• banlag
  • newspaper
  • epaper

ঢাকা , শুক্রবার, ২২ জানুয়ারী ২০২১

 

মুনীর ভাই : একই ধ্রুবের পথিক

নিউজ আপলোড : ঢাকা , বুধবার, ২৫ নভেম্বর ২০২০

image

মুনীর ভাই : একই ধ্রুবের পথিক

সুশান্ত মজুমদার

খন্দকার মুনীরুজ্জামান, আমাদের মুনীর ভাই শান্তিনগরে যে বাসায় থাকতেন আগে তা ছিল পুরনো আমলের টিনের ঘর। পাশের সরু গলির উত্তরে কয়েক হাত দূরে এক জীর্ণ টিনের ঘরে ছিল আমার বাস। মুনীর ভাইয়ের বড় ভাই রফিকুজ্জামান, চলচ্চিত্র সাংবাদিক দৈনিক ইত্তেফাকে কাজ করতেন। মুনীর ভাই সংবাদের সম্পাদকীয় বিভাগের দায়িত্ব থেকে ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক হয়েছেন। আমি সাপ্তাহিক সচিত্র সন্ধানীতে কর্মরত। চিন্তা-চেতনা, সংস্কৃতি ককর্মকা- অভিন্ন হওয়ায় আমাদের মধ্যে অনায়াসে সখ্য গড়ে ওঠে। বলা যেতে পারে, একই ধ্রুবের পথিক আমরা। মুক্তিযুদ্ধবিরোধী কুক্রিয়াশীল শক্তি তখন দেশের মসনদে। তাদের দোর্দ- প্রতাপে রাজ্যপাট থেকে মানুষ নির্বাক ও মলিন। মুনীর ভাই সস্ত্রীক তখন অন্যত্র বাস শুরু করেছেন। তার স্ত্রী চিকিৎসক। কখনও আমরা আটপৌরে পোশাকে হাঁটতে হাঁটতে বানির্জন রাস্তায় দাঁড়িয়ে দেশের গতি-প্রকৃতি, রাজনীতি-শিল্প-সাহিত্য নিয়ে নিবিড় আলাপ করতাম। মুনীর ভাই মুক্তিযোদ্ধা, আমিও নবম সেক্টরের বাগেরহাট সাব সেক্টরের একজন মুক্তিযোদ্ধা। মুক্তিযুদ্ধের সুদূর প্রভাব এবং অনিঃশেষ প্রতিশ্রুতি নিয়ে আমাদের বিশ^াস ছিল দৃঢ়। অতএব যতই প্রগতিবিরুদ্ধরা উত্তেজনা নিয়ে দেশ উল্টো পথে নিয়ে যেতে অপচেষ্টা করুক সত্যের আলোক কখনও আড়াল করতে পারবে না।

