• banlag
  • newspaper
  • epaper

ঢাকা , রবিবার, ১৬ ডিসেম্বর ২০১৮

 

কানাডার সঙ্গে বাণিজ্য ও বিনিয়োগ সহযোগিতা স্থগিত সৌদির

কানাডার রাষ্ট্রদূতকে বহিষ্কার

নিউজ আপলোড : ঢাকা , সোমবার, ০৬ আগস্ট ২০১৮

সংবাদ :
  • সংবাদ ডেস্ক
image

কানাডার বিরুদ্ধে পারস্য উপসাগরীয় দেশগুলোর অভ্যন্তরীণ বিষয়ে ‘হস্তক্ষেপের’ অভিযোগ তুলে দেশটির সঙ্গে সব ধরনের নতুন বাণিজ্য ও বিনিয়োগ সহযোগিতা স্থগিত করেছে সৌদি আরব। একই সঙ্গে রিয়াদে নিযুক্ত কানাডার রাষ্ট্রদূত ডেনিস হোরাককে বহিষ্কার করা হয়েছে। এর পাশাপাশি কানাডার নিযুক্ত সৌদি দূতদেরও দেশে ফিরে আসার নির্দেশ দিয়েছে সৌদি কর্তৃপক্ষ। তবে এ প্রতিবেদন লেখা পর্যন্ত রিয়াদের এমন পদক্ষেপের বিরুদ্ধে কানাডা আনুষ্ঠানিক কোন প্রতিক্রিয়া জানায়নি। সংবাদমাধ্যম বিবিসি এ তথ্য নিশ্চিত করেছে।

সম্প্রতি নারী অধিকার আন্দোলন কর্মীদের বিরুদ্ধে ব্যাপক ধরপাকড় শুরু করেছে সৌদি কর্তৃপক্ষ। বিবিসির এক প্রতিবেদনে বলা হয়, সৌদি আরবে বেশ কয়েকজন মানবাধিকার আন্দোলনকারীকে গ্রেফতারে কানাডা ‘গভীর উদ্বেগ’ জানায়। এর প্রতিক্রিয়ায় সৌদি কর্তৃপক্ষ এসব পদক্ষেপ নিয়েছে বলে ধারণা করা হচ্ছে। গ্রেফতাকৃতদের মধ্যে সৌদি-আমেরিকান নারী অধিকার আন্দোলনকর্মী সমর বাদাউয়িও রয়েছেন। কানাডার নাগরিকত্বও রয়েছে তার। তিনি সৌদি আরবের পুরুষ অভিভাবকত্ব আইন বাতিলের দাবি করে আসছেন। এদিকে সোমবার (৬ আগস্ট) সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম টুইটারে দেয়া ধারাবাহিক কয়েকটি টুইটে সৌদি পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, কানাডার রাষ্ট্রদূতকে বহিষ্কার করা হয়েছে এবং কানাডা থেকে সৌদি রাষ্ট্রদূতকে প্রত্যাহার করা হয়েছে। এ প্রসঙ্গে তারা গত শুক্রবার কানাডার পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের পক্ষ দেয়া এক বিবৃতির উল্লেখ করেছে। ওই বিবৃতিতে সুশীল সমাজ ও নারী অধিকার আন্দোলনকারীদের ‘অবিলম্বে মুক্তি দেয়ার’ আহ্বান জানিয়েছিল কানাডা। তবে দেশটির এমন অবস্থানকে সৌদি আরবের ওপর ‘একটি হামলা’ বলে অভিহিত করে রিয়াদের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় এক ঘোষণায় জানিয়েছে, এখন থেকে তারা প্রথমত, দুই দেশের মধ্যে সব ধরনের নতুন বাণিজ্য ও বিনিয়োগ বন্ধ রাখবে। দ্বিতীয়ত, কানাডার রাষ্ট্রদূতকে একজন অগ্রহণযোগ্য ব্যক্তি (পারসোনা নন গ্রাতা) হিসেবে বিবেচনা করে তাকে ২৪ ঘণ্টার মধ্যে সৌদি ছেড়ে চলে যাওয়ার নির্দেশ দিয়েছে। কানাডার দূতকে বহিষ্কার করে তাকে দেশ ছেড়ে যাওয়ার জন্য ২৪ ঘণ্টা সময় বেধে দেয়া হয়েছে। সৌদির এ ঘোষণার পর দেশটিতে কানাডিয়ান ডলারের মূল্য দশমিক ২ শতাংশ কমে গেছে। গত বছর (২০১৭ সাল) কানাডার সঙ্গে সৌদির ৩২৩ কোটি ডলারের বাণিজ্য হয় বলে জানিয়েছে বার্তা সংস্থা এএফপি। এরমধ্যে সৌদি আরব একাই উত্তর আমেরিকান এ দেশটি থেকে ২১৪ কোটি ডলারের পণ্য রপ্তানি করে। এদিকে রিয়াদের মোট রপ্তানি আয়ের এক শতাংশ রপ্তানি হয় কানাডায়। সামার বাদাউয়ির আরেক ভাই ব্লগার রাইফ বাদাউয়ি। সৌদি সরকারের সমালোচনা করায় তাকেও কারাগারে আটক রাখা হয়েছে। এসব আটকের ঘটনায় গভীর উদ্বেগ প্রকাশ করে কানাডার পক্ষ থেকে শুক্রবার দেয়া বিবৃতিতে বলা হয়, ‘সৌদি কর্তৃপক্ষকে তাদের সবাইকে মুক্তি দেয়ার আহ্বান জানাই।’ দেশটির এমন বিবৃতিতে তাৎক্ষণিকভাবে ক্ষুব্ধ প্রতিক্রিয়া জানায় সৌদি। রিয়াদের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের টুইটে বলা হয় ‘তাৎক্ষণিকভাবে মুক্তি’ শব্দগুচ্ছ ব্যবহার করে দেয়া কানাডার বিবৃতি দুই দেশের সম্পর্কের ক্ষেত্রে খুবই দুর্ভাগ্যজনক, নিন্দনীয় ও অগ্রহণযোগ্য।

