• banlag
  • newspaper
  • epaper

ঢাকা , শনিবার, ২০ জুলাই ২০১৯

 

কক্সবাজার মেডিকেল কলেজে দুর্নীতি : ৫ জনকে দুদকের জিজ্ঞাসাবাদ

নিউজ আপলোড : ঢাকা , রোববার, ১২ মে ২০১৯

সংবাদ :
  • নিজস্ব বার্তা পরিবেশক
image

কক্সবাজার মেডিকেল কলেজে আসবাব কেনার নামে সরকারি অর্থ আত্মসাৎ ও অনিয়মের অনুসন্ধানের অংশ হিসেবে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের মহাপরিচালক আবুল কালাম আজাদসহ পাঁচ কর্মকর্তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করেছে দুর্নীতি দমন কমিশন দুদক। ১২ মে রোববার রাজধানীর মহাখালীতে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরে গিয়ে তাঁদের জিজ্ঞাসাবাদ করে দুদকের একটি দল। এর আগে সেখানে গিয়ে অভিযোগসংশ্লিষ্ট নথিও সংগ্রহ করে সংস্থাটি।

দুদক সূত্র জানিয়েছে, অভিযোগটি অনুসন্ধানের জন্য দুদকের চট্টগ্রাম ২ সমন্বিত জেলা কার্যালয়ের উপপরিচালক মাহবুবুল আলমের নেতৃত্বে দলটিই স্বাস্থ্য অধিদপ্তরে গিয়ে অভিযোগ সংশ্লিষ্ট স্বাস্থ অধিদপ্তরের মহাপরিচাল আবুল কালাম আজাদসহ ৫ জনকে জিজ্ঞাসাবাদ করে। স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের মহাপরিচালক ছাড়া আরও যাঁদের জিজ্ঞাসাবাদ করা হয় তাঁরা হলেন, অধিদপ্তরের চিকিৎসা শিক্ষা ও স্বাস্থ্য জনশক্তি উন্নয়ন বিভাগের সাবেক পরিচালক ও লাইন ডিরেক্টর আবদুর রশীদ, কর্মসূচি ব্যবস্থাপক মো. ইউনুস, উপ-কর্মসূচি ব্যবস্থাপক কামরুল কিবরিয়া ও প্রধান সহকারী আবদুল মালেক। তবে উচ্চমান সহকারী খায়রুল আলমকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য নোটিশ দেওয়া হলেও তিনি অফিসে উপস্থিত ছিলেন না। এর আগে সেখানে উপস্থিত হয়ে ২০১৬-১৭ অর্থবছরে কক্সবাজার মেডিকেল কলেজে আসবাবপত্র ক্রয়সংক্রান্ত যাবতীয় রেকর্ডপত্রের সত্যায়িত কপি, মেডিকেল কলেজে ফার্নিচার ক্রয়সংক্রান্ত আইন-বিধি ও নীতিমালার কপি সংগ্রহ করে দুদকের দলটি।

দুদক সূত্র জানায়, ২০১৭ সালের ১৮ ডিসেম্বর কক্সবাজার মেডিকেল কলেজের অধ্যক্ষ আসবাব কেনার জন্য ২০ কোটি ৮৫ লাখ ৮৪ হাজার ৮০০ টাকার প্রশাসনিক অনুমোদনসহ বরাদ্দ চান। চিকিৎসা শিক্ষা ও স্বাস্থ্য জনশক্তি উন্নয়ন বিভাগের প্রশাসনিক প্ল্যানে তাঁদের জন্য কোনো বরাদ্দ ছিল না। তারপরও মন্ত্রণালয়ের থোক বরাদ্দ থেকে ওই পরিমাণ টাকা বরাদ্দ দেওয়াসহ প্রশাসনিক অনুমোদনের জন্য পাওয়া প্রস্তাব সুপারিশসহ অগ্রবর্তী করা হয়। নথিতে ওই ছয়জন কর্মকর্তা-কর্মচারী সই করেন।

