• banlag
  • newspaper
  • epaper

ঢাকা , শুক্রবার, ২১ সেপ্টেম্বর ২০১৮

 

তেহরানে বৈঠকের পর

ইদলিবে হামলা বাড়িয়েছে বাশার ও রাশিয়া

নিউজ আপলোড : ঢাকা , রবিবার, ০৯ সেপ্টেম্বর ২০১৮

সংবাদ :
  • সংবাদ ডেস্ক
image

শনিবার ইদলিবে হামলার দৃশ্য। ছবি: আল-জাজিরা।

শুক্রবার (৭ সেপ্টেম্বর) ইরানের রাজধানী তেহরানে রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন, ইরানের প্রেসিডেন্ট হাসান রুহানি ও তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইয়েপ এরদোগান এক বৈঠকে বসেছিলেন। সেই বৈঠকে সিরিয়া ইস্যুতে একমত হতে পারেননি এ তিন নেতা। তারপর থেকেই ইদলিবে হামলা বাড়িয়েছে সিরীয় প্রেসিডেন্ট বাশার আল আসাদ ও তার মিত্র রাশিয়া। সর্বশেষ হামলাটি চালানো হয়েছে ৮ সেপ্টেম্বর, শনিবার । এ হামলায় ছয়জন বেসামরিক নাগরিক নিহত হয়েছেন। এরপরও যেকোন সময় আরও হামলার আতঙ্কে রয়েছেন শহরটি নাগরিকরা। এদিকে এ হামলাকে কেন্দ্র করে সিরিয়ার বিরুদ্ধে সামরিক পদক্ষেপ নিতে পাবে বলে হুমকি দিয়েছে যুক্তরাষ্ট্র। এ পরিস্থিতিতে বাশার সরকার যদি হামলা অব্যাহত রাখে তাহলে বড় ধরনের বিপর্যয় হতে পারে দেশটিতে।

শনিবারের এ হামলাটি চালানো হয়েছে দেশটির হোমা প্রদেশের কাছাকাছি দক্ষিণ ও উত্তর ইদলিবে। হেলিকপ্টার থেকে ব্যারেল বোমা ফেলে হাস নামক গ্রামে থাকা একটি হাসপাতালও পুরোপুরি ধ্বংস করে দেয়া হয়েছে। স্থানীয়রা জানিয়েছে, হামলা এক শিশুসহ ছয়জন বাসিন্দা নিহত হয়েছেন। আবদুল কারিম নামের সিরিয়ায় অবস্থিত বিদ্রোহীদের দ্বারা পরিচালিত স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন হোয়াইট হেলমেটের এক সদস্য বলেন, ‘উত্তর হামা প্রদেশের কালাত আল মাডিক এলাকায় প্রায় ১৫০টি বোমা হামলা চালানো হয়েছে। এ হামলা দুইজন নিহত হয়েছেন এবং আহত হয়েছেন আরও প্রায় ৫ জন যার মধ্যে দুটি শিশুও রয়েছে।’ তিনি আরও জানান, শুধু চলতি মাসের বিমান হামলায় প্রায় ২৬ জন নাগরিক নিহত হয়েছে ইদলিবে। এর আগে সিরিয়ায় অবস্থিত আন্তর্জাতিক মানবাধিকার সংস্থা সিরিয়ান অবজারভেটিভর ফর হিউম্যান রাইটস জানায়, শুক্রবার রুশ যুদ্ধবিমান বিদ্রোহীদের মিত্র হায়াত তাহরির আল-শাম ও আহরার আল-শাম গোষ্ঠীর অবস্থান লক্ষ্য করে হামলা চালায়। অবজারভেটরি প্রধান রামি আবদেল রহমান বলেন, এ হামলার লক্ষ্যবস্তু ছিল বিদ্রোহীদের দুর্গ ধ্বংস করা। হায়াত তাহরির আল-শামকে সন্ত্রাসী সংগঠন হিসেবে ঘোষণা করেছে জাতিসংঘ। ইদলিবে সংগঠনটির ১০ হাজার যোদ্ধা রয়েছে। এ সংগঠনকে প্রতিবেশী তুরস্ক সহযোগিতা দিয়ে যাচ্ছে। এর আগেও চলতি সপ্তাহে রাশিয়ার বোমারু বিমান পশ্চিম ইদলিবে বিদ্রোহীদের অবস্থান লক্ষ্য করে ৩০টি হামলা চালায়।

