• banlag
  • newspaper
  • epaper

ঢাকা , সোমবার, ১৭ ডিসেম্বর ২০১৮

 

নির্বাচনে অংশ নিতে পারবেন না খালেদা জিয়া

নিউজ আপলোড : ঢাকা , মঙ্গলবার, ২৭ নভেম্বর ২০১৮

সংবাদ :
  • নিজস্ব বার্তা পরিবেশক
image

উচ্চ আদালতের এক আদেশে দুর্নীতির দুই মামলায় দণ্ডিত বিএনপির চেয়ারপারসন ও সাবেক প্রধানমন্ত্রী খালেদা জিয়ার আপিল করে নির্বাচনে অংশ নেয়ার সুযোগ আটকে গেছে। মঙ্গলবার (২৭ নভেম্বর) দুর্নীতির দায়ে বিচারকি আদালতের দেয়া দণ্ড ও সাজা (কনভিকশন অ্যান্ড সেন্টেন্স) স্থগিত চেয়ে বিএনপির পাঁচ নেতার করা আবেদন খারিজের আদেশের পাশাপাশি বিচারপতি মো. নজরুল ইসলাম তালুকদার ও বিচারপতি কেএম হাফিজুল আলমের সমন্বয়ে গঠিত হাইকোর্ট বেঞ্চ বলেছেন, ‘সংবিধানের ৬৬ (২) (ঘ) অনুচ্ছেদ অনুযায়ী কারো দুই বছরের বেশি সাজা বা দণ্ড হলে সেই দণ্ড বা সাজার বিরুদ্ধে উচ্চ আদালতে আপিল বিচারাধীন থাকা অবস্থায় তিনি নির্বাচনে অংশ নিতে পারবেন না, যতক্ষণ না আপিলে ওই দণ্ড বাতিল বা স্থগিত হয়।’ উচ্চ আদালতের ওই আদেশের পর আইনজীবীরা বলেছেন, এর ফলে শুধু খালেদা জিয়াই নন, যাদের সাজা-দণ্ড স্থগিত হয়নি এমন সব দলের ব্যক্তিরা প্রার্থী হিসেবে অযোগ্য হবেন। তবে আপিল বিভাগ থেকে ভোটে অংশ নেয়ার ব্যাপারে দিকনির্দেশনা বিষয়ে একটা পথ আছে। এক্ষেত্রে খালেদা জিয়ার হাতে সময় খুবই কম।

দুর্নীতির দুই মামলায় মোট ১৭ বছরের দণ্ড হয়ে বর্তমানে কারাগারে আছেন বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া। জিয়া চ্যারিটেবল ট্রাস্ট মামলায় নিম্ন আদালতের ৭ বছরের দণ্ড দেয়া হয়। আর জিয়া এতিমখানা ট্রাস্ট মামলায় উচ্চ আদালত সাজা বাড়িয়ে ১০ বছরের কারাদণ্ড দিয়েছেন হাইকোর্ট। দণ্ড হওয়ার পর থেকেই আসন্ন জাতীয় নির্বাচনে খালেদা জিয়া কি অংশ নিতে পারবেন কিনা নিয়ে প্রশ্ন দেখা দেয়। আইনমন্ত্রী আনিসুল হক বলেছিলেন, খালেদা জিয়ার প্রার্থী হওয়া না হওয়ার বিষয়টি আদালতের ওপর নির্ভর করছে। অ্যাটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলমও বলছেন, দণ্ডিত হওয়ায় খালেদা জিয়া এবারের সংসদ নির্বাচনে প্রার্থী হতে পারবেন না।

তবে খালেদা জিয়ার আইনজীবীরা বলে আসছেন, রাজনীতি ও নির্বাচন থেকে দূরে রাখার জন্যই খালেদা জিয়াকে মিথ্যা মামলায় দণ্ড দেয়া হয়েছে। যদিও বিচারিক আদালতের রায়ের বিরুদ্ধে আপিল করে এবং উচ্চ আদালত থেকে জামিন নিয়ে অতীতে নির্বাচনে অংশ নেয়ার নজির থাকায় খালেদা জিয়াও একইভাবে নির্বাচনে অংশ নিতে পারবেন- এমনটাই আশা করেছিলেন খালেদা জিয়ার আইনজীবীরা। পরবর্তীতে চ্যারিটেবল ট্রাস্ট মামলায় নিম্ন আদালতের ৭ বছরের দণ্ডের রায় স্থগিত, সাজা ভোগ বাতিল ও জামিন চেয়ে উচ্চ আদালতে আপিল করা হয়। হাইকোর্টের ১০ বছরের দণ্ডের বিরুদ্ধে আপিল করেছেন খালেদা জিয়া। আবেদনে খালেদা জিয়ার সাজার ব্যাপারে হাইকোর্টের আদেশ স্থগিত ও বাতিল চাওয়া হয়। সেই সাথে খালেদা জিয়ার জামিনও চাওয়া হয়েছে আবেদনে। এদিকে, আসন্ন নির্বাচনে অংশ নিতে খালেদা জিয়ার জন্য তিনটি আসনে মনোনয়ন ফরম সংগ্রহ করা হয়েছে।

