• banlag
  • newspaper
  • epaper

ঢাকা , মঙ্গলবার, ০২ জুন ২০২০

 

বিরল ইনফ্লুয়েঞ্জায় যুক্তরাষ্ট্রে নীরব মৃত্যু ১৪ হাজার

নিউজ আপলোড : ঢাকা , রোববার, ২৩ ফেব্রুয়ারী ২০২০

সংবাদ :
  • সংবাদ ডেস্ক
image

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে চলতি মৌসুমে বিরল এক ইনফ্লুয়েঞ্জায় (ভাইরাসঘটিত এক ধরনের ছোঁয়াচে সর্দি জ্বর) আক্রান্ত হয়ে কমপক্ষে ১৪ হাজার মানুষের মৃত্যু হয়েছে। দেশটির এক অঙ্গরাজ্য থেকে আরেক অঙ্গরাজ্যে ছড়িয়ে পড়া এ ভাইরাসে এ প্রতিবেদন লেখা পর্যন্ত আক্রান্ত হয়েছেন আরও কমপক্ষে ২ কোটি ৬০ লাখ মার্কিনি। চীনের হুবেই প্রদেশের উহান শহর থেকে ছড়িয়ে পড়া নতুন নভেল করোনাভাইরাসে বিশ্বজুড়ে ছড়িয়ে পড়া আতঙ্কের মধ্যে যুক্তরাষ্ট্রের এ খবর অনেকটাই চাপা পড়ে ছিল। বিভিন্ন মার্কিন সংবাদ মাধ্যমের প্রতিবেদনের বরাতে এ তথ্য জানা গেছে। সিএনএন, সিএনবিসি, ইউএস নিউজ, মেডিসিন নেট ডটকম।

সম্প্রতি মার্কিন সংবাদ মাধ্যম এ সংক্রান্ত খবর প্রকাশ করার পর দেশটির বিশেষজ্ঞরা এ নিয়ে কথা বলা শুরু করেন। এখন পর্যন্ত যুক্তরাষ্ট্রের বিভিন্ন প্রান্তে অন্তত দুই লাখ মানুষ ফ্লু নিয়ে হাসপাতালে ভর্তি ও চিকিৎসা নিয়েছেন বলে সংবাদ মাধ্যম ইউএস নিউজ জানিয়েছে।

যুক্তরাষ্ট্রের সেন্টার ফর ডিজিজ কন্ট্রোল এন্ড প্রিভেশন (সিডিসি) জানিয়েছে, বর্তমানে করোনাভাইরাস নিঃসন্দেহে সবচেয়ে বড় সংকট। কিন্তু মার্কিনিদের মধ্যে করোনা বিস্তারের সম্ভাবনা অনেক কম। বর্তমানে করোনায় ১৪ মার্কিনি আক্রান্ত। তাদের কোয়ারেন্টাইন করে রাখা হয়েছে।

ইউএস নিউজ বলছে, যুক্তরাষ্ট্রে ইনফ্লুয়েঞ্জায় আক্রান্তের ঘটনা সবার অগোচরেই রয়ে গেছে। ফ্লু থেকে আরোগ্য লাভের জন্য ভ্যাকসিন গ্রহণ করলেও সম্পূর্ণ আরোগ্য লাভ করা সম্ভব না। ভ্যাকসিন গ্রহণ সত্ত্বেও ফ্লু থেকে বাঁচার সম্ভাবনা মাত্র ৪০ থেকে ৬০ ভাগ। সিডিসির তথ্য অনুযায়ী, চলতি মৌসুমে অন্তত ১৯ লাখ মার্কিন নাগরিক ইনফ্লুয়েঞ্জায় আক্রান্ত হয়েছে। প্রায় দুই লাখ মানুষ হাসপাতালে ভর্তি হয়েছে এবং মৃতের সংখ্যা প্রায় দশ হাজার। নিহতদের মধ্যে ৬৮ শিশুও রয়েছে।

ফ্লুয়ের কারণে উদ্বিগ্ন মার্কিন চিকিৎসক স্কট ওয়েজেনবার্গ জানান, ইনফ্লুয়েঞ্জা কিভাবে ছড়িয়ে পড়ে তা শনাক্ত করা সহজ। তা সত্ত্বেও ইনফ্লুয়েঞ্জায় আক্রান্তের সংখ্যা ক্রমাগত বৃদ্ধি পাচ্ছে। ফ্লু থেকে দ্রুত নিস্তারের কোনো লক্ষণ দেখা যাচ্ছে না। কারণ ফ্লু এখনও সক্রিয় আছে।

