• banlag
  • newspaper
  • epaper

ঢাকা , সোমবার, ১২ এপ্রিল ২০২১

 

হাজতিকে বিদ্যুৎ শক ও বিষাক্ত ইনজেকশন দিয়ে হত্যাচেষ্টা

নিউজ আপলোড : ঢাকা , শুক্রবার, ০৫ মার্চ ২০২১

সংবাদ :
  • নিরুপম দাশগুপ্ত, চট্টগ্রাম
image

চট্টগ্রামে এক হাজতিকে বৈদ্যুতিক শক ও বিষাক্ত ইনজেকশন দিয়ে হত্যা চেষ্টার অভিযোগে জেল সুপার, জেলার, চিকিৎসকসহ চার জনের বিরুদ্ধে করা মামলা পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশনকে (পিবিআই) তদন্তের নির্দেশ দিয়েছেন আদালত। গতকাল ‘নির্যাতিত’ হাজতি রূপম কান্তি দেবনাথের স্ত্রী ঝর্ণা রানী দেবনাথের আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে চট্টগ্রাম মহানগর দায়রা জজ শেখ আশফাকুর রহমানের আদালত এ আদেশ দেন। মামলায় সাতকানিয়া উপজেলা কালিয়াইশ ইউনিয়নের মৃত বিশ্বেশ্বর ভট্টাচার্য্যরে ছেলে রতন ভট্টাচার্য্য, চট্টগ্রাম কেন্দ্রীয় কারাগারের জেল সুপার, জেলার ও জেলখানার কর্তব্যরত এক সহকারী সার্জনকে বিবাদী করা হয়েছে। তাদের বিরুদ্ধে নির্যাতন ও হেফাজতে মৃত্যু (নিবারণ) আইন ২০১৩-এর (১ ও ২) এবং ক, খ , গ ধারায় অভিযোগ আনা হয়।

এদিকে আর্থিক লেনদেন সংক্রান্ত মামলায় কারাগারে গিয়ে ‘নির্যাতিত’ রূপম কান্তি দেবনাথের জামিন বাতিল করেছেন আদালত। গতকাল মহানগর দায়রা জজ শেখ আশফাকুর রহমানের আদালত জামিন বাতিলের আদেশ দেন। এছাড়া রূপমের শরীরের বাহ্যিক ও অভ্যন্তরীণ আঘাতের ধরন মেডিকেল রেজিস্টারে সংরক্ষণ করে রাখার জন্য তার স্ত্রী আবেদন জানিয়েছেন।

আদালত সূত্রে জানা যায়, পূর্বপরিচিত রতন ভট্টাচার্য্যরে সঙ্গে আর্থিক লেনদেন সংক্রান্ত একটি মামলায় (জিআর মামলা নম্বর ৩৩২/১৮) গত বছরের ১৫ ডিসেম্বর কারাগারে যান রুপম। আইনজীবী অ্যাডভোকেট বিশ্বজিৎ চক্রবর্তী সুমন আদালতে রুপম কান্তির জন্য দুটি পিটিশন দিয়েছিলেন। আদালত শুনানি শেষে ১০ হাজার টাকা বন্ডে গত বুধবার তার জামিন মঞ্জুর করেছিলেন।

মহানগর পাবলিক প্রসিকিউটর (পিপি) অ্যাডভোকেট মো. ফখরুদ্দিন চৌধুরী বলেন, হাজতবাস ও শারীরিক অসুস্থতার কারণে জামিন মঞ্জুর করার পরও যথাসময়ে জামিননামা দাখিল না করায় রূপম কান্তি দেবনাথের জামিন বাতিল করা হয়েছে।

এদিকে জেল সুপার, জেলার, চিকিৎসকসহ চারজনের বিরুদ্ধে করা মামলার বিষয়ে বাদী পক্ষের আইনজীবী ভুলন লাল ভৌমিক বলেন, ম্যাজিস্ট্রেট আদালতের দেয়া নির্দেশনা মেনেই মহানগর দায়রা জজ আদালতে মামলার আবেদন করেছি। আদালত শুনানি শেষে পিবিআইকে মামলাটি তদন্ত করে প্রতিবেদন দাখিলের নির্দেশ দিয়েছেন। এছাড়া বন্দী ও পরিবারের নিরাপত্তা চেয়ে নতুনভাবে নির্যাতন ও হেফাজতে মৃত্যু (নিবারণ) আইনের ১১ ধারায় আরও একটি পিটিশন দেয়া হয়েছে ।

