• banlag
  • newspaper
  • epaper

ঢাকা , শনিবার, ১৭ নভেম্বর ২০১৮

 

একতরফাভাবে পরমাণু কর্মসূচি ত্যাগ না করার ঘোষণা উত্তর কোরিয়ার

নিউজ আপলোড : ঢাকা , রবিবার, ৩০ সেপ্টেম্বর ২০১৮

সংবাদ :
  • সংবাদ ডেস্ক
image

রি ইয়ং-হো। ছবি : রয়টার্স

একতরফাভাবে পরমাণু কর্মসূচি পরিত্যাগ না করার ঘোষণা দিয়েছে উত্তর কোরিয়া। গত শনিবার (২৯ সেপ্টেম্বর) জাতিসংঘ সাধারণ পরিষদের ৭৩তম বার্ষিক অধিবেশনে দেয়া বক্তব্যে এ ঘোষণা দেন দেশটির পররাষ্ট্রমন্ত্রী। রয়টার্স, পার্স টুডে। সাধারণ পরিষদের বার্ষিক অধিবেশনে এদিন উত্তর কোরিয়ার পররাষ্ট্রমন্ত্রী রি ইয়ং-হো বলেন, ‘ওয়াশিংটন যতদিন উত্তর কোরিয়ার বিরুদ্ধে কঠোর নিষেধাজ্ঞা আরোপ করে রাখবে ততদিন পিয়ংইয়ং ‘কোন অবস্থাতেই’ একতরফাভাবে নিজের পরমাণু অস্ত্র কর্মসূচি পরিত্যাগ করবে না। উত্তর কোরিয়ার বিরুদ্ধে নিষেধাজ্ঞা বহাল রেখে যুক্তরাষ্ট্র নিজের প্রতি পিয়ংইয়ংয়ের অবিশ্বাস আরও গভীর করে তুলছে। যুক্তরাষ্ট্রের প্রতি গভীর অবিশ্বাসের কারণে আমরা জাতীয় নিরাপত্তার প্রশ্নে কোনও ছাড় দেব না এবং আমরা আগেই নিজেদের নিরস্ত্র করব না।’ সাম্প্রতিক সময়ে উত্তর কোরিয়া ‘উল্লেখযোগ্য মাত্রায়’ সদিচ্ছার পরিচয় দিয়েছে দাবি করে রি ইয়ং-হো আরও বলেন, ‘পরমাণু অস্ত্র ও ক্ষেপণাস্ত্র পরীক্ষা স্থগিত রাখা, পরমাণু অস্ত্র পরীক্ষা কেন্দ্র বন্ধ করে দেয়া এবং পরমাণু অস্ত্র ও প্রযুক্তির বিস্তার না ঘটানোর প্রতিশ্রুতি দেয়ার মতো ইতিবাচক পদক্ষেপ নিয়েছে পিয়ংইয়ং। কিন্তু এর বিনিময়ে যুক্তরাষ্ট্রের পক্ষ থেকে কোন পাল্টা পদক্ষেপ দেখতে পায়নি উত্তর কোরিয়া।’ উত্তর কোরিয়ার পররাষ্ট্রমন্ত্রী এমন সময় তার দেশের ওপর আরোপিত মার্কিন নিষেধাজ্ঞার বিরুদ্ধে বক্তব্য দিলেন যখন ওয়াশিংটন একাধিকবার বলেছে, পিয়ংইয়ং পরমাণু অস্ত্র পুরোপুরি ধ্বংস করার আগ পর্যন্ত দেশটির ওপর থেকে নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহার করা হবে না।