কিন্তু উচ্চ আদালতের আদেশের ফলে খালেদা জিয়ার নির্বাচনে অংশ নেয়ার সুযোগ আর থাকছে না বলে জানিয়েছেন দুদকের আইনজীবী খুরশীদ আলম খান। তিনি সাংবাদিকদের বলেন, ‘সম্পূর্ণ খালাস পেলে অথবা দণ্ড বাতিল হয়ে গেলে, তখন উনি পারবেন। হাইকোর্টের আদেশে এটা আরও স্পষ্ট হল।’ এ বিষয়ে মঙ্গলবার নিজ কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে রাষ্ট্রের প্রধান আইন কর্মকর্তা অ্যাটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলম বলেন, খালেদা জিয়া আপিলে দণ্ড স্থগিত হলেও নির্বাচনে অংশ নিতে পারবেন না। নির্বাচনে অংশ নিতে হলে খালেদা জিয়াকে মুক্তির পরও পাঁচ বছর অপেক্ষা করতে হবে। বিচারকি আদালতের দেয়া দণ্ড ও সাজা (কনভিকশন অ্যান্ড সেন্টেন্স) স্থগিত চেয়ে বিএনপির পাঁচ নেতার করা আবেদন খারিজের আদেশের প্রসঙ্গে অ্যাটর্নি জেনারেল বলেন, যারা আবেদন করেছিলেন তারা সবাই দণ্ডপ্রাপ্ত। তারা তাদের দণ্ড থেকে মুক্তি লাভ করেনি। তাদের ৫ বছর সময় অতিবাহিত হয়নি। এমতাবস্থায় যদি তাদের দণ্ড স্থগিত করে জাতীয় সংসদ নির্বাচনে অংশ নিতে দেয়া হয় তা হবে আমাদের সংবিধানের ৬৬ অনুচ্ছেদের পরিপন্থী। কাজেই আদালত আমাদের আবেদন গ্রহণ করে তাদের আবেদন খারিজ করে দিয়েছেন। ফলে দণ্ডপ্রাপ্ত ব্যক্তিদের আর নির্বাচনে অংশগ্রহণ করার কোন সুযোগ থাকলো না বলে আমি মনে করি।’

খালেদা জিয়ার ক্ষেত্রেও একই বিধান প্রযোজ্য হবে কিনা জানতে চাইলে তিনি বলেন, ‘অবশ্যই, এটি সাংবিধানিক বিধিবিধান। যে কেউ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে অংশ নিতে পারবেন কিংবা সংসদ সদস্য হিসেবে সংসদে থাকতে পারবে না যদি কিনা ওই ব্যক্তি ২ বছরের জন্য সাজাপ্রাপ্ত হন এবং মুক্তি লাভের পর ৫ বছর সময় অতিবাহিত না হয়। এখানে শর্ত ২টি। তা হলো- তিনি যদি দণ্ডিত হন তাহলে পারবেন না। আর মুক্তি লাভের পর ৫ বছরের আগে তিনি নির্বাচনে অংশ নিতে পারবেন না। কাজেই খালেদা জিয়ার ক্ষেত্রে দুটি প্রতিবন্ধকতাই রয়েছে। কোন আদালত তার রায় দিয়ে এই সাংবাধানিক প্রতিবন্ধকতাকে উপেক্ষা করতে পারেন না।’ আরেক প্রশ্নের জবাবে মাহবুবে আলম বলেন, ‘আমাদের আপিল বিভাগ কিংবা হাইকোর্ট বিভাগ সংবিধান দ্বারা তৈরি। তাদেরকে সংবিধান দিয়ে চলতে হবে। কাজেই কোন আদালত এটাকে অগ্রাহ্য করতে পারেন না। এর বিরুদ্ধে কেউ আপিল করলেও আমাদের একই বক্তব্য থাকবে। তারা সংবিধান অগ্রাহ্য করতে পারে না বলে আদালতকে জানানো।’ আপিল বিভাগ এই দণ্ড স্থগিত করতে পারে কিনা জানতে চাইলে মাহবুবে আলম বলেন, ‘আপিল বিভাগ কী করবে সেটা আমি বলতে পারি না। আমার সাবমিশন হলো সংবিধানের ওপরে।’

