• banlag
  • newspaper
  • epaper

ঢাকা , শুক্রবার, ২১ সেপ্টেম্বর ২০১৮

 

চীনের ওপর বাণিজ্য নিষেধাজ্ঞা আরোপ করছে যুক্তরাষ্ট্র! : ইস্যু মেধাস্বত্ব

নিউজ আপলোড : ঢাকা , বৃহস্পতিবার, ২২ মার্চ ২০১৮

সংবাদ :
  • সংবাদ ডেস্ক
image

মার্কিন ব্যবসায়িক প্রতিষ্ঠানগুলো থেকে মেধাস্বত্ব হস্তান্তর ও চুরিতে চীন উৎসাহিত করছে, এমন অভিযোগ নিশ্চিত হওয়ার পর দেশটির ওপর বড় ধরনের নিষেধাজ্ঞা দেয়ার কথা বিবেচনা করছে যুক্তরাষ্ট্র। এতে চীনের বিভিন্ন পণ্যের ওপর বেশি হারে শুল্ক আরোপের পাশাপাশি বিভিন্ন ধরনের পদক্ষেপ নেয়ার কথাও বিবেচনা করা হচ্ছে। বছরের পর বছর আলোচনার পরও বেইজিং অবস্থান পরিবর্তন না করায় এ নিষেধাজ্ঞা দেয়া হচ্ছে বলে জানিয়েছে হোয়াইট হাউস। ট্রাম্প প্রশাসনের বৃহস্পতিবার (২২ মার্চ) এ নিষেধাজ্ঞা জারি করার কথা। এদিকে বাডুজ্য যুদ্ধ শুরু হলে তাতে কোনো পক্ষই বিজয়ী হবে না বলে সতর্ক করেছে চীন। সংবাদ মাধ্যম বিবিসি এ তথ্য নিশ্চিত করেছে।

চীন যুক্তরাষ্ট্রের কৌশলগত শিল্প প্রতিষ্ঠানে বিনিয়োগের ক্ষেত্রে বেশ আগ্রহী এবং বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানে সাইবার হামলা পরিচালনা করছে ও এতে সমর্থন দিচ্ছে বলে অভিযোগ ওয়াশিংটনের। গত বছরের অগাস্টে ট্রাম্প বাণিজ্য আইনের ৩০১ ধারায় চীনের কার্যক্রম খতিয়ে দেখার নির্দেশ দেয়ার পর অনুসন্ধানে এসব তথ্য বেড়িয়ে আসে বলে দাবি মার্কিন কর্মকর্তাদের। যেসব দেশ যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে ন্যায্য বাণিজ্য করছে না বলে প্রতীয়মান হবে ৩০১ ধারা অনুযায়ী , সেসব দেশের বিরুদ্ধে মার্কিন সরকারকে একতরফা নিষেধাজ্ঞা আরোপের ক্ষমতা দেয়া হয়েছে। হোয়াইট হাউস চীনা পণ্যের ওপর তিন হাজার থেকে ছয় হাজার কোটি ডলার শুল্ক আরোপের চিন্তা করছে বলে মার্কিন গণমাধ্যমগুলোর ভাষ্য। পাশাপাশি চীনা বিনিয়োগে লাগাম টানার বিষয়েও ভাবা হচ্ছে। বিশ্ব বাণিজ্য সংস্থায় বেইজিংয়ের বিরুদ্ধে অভিযোগ দেয়ার কথাও বিবেচনা করা হচ্ছে বলে মার্কিন বাণিজ্য বিষয়ক কর্মকর্তারা জানিয়েছেন। যুক্তরাষ্ট্রের শীর্ষ বাণিজ্য প্রতিনিধি রবার্ট লাইটিজার গত বুধবার কংগ্রেস সদস্যদের বলেন, এমন উপায় খোঁজা হচ্ছে যেন ‘চীনের ওপর সর্বোচ্চ চাপ আর মার্কিন ভোক্তাদের ওপর সর্বনিম্ন চাপ পড়ে’। মেধাস্বত্ব সংরক্ষণকে যুক্তরাষ্ট্রের অর্থনীতির জন্য ‘অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ বিষয়’ বলেও মন্তব্য করেন তিনি। কংগ্রেসের শুনানিতে লাইটিজার বলেন, ‘বাণিজ্যে পুনঃভারসাম্যের ক্ষেত্রে এটাই সম্ভবত সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ বিষয়।’ চীনের বাজারে প্রবেশের ক্ষেত্রে বিদেশি প্রতিষ্ঠানগুলোকে স্থানীয় কোন প্রতিষ্ঠানের সঙ্গে অংশীদারিত্ব চুক্তিতে আসতে হয়। এর মাধ্যমে বেইজিং প্রযুক্তি হস্তান্তরে বিদেশি প্রতিষ্ঠানগুলোকে চাপ দেয় বলে যুক্তরাষ্ট্রের কাছে প্রমাণ আছে বলে সাংবাদিকদের উদ্দেশে দেয়া ব্রিফিংয়ে এমন দাবি করেন মার্কিন এক বাণিজ্য কর্মকর্তা। এদিকে বৃহস্পতিবার ন্যাশনাল পিপলস কাউন্সিলের শেষ দিনে দেশটির স্টেট কাউন্সিলের প্রধান লি কেকিয়াং উভয় পক্ষকেই ‘শান্ত’ থাকার আহ্বান জানিয়েছেন। চীনে উচ্চ প্রযুক্তির পণ্য রপ্তানিতে যুক্তরাষ্ট্রের বিধিনিষেধ শিথিল হবে বলেও আশা প্রকাশ করেছেন তিনি। যুক্তরাষ্ট্রের এ পদক্ষেপ বিশ্বজুড়ে বিস্তৃত বাণিজ্য যুদ্ধের সূচনা করতে পারে বলে আশঙ্কা পর্যবেক্ষকদের।

