• banlag
  • newspaper
  • epaper

ঢাকা , শুক্রবার, ১৬ এপ্রিল ২০২১

 

অস্ট্রেলিয়ার ‘মোনাশ কলেজ’কে বাংলাদেশে শিক্ষা কার্যক্রম চালাতে অনুমোদন

নিউজ আপলোড : ঢাকা , সোমবার, ০১ মার্চ ২০২১

সংবাদ :
  • সংবাদ অনলাইন ডেস্ক
image

অস্ট্রেলিয়ার ‘মোনাশ কলেজ’কে বাংলাদেশে ‘স্টাডি সেন্টার’ স্থাপন ও পরিচালনার সাময়িক অনুমোদন দিয়েছে শিক্ষা মন্ত্রণালয়। এটাই প্রথম বিদেশি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বাংলাদেশে উচ্চশিক্ষা কার্যক্রম চালানোর অনুমোদন পেলো।

বেশ কিছু শর্তে ‘এসটিএস গ্রুপের’ ‘এডুকো বাংলাদেশ লিমিটেড’কে গত ২৫ ফেব্রুয়ারি ওই প্রতিষ্ঠানের শাখা স্থাপনের অনুমোদন দেয়া হয় বলে শিক্ষা মন্ত্রণালয় সূত্রে জানা গেছে। এ ধরণের আরও কয়েকটি আবেদন জমা পড়ে আছে। দেশের অন্তত ১২ টি বযাবসায়িক প্রতিষ্গ্রুঠান বিদেশি উচ্চশিক্ষা প্রতিষ্ঠানের স্টাডি সেন্টার স্থাপনের অনুমোদন পেতে ইতোমধ্যে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের তদবির শুরু করেছে বলে জানা গেছে।

এই প্রথম কোনও বিদেশি প্রতিষ্ঠানের স্টাডি সেন্টার স্থাপনের অনুমোদন দেয়ায় আগ্রহীরা খুশি হয়েছেন। তবে স্টাডি সেন্টারের অনুমোদন দেয়ায় অসন্তোষ প্রকাশ করেছেন বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের উদ্যাক্তারা।

শিক্ষা মন্ত্রণালয় সূত্রে জানা গেছে, ২০১০ সালে বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয় আইন প্রণয়নের পর বিদেশি কোন উচ্চশিক্ষা প্রতিষ্ঠানকে দেশে শাখা ক্যাম্পাস বা স্টাডি সেন্টার খোলার অনুমোদন দেয়া হয়নি। ২০১৪ সালের ৩১ মে দেশে এই ধরনের স্টাডি সেন্টার স্থাপনের অনুমোদন দেয়ার লক্ষ্যে একটি বিধিমালা জারি করেছিল বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশন (ইউজিসি)।

*বিধিমালায় যা ছিল :

ওই বিধিমালায় বলা হয়, আবেদনকারীর আবেদন ও তথ্যাদি সম্পর্কে সন্তুষ্ট হলে কমিশন প্রাথমিকভাবে আবেদনটি মঞ্জুর করতে পারবে। অথবা কারণ লিপিবদ্ধ করে নামঞ্জুর করতে পারবে। তবে চূড়ান্ত অনুমোদন দেবে শিক্ষা মন্ত্রণালয়।

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, ২০১৬ সালের ১৫ অক্টোবর মোনাশ কলেজ প্রাইভেট লিমিটেড অস্ট্রেলিয়া এর স্টাডি সেন্টার স্থাপনের আবেদন যাচাই-বাছাই করে একটি প্রতিবেদন ঐ বছরের ১১ ফেব্রুয়ারি ইউজিসি থেকে মন্ত্রণালয়ে প্রেরণ করা হয়েছিল। ওই চিঠির পরিপ্রেক্ষিতে ওই বছরের ২৭ মার্চ শিক্ষা মন্ত্রণালয় বিদেশি বিশ্ববিদ্যালয় বা প্রতিষ্ঠানের শাখা ক্যাম্পাস বা স্টাডি সেন্টার খোলার বিষয়টি স্থগিত রাখা সমীচীন হবে বলে জানিয়ে দেয় ইউজিসিকে। এরপর ‘মোনাস’র স্টাডি সেন্টার স্থাপনের জন্য আরও দু’বার শিক্ষা মন্ত্রণালয়ে চিঠি পাঠায় ইউজিসি।