তিনি আরও বলেন, গত কয়েক বছর ধরে ইনফ্লুয়েঞ্জা একটি ভয়াবহ ভাইরাসের আকার ধারণ করছে। সাধারণত ষাটোর্ধ্ব, গর্ভবতী নারী, শিশুদেরই এই রোগে আক্রান্তের হার বেশি। এছাড়া ডায়বেটিস, অ্যাজমা, ক্যানসার, এইচআইভি/এইডস এবং হৃদরোগে আক্রান্তরাও ঝুঁকির মধ্যে রয়েছেন।

সিডিসি বলছে, চলতি বছর অন্যান্য মৌসুমের তুলনায় হাসপাতালে শিশু, তরুণ ও বয়স্কদের ভর্তির হার অতীতের রেকর্ড ছাড়িয়ে গেছে। বিশেষ করে ইনফ্লুয়েঞ্জা বি রোগে সবচেয়ে বেশি আক্রান্ত হচ্ছে তরুণরা।

গত মৌসুমে ইনফ্লুয়েঞ্জা থেকে মুক্তির জন্য ৪৫ ভাগ বয়স্ক ৬৩ ভাগ শিশু ইনফ্লুয়েঞ্জার ভ্যাকসিন গ্রহণ করেছে বলে স্বাস্থ্য এবং জনসেবা মন্ত্রণালয়ের সেক্রেটারি অ্যালেক্স আজহার জানিয়েছেন।

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে চলতি মৌসুমে বিরল এক ইনফ্লুয়েঞ্জায় (ভাইরাস-ঘটিত এক ধরনের ছোঁয়াচে সর্দিজ্বর)

আক্রান্ত হয়ে কমপক্ষে ১৪ হাজার মানুষের মৃত্যু হয়েছে। দেশটির এক অঙ্গরাজ্য থেকে আরেক অঙ্গরাজ্যে ছড়িয়ে পড়া এ ভাইরাসে এ প্রতিবেদন লেখা পর্যন্ত আক্রান্ত হয়েছে আরও কমপক্ষে ২ কোটি ৬০ লাখ মার্কিনি। চীনের হুবেই প্রদেশের উহান শহর থেকে ছড়িয়ে পড়া নতুন নভেল করোনাভাইরাসে বিশ্বজুড়ে ছড়িয়ে পড়া আতঙ্কের মধ্যে যুক্তরাষ্ট্রের এই খবর অনেকটাই চাপা পড়ে ছিল। বিভিন্ন মার্কিন সংবাদ মাধ্যমের প্রতিবেদনের বরাতে এ তথ্য জানা গেছে। সিএনএন, সিএনবিসি, ইউএস নিউজ, মেডিসিন নেট ডটকম।

সম্প্রতি মার্কিন সংবাদ মাধ্যম এ সংক্রান্ত খবর প্রকাশ করার পর দেশটির বিশেষজ্ঞরা এ নিয়ে কথা বলা শুরু করেন। এখনও পর্যন্ত যুক্তরাষ্ট্রের বিভিন্ন প্রান্তে কমপক্ষে দুই কোটি ৬০ লাখ মানুষ ইনফ্লুয়েঞ্জায় নিয়ে হাসপাতালে ভর্তি ও চিকিৎসা নিয়েছেন বলে সংবাদমাধ্যম ইউএস নিউজ জানিয়েছে। যুক্তরাষ্ট্রের সেন্টার ফর ডিজিজ কন্ট্রোল অ্যান্ড প্রিভেশন (সিডিসি) জানিয়েছে, বর্তমানে করোনাভাইরাস নিঃসন্দেহে সবচেয়ে বড় সংকট। কিন্তু মার্কিনিদের মধ্যে করোনা বিস্তারের সম্ভাবনা অনেক কম। বর্তমানে করোনায় ১৪ মার্কিনি আক্রান্ত। তাদের কোয়ারেন্টাইন করে রাখা হয়েছে।