মুনীর ভাই এক সময় একতা পত্রিকারও সঙ্গে সংশ্লিষ্ট ছিলেন। কমিউনিস্ট পার্টির সদস্য। ছাত্র জীবনে সক্রিয় প্রগতিশীল ছাত্র রাজনীতির কর্মী ও নেতা। অগ্রসর বিচার-বুদ্ধি দিয়ে জীবনযাপন, কি রাষ্ট্রের পরিবেশ-পরিস্থিতির বিশ্লেষণে তার পক্ষে নীরব, নিষ্ক্রিয় বাবিভ্রান্ত হওয়া সহজ না। মুনীর ভাই নিশ্চিতভাবে সাধারণ ও পরিচ্ছন্ন জীবনের অধিকারী ছিলেন। তিনি চাইলে বিত্ত-বৈভব, নিজের শ্রেণী অবস্থান বদলে ক্ষমতাসীনদের আনুকূল্যে উপরে উঠতে পারতেন। দৈনিক সংবাদ বহু বছর ধরে দুঃসময় পাড়ি দিয়ে রোজ প্রকাশিত হচ্ছে। এই পত্রিকার ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক হয়ে সৎ সাংবাদিকতার দায়িত্ব ছাড়াও অনেকগুলো সহকর্মীর জীবিকার ঝুঁকিসহ অচিন্তনীয় ভারই তিনি বহন করে গেলেন। তার মতাদর্শে বিশ^াসী পরবর্তীকালে মিডিয়া প্রধান হয়ে কেউ কেউ পরিবর্তিত সময়ের রস-মধু আহরণ করে উল্টো পথের যাত্রী হয়েছেন। প্রতিষ্ঠান থেকে মুনীর ভাই উপেক্ষা, কোন ঊর্ধ্বতনের কাছে অগ্রাহ্য হয়েও উপরে ওঠার কৌশল তিনি গ্রহণ করেননি। ছোট হয়ে আসা পরিধির মধ্যে থেকেও তিনি যেকোন গুণগত পরিবর্তন এবং তার উৎকর্ষ সাধনে নিজের কর্মপ্রবাহ সচল রেখেছেন। ইলেকট্রনিক্র মিডিয়ার টক-শোতে অংশ নিয়ে মুনীর ভাইকে দেখেছি মনখুলে তিনি কথা বলতে পারছেন না। -এসবের দরকার কি? ভেবেছি, জীবনোপায়ের এই সামান্য পন্থা ধারণ ছাড়া গত্যন্তর কই!

সাহিত্য সম্পাদক, দৈনিক সংবাদের দীর্ঘদিনের কর্মী আবুল হাসনাতের আকস্মিক মৃত্যু সংবাদ পেয়ে মুনীর ভাইকে ফোন করি। মোবাইল ফোন ধরে তার ছেলে--বাবা অসুস্থ, মুগদা হাসপাতালে আসেন। কি বিষয়? করোনা পজেটিভ। কয়েক দিন পর ফোন করে জানি--তিনি ভালো হয়ে উঠেছেন। হঠ্যাৎ শারীরিক জটিলতা ভেতরে ভেতরে জোরালো হয়ে উঠলে তিনি অসময়ের মৃত্যু মেনে নিয়েছেন। করোনাভাইরাস আকারে-প্রকারে দৃশ্যমান হলে নিশ্চয়ই তাকে ক্ষমা করতাম না।

মুনীর বেঁচে থাকবেন আপসহীন প্রতিজ্ঞায়

সাইফুল আলম

হঠাৎ এমন করে চলে যাবেন একজন প্রিয় স্বজন- তা স্বপ্নেও ভাবিনি! অসুস্থ, হাসপাতালে, ভেবেছি শীঘ্রই সেরে ওঠে আবার আমাদের আড্ডায় শরিক হবেন। কিন্তু আকস্মিক তার মৃত্যু সংবাদে সত্যিই শোকে হতবিহ্বল হয়ে পড়েছি। এমন অসময়ে সবাইকে হতবিহ্বল করে চলে যাওয়া কি ঠিক হলো প্রিয় সহকর্মী সহযোদ্ধা মুনীরুজ্জামানের- এই ভাবনায় ঘুরেফিরে আবর্তিত হচ্ছি।

জন্মের অনিবার্য পরিণতি মৃত্যু- তাতে কোন সন্দেহ সংশয় নেই- কিন্তু তাই বলে এই অসময়ে? এ রকম মৃত্যু যে মন থেকে মানতে ইচ্ছা করে না। এ জন্যই কি কবি- ‘মরণ রে তুঁহুঁ মম, শ্যামও সম’ বলে কবিতা লিখেছিলেন। তিনিই আবার লিখেছিলেন এই পঙক্তিও- ‘মরিতে চাহি না আমি সুন্দর ভুবনে, মানবের মাঝে আমি বাঁচিবারে চাই।’

