছিন্ন বিদ্যুৎ প্রদান আমাদের অন্যতম চ্যালেঞ্জ। সবাই কম মূল্যে বিদ্যুৎ ও জ্বালানি চায় অথচ কয়লাভিত্তিক বিদ্যুৎ নিয়ে সমালোচনা করে। নেপাল থেকে জলবিদ্যুৎ আমদানির প্রক্রিয়া এগিয়ে চলছে।

অধ্যাপক ড. ম. তামিম বলেন, আমরা অনেক দিন হলো সমুদ্রসীমা বিজয় অর্জন করেছি। কিন্তু এখন পর্যন্ত সেভাবে তেল-গ্যাস অনুসন্ধান হয়নি। কয়লাভিত্তিক বিদ্যুৎ কেন্দ্রের কথা বলা হচ্ছে। অনেকগুলো চুক্তি করা হয়েছে, সেখানে মাত্র দুটির কাজ চলছে। আর অন্যগুলো আলোচনার মধ্যে সীমাবদ্ধ। এখান থেকে দ্রুত বের হয়ে আসতে হবে।

অধ্যাপক ড. বদরুল ইমাম বলেন, সাগরে তেল-গ্যাস অনুসন্ধানে মাল্টি-ক্লায়েন্ট সার্ভের সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। যার ফলাফল আসতে অনেক সময় লাগবে। অথচ সাগরের একই অঞ্চলে ভারত ও মিয়ানমার সরাসরি অনুসন্ধান করে তেল-গ্যাসের সন্ধান পেয়েছে। এসব বিষয় ভেবে দেখতে হবে।

অধ্যাপক ড. এম. শামসুল আলম বলেন, বিইআরসি কেন আইন মেনে গণশুনানি করতে পারছে না। আমরা বলেছি তারা নিরপেক্ষ নয়। ১০টি মামলা ঝুলছে তাদের নামে। যখন দৈনিক ১ হাজার মিলিয়ন ঘনফুট (এমএমসিএফ) এলএনজি আসবে তখন ঘাটতি দাঁড়াবে ৩১ হাজার কোটি টাকা এমন হিসেব দিয়ে গ্যাসের দাম বাড়ানোর প্রস্তাব করা হয়েছে। অথচ যখন ৫০০ এমএমসিএফডি আসে তখন বলা হয়েছিল ঘাটতি সাড়ে ৪ হাজার কোটি টাকা। ভোক্তার ঘরে না দিয়েই কোনো যুক্তিতে গ্যাসের দাম বৃদ্ধির শুনানি হচ্ছে। তিনি বলেন, ভারত ৬ ডলার দিয়ে এলএনজি কিনতে পারলে আমরা কেনো ১০ ডলার দিয়ে কিনব। বিদ্যুৎ ও জ্বালানি খাতের ঘাটে ঘাটে দুর্নীতি হচ্ছে মন্তব্য করে এসব রুখতে প্রতিমন্ত্রীর প্রতি অনুরোধ জানান তিনি।

মূল প্রবন্ধে বাংলাদেশের বিদ্যুৎ ও জ্বালানি খাতের সাফল্য-ব্যর্থতা, সম্ভাবনা ও করণীয় বিভিন্ন দিক উঠে আসে। অংশগ্রহণকারীদের বক্তব্যে সরকারি-বেসরকারি বিদ্যুৎ কেন্দ্রের মধ্যে সমতা, বিদ্যুৎ খাত ও অন্যান্য খাতে তরলীকৃত প্রাকৃতিক গ্যাস (এলএনজি) ব্যবহারের ভারসাম্য, একক প্রতিষ্ঠানের উপর নির্ভরতা হ্রাস, প্রতিবেশি দেশ সমূহ তেকে বিদ্যুৎ ও জ্বালানি আমদানির ভারসাম্য ইত্যাদি বিষয় আলোচনায় স্থান পায়।

১১ লাখ রোহিঙ্গার বোঝা শেষ হবে কবে?

নূরুল হক, টেকনাফ (কক্সবাজার)

image

বাংলাদেশে আশ্রিত ১১ লাখ রোহিঙ্গার বোঝা শেষ হচ্ছে কবে-এমন প্রশ্ন স্থানীয়দের মাঝে ঘুরপাক খাচ্ছে। এই বিশাল রোহিঙ্গা জনগোষ্ঠীর কারণে

২১ আগষ্টের গ্রেনেড হামলা বিশ্বে বিরল ঘটনা-স্পিকার

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক

image

রাষ্ট্রযন্ত্রকে ব্যবহার করে ২১ আগস্টের মত নৃশংস গ্রেনেড হামলার ঘটনার নজির বিশ্বে বিরল বলে মন্তব্য করেছেন স্পিকার ড. শিরীন শারমিন

দুর্নীতি রোধে সমন্বিত ভাবে কাজ করতে হবে : দুদক চেয়ারম্যান

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক

image

দূর্নীতি দমন কমিশনের(দুদক) চেয়ারম্যান ইকবাল মাহমুদ বলেছেন, সমাজে সাইবার ক্রাইমের মতো সাইবার দুর্নীতিও রয়েছে। এ জাতীয়

sangbad ad

অনিয়মের অভিযোগ তিন বিচারপতির বিরুদ্ধে সাময়িক অব্যাহতিদান

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক

image

দুর্নীতির অভিযোগে হাইকোর্টের তিন বিচারপতিকে সাময়িক অব্যাহতি দেয়া হয়েছে। তাদের অনিয়মের অভিযোগ তদন্ত শুরু করেছেন সুপ্রিম কোর্ট। আপিল বিভাগের একজন জ্যেষ্ঠ বিচারপতির নেতৃত্বে চলছে এই তদন্ত। কোন ধরনের দুর্নীতি

আমার গাংচিল যেন ডানা মেলে উড়তে পারে যত্ন নেবেন সবাই-প্রধানমন্ত্রী

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক

image

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের তৃতীয় বোয়িং ৭৮৭-৮ ড্রিমলাইনার ‘গাংচিল’র উদ্বোধন করেছেন। বাসস। প্রধানমন্ত্রী

১৫ যুদ্ধাপরাধীর বিরুদ্ধে তদন্ত প্রতিবেদন প্রকাশ

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক

image

মুক্তিযুদ্ধকালীন মানবতাবিরোধী অপরাধ তথা যুদ্ধাপরাধ মামলায় ময়মনসিংহের ১৫ জনের বিরুদ্ধে তদন্ত প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে আন্তর্জাতিক

অর্থনৈতিক বিকাশের প্রধান অন্তরায় দুর্নীতি : দুদক চেয়ারম্যান

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক

image

দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) চেয়ারম্যান ইকবাল মাহমুদ বলেছেন, বাংলাদেশের ক্রমবর্ধমান অর্থনৈতিক বিকাশের প্রধান অন্তরায় হচ্ছে দুর্নীতি

বঙ্গবন্ধু জনগণের মুক্তির প্রশ্নে আপসহীন থেকে আমৃত্যু সংগ্রাম করেছেন : স্পিকার

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক

image

স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী বলেন, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান অন্যায়ের কাছে কখনো মাথা নত না করে অসীম সাহসিতার

ভোক্তা অধিকার অধিদফতরের পরিচালককে হাইকোর্টে তলব

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক

image

ভোক্তাদের জরুরি সেবায় হটলাইন চালু করতে ৫০ লাখ টাকা বরাদ্দ প্রস্তাবের বিষয়ে ব্যাখ্যা জানতে জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ

sangbad ad