• banlag
  • newspaper
  • epaper

ঢাকা , শনিবার, ২৪ অক্টোবর ২০২০

 

মাসিক আয় নিম্নে ৩০ হাজার অর্জনকারীদের ইন্টারনেট ব্যবহারের সুযোগ বেশি : বিআইজিডির গবেষণা

নিউজ আপলোড : ঢাকা , রোববার, ২০ সেপ্টেম্বর ২০২০

image

ব্র্যাক ইনস্টিটিউট অফ গভর্ন্যান্স অ্যান্ড ডেভেলপমেন্টের (বিআইজিডি) এক গবেষণা বলছে, বাংলাদেশের গ্রামীণ জনপদের মাত্র ৩৭% পরিবারের ইন্টারনেট ব্যবহারর সুযোগ রয়েছে, ইন্টারনেট ব্যবহারে যে দক্ষতা প্রয়োজন তা রয়েছে ১৩% পরিবারের। অর্থাৎ ৬৩% পরিবারের ইন্টারনেট ব্যবহারের সুযোগ নেই। একদিকে ইন্টারনেট অবকাঠামোতে বিদ্যমান এই বৈষম্যকে প্রথম স্তরের “ডিজিটাল বৈষম্য” হিসেবে উল্লেখ করা যেতে পারে। আবার অন্যদিকে অনলাইন দক্ষতা ও ইন্টারনেট ব্যবহারের ধরনের ওপরে ভিত্তি করে তাকে দ্বিতীয় স্তরের “ডিজিটাল বৈষম্য” হিসেবে চিহ্নিত করা যায়। ২০ সেপ্টেম্বর বিআইজিডি আয়োজিত একটি ওয়েবিনারে গবেষণা প্রতিষ্ঠানটির সিনিয়র রিসার্চ ফেলো ডঃ মোহাম্মাদ শাহাদাত হোসেন সিদ্দিকী বাংলাদেশের গ্রামীণ সমাজে এই দুই ধরণের “ডিজিটাল বৈষম্য” নিয়ে করা গবেষণার ফলাফল তুলে ধরেন।

৬,৫০০ পরিবারের ওপর চালানো এই গবেষণায় দেখা গেছে- বয়স, পরিবারের আকার, আয়, শিক্ষা, পেশা, লিঙ্গ, বসবাসের স্থান ইত্যাদির একটি বড় ভূমিকা রয়েছে ইন্টারনেট প্রাপ্তি, ব্যবহার ও অনলাইন দক্ষতার ক্ষেত্রে। গবেষণায় আরও দেখা গেছে, ১৫-২৪ বছর বয়সীরা অন্যান্য বয়সের ব্যক্তিদের তুলনায় বেশি ইন্টারনেট ব্যবহার করে এবং সে ব্যাপারে তারা বেশ দক্ষ।

গবেষণায় দেখা গেছে ছোট পরিবারে থাকা একজন সদস্যের চেয়ে বড় পরিবারে থাকা একজন সদস্য ইন্টারনেট ব্যবহারে এগিয়ে থাকে। যদিও বড় পরিবার মানেই যে অনলাইন দক্ষতা ও ইন্টারনেটের সঠিক ব্যবহার অর্জন, তা নয়।

ইন্টারনেট প্রাপ্তির জন্য স্বাক্ষরতা ও শিক্ষা-উভয়ই গুরুত্বপূণ পূর্বশর্ত। গবেষণায় দেখা যায়, অস্বাক্ষর মানুষের (৯%) তুলনায় স্বাক্ষর মানুষদের (৪৭%) ইন্টারনেট ব্যবহারের সুযোগ বেশি। শিক্ষাগত যোগ্যতা বৃদ্ধির সাথে সাথে অনলাইন দক্ষতা ও ইন্টারনেট ব্যবহারের মাত্রাও বৃদ্ধি পায়। যদিও গবেষণা থেকে দেখা যায়, অশিক্ষিত লোকজন এবং এসএসসির নিচে যাদের শিক্ষাগত যোগ্যতা, তাঁদের অনলাইন দক্ষতায় ও ইন্টারনেট ব্যবহারে কোন উল্লেখযোগ্য পার্থক্য নেই।

