• banlag
  • newspaper
  • epaper

ঢাকা , মঙ্গলবার, ০২ জুন ২০২০

 

ভারতে আক্রান্ত ক্রমাগত বেড়েই চলেছে

নিউজ আপলোড : ঢাকা , রোববার, ২৯ মার্চ ২০২০

সংবাদ :
  • সংবাদ ডেস্ক
image

ভারতে প্রাণঘাতী করোনাভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা হাজারের কাছে পৌঁছেছে। আশঙ্কাকে সত্যি করে গত ২৪ ঘণ্টায় দেশটিতে এ ভাইরাসের সংক্রমণ বৃদ্ধি পেয়েছে ২২ শতাংশ হারে। দেশটিতে গত মঙ্গলবার থেকে ২১ দিনের লকডাউন চলছে। পিটিআই, রয়টার্স, ডয়েচে ভেলে। মহামারী আকারে ছড়িয়ে পড়া নভেল করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাবে বিশ্বজুড়ে মৃতের সংখ্যা ২৯ মার্চ রোববার পর্যন্ত ৩০ হাজার (৩০,৮৪৭) ছাড়িয়েছে। এদের মধ্যে অর্ধেকেরও বেশি মৃত্যুর ঘটনা ঘটেছে ইউরোপের দুটি দেশ ইতালি ও স্পেনে। চীনের উহান থেকে সংক্রমণ শুরু হলেও তা এখন বিশ্বের ২০৩টি দেশ ও অঞ্চলে পৌঁছে গিয়ে ৬ লাখ ৬৪ হাজার ৬৯৫ জনকে আক্রান্ত করেছে বলে জানিয়েছে ডেইলি মেইল। এদের মধ্যে ১২০টি দেশ ও অঞ্চল থেকে মৃত্যুর খবর এসেছে বলে জানাচ্ছে তারা।

এদিকে এক প্রতিবেদনে রয়টার্স জানিয়েছে, গত ২৭ মার্চ শুক্রবার থেকে ভারতে করোনাভাইরাসের সংক্রমণ কয়েক গুণ বৃদ্ধি পেয়েছে। গত ২৪ ঘণ্টায় পুরো দেশজুড়ে আক্রান্ত হয়েছেন ১৯৪ জন। যার জেরে সরকারি হিসাবে মোট আক্রান্তের সংখ্যা এক লাফে ৯৭০ জনে পৌঁছাল। মৃত্যু হয়েছে ১৯ জনের। বেসরকারি সূত্রের দাবি, রোববার সকাল ১০টার মধ্যে মোট আক্রান্তের সংখ্যা ১০৩৭ এ পৌঁছেছে। মৃতের সংখ্যা ২৫। বিশেষজ্ঞদের অভিমত, পরীক্ষা ঠিকমতো হলে আক্রান্তের সংখ্যা আরও অনেক বেশি হতো।

এর আগে দেশটির বিশেষজ্ঞরা জানান, মার্চ মাসের শেষ সপ্তাহ এবং এপ্রিল মাসের প্রথম সপ্তাহ অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। ভারতসহ দক্ষিণ-এশিয়া উপমহাদেশে এ সময়ের মধ্যে করোনার সংক্রমণ কয়েকগুণ বাড়ার আশঙ্কা রয়েছে। পরিসংখ্যান বলছে, গত ২৪ ঘণ্টায় ভারতে সংক্রমণ বৃদ্ধির হার প্রায় ২২ শতাংশ। বিশেষজ্ঞদের আশঙ্কা, আগামী সপ্তাহে এ হার আরও বৃদ্ধি পেতে পারে। যদিও এখনও বিশ্বস্বাস্থ্য সংস্থা (ডব্লিউএইচও) বলছে, ভারত করোন সংক্রমণের তৃতীয় ধাপে (স্টেজ-থ্রি) এখনও পৌঁছায়নি। অর্থাৎ স্থানীয় পর্যায়ে (কমিউনিটি) এখনও ছড়িয়ে পড়েনি এর সংক্রমণ। কিন্তু অনেকেরই ধারণা, গত দুই দিন ধরে যেভাবে আক্রান্তের সংখ্যা বেড়েছে, তাতে মনে হচ্ছে সংক্রমণ স্থানীয় পর্যায়েও (বিভিন্ন এলাকার বাসিন্দাদের মাঝে) ছড়িয়ে পড়তে শুরু করেছে বা তার সম্ভাবনা জোরালো হয়েছে। লকডাউন সত্ত্বেও সংক্রমণ বেড়ে যাওয়ায় তারা চিন্তিত।

