• banlag
  • newspaper
  • epaper

ঢাকা , বৃহস্পতিবার, ২০ সেপ্টেম্বর ২০১৮

 

‘চীনকে উন্মুক্ত অর্থনীতির দেশ’ করার অঙ্গীকার শি’র

নিউজ আপলোড : ঢাকা , মঙ্গলবার, ১০ এপ্রিল ২০১৮

সংবাদ :
  • সংবাদ ডেস্ক
image

বিশ্বায়ন প্রক্রিয়াকে আরও জোরদার করতে দেশের অর্থনীতি আরও উন্মুক্ত করার অঙ্গীকার করেছেন চীনের প্রেসিডেন্ট শি জিনপিং। এভাবেই মঙ্গলবার (১০ এপ্রিল) ‘পুঁজিবাদী’ যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পের বিচ্ছিন্নতার পথের বিরোধিতা করলেন ‘কমিউনিস্ট’ চীনের কাণ্ডারি।

চীনের অর্থনীতিকে চলতি বছর আরও উন্মুক্ত করার অঙ্গীকার করেছেন দেশটির প্রেসিডেন্ট শি জিনপিং। চীনের দক্ষিণাঞ্চলীয় হাইনান প্রদেশে এক ভাষণে গাড়িসহ একাধিক পণ্য আমদানির ওপর শুল্ক কমানো হবে বলে জানান তিনি। একই সঙ্গে এদিন বিদেশি বিনিয়োগকারীদের জন্য চীনের বাজার আরও খুলে দেয়ারও প্রতিশ্রুতি দেন তিনি। তার ভাষণে ব্যাংক ও বীমাসহ আর্থিক ক্ষেত্র আরও উন্মুক্ত করা এবং মেধাস্বত্ত্ব আরও জোরদার করার আভাসও পাওয়া গেছে। ৪৫তম মার্কিন ট্রাম্প নিজ দেশকে বিশ্ব থেকে যত বেশি বিচ্ছিন্ন করে তুলতে চাইছেন, চীনকে ততই উন্মুক্ত করে তোলার অঙ্গীকার করছেন শি। ‘যুক্তরাষ্ট্র ফার্স্ট’ নীতির আওতায় চীনসহ একাধিক দেশ থেকে আমদানির ওপর বাড়তি শুল্ক চাপানোর পথে চলেছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট। তার বাণিজ্য যুদ্ধের দামামা শুনে বিশ্ব অর্থনীতির ভবিষ্যৎ নিয়ে অনিশ্চয়তা দেখা দিয়েছে। বিশেষ করে চীনের বিরুদ্ধে তার অভিযোগের শেষ নেই। মেধাসত্ত্ব থেকে শুরু করে বিদেশি কোম্পানিগুলোর প্রতি বৈষম্যমূলক নীতি নিয়েও তার ক্ষোভের শেষ নেই। শুধু যুক্তরাষ্ট্র নয়, অন্য অনেক দেশও চীনের বাজারে এমন বাধার সম্মুখীন হয়ে থাকে। এ অভিযোগ নিয়ে সংঘবদ্ধভাবে বিশ্ব বাণিজ্য সংস্থার (ডব্লিউটিও) দ্বারস্থ না হয়ে ট্রাম্প ‘একলা চলো রে’ নীতির পথে চলেছেন। চীনও বিশ্বের অন্য দেশগুলোর কোম্পানির ক্ষোভ বিবেচনায় রেখেছে।

এদিন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পের নীতিকে পরোক্ষভাবে সমালোচনা করে শি বলেন, শীতল যুদ্ধের মনোভাব ও চারদিকে দেয়াল তুলে ধরার নীতি ‘প্রাচীরে ধাক্কা খাবে’। এদিকে চীনের প্রেসিডেন্টের এ ভাষণের পর আন্তর্জাতিক শিল্প ও বাণিজ্য জগতে ইতিবাচক প্রতিক্রিয়া দেখা যাচ্ছে। পুঁজিবাজারও সামগ্রিকভাবে চাঙ্গা হয়ে উঠেছে। তবে সংস্কারের এ অঙ্গীকার সত্ত্বেও সুনির্দিষ্ট ঘোষণার অভাবে কিছুটা হতাশাও থেকে গেছে। সমালোচকদের মতে, যেসব ক্ষেত্রে চীন এর মধ্যে যথেষ্ট সুবিধাজনক অবস্থানে পৌঁছে গেছে, শুধু সেগুলোই উন্মুক্ত করা হচ্ছে। এমন প্রেক্ষাপটে চীন ও যুক্তরাষ্ট্রর মধ্যে বাণিজ্য যুদ্ধ এড়ানোর সম্ভাবনাও উজ্জ্বল হয়ে উঠেছে। সোমবারই (৯ এপ্রিল) মার্কিন প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প বলেন, তার প্রশাসন সম্ভবত চীনের সঙ্গে আলোচনার মাধ্যমে বিরোধ মেটাতে সক্ষম হবে। চীন শুরু থেকেই এমন সংঘাতের নেতিবাচক প্রভাব সম্পর্কে সতর্ক করে এসেছে।