অর্থনৈতিক অবস্থা ইন্টারনেট প্রাপ্তি, ব্যবহার ও অনলাইন দক্ষতায় ইতিবাচক ভূমিকা রাখে। বাংলাদেশে যাদের মাসিক আয় ৩০ হাজার টাকা বা তার ওপরে, তাঁরা সবচেয়ে বেশি ইন্টারনেট সুবিধাপ্রাপ্ত (৭৪%)। পারিবারিক আয় বৃদ্ধির সাথে সাথে ইন্টারনেটের প্রাপ্যতাও বাড়ে। দেখা গেছে যারা ৩০ হাজার বা এর চেয়ে কম উপার্জন করে, তাঁদের উভয়ের ক্ষেত্রেই অনলাইন দক্ষতা সমান (৩৫%)। তাঁদের আয়ের পরিমান বৃদ্ধি পেলে অনলাইন দক্ষতা ৪১% পর্যন্ত বৃদ্ধি পায়। গবেষণায় দেখা যায়, যাদের আয় ২০ হাজার এর ওপরে ইন্টারনেট ব্যবহারের ক্ষেত্রে তাঁদের কোনো ধরনের আয়-ব্যবধান নেই।

ইন্টারনেট ব্যবহারের সুযোগের দিক থেকে নারীদের তুলনায় ১৮% এবং অনলাইন দক্ষতার ক্ষেত্রে ৮% এগিয়ে আছেন পুরুষরা। একইভাবে ইন্টারনেট ব্যবহারের ক্ষেত্রেও নারীদের চেয়ে এগিয়ে আছেন পুরুষরা।

আন্তঃবিভাগীয় পর্যায়ে ইন্টারনেট ব্যবহারের সুযোগের দিক থেকে রংপুর সবচেয়ে পিছিয়ে। অন্যদিকে, চট্টগ্রামে এই হার সবচেয়ে বেশি, ঢাকা ও খুলনা রয়েছে তারপরেই। অনলাইন দক্ষতার ক্ষেত্রে দেখা গেছে চট্টগ্রাম, ঢাকা, খুলনা ও রাজশাহীর সাথে রংপুরের তেমন কোন পার্থক্য নেই। অনলাইন দক্ষতায় সবচেয়ে এগিয়ে আছে বরিশাল এবং তারপরেই ময়মনসিংহ। ইন্টারনেট ব্যবহারে খুলনার অবস্থান বেশ ভালো; এক্ষেত্রে সিলেটের অবস্থা খুব খারাপ এবং অনলাইন দক্ষতা ও ব্যবহারেও এই বিভাগ বেশ পিছিয়ে।

বিআইজিডির নির্বাহী পরিচালক ড. ইমরান মতিন বলেন, “এই গবেষণা থেকে আমরা দেখতে পাই, প্রাপ্তি-স্বল্পতা ও অল্প দক্ষতা গ্রামীণ বাংলাদেশে ইন্টারনেট ব্যবহারকে সীমিত করে দিচ্ছে। যে সকল বিষয়গুলো এই আধুনিক সমস্যা সৃষ্টি করছে তা দূর করতে হবে আর সেটা করতে হলে সতর্কতার সাথে নীতিমালা গ্রহণ ও পরিকল্পনা প্রণয়ন করা প্রয়োজন।“

বিআইজিডির রিসার্চ ফর পলিসি অ্যান্ড গভর্ন্যান্স (আরপিজি) বিভাগের প্রধান মেহনাজ রাব্বানী বলেন, “শুরু থেকেই এ দেশের নাগরিকেরা নানা বৈষম্যের শিকার হয়েছেন। যদি আমরা জনগণের মাঝে যথাযথ ইন্টারনেট সেবা পৌঁছানো ও তা ব্যবহারের দক্ষতা তৈরি করতে না পারি, তাহলে বৈষম্য আরও প্রকট হবে। শুধু তাই নয়, নারী ক্ষমতায়নের ক্ষেত্রে আমরা যে সাফল্য অর্জন করেছি, এর ফলে তাও ব্যর্থ হতে পারে।“

অ্যাসপায়ার টু ইনোভেট (এটুআই) এর পলিসি অ্যাডভাইজার আনীর চৌধুরী বলেন, “ইন্টারনেট একটি শক্তিশালী হাতিয়ার। যদি ঠিকমত এটিকে ব্যবহার করা না যায়, তবে বাংলাদেশে বিদ্যমান যেকোন বৈষম্যকে এটি আরও বড় করে তুলতে পারে।”

বিআইজিডির সিনিয়র অ্যাডভাইজর মুহাম্মদ মুশাররফ হোসেন ভূইয়া, রিসার্চ ফর পলিসি অ্যান্ড গভর্ন্যান্স (আরপিজি) বিভাগের প্রধান মেহনাজ রাব্বানী. অ্যাসপায়ার টু ইনোভেট (এটুআই) এর পলিসি অ্যাডভাইজার আনীর চৌধুরী ওয়েবিনারে আলোচনা করেন। বিআইজিডির নির্বাহী পরিচালক ড. ইমরান মতিন ওয়েবিনারটি সঞ্চালনা করেন।