মানুষের জন্ম কিংবা মৃত্যু- মানুষের হাতের বিষয় নয়। যে জীবনটা মানুষ পায় স্রষ্টার আশীর্বাদ হিসেবে যে জীবনকে সার্থক করে তোলার মধ্যেই সফলতা কিংবা অসফলতা। জীবনকে অর্থবহ করে তোলার সেই যাত্রায় সহযাত্রী-সহযোদ্ধা মুনীরুজ্জামান ছিলেন এক অনন্য পথিক। প্রচ- মেধাবী এই মানুষটি আমাদের তার সাহচর্যে অর্থপূর্ণ করে তুলতেন। আমাদের সেই শূন্যতা পূরণ হবে না।

জীবনের প্রতিটি ক্ষেত্রে তিনি জীবনকে অর্থবহ করে তুলেছেন। যাপন করেছেন এক সন্তুষ্ট জীবন। কাজ করেছেন কমিউনিস্ট পার্টির সার্বক্ষণিক কর্মী হিসেবে শ্রমিকদের সংগঠিত করার কাজে শ্রমিক কলোনিতে। কাজ করেছেন পার্টির সাংস্কৃতিক সংগ্রামে অবদান রাখতে। তাই পার্টির পত্রিকা সংগঠনে রেখেছেন গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা। এক কথায় বলা চলে, তার গোটা জীবনটাই পেশাদারিত্বের জীবন। সেই পেশাদারিত্বটার সঙ্গে যুক্ত ছিল যেমন মেধা তেমনই পরিশ্রম- ‘মেধা’ আর ‘পরিশ্রমে’র একত্র সম্মিলন বাংলাদেশে এক দুর্লভ ঘটনা। সেই অর্থে বলতেই হবে, এক দুর্লভ ঈর্ষণীয় জীবনেরও অধিকারী ছিলেন মুনীর। অথচ এই দুর্লভ জীবনের অধিকারী মানুষটি ছিলেন খুবই সাদাসিধে, সৎ। জীবন নিয়ে তার কোন আফসোস ছিল না। ছিল না কোন না-পাবার বেদনা কিংবা আহাজারি। সর্বদা হাস্যোজ্জ্বল, বন্ধু বৎসল, নির্মোহ এই মানুষটিকে যারা চিনতেন তাদের পক্ষে তার মৃত্যু তথা তার অনুপস্থিতিকে মেনে নেয়া সত্যি কষ্টকর।

ছিলেন আপসহীন। মুক্তিযোদ্ধা ছিলেন, মুক্তিযুদ্ধের মধ্য দিয়ে অর্জিত এই দেশ- ছিলেন মুক্তিযুদ্ধের চেতনার প্রশ্নে আপসহীন। একজন প্রকৃত মুক্তিযোদ্ধাকে জীবনের প্রতিটি পদক্ষেপে প্রমাণ দিতে হয়, তিনি সত্যিকার মুক্তিযোদ্ধা কি-না। সে প্রমাণ মুনীরুজ্জামান তার গোটা জীবনেই দিয়ে গেছেন। ছিলেন সমাজ পরিবর্তনের চেতনায় বিশ্বাসী, শ্রমজীবী মেহনতী মানুষের মুক্তির স্বপ্নদ্রষ্টা- সারাটা জীবন তার মেধা এবং শ্রমকে সেই লক্ষ্য অর্জনের পেছনে ব্যয় করেছেন। এ জন্যই শোকাহতচিত্তে একথা নির্দ্বিধায় বলতে পারি, মুনীর এক অর্থপূর্ণ অর্থবহ জীবনযাপন করেছেন।

আর সে কারণেই আমরা তার এই অকাল প্রস্থানে, তার শূন্যতাকে খুব গভীরভাবেই উপলব্ধি করব। মুনীর আপনি যতই মৃত্যুকে আলিঙ্গন করে আমাদের কাছ থেকে বিদায় নিন না কেন, আপনি আমাদের মধ্যে বেঁচে থাকবেন। আপনার কাজ, কথা, মেধা, চেতনা এবং প্রতিজ্ঞার মৃত্যু নেই।