এর আগে গত ১ মার্চ রূপম কান্তি নাথ নামে ওই হাজতিকে বৈদ্যুতিক শক ও বিষাক্ত ইনজেকশন দিয়ে হত্যা চেষ্টার অভিযোগ এনে জেল সুপার, জেলার, কারা হাসপাতালের চিকিৎসক ও মামলার বাদী রতন ভট্টাচার্য্যকে অভিযুক্ত দ্বিতীয় মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট হোসাইন মোহাম্মদ রেজার আদালতে অভিযোগ দেন। এদিন আদালত অভিযোগটি আমলে নিলেও কোন আদেশ দেননি। পরদিন আদালত অভিযোগটি ‘উপযুক্ত আদালতে’ পুনরায় তোলার আদেশ দেন।

গতকালের আদালতে দাখিল করা অভিযোগে ঝর্ণা রানী দেবনাথ দাবি করেন, গত বছরের ১৫ ডিসেম্বর তার স্বামী ভিকটিম রুপম কান্তি নাথ জিআর ৩৩২/১৮ নম্বর মামলায় সুস্থ অবস্থায় চট্টগ্রাম কেন্দ্রীয় কারাগারে যান। ভিকটিম থেকে ইচ্ছার বিরুদ্ধে সম্মতি আদায়ের জন্য অভিযুক্ত বিবাদীরা পরস্পরের যোগসাজশে চট্টগ্রামের কারাগারের সাঙ্গ ১ নম্বর ভবনে গত ফেব্রুয়ারি মাসের ২৪ ও ২৫ তারিখের যেকোন সময় চট্টগ্রাম কেন্দ্রীয় কারাগারে বৈদ্যুতিক শক ও বিষাক্ত ইনজেকশন পুশ করে কারাবন্দী রূপম কান্তি নাথকে হত্যা চেষ্টা করা হয়। এমন খবর পেয়ে স্ত্রীর পক্ষে রূপমের আইনজীবী তার সঙ্গে দেখা করেন।

পরে হাজতি রূপমকে উন্নত চিকিৎসার নির্দেশনা চেয়ে মহানগর জজ আদালতে আবেদন করেন আইনজীবী। আদালত আবেদন মঞ্জুর করলে ২৮ ফেব্রুয়ারি তাকে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের ২৪ নম্বর ওয়ার্ডের এমএক্স ১২ নম্বর বেডে ভর্তি করানো হয়। এ ঘটনার পর বাদী ঝর্ণা হাসপাতাল পরিচালকের কাছে আলামত সংগ্রহ করে রাখতে আবেদনও করেছেন।

হাসপাতাল সূত্রে জানা যায়, এদিকে রূপম কান্তি নাথ নমে (৪৫) ওই হাজতি মত্যুর সঙ্গে পাঞ্জা লড়ছে। কারা কর্তৃপক্ষের তত্ত্ববধায়নে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের ২৪ নম্বর ওয়ার্ডের এমএক্স ১২ নম্বর বেডে চিকিৎসাধীন ভিকটিম রূপন কান্তি নাথের মুখ, হাতসহ সারা গায়ে আঘাতের চিহ্ন রয়েছে। তার গোপনাঙ্গে আগুনের ছ্যাঁকা দেয়ার মতো চিহ্ন পাওয়া গেছে। পুরুষাঙ্গসহ বিভিন্ন স্থান আগুনে ঝলসে গিয়ে মাংসপি- খসে পড়ার মতো চিহ্ন দেখা যাচ্ছে। তাছাড়া রোগীর শরীরে আঘাতের চিহ্ন রয়েছে।

ওয়ার্ডে কর্তব্যরত চিকিৎসকের কাছে জানতে চাইলে নাম প্রকাশ না করার শর্তে তিনি বলেন, গোপনাঙ্গে গুরুতর আঘাতের ফলে সেখানে রক্তজমাট বেঁধে যায়। এরপর গোপনাঙ্গ গ্যাংগ্রিনে আক্রান্ত হয়ে গেছে। তাছাড়া রোগীর শরীরে আঘাতের চিহ্ন রয়েছে।

আদালত সূত্রে জানা যায়, ২০১৮ সালের ২৫ এপ্রিল কোতয়ালি থানায় রতন ভট্টাচার্য্য নামের এক ব্যবসায়ীর দায়ের করা জালিয়াতি ও আত্মসাতের (৪০৬/৪২০) মামলায় রূপম ২০২০ সালের ১৫ ডিসেম্বর থেকে কারাগারে রয়েছেন। আত্মসাতের মামলায় তিনি চুক্তিমতো টাকা দিতে ব্যর্থ হওয়ায় ওইদিন আদালত তার জামিন বাতিল করে কারাগারে পাঠান। গত ২৫ ফেব্রুারি রাত ১০টায় তাকে গুরুতর আহত অবস্থায় কারাগার থেকে চমেক হাসপাতালে ভর্তি করেন কারা কর্তৃপক্ষ।