সামার বাদাউয়িকে গ্রেফতারের দিন নাসিমা আল-সাদাহ নামের আরেক নারী অধিকার কর্মীকে গ্রেফতার করেছে সৌদি কর্তৃপক্ষ । আন্দোলন কর্মী, শিক্ষাবিদ ও সাংবাদিকদের বিরুদ্ধে চলমান গ্রেফতার অভিযানের অংশ হিসেবে তাদের গ্রেফতার করা হয়েছে বলে দাবি করেছে আন্তর্জাতিক মানবাধিকার সংগঠন হিউম্যান রাইটস ওয়াচ (এইচআরডব্লিউ)। চলতি বছরের মে মাস থেকে এ পর্যন্ত বেশ কয়েকজন নারী অধিকার কর্মীকে গ্রেফতার করেছে সৌদি কর্তৃপক্ষ। এদের মধ্যে বেশিরভাগই নারী গাড়ি চালানোর অনুমতি ও পুরুষ অভিভাবকত্ব আইনের বিরুদ্ধে প্রচারণায় যুক্ত ছিলেন। মে মাসে সৌদি কর্তৃপক্ষ নারী অধিকার কর্মী এমান আল-নাফজান, লুজাইন আল-হাতলুল, আজিজা আল-ইউসেফ, আয়শা আল-মানিয়ে, ইব্রাহিম মোদেইমাহ ও মোহাম্মদ আল-রাবেয়াকে গ্রেফতার করে। তারা জানায়, বিদেশি শক্তির সঙ্গে যোগসাজশ ও বিদেশি শত্রুদের আর্থিক সহযোগিতা দেয়ার মতো সন্দেহজনক কর্মকাণ্ডের জন্য ওই সাতজনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। তদন্ত চলাকালে আরও গ্রেফতার করা হতে পারে।