সাইফুল আলম : সম্পাদক যুগান্তর ও সভাপতি জাতীয় প্রেসক্লাব

নিউইয়র্কে বিভিন্ন সংগঠন ও ব্যক্তির শোক

প্রতিনিধি, যুক্তরাষ্ট্র

দৈনিক সংবাদ-এর ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক, সিপিবি ঢাকা নগর কমিটি, ট্রেড ইউনিয়ন কেন্দ্র, ৯০-এর গণ অভ্যুত্থানের নেতা, বীর মুক্তিযোদ্ধা খন্দকার মুনীরুজ্জামানের মৃত্যুতে নিউইয়র্কের বিভিন্ন সংগঠন ও ব্যক্তি শোক প্রকাশ করেছেন এবং শোকসন্তপ্ত পরিবারের প্রতি সমবেদনা জানিয়েছেন।

যুক্তরাষ্ট্র উদীচী গোষ্ঠী, যুক্তরাষ্ট্র সম্মিলিত সাংস্কৃতিক জোট, প্রোগ্রেসিভ ফোরাম, ঘাতক দালাল নির্মূল কমিটি যুক্তরাষ্ট্র শাখা, গণজাগরণ মঞ্চ, মহিলা পরিষদ যুক্তরাষ্ট্র শাখা, শিল্পকলা একাডেমি নিউইয়র্ক, বাংলা চ্যানেল, সাপ্তাহিক সন্ধান, প্রবীন সাংবাদিক সৈয়দ মোহাম্মদউল্লাহ, বিটিভির সাবেক প্রযোজক বেলাল বেগ, সাপ্তাহিক ঠিকানার প্রধান সম্পাদক মুহম্মদ ফজলুর রহমান, বর্ণমালার সম্পাদক মাহফুজুর রহমান, লেখক সুব্রত বিশ্বাস, সংগঠক খোরশেদুল ইসলাম, সাংস্কৃতিক কর্মী গোপাল স্যানাল ও শুভ রায়, রাজনীতিক মুজাহিদ আনসারী, নাট্য শিল্পী লুৎফুন্নাহার লতা, সংগঠক মনিকা রায়, কবি লেখক দর্পণ কবীর, সাংবাদিক শাহ্ জে. চৌধুরী, সাংবাদিক কানু দত্ত, ছাত্র ইউনিয়নের সাবেক নেতা জাকির হোসেন বাচ্চু, আলীম উদ্দিন, রিনা রাণী সাহা, মহিলা পরিষদের সাবেক নেতা প্রতীমা সরকার, যুক্তরাষ্ট্র জাসদের সাধারণ সম্পাদক নুরে আলম জিকু, যুব ইউনিয়নের সাবেক নেতা সনজীবন কুমার, প্রাবন্ধিক শিতাংসু গুহ, কমিনিটি অ্যাক্টিভিস্ট স্বীকৃতি বড়–য়া, নাট্যকর্মী তোফাজ্জল লিটন ও যুক্তরাষ্ট্র শ্রমিক লীগের সভাপতি কাজী আজিজুল হক খোকন।

খন্দকার মুনীরুজ্জামান করোনা আক্রান্ত হয়ে গত ২৪ নভেম্বর ঢাকার মুগদা হাসপাতেলে সকাল ৭টা ২০ মিনিটে মৃত্যুবরণ করেন। ৩১ অক্টোবর রাতে তাকে রাজধানীর মুগদা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। তার বয়স হয়েছিল ৭২ বছর। তিনি স্ত্রী ও এক ছেলে রেখে গেছেন। তার স্ত্রী ডা. রোকেয়া এবং একমাত্র ছেলেও খ্যাতিমান চিকিৎসক। মুনীরুজ্জামান ১৯৭০ সালে সিপিবির মুখপত্র সাপ্তাহিক একতায় সাংবাদিকতা শুরু করেন।