সামরিক পদক্ষেপ নেয়ার হুমকি যুক্তরাষ্ট্র
এদিকে সিরিয়ার বিদ্রোহী অধ্যুষিত ইদলিবে রুশ সমর্থিত সিরীয় বাহিনীর হামলাকে কেন্দ্র করে প্রদেশটিতে হামলা চালানোর ইঙ্গিত দিয়েছে যুক্তরাষ্ট্র। দেশটি জানিয়েছে, এ হামলায় সিরিয়া সরকার যদি রাসায়নিক অস্ত্র ব্যবহার করে তাহলে তার বিরুদ্ধে সম্ভব্য সামরিক জবাব দেয়ার কথা ভাবা হচ্ছে। শনিবার মার্কিন জেনারেল জোসেফ ডানফোর্ড জানিয়েছেন, এ বিষয়ে করণীয় নির্ধারণে হোয়াইট হাউজের সঙ্গে নিয়মিত বৈঠকে আলোচনা হয়েছে। এখন পর্যন্ত সামরিক বিষয়ে কোন সিদ্ধান্ত নেয়া না হলেও সম্ভাব্য সামরিক সামলার ক্ষেত্রে কি কি করার আছে সে বিষয়ে ট্রাম্পকে জানানো হয়েছে। রয়টার্সের এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, বর্তমানে ভারত সফররত জেনারেল জোসেফ ডানফোর্ড যুক্তরাষ্ট্রের জয়েন্ট চিফ অব স্টাফের চেয়ারম্যান। ডানফোর্ড সাংবাদিকদের বলেছেন, ‘আমরা আলোচনা চালিয়ে যাচ্ছি। এটা নিয়মিত কাজের অংশ। আমরা প্রেসিডেন্টকে জানিয়ে রাখতে চাই সম্ভাব্য পরিস্থিতি সম্পর্কে। তিনি চান, আমরা যেন সামরিক পদক্ষেপ নেয়ার বিষয়েও প্রস্তুত থাকি। আমরা সেই অনুযায়ী তাকে আমাদের সামরিক সক্ষমতার বিষয়ে ধারণা দিয়েছি।’ তবে ট্রাম্পকে সামরিক পদক্ষেপ নেয়ার পরামর্শ দিয়েছেন তা স্পষ্ট করেননি ডানফোর্ড। এছাড়া, মার্কিন গোয়েন্দারা সিরিয়ার রাসায়নিক ব্যবহার করার কোন আগাম খবর পেয়েছে কি না সে প্রশ্নের উত্তর দিতেও তিনি অস্বীকার করেন।

সরকারি বাহিনীর সঙ্গে কুর্দিদের সংঘর্ষ
এদিকে, সিরিয়ার উত্তরপূর্বাঞ্চলীয় কামিশলি শহরে সিরীয় সৈন্যদের সঙ্গে যুক্তরাষ্ট্রের সমর্থিত কুর্দি যোদ্ধাদের সংঘর্ষ হয়েছে। এতে কমপক্ষে ১৮ জন নিহত হয়েছেন। শনিবার সিরীয় সামরিক বাহিনীর একটি বহর শহরটির কেন্দ্রস্থলে প্রবেশের পর দুই পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষ সৃষ্টি হয়। কামিশলির ওই এলাকাটি তাদের নিয়ন্ত্রণে ছিল বলে দাবি করেছে কুর্দিদের ওয়াইপিজি মিলিশিয়া বাহিনীর অন্তর্ভুক্ত নিরাপত্তা বাহিনী। আসায়িশ নামে পরিচিত ওয়াইপিজির ওই অভ্যন্তরীণ নিরাপত্তা বাহিনী এক বিবৃতিতে বলেছে, ‘তারা আমাদের নিয়ন্ত্রিত এলাকায় প্রবেশ করে বেসামরিকদের গ্রেপ্তার করে এবং (সামরিক বাহিনীর) টহল দলের সদস্যরা আমাদের বাহিনীকে লক্ষ্যস্থল করে।’ দু’পক্ষের সংঘর্ষে তাদের সাত যোদ্ধা ও সিরীয় সামরিক বাহিনীর ১১ সদস্য নিহত হয়েছে বলে জানিয়েছে কুর্দি বাহিনীগুলো। সিরিয়ার সরকারপন্থি সূত্রগুলো দেশটির রাষ্ট্রীয় গণমাধ্যমকে জানিয়েছে, বিমানবন্দরের দিকে যাওয়ার সময় সেনাবাহিনীর একটি টহল দলের ওপর হামলা করে কুর্দি বাহিনীগুলো। এতে বেশ কয়েকজন সৈন্য নিহত হয়েছে বলে জানিয়েছে রাষ্ট্রীয় গণমাধ্যম।