*শিক্ষামন্ত্রীর মতামতে অনুমোদন :

শিক্ষামন্ত্রীর মতামতের ভিত্তিতেই ‘মোনাস’র স্টাডি সেন্টার স্থাপনের অনুমোদন দেয়া হয়েছে জানিয়ে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের একজন কর্মকর্তা নাম প্রকাশ না করার শর্তে সংবাদকে বলেন, ২০১৬ সালে বিধিমালা অনুযায়ী শাখা ক্যাম্পাস বা স্টাডি সেন্টার স্থাপনের জন্য যথাক্রমে দুই লাখ ও এক লাখ টাকা ফি নিয়ে ১৫টি আবেদন ইউজিসি’তে জমা পড়ে। আবেদনকারী প্রতিষ্ঠানমসূহ ইউজিসিকে পরবর্তী ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য বারবার তাগিত দিয়ে আসছিল। ‘মোনাস’কে অনুমোদন দেয়ার খবর পেয়ে ওইসব আবেদনকারীই এখন মন্ত্রণালয়ে তদবির শুরু করছেন।

*যেসব শর্তে অনুমোদন :

১৭টি শর্তে মোনাসের স্টাডি সেন্টার স্থাপনের অনুমোদন দেয়া হয়েছে। এরমধ্যে উল্লেখযোগ্য কয়েকটি হলো : ‘বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয় আইন, ২০১০ এবং বিদেশি বিশ্ববিদ্যালয় বা প্রতিষ্ঠানের শাখা ক্যাম্পাস বা স্টাডি সেন্টার পরিচালনা বিধিমালা, ২০১৪ সব বিধি-নিধান ও শর্ত মেনে চলবে। সেন্টার স্থাপনের জন্য নিজস্ব বা ভাড়াকৃত ভবনে কমপক্ষে ১০ হাজার বর্গফুট ফ্লোর এলাকা থাকতে হবে, প্রত্যেক বিভাগ, প্রোগ্রাম বা কোর্সের জন্য নির্ধারিত পূণকালীন শিক্ষক নিয়োগ করতে হবে এবং খণ্ডকালীন শিক্ষক নিয়োগ করলে মোট শিক্ষকের এক-তৃতীয়াংশের বেশি হতে পারবে না, শিক্ষার্থী ভর্তি ফি, টিউশন ফি, ক্রেডিটের সংখ্যা, সেমিস্টারের অ্যাক্টিভিটি ফি এবং অন্যান্য ফি বাবদ ধার্যকৃত অর্থের মধ্যে উদ্যোক্তা, স্থানীয় প্রতিনিধি ও বিদেশি বিশ্ববিদ্যালয়ের আনুপাতিক অংশহারের তথ্য, উদ্বৃত্ত অর্থ সম্পদ উদ্যোক্তা, স্থানীয় প্রতিনিধি ও বিদেশি বিশ্ববিদ্যালয়ের মধ্যে আনুপাতিক হারে বিভাজিত হতে হবে, প্রতিষ্ঠান পরিচালনায় তিন সদস্যের একটি বোর্ড অব ট্রাস্টিজ থাকতে হবে, কোম্পানি আইন, ১৯৯৪-এর বিধান অনুসারে রেজিস্ট্রার অব জয়েন্ট স্টক কোম্পানিজ অ্যান্ড ফার্ম হতে অনুমোদন গ্রহণ সংক্রান্ত দলিল, আয়কর ও ভ্যাপ পরিশোধ সংক্রান্ত প্রমাণপত্রের কপি থাকতে হবে।

*পক্ষে-বিপক্ষে মতামত :

বিদেশি প্রতিষ্ঠানের স্টাডি সেন্টার অনুমোদনের বিষয়ে জানতে চাইলে ‘বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয় সমিতি’র সাবেক সহসভাপতি আবুল কাসেম হায়দার সংবাদকে বলেন, ‘আমরা দীর্ঘদিন ধরেই এই ধরনের স্টাডি সেন্টার স্থাপনের বিরোধিতা করে আসছি। যেসব শর্তে এই প্রতিষ্ঠানকে অনুমোদন দেয়া হয়েছে, তাতে মনে হয়, এটি মূলত কোচিং সেন্টার নির্ভর উচ্চ শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান। এতে শুধু শিক্ষা বাণিজ্য হবে, উচ্চ শিক্ষার পরিবেশ নষ্ট হবে, এটি খারাপ দৃষ্টান্ত হয়ে থাকবে।’