ইউএস নিউজ বলছে, যুক্তরাষ্ট্রে ইনফ্লুয়েঞ্জায় আক্রান্তের ঘটনা সবার অগোচরেই রয়ে গেছে। ফ্লু থেকে আরোগ্য লাভের জন্য ভ্যাকসিন গ্রহণ করলেও সম্পূর্ণ আরোগ্য লাভ করা সম্ভব নয়। ভ্যাকসিন গ্রহণ সত্ত্বেও এ ইনফ্লুয়েঞ্জা থেকে বাঁচার সম্ভাবনা মাত্র ৪০ থেকে ৬০ ভাগ।

সিডিসির তথ্য অনুযায়ী, চলতি মৌসুমে অন্তত ১৯ লাখ মার্কিন নাগরিক ইনফ্লুয়েঞ্জায় আক্রান্ত হয়েছে। প্রায় দুই লাখ মানুষ হাসপাতালে ভর্তি হয়েছে এবং মৃতের সংখ্যা প্রায় দশ হাজার। নিহতদের মধ্যে ৬৮ শিশুও রয়েছে। এ ইনফ্লুয়েঞ্জার কারণে উদ্বিগ্ন মার্কিন চিকিৎসক স্কট ওয়েজেনবার্গ জানান, ইনফ্লুয়েঞ্জা কিভাবে ছড়িয়ে পড়ে তা শনাক্ত করা সহজ। তা সত্ত্বেও ইনফ্লুয়েঞ্জায় আক্রান্তের সংখ্যা ক্রমাগত বৃদ্ধি পাচ্ছে। এটি থেকে দ্রুত নিস্তারের কোনো লক্ষণ দেখা যাচ্ছে না। কারণ ইনফ্লুয়েঞ্জাটি এখনও সক্রিয় আছে।

তিনি আরও বলেন, গত কয়েক বছর ধরে ইনফ্লুয়েঞ্জা একটি ভয়াবহ ভাইরাসের আকার ধারণ করছে। সাধারণত ষাটোর্ধ্ব, অন্তঃসত্ত্বা নারী, শিশুদেরই এ রোগে আক্রান্তের হার বেশি। এছাড়া ডায়বেটিস, অ্যাজমা, ক্যানসার, এইচআইভি/এইডস এবং হৃদরোগে আক্রান্তরাও ঝুঁকির মধ্যে রয়েছেন। সিডিসি বলছে, চলতি বছর অন্যান্য মৌসুমের তুলনায় হাসপাতালে শিশু, তরুণ ও বয়স্কদের ভর্তির হার অতীতের রেকর্ড ছাড়িয়ে গেছে। বিশেষ করে ইনফ্লুয়েঞ্জা বি রোগে সবচেয়ে বেশি আক্রান্ত হচ্ছে তরুণরা।

গত মৌসুমে ইনফ্লুয়েঞ্জা থেকে মুক্তির জন্য ৪৫ ভাগ বয়স্ক ৬৩ ভাগ শিশু ইনফ্লুয়েঞ্জার ভ্যাকসিন গ্রহণ করেছে বলে স্বাস্থ্য এবং জনসেবা মন্ত্রণালয়ের সেক্রেটারি অ্যালেক্স আজহার জানিয়েছেন।

বিক্ষোভের সময় স্ত্রী-পুত্রকে নিয়ে বাঙ্কারে লুকিয়েছিলেন ট্রাম্প!

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক

image

কৃষ্ণাঙ্গ হত্যার প্রতিবাদে বিক্ষোভে উত্তাল যুক্তরাষ্ট্র। বিক্ষোভকারীরা শুক্রবার (২৯ মে) রাতে হোয়াইট হাউজের বাইরেও জড়ো হন। এ সময় প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পকে হোয়াইট হাউজের আন্ডারগ্রাউন্ড বাঙ্কারে নিয়ে যাওয়া হয়।

বিশ্বে করোনায় মৃত্যু ৩ লাখ ৭৩ হাজার

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক

image

বৈশ্বিক মহামারি করোনাভাইরাসে (কোভিড-১৯) আক্রান্ত ও মৃত্যুর সংখ্যা প্রতিদিনই বাড়ছে। গত ডিসেম্বরের শেষে চীনের উহানে শুরু হওয়া করোনার সংক্রমণ বিশ্বের ২১৫টি দেশে ছড়িয়ে পড়েছে।