ওয়্যারলেস চার্জিংয়ে রেকর্ড গড়ার লক্ষ্যে শাওমি

সংবাদ অনলাইন ডেস্ক

image

স্মার্টফোন নির্মাতা চীনা প্রতিষ্ঠান শাওমি ফাস্ট চার্জিং প্রতিযোগিতায় ভিন্ন মাত্রা যোগ করতে

প্রতি মাসে বাংলাদেশ ওপেন সোর্স নেটওয়ার্কের কোডরেস আয়োজন

image

সারা দেশব্যাপী প্রোগ্রামিংয়ের প্রচার এবং অনুশীলনের লক্ষ্যে বাংলাদেশ ওপেন সোর্স নেটওয়ার্ক (বিডিওএসএন) প্রতি মাসে কম্পিউটার

টেক জায়ান্টদের নিয়ন্ত্রনে সমন্বিত পদক্ষেপ আসছে কি?

সংবাদ অনলাইন ডেস্ক

image

অনলাইন সার্চে একচেটিয়া আধিপত্যের অভিযোগ রয়েছে টেক জায়ান্ট গুগলের নামে। এ নিয়ে

sangbad ad

‘বঙ্গবন্ধু গ্র্যান্ডমাস্টার অ্যাপ’ এর উদ্বোধন

image

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জীবন ও আদর্শ নিয়ে প্রথম কুইজ অ্যাপ ‘বঙ্গবন্ধু গ্র্যান্ডমাস্টার’-এর উদ্বোধন করেছে আর্থিক প্রতিষ্ঠান আইপিডিসি

নতুন শিক্ষাবর্ষকে উপভোগ্য ও অংশগ্রহণমূলক করতে ভাইবারের উদ্যোগ

image

মেসেজিং অ্যাপ রাকুতেন ভাইবার নতুন শিক্ষাবর্ষ চলাকালীন শিক্ষক, অভিভাবক ও শিক্ষার্থীদের জন্য উন্নতমানের পৃথক ফিচার চালু করেছে।

আলোকিত রাজশাহীর প্রত্যন্ত চরাঞ্চল : বিনামূল্যে ৬২৪০টি সোলার হোম সিস্টেম দিচ্ছে নেসকো

ফয়েজ আহমেদ তুষার

image

বিদ্যুতের আলোয় আলোকিত হতে শুরু করেছে রাজশাহীর প্রত্যন্ত চরাঞ্চলগুলো। গ্রিড সুবিধাবঞ্চিত এসব

ই-ক্যাবের মাধ্যমে অনলাইনে সাশ্রয়ী মূল্যে পেঁয়াজ বিক্রয় কার্যক্রম উদ্বোধন

image

২০ সেপ্টেম্বর অনলাইনে সাশ্রয়ীমূল্যে পেঁয়াজ বিক্রয় কার্যক্রম ‘‘ঘরে বসে স্বস্তির পেঁয়াজ’’ উদ্বোধন করলেন বাণিজ্য মন্ত্রী টিপু মুনশি। পেয়াজের

এনইউবির উদ্যোগে ভার্চুয়াল ওয়ার্ল্ড মার্কেটিং সামিট

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক

image

নর্দান ইউনিভার্সিটি বাংলাদেশ ও কটলার ইমপ্যাকটের উদ্যোগে প্রফেসর ফিলিপ কটলারের ই ওয়ার্ল্ড মার্কেটিং সামিট ২০২০ (E World Marketing Summit 2020) আগামী ৬ ও ৭ নভেম্বর অনুষ্ঠিত হবে। তবে এবারের সামিট অন্যান্য বছরের চেয়ে সম্পূর্ণ ভিন্ন ও ব্যতিক্রমী। প্রতিটি ধাপে রয়েছে নতুনত্ব ও আকর্ষণ। বিশ্বব্যাপী কোভিড -১৯ পরিস্থিতি বিচেনায় ওয়ার্ল্ড মার্কেটিং সামিট ২০২০ কে এবার ইলেক্ট্রনিক ওয়ার্ল্ড মার্কেটিং সামিট ২০২০ ঘোষণা করা হয়েছে।

৭ম বারের মত ডাব্লিউএসআইএস পুরস্কার অর্জন করল এটুআই

image

টানা ৭ম বারের মত তথ্যপ্রযুক্তি খাতে সম্মানজনক পুরস্কার ‘ওয়ার্ল্ড সামিট অন ইনফরমেশন সোসাইটি (ডাব্লিউএসআইএস) পুরস্কার