তবে স্টাডি সেন্টার স্থাপনের জন্য আবেদন করেছেন- এমন একটি প্রতিষ্ঠানের চেয়ারম্যান সংবাদকে বলেন, ‘সরকার বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়গুলোর ব্যর্থতার কারণেই বিদেশি প্রতিষ্ঠানকে দেশে শিক্ষা কার্যক্রম চালানোর অনুমোদন দিতে বাধ্য হচ্ছে। তারা কোটি কোটি টাকার শিক্ষা বাণিজ্য করলেও সরকারকে ট্যাক্স, ভ্যাট দিচ্ছে না। এ নিয়ে বেশ কয়েকটি মামলা চলমান রয়েছে। কিন্তু বিদেশি প্রতিষ্ঠানের স্টাডি সেন্টারগুলো সরকারকে ট্যাক্স, ভ্যাট দিয়েই কার্যক্রম পরিচালনা করবে।’

দেশে করোনায় মৃত্যু ১০ হাজার ছাড়ালো, একদিনে ৯৪

সংবাদ অনলাইন ডেস্ক

image

দেশে গত ২৪ ঘণ্টায় করোনায় আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন ৯৪ জন। এটি দেশে একদিনে করোনায় দ্বিতীয় সর্বোচ্চ মৃত্যু। এ নিয়ে ভাইরাসটিতে মৃতের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ১০ হাজার ৮১ জনে।

আন্তঃব্যাংক চেক লেনদেন ও অনলাইন ট্রান্সফার বন্ধ

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক

image

বাংলাদেশ ব্যাংকে আইটি বিপর্যয়ের কারণে আন্তঃব্যাংক চেক লেনদেন ও অনলাইন ট্রান্সফার (ইলেকট্রনিক

যাঁদের লাগবে না ‘মুভমেন্ট পাস’

সংবাদ অনলাইন ডেস্ক

image

বৈশ্বিক মহামারি করোনা সংক্রমণের পরিস্থিতিতে সারা দেশে চলছে লকডাউন। কাজে ও চলাচলে

sangbad ad

বেড়েছে সব ধরণের সবজির দাম

সংবাদ অনলাইন ডেস্ক

image

রমজান উপলক্ষে প্রতি বছরই বাড়ে সবজির দাম। তবে এবার তার সঙ্গে দেশব্যাপী

আরও কয়েকদিন থাকবে দাবদাহ

সংবাদ অনলাইন ডেস্ক

image

সারাদেশের বিভিন্ন এলাকার ওপর দিয়ে মৃদু থেকে মাঝারি ধরনের চলমান দাবদাহ আরও

ব্যাংক খোলা আজ, তবে চাপ নেই

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক

image

করোনাভাইরাসের সংক্রমণ প্রতিরোধে সরকার ঘোষিত সারা দেশে ‘সর্বাত্মক লকডাউনে’ প্রথমে ব্যাংক বন্ধ

লকডাউনের দ্বিতীয় দিনে মানুষের চলাচল বেড়েছে

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক

image

মহামারি করোনাভাইরাসের ঊর্ধ্বমুখী প্রবণতা ঠেকাতে সরকারঘোষিত সর্বাত্মক লকডাউনের দ্বিতীয় দিন আজ। লকডাউনের

ঢাকায় আব্দুল মতিন খসরুর দুই জানাজা, দাফন কুমিল্লায়

সংবাদ অনলাইন ডেস্ক

image

বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সভাপতিমন্ডলীর সদস্য, সাবেক আইনমন্ত্রী, সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতির নব নির্বাচিত সভাপতি, সিনিয়র অ্যাডভোকেট আব্দুল মতিন খসরু এমপির নামাজে জানাজা বৃহস্পতিবার (১৫ এপ্রিল) সকাল ১০টায় সুপ্রিম কোর্টে প্রাঙ্গণে অনুষ্ঠিত হবে।

আবদুল মতিন খসরুর মৃত্যুতে রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রীর শোক

সংবাদ অনলাইন ডেস্ক

image

সাবেক আইনমন্ত্রী, বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য এবং সুপ্রিমকোর্ট আইনজীবী সমিতির সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা অ্যাডভোকেট আবদুল মতিন খসরু এমপির মৃত্যুতে গভীর শোক ও দুঃখ প্রকাশ করেছেন রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।