গত ২০১৩ সাল থেকেই চীনের একাধিক নেতা ও কর্মকর্তা গাড়ি শিল্পে বিদেশি কোম্পানিগুলোর ওপর কড়া শর্ত তুলে নেয়ার অঙ্গীকার করে এসেছেন। কিন্তু কার্যক্ষেত্রে কোন ফল দেখা যায়নি। এখনও তারা কোন উদ্যোগে বড় অংশীদার হতে পারে না।

উ. কোরিয়ার সঙ্গে পুনরায় আলোচনায় প্রস্তুত যুক্তরাষ্ট্র

সংবাদ ডেস্ক

image

কোরীয় উপদ্বীপে পরমাণু নিরস্ত্রীকরণ করার লক্ষ্যে উত্তর কোরিয়ার সঙ্গে পুনরায় আলোচনা

রোহিঙ্গা নির্যাতন : প্রাথমিক তদন্ত শুরু অপরাধ আদালতের

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক

মায়ানমারের বিরুদ্ধে গত মঙ্গলবার (১৮ সেপ্টেম্বর) রোহিঙ্গা নির্যাতনের প্রাথমিক তদন্ত

মায়ানমার সেনা আইনের ঊর্ধ্বে থাকলে দেশটিতে শান্তি ফিরবে না

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক

image

মায়ানমারে শান্তি প্রতিষ্ঠা করতে হলে সেনাবাহিনীর ক্ষমতা কমিয়ে বেসামরিক প্রশাসনকে শক্তিশালী

sangbad ad

মুসলিম নারীদের সামাজিব ও অর্থনৈতিক কর্মকাণ্ডে অংশ নিতে উৎসাহ দেবে ওআইসি

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক

image

রাষ্ট্রীয়, সামাজিক এবং অর্থনৈতিক কর্মকাণ্ডে মুসলীম নারীদের আরও সম্পৃক্ত হতে উৎসাহিত

তুরস্ক ও রাশিয়াকে অবশ্যই ইতিবাচক সমাধান খুঁজতে হবে: এরদোগান

সংবাদ ডেস্ক

image

সিরিয়া ইস্যুতে মস্কো ও রাশিয়াকে অবশ্যই ইতিবাচক সমাধান খুঁজতে হবে বলে মন্তব্য

চীন ও হংকংয়ে মাংখুটের আঘাত

সংবাদ ডেস্ক

image

ফিলিপাইনের উত্তরাঞ্চলে ধ্বংসযজ্ঞ চালানোর পর এবার চীন ও হংকংয়ে আঘাত হেনেছে

ফিলিপাইনে টাইফুনে মৃতের সংখ্যা বেড়ে ২৫

image

টাইফুন ম্যাংখুতের আঘাতে ধ্বংসযজ্ঞে পরিনত হয়েছে ফিলিপাইন জুড়ে। রোববার (১৬ সেপ্টেম্বর) কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে

আমার সঙ্গে খেল, তোমার মোবাইলের সঙ্গে নয়

সংবাদ ডেস্ক

image

আজকাল প্রযুক্তির আসক্তির কারণে সামাজিক বন্ধন ভেঙে পড়ছে। বিষয়টি নিয়ে অনেক

পরমাণু নিরস্ত্রীকরণের বল এখন যুক্তরাষ্ট্রের পকেটে : উত্তর কোরিয়া

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক

image

কোরীয় উপদ্বীপের পরমাণু নিরস্ত্রীকরণ এখন মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের ওপরই নির্ভর করবে

sangbad ad