কারফিউ ভেঙে যুক্তরাষ্ট্রে প্রতিবাদ বিক্ষোভ

সংবাদ অনলাইন ডেস্ক

যুক্তরাষ্ট্রের বিভিন্ন অঙ্গরাজ্যে জুড়ে কৃষ্ণাঙ্গ খুনের প্রতিবাদ-বিক্ষোভ বিক্ষোভ আরও বেড়েছে। টিভি সংবাদমাধ্যম

sangbad ad

বিক্ষোভে উত্তাল যুক্তরাষ্ট্রে সেনা মোতায়েন

সংবাদ ডেস্ক

যুক্তরাষ্ট্রের মিনেসোটা অঙ্গরাজ্যের মিনেপোলিস শহরে পুলিশের হেফাজতে জর্জ ফ্লয়েড নামের এক কৃষ্ণাঙ্গ আমেরিকান নাগরিকের মৃত্যুর ঘটনার প্রতিবাদে টানা চতুর্থ দিনের বিক্ষোভে উত্তাল হয়ে উঠেছে যুক্তরাষ্ট্র। শনিবার ডেট্রয়েটসহ দেশটির বিভিন্ন অঙ্গরাজ্যের রাস্তায় এ বিক্ষোভ সহিংস আকার ধারণ করে। এসময়

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার সঙ্গে সম্পর্ক ছিন্নের ঘোষণা যুক্তরাষ্ট্রের

সংবাদ অনলাইন ডেস্ক

যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার (ডব্লিউএইচও) সঙ্গে তার দেশের সম্পর্কের ইতি টানার ঘোষণা দিয়েছেন। ট্রাম্প ঘোষণা দিলেও ডব্লিউএইচও’র সঙ্গে যুক্তরাষ্ট্রের সম্পর্কচ্ছেদ কবে থেকে কার্যকর হচ্ছে, তা স্পষ্ট হওয়া যায়নি বলে জানিয়েছে বার্তা সংস্থা রয়টার্স। তবে ট্রাম্পের এ ঘোষণা নিয়ে তাৎক্ষণিকভাবে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার কোনো প্রতিক্রিয়া পাওয়া যায়নি।

করোনা চিকিৎসায় ‘প্লাজমা থেরাপি’ ‘রেমডেসিভির’ ব্যবহারে ডব্লিউএইচওর না

অনলাইন বার্তা পরিবেশক,

image

করোনাভাইরাসের (কোভিড-১৯) চিকিৎসায় প্লাজমা থেরাপি ব্যবহার না করার পরামর্শ দিয়েছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (ডব্লিউএইচও)। পাশাপাশি ‘রেমডেসিভির’সহ অন্যান্য অ্যান্টিভাইরালও ব্যবহার না করার সুপারিশ করেছে সংস্থাটি।

বিশ্বে করোনায় আক্রান্ত ৬০ লাখ ছাড়াল

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক

image

বৈশ্বিক মহামারি করোনাভাইরাসে (কোভিড-১৯) আক্রান্ত ও মৃত্যুর সংখ্যা প্রতিদিনই বাড়ছে। গত ডিসেম্বরের শেষে চীনের উহানে শুরু হওয়া করোনার সংক্রমণ বিশ্বের ২১৫টি দেশে ছড়িয়ে পড়েছে।

করোনা বস্তু থেকে সহজে ছড়ায় না : সিডিসি

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক

image

কোনো বস্তু বা পৃষ্ঠতল থেকে করোনাভাইরাস সহজে ছড়ায় না, বরং মূলত মানুষ থেকে মানুষেই রোগটি ছড়াচ্ছে বলে জানিয়েছে যুক্তরাষ্ট্রের সেন্টার ফর ডিজিজ কন্ট্রোল এন্ড প্রিভেনশন (সিডিসি)।

লিবিয়ায় ২৬ বাংলাদেশি শ্রমিক হত্যা

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক

image

লিবিয়ায় ২৬ বাংলাদেশিসহ ৩০ অভিবাসী শ্রমিককে গুলি করে হত্যা করেছে মানবপাচারকারী চক্রের এক সদস্যের পরিবারের লোকজন। নিহত বাকি চারজন আফ্রিকান। এছাড়া আরো ১১ জন গুরুতর আহত হয়েছেন। আন্তর্জাতিক স্বীকৃতিপ্রাপ্ত লিবিয়ার সরকার (জিএনএ) বৃহস্পতিবার এই তথ্য জানিয়েছেন।

sangbad ad