• banlag
  • newspaper
  • epaper

ঢাকা , বৃহস্পতিবার, ২০ সেপ্টেম্বর ২০১৮

 

দশ মাসে প্রবাসী আয় সাড়ে ১৭ শতাংশ বেড়েছে

এপ্রিলে ২১ শতাংশ

নিউজ আপলোড : ঢাকা , শুক্রবার, ০৪ মে ২০১৮

সংবাদ :
  • রোকন মাহমুদ
image

চলতি বছরের শুরু থেকেই বাড়ছে প্রবাসী আয়। সদ্য সমাপ্ত মাসেও এই ধারাবাহিকতা রয়েছে। এপ্রিলে দেশের প্রবাসীরা ব্যাংকিং চ্যানেলে মোট ১৩২ কোটি ৭১ লাখ মার্কিন ডলার পাঠিয়েছে। যা গত বছরের একই সময়ের তুলনায় ২৩ কোটি ডলার বা ২১ শতাংশ বেশি। গত বছর এপ্রিলে প্রবাসীরা ব্যাংকিং চ্যানেলে মোট ১০৯ কোটি ২৬ লাখ ডলারের সমপরিমাণ অর্থ দেশে পাঠিয়েছিলেন। বাংলাদেশ ব্যাংকের হালনাগাদ তথ্যে এ চিত্র পাওয়া যায়।

তথ্যে দেখা যায়, এপ্রিলে প্রবাসী আয় বৃদ্ধি পাওয়ায় অর্থবছরের দশ মাসের (জুলাই-এপ্রিল) মোট আয়ও বেড়েছে। এসময় মোট ১ হাজার ২০৮ কোটি ডলার প্রবাসী আয় দেশে এসেছে। যা আগের বছরের তুলনায় ১৭ দশমিক ৫০ শতাংশ বেশি। গত বছর ১০ মাসে প্রবাসি আয় হয়েছিল ১ হাজার ২৮ কোটি ৭২ লাখ ডলার। মূলত আন্তর্জাতিক বাজারে জ্বালানি তেলের দাম এবং দেশে ডলারের দাম বেড়ে যাওয়ায় রেমিট্যান্স আয়ও বেড়েছে বলে মনে করছেন সংশ্লিষ্টরা। তবে বাংলাদেশ ব্যাংকের দাবি হুন্ডি প্রতিরোধও ব্যাংকিং চ্যানেলে রেমিট্যান্স বৃদ্ধির একটি কারণ।

এদিকে সার্বিকভাবে বাড়লেও দেশের সবচেয়ে বেশি প্রবাসি আয় আহরণকারী ইসলামী ব্যাংকের আয় কমেছে। মার্চ মাসে যেখানে ব্যাংকটি ২৮.২৫ কোটি ডলার রেমিট্যান্স আয় করেছিল এপ্রিলে এসে দুই কোটি ডলার কমে হয়েছে ২৬.৬১ কোটি ডলার।

আর্থিক খাত সংশ্লিষ্টরা বলছেন, চলতি বছরের শুরু থেকে পণ্য আমদানি বাড়ার কারণে বাজারে এখন ডলারের চাহিদা বেশি। সে কারণে ব্যাংকগুলো তাদের নিজেদের প্রয়োজনেই রেমিট্যান্স আনতে বেশি আগ্রহী। অন্যদিকে জ্বালানি তেলের দাম বাড়ায় মধ্যপ্রাচ্যের প্রবাসিদের আয় ভালো হওয়ায় এবং ডলারের বিপরীতে বেশি টাকা পাওয়ার কারণে প্রবাসীরাও ব্যাংকিং চ্যানেলে রেমিট্যান্স পাঠাচ্ছেন। এ ছাড়া হুন্ডি প্রতিরোধে বাংলাদেশ ব্যাংকের বেশকিছু উদ্যোগও কাজ করেছে।

তথ্যমতে, গত ২০১৬-১৭ অর্থবছরে আগের (২০১৫-১৬) অর্থবছরের তুলনায় প্রায় ১৪.৪৮ শতাংশ কম রেমিট্যান্স আসে। গত মার্চে ১৩০ কোটি ৪ লাখ ডলার পাঠিয়েছিলেন প্রবাসীরা। যা এর আগের মাস ফেব্রুয়ারির তুলনায় ১৫ কোটি ডলার বেশি ছিল। এ ছাড়া গত বছরের একই সময়ের তুলনায় ওই মাসে প্রায় ২০ শতাংশ বেশি প্রবাসী আয় এসেছিল। চলতি অর্থবছরের ৯ মাস পর্যন্ত (জুলাই-মার্চ) আগের অর্থবছরের একই সময়ের তুলনায় প্রবাসী আয় বেড়েছিল ১৭ শতাংশ।

