• banlag
  • newspaper
  • epaper

ঢাকা , বুধবার, ২৭ মে ২০২০

 

মানবসৃষ্ট মরুভূমি!

নিউজ আপলোড : ঢাকা , বৃহস্পতিবার, ২০ জুন ২০১৯

সংবাদ :
  • সংবাদ ডেস্ক
image

পৃথিবীর প্রায় তিন ভাগ এলাকা মরুভূমি। কিন্তু অবহেলা আর বন উজাড়ের কারণে নষ্ট হচ্ছে উর্বর ভূমি, নতুন করে মরুভূমিতে রূপান্তর হয়ে যাচ্ছে বহু এলাকা। প্রতি বছর প্রায় ৭০ হাজার বর্গ কিলোমিটার মরুভূমিতে রূপান্তরিত হচ্ছে। যা আয়ারল্যান্ডের আয়তনের সমান।

উর্বর ভূমিকে মরু এলাকায় রূপান্তরের নাম মরুকরণ। মানুষের অপরিকল্পিতভাবে প্রাকৃতিক সম্পদ ব্যবহার ফলেই অধিকহারে মরুকরণের সৃষ্টি হচ্ছে। পৃথিবীর ৭০শতাংশ উষ্ণ এলাকার মানুষের মধ্যে রয়েছে এমন প্রবণতা। জার্মানির উন্নয়ন সংস্থা জিআইজেড এর হিসাব অনুযায়ী, আফ্রিকার ৪০ শতাংশ মানুষ এমন এলাকায় বসবাস করেন, যা মরুকরণের হুমকির মুখে রয়েছে। আর এশিয়া আর দক্ষিণ আমেরিকায় এ সংখ্যা যথাক্রমে ৩৯ ও ৩০ শতাংশ। জার্মানি, যুক্তরাষ্ট্র ও স্পেনের মতো দেশও আছে ঝুঁকির মধ্যে। জনসংখ্যা বৃদ্ধি মরু এলাকা বাড়ার একটি কারণ। যেমন- চীনের ভূমি ব্যবহার হয় মানুষের খাবার নিশ্চিতের জন্য। শেষ উদ্ভিদটি পর্যন্ত খাওয়ার জন্য কৃষকেরা পশুপালন করে থাকে। মাটি আলগা হয়ে যায় এবং ক্ষয়ে যায় ঝড়-বৃষ্টির কারণে। এভাবে চীনে প্রতি বছর আড়াই হাজার বর্গ কিলোমিটার মরুভূমি তৈরি হয়। ব্যর্থ অর্থনৈতিক নীতি কারণে মরুভূমির রূপ ধারণ করেছে কাজাখাস্তান ও উজবেকিস্তান সীমান্তের হ্রদ ‘উরাল সি’। এক সময় চতুর্থ সর্ববৃহৎ এই হ্রদের অল্প একটা অংশ অবশিষ্ট আছে। সোভিয়েত আমলে দুই দেশই তুলা ক্ষেতের জন্য এখানকার বড় অংশের পানি ব্যবহার করে ফেলে। মাছ ধরার নৌকা তাই আটকে থাকে সেই ‘সাগর’ এর মাঝে। ইউরোপের বিভিন্ন দেশেও মরুকরণের দিকে ধাবিত হচ্ছে। পর্যটকের আবাসন নিশ্চিত করতে স্পেনে কিছু এলাকার বন পুরোপুরি উজাড় করা হয়। এর মধ্যে মাদ্রিদের গুয়াদালাজারা এলাকা বড় রকমের হুমকির মুখে রয়েছে। মরুকরণের ফলে পানি আর চাষের জমির সংকট তৈরি হচ্ছে। এ কারণে বহু এলাকায় ঘরবাড়ি ছেড়ে যেতে বাধ্য হচ্ছে মানুষ। জিআইজেড হিসাবে আফ্রিকার ৪৮৫ মিলিয়ন মানুষ মরুকরণের কারণে ঝুঁকির মুখে রয়েছে। ২০২০ সালের মধ্যে ওই এলাকার ৬০ মিলিয়ন লোক মরুভূমি ছেড়ে যাবে বলে জানাচ্ছে জাতিসংঘ। মরুকরণের বিরুদ্ধে ইতোমধ্যে যুদ্ধ ঘোষণা করেছে বিভিন্ন দেশ।

করোনার চিকিৎসায় ম্যালেরিয়ার ওষুধ বন্ধ : ডব্লিউএইচও

সংবাদ ডেস্ক

image

করোনা ভাইরাস উপশমে ম্যালেরিয়ার ওষুধ হাইড্রক্সিক্লোরোকুইনের পরীক্ষামূলক ব্যবহার আপাতত বন্ধ রাখতে বলেছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা

যুক্তরাষ্ট্রে করোনায় মৃত্যু প্রায় ১ লাখ

অনলাইন বার্তা পরিবেশক,

image

করোনাভাইরাসের (কোভিড-১৯) সংক্রমণ তালিকার শীর্ষে থাকা যুক্তরাষ্ট্রে এ পর্যন্ত প্রায় এক লাখ মানুষের মৃত্যু হয়েছে।

