• banlag
  • newspaper
  • epaper

ঢাকা , বুধবার, ১৬ জানুয়ারী ২০১৯

 

নাজমুলকে মারধরের কথা স্বীকার করেছে আসামিরা

নিউজ আপলোড : ঢাকা , শনিবার, ২০ জানুয়ারী ২০১৮

image

মৃত নাজমুল হক

উচ্চস্বরে গান বাজানোর প্রতিবাদ করাতে নাজমুল হককে (৬৫) মারধরের কথা স্বীকার করেছে আসামিরা। মারধরের পর নাজমুল হকের মৃত্যুর ঘটনাকে হত্যাকাণ্ড হিসেবে নিয়ে দ্রুতই অভিযোগপত্র দেওয়া হবে বলে জানিয়েছে পুলিশ। শনিবার (২০ জনুয়ারি) দুই আসামির রিমান্ড মঞ্জুর করেছেন আদালত। এ ঘটনায় জড়িত আলতাফ হোসেন, তাঁর ছেলে সাজ্জাদ, মেয়ে রাইয়ান হাসনিন ও তাঁদের স্বজন মির্জা জাহিদ হাসানকে শুক্রবার (১৯ জনুয়ারি) গ্রেপ্তার করা হয়েছে। ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের ওয়ারী অঞ্চলের সহকারী পুলিশ কমিশনার (এসি) মো. সোহেল রানা বলেন, প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে আসামিরা নাজমুল হককে মারধরের কথা স্বীকার করেছেন। ১০ দিনের রিমান্ডে নেওয়ার আবেদন করে ওই চার আসামিকে আজ শনিবার মুখ্য মহানগর হাকিম আদালতে নেওয়া হয়। তাঁদের মধ্যে সাজ্জাদ ও জাহিদ হাসানকে এক দিন করে রিমান্ডে নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদের আদেশ দিয়েছেন আদালত। কাল রোববার তাঁদের জিজ্ঞাসাবাদ করা হবে।

রাজধানীর আর কে মিশন রোডের ৪৪ নম্বর বাড়ির নবম তলায় নাজমুল হক পরিবার নিয়ে থাকতেন। ওই বাসার ছাদের ‘কমিউনিটি হলে’ বৃহস্পতিবার মধ্যরাতে একজনের গায়েহলুদের অনুষ্ঠানে উচ্চ শব্দে গান বাজানো হচ্ছিল। এর প্রতিবাদ করেছিলেন নাজমুল ও তাঁর স্বজনেরা।

এসি সোহেল রানা বলেন, প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে আসামিরা পুলিশকে জানান, ঘটনার রাতে গানবাজনা বন্ধ করার পর আলতাফ হোসেন তাঁর ছেলেদের বলেন, ‘তোমরা গানবাজনা করো। আর এ জন্য আমাদের অপমানিত হতে হয়।’ এ কথা শুনে উত্তেজিত হয়ে পড়েন আলতাফ হোসেনের ছেলেরা। পরদিন শুক্রবার বেলা সাড়ে ১১টার দিকে নাজমুল হক ও তাঁর ছেলে নাসিমুলকে নিচে ডেকে আনেন তাঁরা। প্রথমে কথা-কাটাকাটি থেকে একপর্যায়ে নাসিমুলকে মারধর করেন সাজ্জাদসহ অন্যরা। ছেলেকে মারধর করার সময় বাধা দিতে যান নাজমুল হক। এ সময় তাঁকেও মারধর করা হয়। একপর্যায়ে নাজমুল মেঝেতে পড়ে যান বলে স্বীকার করেছেন আসামিরা।

আরও পড়ুন : উচ্চস্বরে গান বাজানোর প্রতিবাদ করতে গিয়ে চিরতরে নিঃশব্দ হয়ে গেলেন এক হৃদরোগী

জামায়াত নিষিদ্ধের উদ্যোগ

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক

image

জামায়াতে ইসলামীসহ যুদ্ধাপরাধে অভিযুক্ত সব সংগঠনের বিচারে ফের আইন সংশোধনের

১০ ট্রাক অস্ত্র মামলা শুনানিতে বিব্রত হাইকোর্ট বেঞ্চ

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক

image

আলোচিত ১০ ট্র্রাক অস্ত্র আটকের ঘটনার মামলায় মৃত্যুদণ্ড পাওয়া আসামিদের ডেথ রেফারেন্স

হাইকোর্টের আদেশ বহাল ডাকসু নির্বাচনে আর বাধা নেই

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক

image

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় ছাত্র সংসদ (ডাকসু) নির্বাচনের বিষয়ে হাইকোর্টের দেয়া

sangbad ad

মামলা জট কমাতে আপিল বিভাগের বেঞ্চ পুনর্গঠন

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক

image

দেশের সর্বোচ্চ আদালত সুপ্রিম কোর্টের আপিল বিভাগের দুটি বেঞ্চ গঠন করে দিয়েছেন প্রধান

ভিকারুননিসার শিক্ষক হাসনা হেনার জামিনে মুক্তি পেলেন

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক

image

ভিকারুননিসা স্কুল অ্যান্ড কলেজের প্রভাতী শাখার শিক্ষক হাসনা হেনা জামিনে মুক্তি পেয়েছেন। সোমবার

ভিকারুননিসার শিক্ষিকা হাসনা হেনার জামিন

আদালত বার্তা পরিবেশক

image

ছাত্রী আত্মহত্যায় প্ররোচনা দেয়ার মামলায় ভিকারুননিসা নূন স্কুল অ্যান্ড কলেজের শিক্ষিকা

আদালতের রায়ে নির্বাচনের পথ বন্ধ দুই ডজনের বেশি নেতার

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক

দুই বছরের বেশি দণ্ডপ্রাপ্ত হলে নির্বাচনে অংশ নিতে পারবেন না বলে হাইকোর্টের দেয়া আদেশ

নির্বাচনে অংশ নিতে পারবেন না খালেদা জিয়া

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক

image

উচ্চ আদালতের এক আদেশে দুর্নীতির দুই মামলায় দণ্ডিত বিএনপির চেয়ারপারসন ও সাবেক

গুলশান হলি আর্টিজান মামলায় ৮ আসামির বিচার শুরু

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক

image

রাজধানীর গুলশানের হলি আর্টিজান বেকারিতে জঙ্গি হামলার মামলায় ৮ আসামির

sangbad ad