সৌদির এ যাবৎকালের সবচেয়ে প্রভাবশালী যুবরাজ মোহাম্মদ বিন সালমানের নেয়া সংস্কার পরিকল্পনার সঙ্গে সম্প্রতি নারী অধিকার আন্দোলনকর্মীদের গ্রেফতার করা ঠিক বিপরীতমুখী পদক্ষেপ যা একেবারেই মানানসই নয় বলে পর্যবেক্ষকদের অভিমত। চলতি বছরের ২৪ জুন নারীদের গাড়ি চালানোর ওপর থেকে নিষেধাজ্ঞা তুলে নেয় সৌদি সরকার। গত বছর শতাব্দি পুরনো এ নিষেধাজ্ঞা তুলে নেয়ার ঘোষণা দিয়ে যুবরাজ সালমান ব্যাপক প্রশংসা কুড়ান। সৌদি নারী অধিকার আন্দোলনকারীরা এই সিদ্ধান্তে উল্লাস প্রকাশ করেছিলেন। তাদের মধ্যে এই নিষেধাজ্ঞার বিরোধীতা করে কারাবরণকারী আন্দোলনকারীরাও ছিলেন। তবে তারা বৈষম্যমূলক বলে বিবেচনা করেন এমন অন্য আইনের বিরুদ্ধে আন্দোলন চালিয়ে যাবেন বলেও জানান সে সময়।

ইয়েমেন যুদ্ধ : সৌদি জোটকে সমর্থন বন্ধে মার্কিন সিনেটে প্রস্তাব পাস

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক

image

গত প্রায় সাড়ে তিন বছর ধরে চলা ইয়েমেন যুদ্ধে সৌদি নেতৃত্বাধীন জোটের ওপর

‘খাশোগি হত্যায় পার পেতে পারে না সৌদি আরব’

সংবাদ ডেস্ক

image

ইস্তাম্বুলের সৌদি কনস্যুলেটে গত ২ অক্টোবর নির্বাসিত সাংবাদিক জামাল খাশোগির

প্রধানমন্ত্রিত্বের চ্যালেঞ্জে টিকে গেলেন মে

সংবাদ ডেস্ক

image

ব্রেক্সিট চুক্তি বাস্তবায়ন নিয়ে নিজ দল ও পার্লামেন্টে ব্যাপক চাপের মুখে থাকা প্রধানমন্ত্রী

sangbad ad

মেং ওয়ানঝৌ গ্রেফতার : বিচার বিভাগের ওপর হস্তক্ষেপের ঘোষণা ট্রাম্পের !

সংবাদ ডেস্ক

image

কানাডার ভ্যাঙ্কুভারে ১ ডিসেম্বর চীনের টেলিকম জায়ান্ট হুয়াওয়ের প্রধান অর্থবিষয়ক কর্মকর্তা

ভারতের পাঁচ রাজ্যের বিধানসভা নির্বাচনে তিন রাজ্যে কংগ্রেসের জয়

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক

image

ভারতের পাঁচ রাজ্যে অনুষ্ঠিত বিধানসভা নির্বাচনের ফল প্রকাশিত হয়েছে ১১ ডিসেম্বর মঙ্গলবার

খাশোগি হত্যাকাণ্ড : সন্দেহভাজন খুনিদের হস্তান্তরের তুর্কি দাবি প্রত্যাখ্যান সৌদির

সংবাদ ডেস্ক

image

ইস্তাম্বুলের সৌদি কনস্যুলেটে নৃশংস হত্যাকাণ্ডের শিকার সাংবাদিক জামাল খাশোগির হত্যার

সহিংস বিক্ষোভ : ‘জাতীয় ঐক্য’র আহ্বান ফ্রান্সের প্রধানমন্ত্রীর

সংবাদ ডেস্ক

image

তুমুল বিক্ষোভ-সহিংসতার মুখে ‘জাতীয় ঐক্য পুনঃপ্রতিষ্ঠা’র আহ্বান জানিয়েছেন ফরাসি

খাশোগি হত্যাকাণ্ড : মার্কিন সিনেটরদের ব্রিফ করলেন তুরস্কের গোয়েন্দা প্রধান

সংবাদ ডেস্ক

image

সৌদির স্বেচ্ছানির্বাসিত সাংবাদিক জামাল খাশোগি হত্যাকাণ্ড নিয়ে মার্কিন সিনেটরদের ব্রিফ

বিদেশি শ্রমিক নিতে জাপানের পার্লামেন্টে আইন পাস

সংবাদ ডেস্ক

image

শ্রমিকের ঘাটতি নিরসনে কয়েকে হাজার বিদেশি শ্রমিক নেবে জাপান। বিদেশি শ্রমিকদের

sangbad ad