লকডাউন দ্রুত তোলায় মহামারির দ্বিতীয় ঢেউয়ের শঙ্কা

আন্তর্জাতিক ডেস্ক

image

যেসব দেশে করোনাভাইরাসের প্রকোপ কমে যাওয়ায় লকডাউন শিথিল বা কড়াকড়ি তুলে নেয়া হচ্ছে, সেখানে আবারও সংক্রমণ বেড়ে যেতে পারে পারে বলে হুঁশিয়ারি দিয়েছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (ডব্লিউএইচও)। সোমবার সংস্থাটির হেলথ ইমারজেন্সিজ প্রোগ্রামের নির্বাহী পরিচালক ডা. মাইকেল রায়ান এক ভার্চুয়াল ব্রিফিংয়ে এ আশঙ্কার কথা জানিয়েছেন।

sangbad ad

ট্রাম্পের গেমচেঞ্জার ওষুধ ব্যবহারে ডব্লিউএইচও-এর নিষেধাজ্ঞা

সংবাদ ডেস্ক

image

করোনা ভাইরাস চিকিৎসার পরীক্ষামূলক ওষুধ হিসেবে হাইড্রোক্সিক্লোরোকুইনের ব্যবহার স্থগিত করেছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (ডব্লিউএইচও)। সোমবার তারা জানিয়েছে, ঝুঁকি এড়াতে কয়েকটি দেশে সাময়িকভাবে এটির ব্যবহার নিষিদ্ধ করা হয়েছে। ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসির প্রতিবেদন অনুযায়ী, সাম্প্রতিক এক গবেষণায় ওষুধটি ব্যবহারে কোভিড-১৯ রোগীদের মৃত্যুঝুঁকি বাড়তে পারে বলে ইঙ্গিত পাওয়ার পর এই সিদ্ধান্ত নিয়েছে ডব্লিউএইচও।

করাচিতে বিধ্বস্ত বিমানের ব্ল্যাক বক্স উদ্ধার

সংবাদ ডেস্ক

পাকিস্তানের করাচিতে বিধ্বস্ত বিমানের ব্ল্যাক বক্স উদ্ধার করা হয়েছে। ঘটনাস্থল থেকে এই ডাটা রেকর্ডার উদ্ধার করা হয়েছে বলে জানায় পাকিস্তান ইন্টারন্যাশনাল এয়ারলাইন্স

ঈদে দেশব্যাপী লকডাউন চলছে তুরস্কে

সংবাদ ডেস্ক

image

তুরস্কে এখন পর্যন্ত করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হিসেবে শনাক্ত হয়েছে এক লাখ ৫৫ হাজার ছয়শ ৮৬ জন এবং মারা গেছে চার হাজার তিনশ আটজন। গত ১১ মার্চ সে দেশে প্রথম করোনা রোগী শনাক্ত হওয়ার পর এই প্রথম দেশব্যাপী লকডাউন ঘোষণা করা হয়েছে। ঈদের ছুটিতে করোনা যেন ছড়াতে না পারে, সেজন্য চারদিনের লকডাউন চলছে সে দেশে।

দক্ষিণ সুদানের ১০ মন্ত্রী করোনায় আক্রান্ত

সংবাদ ডেস্ক

image

প্রাণঘাতী মহামারি করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন দক্ষিণ সুদানের ১০ জন মন্ত্রী। বর্তমানে তাঁরা সবাই সেলফ আইসোলেশনে আছেন। সুদানের তথ্যমন্ত্রী মিকাইল মাকুয়েই বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। তবে এখন পর্যন্ত তাঁরা সবাই সুস্থ আছেন বলেও জানান তিনি। আক্রান্ত মন্ত্রীরা সবাই করোনা প্রতিরোধে টাস্কফোর্সের সদস্য ছিলেন। একমাত্র স্বাস্থ্যমন্ত্রী ছাড়া টাস্কফোর্সের সবাই করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন।

করোনার ৬ ভ্যাকসিন গণহারে পরীক্ষা করছে যুক্তরাষ্ট্র

সংবাদ ডেস্ক

image

চলতি বছর শেষ হওয়ার আগেই প্রাণঘাতী করোনাভাইরাসের একটি কার্যকরী এবং নিরাপদ ভ্যাকসিন আনার লক্ষ্যে ব্যাপক কর্মযজ্ঞ হাতে নিয়েছে যুক্তরাষ্ট্র। এ জন্য দেশটি প্রতিশ্রুতিশীল অন্তত ছয়টি ভ্যাকসিন এক থেকে দেড় লাখ স্বেচ্ছাসেবীর শরীরে প্রয়োগ করতে যাচ্ছে। ব্যাপক এই কর্মযজ্ঞের সঙ্গে জড়িত বিজ্ঞানীরা বার্তাসংস্থা রয়টার্সকে এসব তথ্য জানিয়েছেন।

সৌদি আরবসহ মধ্যপ্রাচ্যে আগামীকাল ঈদ

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক

image

সৌদি আরবসহ মধ্যপ্রাচ্যে আগামীকাল রোববার (২৪ মে) পবিত্র ঈদুল ফিতর উদযাপিত হবে।

sangbad ad