গত ১২ জুন উত্তর কোরিয়ার নেতা কিম জং-উন সিঙ্গাপুরে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পের সঙ্গে ঐতিহাসিক বৈঠকে মিলিত হন। সেখানে তিনি কোরীয় উপদ্বীপকে পরমাণু অস্ত্রমুক্ত করার মৌখিক প্রতিশ্রুতি দেন। তবে এর পরিবর্তে যুক্তরাষ্ট্রকে উত্তর কারিয়ার বিরুদ্ধে বিদ্বেষী আচরণ পরিহার করার আহ্বান জানান। ওই সাক্ষাতের আগে কিম বলতেন, সম্ভাব্য মার্কিন আগ্রাসন প্রতিহত করার লক্ষ্যে তার দেশ পরমাণু অস্ত্র তৈরি করেছে। গত ১৭ সেপ্টেম্বর উত্তর কোরিয়ার রাজধানী পিয়ংইয়ংয়ে দক্ষিণ কোরিয়ার প্রেসিডেন্ট মুন জায়ে ইন ও উত্তর কোরিয়ার নেতা কিম জং উনের ঐতিহাসিক বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়েছে। সেই বৈঠকে উত্তর কোরিয়ার পরমাণু নিরস্ত্রীকরণ ও দুই কোরিয়ার মধ্যে যুদ্ধের আনুষ্ঠানিক সমাপ্তি নিয়ে আলোচনা হয়েছে। বৈঠকটি কিম ও ট্রাম্পের মধ্যে সম্ভাব্য নতুন বৈঠকের ‘লিটমাস টেস্ট’ হিসেবে বিবেচনা করা হচ্ছে। পর্যবেক্ষকরা ধারনা করছেন, জুনে সিঙ্গাপুরে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পের সঙ্গে ঐতিহাসিক বৈঠকে কিম পারমাণবিক নিরস্ত্রীকরণের যে প্রতিশ্রুতি দিয়েছিলেন সে বিষয়ে তিনি আন্তরিক কিনা, মুনের সঙ্গে বৈঠকে তার আঁচ পাওয়া যাবে। ফলাফল হয়েছেও তাই। মুন কিম বৈঠকে কিম ট্রাম্পের সঙ্গে আবার বৈঠকে বসতে ইচ্ছা প্রসণ করেছেন। এবার যদি মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প ও উত্তর কোরিয়ার নেতা কিম জং উন আরেকটি বৈঠক হয় তাহলে উত্তর কোরিয়ার পারমাণুবিক নিরস্ত্রিকরণ ও মার্কিন নিষেধাজ্ঞা উঠিয়ে নেয়ার বিষয়ে দুই দেশের মধ্যে চুড়ান্ত চুক্তি হতে পারে।

ট্রাম্পের উপদেষ্টার পদ ছাড়লেন মিরা

সংবাদ ডেস্ক

image

মার্কিন ফার্স্ট লেডি মেলানিয়া ট্রাম্পের সঙ্গে বিরোধের জেরে পদ ছাড়তে বাধ্য হলেন

শ্রীলঙ্কার পার্লামেন্টে এমপিদের হাতাহাতি

সংবাদ ডেস্ক

image

শ্রীলঙ্কার রাজনৈতিক সংকট যেন কাটছেই না। নানা নাটকীয় পরিস্থিতির সর্বশেষ ঘটনায়

ফের উত্তপ্ত হোয়াইট হাউস

সংবাদ ডেস্ক

image

মার্কিন কংগ্রেস নির্বাচনের মাত্র এক সপ্তাহ পর ফের উত্তপ্ত হয়ে উঠেছে মার্কিন প্রেসিডেন্টের

sangbad ad

ব্রেক্সিট চুক্তির খসড়ায় ঐকমত্য যুক্তরাজ্য-ইইউ

সংবাদ ডেস্ক

image

দীর্ঘদিন ধরে আলোচনার পর ব্রেক্সিট চুক্তির একটি খসড়া প্রস্তাবে একমত হয়েছেন যুক্তরাজ্য

রোহিঙ্গাদের বলপুর্বক ফেরত পাঠানো আন্তর্জাতিক আইনের লঙ্ঘন : জাতিসংঘ

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক

image

রোহিঙ্গাদের বলপুর্বক ফেরত পাঠানো হলে সেটা ‘আন্তর্জাতিক আইনের লঙ্ঘন’ হবে

উত্তপ্ত গাজা-ইসরায়েল সীমান্ত : ৬ হামাস সদস্য নিহত

সংবাদ ডেস্ক

image

অধিকৃত গাজা ভূখণ্ডে ইসরায়েলি সামরিক কমান্ডোদের গুপ্ত হামলার পর তেল আবিবে ব্যাপক

খাশোগির খুনিদের জবাবদিহিতার আওতায় আনার ঘোষণা যুক্তরাষ্ট্রের

সংবাদ ডেস্ক

image

ইস্তাম্বুলের সৌদি কনস্যুলেটে সাংবাদিক জামাল খাশোগিকে নির্মমভাবে হত্যা করার ঘটনার

রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসন শুরুর বিষয়টি বাংলাদেশের ওপর নির্ভর করছে : মায়ানমার পুর্নবাসনমন্ত্রী

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক

image

রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসন শুরুর বিষয়টি বাংলাদেশের ওপর নির্ভর করছে বলে জানিয়েছেন মায়ানমারের

আসিয়া বিবির কারামুক্তি

সংবাদ ডেস্ক

image

ধর্ম অবমাননার (ব্লাসফেমি আইনে) অভিযোগে মৃত্যুদণ্ডাদেশ নিয়ে আট বছর কারাগারে

sangbad ad