ভুক্তভোগীর স্ত্রী ঝর্ণা রানী দেবী এ প্রতিবেদককে জানান, আমার স্বামীকে হাসপাতালে ভর্তি করার একদিন পর তার অসুস্থ হওয়ার খবর জানানো হয়। তিনি বলেন, গুরুতর আহত আমার স্বামীকে পায়ে ডান্ডাবেড়ি পরিয়েই হাসপাতালে আনা হয়।

অনুসন্ধানে জানা যায়, হাসপাতালে ভর্তি করার পরও দুইদিন রূপম ডান্ডাবেড়ি পরিহিত ছিলেন। রূপমের আইনজীবী বিশ্বজিত চক্রবর্তী বলেন, গত ২৬ ফেব্রুয়ারি রাতে খবর পেয়ে আমি হাসপাতালে যাই। সেখানে গিয়ে রূপমের পায়ে ডান্ডাবেড়ি দেখতে পাই। তিনি বলেন, এ সময় আমি পাহারারত ৩ কারারক্ষীকে ডান্ডাবেড়ি পরানোর ব্যাপারে জানতে চাই। তারা উত্তরে বলেন, ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষ তার পায়ে ডান্ডাবেড়ি পরিয়েছেন। আমাদের কিছু করার নেই।

রূপমের পরিবার ও আইনজীবীর অভিযোগ, মামলার বাদী রতন ভট্টাচার্য্য অত্যন্ত প্রভাবশালী। তার প্ররোচণায় রূপমকে কারাভ্যন্তরে নজিরবিহীন নির্যাতন করা হয়েছে। এদিকে গত শনিবার চমেক হাসপাতালের পরিচালক বরাবর রূপমের স্ত্রী এক দরখাস্ত দাখিল করেন। এতে রূপমের শরীরের বাহ্যিক ও অভ্যন্তরীণ আঘাতের ধরন মেডিকেল রেজিস্টারে সংরক্ষণ করে রাখার আবেদন জানানো হয়। ওই আবেদনে উল্লেখ করা হয়, হাসপাতালে ছুটে এসে আমার স্বামীর সারাশরীরে আঘাতের দাগ দেখি। তার কাছে জেনেছি, কারাগারে তাকে বৈদ্যুতিক শক দেয়া, ইনজেকশন পুশ করাসহ সারাশরীরে আঁচড়, কিল, ঘুষি ও লাথি মারা হয়েছে।

রূপমের ছেলে চিন্ময় নাথ এ প্রতিবেদকের মাধ্যমে তার বাবাকে নির্যাতনের সুষ্ঠু তদন্তের জন্য সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের কাছে আবেদন জানান। তিনি ক্ষোভ প্রকাশ করে বলেন, আমার বাবাকে গুরুতর আহত করে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। কারাগারে নির্যাতিত হয়ে যার নড়াচড়া করার শক্তি নেই। কথা বলারও শক্তি নেই। তাকে কারা কর্তৃপক্ষ ডান্ডাবেড়ি পরিয়ে হাসপাতালে এনেছে। শুধু তাই নয়, ডান্ডাবেড়ি পরিয়ে দুইদিন হাসপাতালে রেখেছে। এক প্রশ্নের জবাবে তিনি হাসপাতালে ভর্তি করার দিন ও পরের দিনের সিসিটিভি ফুটেজ থেকে ডান্ডাবেড়ি পরানোর সত্যতা পাওয়া যাবে বলে দাবি করেন।

কারাগারের জেলার রফিকুল ইসলামের কাছে জানতে চাইলে তিনি নির্যাতনের বিষয়টি অস্বীকার করে পাল্টা প্রশ্ন করেন, কারাগারে কি কাউকে নির্যাতন করা যায়? তাহলে হাজতি এভাবে আহত হওয়া এবং গোপনাঙ্গ ঝলসে যাওয়ার ঘটনা কিভাবে ঘটল এ পাল্টা প্রশ্নে তিনি নিশ্চুপ হয়ে যান।

মুমূর্ষু হাজতি রোগীতে ডান্ডাবেড়ি পরানোর বিষয়ে জানতে চাইলে শেখ ইফতেখার সাইমুল বলেন, ডাকাতি, হত্যাসহ তিন বা ততোধিক মামলার দুধর্ষ আসামিকে কারাগারের বাইরে নেয়া হলে নিরাপত্তার খাতিরে সচরাচর ডান্ডাবেড়ি পরানো হয়। আর কারা অভ্যন্তরে আহত হলে এমনকি আত্মহত্যাসহ যেকোন ঘটনার জন্য কারা কর্তৃপক্ষকেই জবাবদিহি করতে হয়। কারাগারে আহত হলে তার জন্য সুষ্ঠু তদন্ত করে দোষীদের শাস্তি হওয়া উচিত। কারণ কারাগারের ভেতরটা সব সময় নিরাপদ থাকার নিয়ম। তার ব্যত্যয় ঘটলে কারা কর্তৃপক্ষের প্রতি জনগণ আস্থা হারাবে।