জিজ্ঞাসাবাদ শেষে অনুসন্ধান দলের প্রধান দুদকের চট্টগ্রাম-২ সমন্বিত জেলা কার্যালয়ের উপপরিচালক মাহবুবুল আলম সাংবাদিকদের বলেন, কক্সবাজার মেডিকেল কলেজে আসবাবপত্র কেনার মাধ্যমে দুর্নীতির অভিযোগ প্রাথমিকভাবে প্রমাণিত হয়েছে। কক্সবাজার মেডিকেল কলেজের আসবাবপত্র কেনার জন্য দুটি প্রতিষ্ঠানকে ঠিকাদার নিয়োগ দেওয়া হয়। এর মধ্যে একটিকে ৩ কোটি ৪৯ লাখ টাকা পরিশোধ করা হয়। আরেক প্রতিষ্ঠানের টাকা পরিশোধ করা হয়নি। আসবাবপত্র কেনার জন্য কোনো বরাদ্দ ছিল না। তারপরও মন্ত্রণালয়ের থোক বরাদ্দ থেকে টাকা বরাদ্দ দেওয়াসহ প্রশাসনিক অনুমোদনের জন্য সুপারিশ করেন মহাপরিচালকসহ জিজ্ঞাসাবাদের আওতায় আসা ছয় কর্মকর্তা-কর্মচারী সই করেছেন। তাঁর মতে, এখানে দুর্নীতি হয়েছে, সেটা স্পষ্ট।

ওয়াসার ১১ খাতে দুর্নীতি চিহ্নিত করেছে দুদক

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক

image

সীমাহীন দুর্নীতির কারণে ঢাকা ওয়াসা থেকে কাক্সিক্ষত সেবা পাচ্ছেন না গ্রাহকরা। সুপেয়

সরকারি সম্পদ ব্যক্তিগত প্রয়োজনে ব্যবহারের মাধ্যমে অর্থ আত্মসাত করায় দুদকের মামলা

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক

image

বিদ্যুৎ উন্নয়ন বোর্ডের পদস্ত কর্মকর্তাদের জন্য জরুরী প্রয়োজনে রাখা দুটি গাড়ি ক্ষমতার অপব্যবহার করে পদস্ত কর্মকর্তাদের জন্য রাখা নিজেরা

ডিআইজি মিজান ও দুদকের বাছিরের বিরুদ্ধে মামলা

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক

image

৪০ লাখ টাকার ঘুষ লেনদেনের অভিযোগে সাময়িক বরখাস্ত পুলিশের ডিআইজি মিজানুর রহমান ও দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) পরিচালক

sangbad ad

স্বামী-স্ত্রীর কোটি টাকার ডিপ্লোমা বাণিজ্য

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক

image

ভুয়া চারুকলা ডিপ্লোমা ইনস্টিটিউট, ইউনিভার্সিটি, মেডিকেল ট্রেনিং ইনস্টিটিউট, ইঞ্জিনিয়ারিং কলেজ, বিএড কলেজ, প্যারামেডিকেল

২৭ লাখ টাকাসহ চাকরিচ্যুত পুলিশ কর্মকর্তা গ্রেফতার

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক

image

রাজধানীর হাতিরঝিল থেকে চাকরিচ্যুত এক সহকারী এএসআইকে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব-৩। তার নাম কবির হোসেন শেখ (৩৮)। ১৫ জুলাই

অবৈধ সম্পদ ডিসিসির সাবেক প্রকৌলীর বিরুদ্ধে মামলা হচ্ছে

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক

image

পাঁচ কোটি টাকার জ্ঞাত আয়বহির্ভূত সম্পদ অর্জনের অভিযোগে অবিভক্ত ঢাকা সিটি করপোরেশনের (ডিসিসি) সাবেক অতিরিক্ত প্রধান

নিজেকে বাঁচাতে আরেক অডিও’র কথা বলে ৫ জনকে দায়ী করলেন বাছির

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক

image

এবার নিজেকে বাঁচাতে আরও ৫ জনকে জড়িয়ে অভিযোগ করেছেন বরখাস্ত দুদক পরিচালক খন্দকার এনামুল বাছির। এতে তিনি দাবি করেছেন

এসকে সিনহাসহ ১১ জনের বিরুদ্ধে দুদকের মামলা

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক

image

ফারমার্স ব্যাংক (বর্তমানে পদ্মা ব্যাংক) থেকে ক্ষমতার অপব্যবহার করে অবৈধভাবে ৪ কোটি টাকা ঋন নিয়ে তা আত্মসাৎ ও পাচারের

ঘুষ লেনদেন ও অনিয়মের অভিযোগে জাতীয় গৃহায়ন কর্তৃপক্ষের প্রধান কার্যালয়ে দুদকের অভিযান

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক

image

প্লট ও ফ্ল্যাট বরাদ্দে অনিয়ম, নামজারি ও রেজিস্ট্রিশনে ঘুষ লেনদেনের অভিযোগে জাতীয় গৃহায়ন কর্তৃপক্ষের প্রধান কার্যালয়ে অভিযান

sangbad ad