নির্বাচনে খালেদা জিয়ার অংশগ্রহণের বিষয়ে মঙ্গলবার ব্রাহ্মণবাড়িয়া আখাউড়া উপজেলা আওয়ামী লীগের দলীয় কার্যালয়ে আইনমন্ত্রী আনিসুল হক সাংবাদিকদের বলেন, ‘আদালতই সিদ্ধান্ত নেবেন খালেদা জিয়া নির্বাচন করতে পারবেন কিনা।’ আইনমন্ত্রী বলেন, ‘আদালতের দুটি রায় আছে। এই দুই রায়ের পরিপ্রেক্ষিতে আদালতই সিদ্ধান্ত নেবেন খালেদা জিয়া নির্বাচন করতে পারবেন কিনা। এখন পর্যন্ত আমার কাছে যতটুকু তথ্য আছে সেটা হচ্ছে সাজা স্থগিত রাখার জন্য একটা দরখাস্ত করতে হয়। দরখাস্ত করার পর আদালত যদি মনে করেন সাজা স্থগিত থাকবে যত দিন পর্যন্ত আপিল শুনানি না হবে। তাহলে একজন নির্বাচন করতে পারবেন। যেহেতু সাজা স্থগিত রাখার দরখাস্ত দেয়া হয় নাই সেহেতু আদালত আদৌ সাজা স্থগিত করবেন কি করবেন না সেটা এখনো জানা যায়নি।’ আইনমন্ত্রী বলেন, ‘যতক্ষণ পর্যন্ত আদালত রায় না দেবেন ততক্ষণ পর্যন্ত খালেদা জিয়া নির্বাচনে অংশগ্রহণ করতে পারবেন না।’

একাদশ জাতীয় নির্বাচনের তফসিল অনুযায়ী মনোনয়নপত্র জমা দেয়ার আজ শেষ দিন। মনোনয়নপত্র বৈধ না অবৈধ, তা জানা যাবে আগামী ২ ডিসেম্বর। এরপর নির্বাচন কমিশন ও উচ্চ আদালতে মনোনয়নপত্র বৈধতা নিয়ে আপিল করা যাবে। তবে সেজন্য আপিল বিভাগে খালেদা জিয়ার দণ্ড ও সাজা স্থগিত বা বাতিল এবং তাকে জামিন পেতে হবে। এ বিষয়ে খালেদা জিয়ার আইনজীবীরা জানিয়েছেন, খালেদা জিয়ার নির্বাচনে অংশগ্রহণের বিষয়ে তারা আইনি প্রক্রিয়ায় এগোবেন।

ভিকারুননিসার শিক্ষক হাসনা হেনার জামিনে মুক্তি পেলেন

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক

image

ভিকারুননিসা স্কুল অ্যান্ড কলেজের প্রভাতী শাখার শিক্ষক হাসনা হেনা জামিনে মুক্তি পেয়েছেন। সোমবার

ভিকারুননিসার শিক্ষিকা হাসনা হেনার জামিন

আদালত বার্তা পরিবেশক

image

ছাত্রী আত্মহত্যায় প্ররোচনা দেয়ার মামলায় ভিকারুননিসা নূন স্কুল অ্যান্ড কলেজের শিক্ষিকা

আদালতের রায়ে নির্বাচনের পথ বন্ধ দুই ডজনের বেশি নেতার

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক

দুই বছরের বেশি দণ্ডপ্রাপ্ত হলে নির্বাচনে অংশ নিতে পারবেন না বলে হাইকোর্টের দেয়া আদেশ

sangbad ad

গুলশান হলি আর্টিজান মামলায় ৮ আসামির বিচার শুরু

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক

image

রাজধানীর গুলশানের হলি আর্টিজান বেকারিতে জঙ্গি হামলার মামলায় ৮ আসামির

সাত খুন মামলা : হাইকোর্টের পূর্ণাঙ্গ রায় প্রকাশ যেকোন সময়

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক

image

নারায়ণগঞ্জের সাত খুন মামলায় ১৫ আসামির ফাঁসির আদেশ বহাল রেখে হাইকোর্টের পূর্ণাঙ্গ রায়

দীপন হত্যা অভিযোগপত্র দাখিল

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক

image

জাগৃতি প্রকাশনীর প্রকাশক ফয়সাল আরেফীন দীপন হত্যা মামলায় নিষিদ্ধ ঘোষিত জঙ্গি সংগঠন

সুন্দরবনে হরিণ শিকার : বিচার বিভাগীয় তদন্তের নির্দেশ

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক

image

সুন্দরবনের ২২টি হরিণ শিকারের ঘটনায় বিচার বিভাগীয় তদন্তের নির্দেশ দিয়েছেন হাইকোর্ট। সাতক্ষীরার

মনোনয়ন প্রত্যাশী সমর্থকদের সংঘর্ষে দুই শ্রমিক মৃত্যুর ঘটনার মামলায় গ্রেফতার তুহিনের জামিন

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক

image

ঢাকার ৮ আসন থেকে মনোনয়ন প্রত্যাশী আওয়ামীলীগের দুই শীর্ষ নেতার সমর্থকদের মধ্যে সংঘর্ষে ২

সাংবাদিক শিমুল হত্যা মামলার প্রধান আসামি হালিমুল হক মিরুর জামিন মঞ্জুর

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক

image

সাংবাদিক আবদুল হাকিম শিমুল হত্যা মামলার প্রধান আসামি সিরাজগঞ্জের শাহজাদপুর পৌরসভার

sangbad ad