কেন্দ্রীয় ব্যাংকের প্রতিবেদন অনুযায়ী, এপ্রিল মাসে রাষ্ট্রায়ত্ত ব্যাংকগুলোর মাধ্যমে রেমিট্যান্স এসেছে ৩২ কোটি ৬৫ লাখ ডলার। যা মার্চে ছিল ৩১ কোটি ৫৮ লাখ ডলার। বিশেষায়িত দুটি ব্যাংকের মাধ্যমে এক কোটি নয় লাখ ডলার এসেছে যা মার্চে ছিল এক কোটি ১৩ লাখ ডলার। এ ছাড়া বেসরকারি ব্যাংকগুলোর মাধ্যমে ৯৭ কোটি ৫৫ লাখ ডলার প্রবাসী আয় এসেছে যা মার্চে ছিল ৯৫ কোটি ৯৫ লাখ ডলার। বিদেশি ব্যাংকগুলোর মাধ্যমে ১ কোটি ৪১ লাখ ডলার এসেছে যা মার্চে ছিল ১ কোটি ৩৮ লাখ ডলার। বরাবরের মতো সর্বোচ্চ প্রবাসী আয় আহরণকারী বেসরকারি হিসেবে ইসলামী ব্যাংকের পরে রয়েছে রাষ্ট্রায়ত্ব অগ্রণী ব্যাংক। গত এপ্রিল মাসে ব্যাংকটি রেমিট্যান্স আয় করেছে ১৩ কোটি ডলার। আগের মাসে ছিল ১২ কোটি ৫৫ লাখ ডলার, সোনালী ব্যাংকের মাধ্যমে ১০ কোটি ডলার এবং জনতা ব্যাংকের মাধ্যমে ৮ কোটি ডলার এসেছে।

রিহ্যাব পুরস্কার পেলেন ২৪ গণমাধ্যমকর্মী

অর্থনৈতিক বার্তা পরিবেশক

image

রিয়েল এস্টেট অ্যান্ড হাউজিং অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ (রিহ্যাব) আয়োজিত বর্ষসেরা

সঞ্চয়পত্র থেকে সরকারের ধার ৫ হাজার কোটি টাকা

রোকন মাহমুদ

image

চলতি অর্থবছরের প্রথম মাস জুলাইয়ে সঞ্চয়পত্রে বড় ধরনের বিনিয়োগ এসেছে। এ

বাংলাদেশে বিনিয়োগ করতে চায় থাই ব্যবসায়ীরা

অর্থনৈতিক বার্তা পরিবেশক

image

বাংলাদেশের বিভিন্ন সম্ভাবনাময় খাতে বিনিয়োগের আগ্রহ প্রকাশ করেছে থাইল্যান্ডের ব্যবসায়ীরা। নিকটতম

sangbad ad

পুনর্মুদ্রণ হবে বাংলাদেশ ব্যাংকের ইতিহাস

অর্থনৈতিক বার্তা পরিবেশক

image

‘বাংলাদেশ ব্যাংকের ইতিহাস’ গ্রন্থ পুনর্মুদ্রণের উদ্যোগ নিয়েছে কেন্দ্রীয় ব্যাংক। গ্রন্থটিতে

এসডিজি বাস্তবায়নে বেসরকারি খাতের ভূমিকা অর্ধেকেরও বেশি

অর্থনৈতিক বার্তা পরিবেশক

image

টেকসই উন্নয়ন লক্ষ্যমাত্রা বা এসডিজি (সাসটেন্যাবল ডেভেলপমেন্ট গোল) বাস্তবায়নে

ব্যাংক সেবার বাইরে দুই-তৃতীয়াংশ মানুষ

অর্থনৈতিক বার্তা পরিবেশক

image

ব্যাংক খাতের সঙ্গে বাংলাদেশের মানুষের সম্পর্ক এখনও কাক্সিক্ষত লক্ষ্যে পৌঁছায়নি। অনেক

আরো এক কোটি ১৪ লাখ পরিবারের তথ্য সংগ্রহ করা হবে

অর্থনৈতিক বার্তা পরিবেশক

image

দেশের পরিবারভিত্তিক দরিদ্র্য ও সুবিধাবঞ্চিতদের চিহ্নিত করতে ন্যাশনাল হাউজহোল্ড ডাটাবেজ

অভ্যন্তরীনভাবে ব্যাংকিং খাতে সুশাসন বলতে কিছু নেই

অর্থনৈতিক বার্তা পরিবেশক

image

ব্যাংকিং খাতে সুশাসনের অভাবের পাশাপাশি দুর্নীতি ও অব্যবস্থাপনা জেঁকে বসেছে বলে মন্তব্য

প্রতিযোগিতা করে বাণিজ্য করতে বাংলাদেশ সক্ষম

অর্থনৈতিক বার্তা পরিবেশক

image

উন্নত বিশ্বের সঙ্গে প্রতিযোগিতা করে বাণিজ্য করতে বাংলাদেশ সক্ষম বলে মন্তব্য করেছেন

sangbad ad