এক সপ্তাহ আগে ডব্লিউএইচওর স্লোগান ছিল ‘পরীক্ষা পরীক্ষা পরীক্ষা’ (টেস্ট টেস্ট টেস্ট)। অভিযোগ রয়েছে, ভারতে সেভাবে করোনাভাইরাসের পরীক্ষা করা হচ্ছেই না।

এদিকে গত শুক্রবার জার্মান সংবাদ মাধ্যম ডয়েচে ভেলেকে দেশটির বিশিষ্ট চিকিৎসক সাত্যকি হালদার জানান, ‘দেশে করোনা পরীক্ষার যথেষ্ট পরিকাঠামোই গড়ে তোলা সম্ভব হয়নি। বিদেশ ফেরত বা বিদেশ ফেরতের সঙ্গে সম্পর্কযুক্তদেরই কেবল পরীক্ষা হচ্ছে অধিকাংশ জায়গায়। ফলে আসলে ভাইরাসটি কতটা ছড়িয়েছে, স্থানীয় বাসিন্দাদের মধ্যে ছড়িয়েছে কি না- এ তথ্য পাওয়াই যাচ্ছে না।’

তবে দেশটির কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রী হর্ষবর্ধন এ যুক্তি মানতে নারাজ। তার জোরালো দাবি, ‘প্রথম যখন করোনার প্রাদুর্ভাব ঘটেছিল, ভারতে তখন মাত্র ১৫টি পরীক্ষাগারে করোনা পরীক্ষার ব্যবস্থা ছিল। এখন পুরো দেশে ১১৯টি সরকারি পরীক্ষাগারে এ পরীক্ষা হচ্ছে। ৩৫টি বেসরকারি ল্যাবরেটরিতেও এর পরীক্ষা হচ্ছে। গত পাঁচ দিনে প্রতিদিন কমপক্ষে দুই হাজার জনের পরীক্ষা হয়েছে। এখন পর্যন্ত মোট ২৮ হাজার জনের পরীক্ষা হয়েছে।’

তবে বিশেষজ্ঞরা বলছেন, ১৩০ কোটির দেশে ২৮ হাজার মানুষের পরীক্ষা সিন্ধুতে বিন্দুর মতো। বস্তুত ডব্লিউএইচও’র একটি পরিসংখ্যান বলছে, প্রতি ১০ লাখে ভারতে করোনার পরীক্ষা হচ্ছে মাত্র তিন জনের। যেখানে দক্ষিণ কোরিয়ার মতো দেশে প্রতি ১০ লাখে পরীক্ষা হচ্ছে প্রায় পাঁচ হাজার জনের। যদিও বিশ্বস্বাস্থ্য সংস্থার এ পরিসংখ্যান এক সপ্তাহ আগের। গত সাত দিনে পরীক্ষার পরিমাণ আগের চেয়ে সামান্য বেড়েছে বলেই ভারতের স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের এক কর্মকর্তার দাবি।

প্রত্যক্ষ অভিজ্ঞতাও বলছে, মোট আক্রান্তের সংখ্যা প্রায় হাজার ছুঁয়ে ফেললেও সবার করোনা পরীক্ষা এখনও হচ্ছে না। দেশটির পশ্চিমবঙ্গ রাজ্যেও রাজধানী কলকাতার এক ব্যক্তি ডয়েচে ভেলেকে জানিয়েছেন, তার স্ত্রী জ্বর এবং শ্বাসকষ্ট নিয়ে ভুগছিলেন। হাসপাতালে নিয়ে গেলে তাকে জিজ্ঞেস করা হয়, বিদেশ ফেরত কি না কিংবা কোন বিদেশ ফেরত কারো সংস্পর্শে এসেছিলেন কি না। জবাব না হওয়ায়, তার স্ত্রীর করোনা পরীক্ষা হয়নি। হাসপাতাল বলেছে, পরীক্ষার জন্য যথেষ্ট কিট নেই। দিল্লিতেও একই অভিজ্ঞতার কথা জানিয়েছেন অনেক চিকিৎসক ও রোগী।