উ. কোরিয়ার সঙ্গে পুনরায় আলোচনায় প্রস্তুত যুক্তরাষ্ট্র

সংবাদ ডেস্ক

image

কোরীয় উপদ্বীপে পরমাণু নিরস্ত্রীকরণ করার লক্ষ্যে উত্তর কোরিয়ার সঙ্গে পুনরায় আলোচনা

রোহিঙ্গা নির্যাতন : প্রাথমিক তদন্ত শুরু অপরাধ আদালতের

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক

মায়ানমারের বিরুদ্ধে গত মঙ্গলবার (১৮ সেপ্টেম্বর) রোহিঙ্গা নির্যাতনের প্রাথমিক তদন্ত

মায়ানমার সেনা আইনের ঊর্ধ্বে থাকলে দেশটিতে শান্তি ফিরবে না

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক

image

মায়ানমারে শান্তি প্রতিষ্ঠা করতে হলে সেনাবাহিনীর ক্ষমতা কমিয়ে বেসামরিক প্রশাসনকে শক্তিশালী

sangbad ad

মুসলিম নারীদের সামাজিব ও অর্থনৈতিক কর্মকাণ্ডে অংশ নিতে উৎসাহ দেবে ওআইসি

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক

image

রাষ্ট্রীয়, সামাজিক এবং অর্থনৈতিক কর্মকাণ্ডে মুসলীম নারীদের আরও সম্পৃক্ত হতে উৎসাহিত

তুরস্ক ও রাশিয়াকে অবশ্যই ইতিবাচক সমাধান খুঁজতে হবে: এরদোগান

সংবাদ ডেস্ক

image

সিরিয়া ইস্যুতে মস্কো ও রাশিয়াকে অবশ্যই ইতিবাচক সমাধান খুঁজতে হবে বলে মন্তব্য

চীন ও হংকংয়ে মাংখুটের আঘাত

সংবাদ ডেস্ক

image

ফিলিপাইনের উত্তরাঞ্চলে ধ্বংসযজ্ঞ চালানোর পর এবার চীন ও হংকংয়ে আঘাত হেনেছে

ফিলিপাইনে টাইফুনে মৃতের সংখ্যা বেড়ে ২৫

image

টাইফুন ম্যাংখুতের আঘাতে ধ্বংসযজ্ঞে পরিনত হয়েছে ফিলিপাইন জুড়ে। রোববার (১৬ সেপ্টেম্বর) কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে

আমার সঙ্গে খেল, তোমার মোবাইলের সঙ্গে নয়

সংবাদ ডেস্ক

image

আজকাল প্রযুক্তির আসক্তির কারণে সামাজিক বন্ধন ভেঙে পড়ছে। বিষয়টি নিয়ে অনেক

পরমাণু নিরস্ত্রীকরণের বল এখন যুক্তরাষ্ট্রের পকেটে : উত্তর কোরিয়া

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক

image

কোরীয় উপদ্বীপের পরমাণু নিরস্ত্রীকরণ এখন মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের ওপরই নির্ভর করবে

sangbad ad