প্রেসিডেন্ট হওয়ার আগে থেকেই ট্রাম্প চীনের সঙ্গে যুক্তরাষ্ট্রের বিশাল বাণিজ্য ঘাটতি নিয়ে ধারাবাহিক অসন্তোষের কথা বলে আসছেন। সামরিক উদ্দেশ্যে ব্যবহার করা যায়, চীন এমন প্রযুক্তি খুঁজছে বলেও উদ্বেগ রয়েছে যুক্তরাষ্ট্রের। চীনের বিভিন্ন রাষ্ট্র নিয়ন্ত্রিত কোম্পানি যুক্তরাষ্ট্রের প্রতিষ্ঠানগুলোর নিয়ন্ত্রণ নিয়ে হুমকি সৃষ্টি করছে মনে হওয়ায় বিদেশি রাষ্ট্রগুলোর সঙ্গে করা বাণিজ্য চুক্তি পর্যালোচনায় সরকারের ক্ষমতা বাড়াতে নতুন আইনেরও চিন্তা করছে মার্কিন কংগ্রেস। অনেক মার্কিন রাজনীতিবিদ এবং শিল্প প্রতিষ্ঠানগুলোও যুক্তরাষ্ট্রের বাণিজ্য নিষেধাজ্ঞার পাল্টায় চীনের পদক্ষেপ নিয়ে বেশ উদ্বিগ্ন।

গত বুধবারের শুনানিতে লাইটিজারের উদ্দেশ্যে মিনেসোটার রিপাবলিকান সদস্য এরিক পলসন বলেন, ‘সবার মতো আমিও মেধাস্বত্বের লংঘন নিয়ে চীনকে লক্ষ্যস্থল বানাতে চাই, চাই তাদের জবাবদিহিতার মধ্যে আনতে। আমাদের উচিত হবে, চীনের যে পরিবর্তন আমরা চাই, সেটিকে লক্ষ্য বানানো। নিজের পায়ে গুলি চালানো উচিত হবে না আমাদের।’ নিষেধাজ্ঞায় শঙ্কার কথা স্বীকার করেন যুক্তরাষ্ট্রের শীর্ষ বাণিজ্য বিশ্লেষক লাইটিজারও। চীনের পাল্টা পদক্ষেপ মার্কিন কৃষিকে ঝুঁকির মুখে ফেলতে পারে বলেও মনে করছেন তিনি। এ রিপাবলিকান সদস্য বলেন, ‘যদি পাল্টা পদক্ষেপ আসে, যুক্তরাষ্ট্রকে তখন কৃষকদের সুরক্ষায় কিছু পদক্ষেপ নিতে হবে।’

উ. কোরিয়ার সঙ্গে পুনরায় আলোচনায় প্রস্তুত যুক্তরাষ্ট্র

সংবাদ ডেস্ক

image

কোরীয় উপদ্বীপে পরমাণু নিরস্ত্রীকরণ করার লক্ষ্যে উত্তর কোরিয়ার সঙ্গে পুনরায় আলোচনা

রোহিঙ্গা নির্যাতন : প্রাথমিক তদন্ত শুরু অপরাধ আদালতের

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক

মায়ানমারের বিরুদ্ধে গত মঙ্গলবার (১৮ সেপ্টেম্বর) রোহিঙ্গা নির্যাতনের প্রাথমিক তদন্ত

মায়ানমার সেনা আইনের ঊর্ধ্বে থাকলে দেশটিতে শান্তি ফিরবে না

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক

image

মায়ানমারে শান্তি প্রতিষ্ঠা করতে হলে সেনাবাহিনীর ক্ষমতা কমিয়ে বেসামরিক প্রশাসনকে শক্তিশালী

sangbad ad

মুসলিম নারীদের সামাজিব ও অর্থনৈতিক কর্মকাণ্ডে অংশ নিতে উৎসাহ দেবে ওআইসি

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক

image

রাষ্ট্রীয়, সামাজিক এবং অর্থনৈতিক কর্মকাণ্ডে মুসলীম নারীদের আরও সম্পৃক্ত হতে উৎসাহিত

তুরস্ক ও রাশিয়াকে অবশ্যই ইতিবাচক সমাধান খুঁজতে হবে: এরদোগান

সংবাদ ডেস্ক

image

সিরিয়া ইস্যুতে মস্কো ও রাশিয়াকে অবশ্যই ইতিবাচক সমাধান খুঁজতে হবে বলে মন্তব্য

চীন ও হংকংয়ে মাংখুটের আঘাত

সংবাদ ডেস্ক

image

ফিলিপাইনের উত্তরাঞ্চলে ধ্বংসযজ্ঞ চালানোর পর এবার চীন ও হংকংয়ে আঘাত হেনেছে

ফিলিপাইনে টাইফুনে মৃতের সংখ্যা বেড়ে ২৫

image

টাইফুন ম্যাংখুতের আঘাতে ধ্বংসযজ্ঞে পরিনত হয়েছে ফিলিপাইন জুড়ে। রোববার (১৬ সেপ্টেম্বর) কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে

আমার সঙ্গে খেল, তোমার মোবাইলের সঙ্গে নয়

সংবাদ ডেস্ক

image

আজকাল প্রযুক্তির আসক্তির কারণে সামাজিক বন্ধন ভেঙে পড়ছে। বিষয়টি নিয়ে অনেক

পরমাণু নিরস্ত্রীকরণের বল এখন যুক্তরাষ্ট্রের পকেটে : উত্তর কোরিয়া

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক

image

কোরীয় উপদ্বীপের পরমাণু নিরস্ত্রীকরণ এখন মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের ওপরই নির্ভর করবে

sangbad ad