পরিসংখ্যানের নিরিখে দেশটির কেরালা রাজ্যে এখন পর্যন্ত সবচেয়ে বেশি আক্রান্ত, ১৭৬ জন। মৃত্যু হয়েছে এক জনের। পাঞ্জাবে আক্রান্ত ৩৯ জন, মৃত্যু এক। জম্মু-কাশ্মীরে আক্রান্ত ৩৩, মৃত এক। রাজস্থানে ৫৬ জন। মহারাষ্ট্রে আক্রান্ত ১৭৭ জন, মৃত্যু হয়েছে ছয় জনের। উত্তরপ্রদেশে এখন পর্যন্ত সংক্রমিত হয়েছেন ৬১ জন। কর্ণাটকে ৭৬ জন, মৃত্যু হয়েছে ৩ জনের। গুজরাটে আক্রান্তের সংখ্যা ৫৩ ছাড়িয়ে গেছে, মৃত্যু হয়েছে ৫ জনের। তবে পশ্চিমবঙ্গে আক্রান্তের সংখ্যা সেভাবে বৃদ্ধি পায়নি, এখন পর্যন্ত আক্রান্ত ১৮ জন, মৃত্যু হয়েছে একজনের। দিল্লিতে ৪৯ জনের শরীরে এখন পর্যন্ত করোনার জীবাণু মিলেছে।

অর্থাৎ দেখা যাচ্ছে, একমাত্র উত্তর-পূর্ব ভারত ছাড়া দেশের প্রায় প্রতিটি কোণেই সংক্রমণ ছড়িয়ে পড়েছে। সেটিই চিন্তার কারণ বলে মনে করছেন বিশেষজ্ঞরা। তবে ভারতের স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের কর্মকর্তাদের দাবি, পরিস্থিতি এখনও নিয়ন্ত্রণে রয়েছে। ১৩০ কোটি জনসংখ্যার দেশে এক হাজারের কাছাকাছি মানুষের করোনায় আক্রান্ত হওয়াটা খুব বড় বিষয় নয়। লকডাউনের ফলেই করোনা কম ছড়িয়েছে।

বিক্ষোভের সময় স্ত্রী-পুত্রকে নিয়ে বাঙ্কারে লুকিয়েছিলেন ট্রাম্প!

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক

image

কৃষ্ণাঙ্গ হত্যার প্রতিবাদে বিক্ষোভে উত্তাল যুক্তরাষ্ট্র। বিক্ষোভকারীরা শুক্রবার (২৯ মে) রাতে হোয়াইট হাউজের বাইরেও জড়ো হন। এ সময় প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পকে হোয়াইট হাউজের আন্ডারগ্রাউন্ড বাঙ্কারে নিয়ে যাওয়া হয়।

বিশ্বে করোনায় মৃত্যু ৩ লাখ ৭৩ হাজার

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক

image

বৈশ্বিক মহামারি করোনাভাইরাসে (কোভিড-১৯) আক্রান্ত ও মৃত্যুর সংখ্যা প্রতিদিনই বাড়ছে। গত ডিসেম্বরের শেষে চীনের উহানে শুরু হওয়া করোনার সংক্রমণ বিশ্বের ২১৫টি দেশে ছড়িয়ে পড়েছে।