আরএফইডির নেতৃতে সোমা-কাজী জেবেল

সংবাদ অনলাইন ডেস্ক

image

নির্বাচন কমিশন (ইসি) বিটে কর্মরত সাংবাদিকদের সংগঠন রিপোর্টার্স ফোরাম ফর ইলেকশন অ্যান্ড ডেমোক্রেসি-আরএফইডির নেতৃত্বে এসেছেন চ্যানেল আইয়ের সোমা ইসলাম ও দৈনিক যুগান্তরের কাজী জেবেল।

করোনায় মারা গেলেন সাংবাদিক আফজাল

সংবাদ অনলাইন ডেস্ক

image

মহামারি করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে চ্যানেল নাইনের সাবেক রিপোর্টার ও ব্রডকাস্ট জার্নালিস্ট সেন্টারের (বিজেসি) গবেষণা সহযোগী মুহাম্মদ আফজালুর রহমান (আফজাল মুহাম্মদ) মৃত্যুবরণ করেছেন (ইন্না লিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন)।

এশিয়ান টিভির ৮ম বর্ষপূর্তি আজ

সংবাদ অনলাইন ডেস্ক

image

আজ এশিয়ান টিভির ৮ম বর্ষপূর্তি। এর মাধ্যমে বেসরকারি স্যাটেলাইট চ্যানেলটি নবম বর্ষে

sangbad ad

এশিয়ান টিভির ৮ম বর্ষপূর্তি আগামীকাল

সংবাদ অনলাইন ডেস্ক

image

বেসরকারি স্যাটেলাইট চ্যানেল এশিয়ান টিভির ৮ম বর্ষপূতি আগামীকাল। এ উপলক্ষে স্বাস্থ্যবিধি মেনে

বাবার কবরের পাশে শায়িত হলেন সাংবাদিক হিলালী ওয়াদুদ

সংবাদ অনলাইন ডেস্ক

image

দৈনিক ভোরের কাগজ পত্রিকার সিনিয়র সাব-এডিটর হিলালী ওয়াদুদ চৌধুরীকে নীলফামারীর ডোমারে পারিবারিক

‘সাংবাদিক মানিক সাহা হত্যার মামলার পুনঃতদন্ত দাবি’

সংবাদ অনলাইন ডেস্ক

image

খুলনা প্রেস ক্লাবের সাবেক সভাপতি এবং আন্তর্জাতিক সততা পুরস্কার ও একুশে পদকপ্রাপ্ত সাংবাদিক মানিক সাহা হত্যার মামলার পুনঃতদন্ত ও ন্যায়বিচার দাবি করেছেন সাংবাদিক, রাজনীতিকসহ বিভিন্ন শ্রেণি পেশার প্রতিনিধিরা। তারা বলেছেন, মানিক সাহার খুনিরা ধরা ছোঁয়ার বাইরে থাকায় স্বাধীন সাংবাদিকতা হুমকির মুখে।

সাংবাদিক হিলালী ওয়াদুদ চৌধুরী আর নেই

সংবাদ অনলাইন ডেস্ক

image

দৈনিক ভোরের কাগজের জ্যেষ্ঠ সহ-সম্পাদক হিলালী ওয়াদুদ চৌধুরী আর নেই (ইন্না লিল্লাহি

শহিদ বুদ্ধিজীবী কবরস্থানে শায়িত মিজানুর রহমান

সংবাদ অনলাইন ডেস্ক

image

বিশিষ্ট সাংবাদিক ও প্রথম আলোর যুগ্ম সম্পাদক মিজানুর রহমান খানের দাফন সম্পন্ন হয়েছে। মঙ্গলবার (১২ জানুয়ারি) বাদ জোহর রাজধানীর মিরপুরে শহিদ বুদ্ধিজীবী কবরস্থানে তাঁকে দাফন করা হয়।

প্রেসক্লাবে মিজানুর রহমান খানের জানাজা সম্পন্ন

সংবাদ অনলাইন ডেস্ক

image

ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটি (ডিআরইউ) প্রাঙ্গণে বিশিষ্ট সাংবাদিক ও প্রথম আলোর যুগ্ম সম্পাদক