মাদক সেবনের অপরাধে চাকরিচ্যুতি, অপহরণের অভিযোগে গ্রেপ্তার

সংবাদ অনলাইন ডেস্ক

মাদক সেবনের দায়ে চাকরিচ্যুত হয়ে নানা অপরাধে জড়িয়ে পড়েন পুলিশের সাবেক এসআই আসাদুজ্জামান। চাকরিজীবী, ব্যবসায়ীসহ

মামুনুলের কথিত দ্বিতীয় স্ত্রীর ছেলের নিরাপত্তা চেয়ে জিডি

সংবাদ অনলাইন ডেস্ক

image

হেফাজতে ইসলামের যুগ্ম মহাসচিব মামুনুল হকের দাবি করা দ্বিতীয় স্ত্রী জান্নাত আরা ঝর্ণার বড় ছেলে তার নিজের ও মায়ের জীবনের নিরাপত্তা চেয়ে পল্টন থানায় গতকাল শনিবার (১০ এপ্রিল) সাধারণ ডায়েরি (জিডি) করেছে। পল্টন থানা পুলিশ তা নিশ্চিত করেছে।

অস্ত্রসহ রাজশাহীতে দুই যুবক গ্রেফতার

সংবাদ অনলাইন ডেস্ক

image

অস্ত্রসহ দুই যুবককে গ্রেফতার করা হয়েছে। গ্রেফতারকৃতরা হলেন- রাজশাহীর বাঘা উপজেলার আশরাফপুর গ্রামের মৃত সুলতান প্রামানিকের ছেলে কামরুল ইসলাম (৩৫) এবং একই উপজেলার চাঁদপুর বেংগাড়ি বাজারের ফজলুর রহমানের ছেলে ফাইজুল ইসলাম জনি (২৮)।

sangbad ad

গাইবান্ধায় সিনেমা হলের সামনে মালিককে ছুরিকাঘাতে হত্যা

সংবাদ অনলাইন ডেস্ক

image

গাইবান্ধার সাঘাটায় দুর্বৃত্তের ছুরিকাঘাতে বজলুর রশিদ বুলু (৫৮) নামে এক সাবেক সেনাসদস্য নিহত হয়েছেন।রোববার (১১ এপ্রিল) ভোরে উপজেলার জুমারবাড়ী ইউনিয়নের রোমা সিনেমা হলের সামনে এ ঘটনা ঘটে।

হবিগঞ্জে ডাকাতির অভিযোগে দুই যুবককে পিটিয়ে হত্যা

সংবাদ অনলাইন ডেস্ক

image

হবিগঞ্জের লাখাই উপজেলার গুণীপুর গ্রামে ডাকাতির অভিযোগে দুই যুবককে পিটিয়ে হত্যা করা হয়েছে বলে খবর পাওয়া গেছে। পুলিশ জানিয়েছে ফিকল দিয়ে খুঁচিয়ে খুঁচিয়ে তাদের মারা হয়েছে।

ব্যবসায়ী টিপু সুলতান একাই হাতিয়ে নিয়েছেন হাজার কোটি টাকা

সাইফ বাবলু

কাগুজে প্রতিষ্ঠান ঢাকা ট্রেডিং হাউজসহ বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের নামে বিভিন্ন ব্যাংক থেকে ঋণ জালিয়াতি করে হাজার কোটি টাকা হাতিয়ে নিয়েছেন ব্যবসায়ী টিপু সুলতান।

অপহরণের পর মুক্তিপণ, চার র‌্যাব সদস্যকে ধরল পুলিশ

সংবাদ অনলাইন ডেস্ক

রাজধানীর হাতিরঝিল থানার এক ব্যক্তিকে অপহরণ করে মুক্তিপণ দাবি করার অভিযোগে র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়নের (র‌্যাব) চার সদস্যকে গ্রেপ্তার করেছে হাতিরঝিল থানা পুলিশ।

অবৈধভাবে বিদ্যুতের খুটি বসাচ্ছে পল্লী বিদ্যুৎ সমিতি

প্রতিনিধি, মুন্সীগঞ্জ

image

একটি সড়ক একটি জনপদের সকল শ্রেণি পেশার মানুষের জীবন যাপনের মান উন্নয়ন ঘটায়।

‘শিশু বক্তা’ রফিকুলের বিরুদ্ধে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে মামলা

নিজস্ব বার্তা প্ররিবেশক

image

‘শিশু বক্তা’ হিসেবে পরিচিত রফিকুল ইসলাম মাদানীর বিরুদ্ধে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে মামলা