কারফিউ ভেঙে যুক্তরাষ্ট্রে প্রতিবাদ বিক্ষোভ

সংবাদ অনলাইন ডেস্ক

যুক্তরাষ্ট্রের বিভিন্ন অঙ্গরাজ্যে জুড়ে কৃষ্ণাঙ্গ খুনের প্রতিবাদ-বিক্ষোভ বিক্ষোভ আরও বেড়েছে। টিভি সংবাদমাধ্যম

sangbad ad

বিক্ষোভে উত্তাল যুক্তরাষ্ট্রে সেনা মোতায়েন

সংবাদ ডেস্ক

যুক্তরাষ্ট্রের মিনেসোটা অঙ্গরাজ্যের মিনেপোলিস শহরে পুলিশের হেফাজতে জর্জ ফ্লয়েড নামের এক কৃষ্ণাঙ্গ আমেরিকান নাগরিকের মৃত্যুর ঘটনার প্রতিবাদে টানা চতুর্থ দিনের বিক্ষোভে উত্তাল হয়ে উঠেছে যুক্তরাষ্ট্র। শনিবার ডেট্রয়েটসহ দেশটির বিভিন্ন অঙ্গরাজ্যের রাস্তায় এ বিক্ষোভ সহিংস আকার ধারণ করে। এসময়

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার সঙ্গে সম্পর্ক ছিন্নের ঘোষণা যুক্তরাষ্ট্রের

সংবাদ অনলাইন ডেস্ক

যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার (ডব্লিউএইচও) সঙ্গে তার দেশের সম্পর্কের ইতি টানার ঘোষণা দিয়েছেন। ট্রাম্প ঘোষণা দিলেও ডব্লিউএইচও’র সঙ্গে যুক্তরাষ্ট্রের সম্পর্কচ্ছেদ কবে থেকে কার্যকর হচ্ছে, তা স্পষ্ট হওয়া যায়নি বলে জানিয়েছে বার্তা সংস্থা রয়টার্স। তবে ট্রাম্পের এ ঘোষণা নিয়ে তাৎক্ষণিকভাবে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার কোনো প্রতিক্রিয়া পাওয়া যায়নি।

করোনা চিকিৎসায় ‘প্লাজমা থেরাপি’ ‘রেমডেসিভির’ ব্যবহারে ডব্লিউএইচওর না

অনলাইন বার্তা পরিবেশক,

image

করোনাভাইরাসের (কোভিড-১৯) চিকিৎসায় প্লাজমা থেরাপি ব্যবহার না করার পরামর্শ দিয়েছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (ডব্লিউএইচও)। পাশাপাশি ‘রেমডেসিভির’সহ অন্যান্য অ্যান্টিভাইরালও ব্যবহার না করার সুপারিশ করেছে সংস্থাটি।

বিশ্বে করোনায় আক্রান্ত ৬০ লাখ ছাড়াল

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক

image

বৈশ্বিক মহামারি করোনাভাইরাসে (কোভিড-১৯) আক্রান্ত ও মৃত্যুর সংখ্যা প্রতিদিনই বাড়ছে। গত ডিসেম্বরের শেষে চীনের উহানে শুরু হওয়া করোনার সংক্রমণ বিশ্বের ২১৫টি দেশে ছড়িয়ে পড়েছে।

করোনা বস্তু থেকে সহজে ছড়ায় না : সিডিসি

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক

image

কোনো বস্তু বা পৃষ্ঠতল থেকে করোনাভাইরাস সহজে ছড়ায় না, বরং মূলত মানুষ থেকে মানুষেই রোগটি ছড়াচ্ছে বলে জানিয়েছে যুক্তরাষ্ট্রের সেন্টার ফর ডিজিজ কন্ট্রোল এন্ড প্রিভেনশন (সিডিসি)।

লিবিয়ায় ২৬ বাংলাদেশি শ্রমিক হত্যা

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক

image

লিবিয়ায় ২৬ বাংলাদেশিসহ ৩০ অভিবাসী শ্রমিককে গুলি করে হত্যা করেছে মানবপাচারকারী চক্রের এক সদস্যের পরিবারের লোকজন। নিহত বাকি চারজন আফ্রিকান। এছাড়া আরো ১১ জন গুরুতর আহত হয়েছেন। আন্তর্জাতিক স্বীকৃতিপ্রাপ্ত লিবিয়ার সরকার (জিএনএ) বৃহস্পতিবার এই তথ্য জানিয়েছেন।

sangbad ad