• banlag
  • newspaper
  • epaper

ঢাকা , শনিবার, ২০ জুলাই ২০১৯

 

অর্থসহ বিপুল পরিমাণ সম্পদ পাচার : ফালুর বিরুদ্ধে মামলা

নিউজ আপলোড : ঢাকা , সোমবার, ১৩ মে ২০১৯

সংবাদ :
  • নিজস্ব বার্তা পরিবেশক
image

অফশোর কোম্পানি খুলে ক্ষমতার অপব্যবহার করে ১৮৩ কোটি ৯২ লাখ টাকা দুবাইয়ে পাচার করেছেন বিএনপির সাবেক সংসদ সদস্য মোসাদ্দেক আলী ফালু ও ব্যবসায়ী প্রতিষ্ঠান আরএকে গ্রুপ। বিএনপি আমলে ক্ষমতার অপব্যবহার করে পাচার করা অর্থসহ বিপুল পরিমাণ সম্পদ অবৈধভাবে গড়েন ফালু। আর অবৈধ অর্থ বিদেশে অবৈধভাবে পাচারে সহযোগিতা করেন ব্যবসায়ী এসএকে ইকরামুজ্জামান। ১৩ মে সোমবার এ অভিযোগে মোসাদ্দেক আলী ফালু এবং এসএকে ইকরামুজ্জামানসহ ৪ ব্যবসায়ীর বিরুদ্ধে মামলা করেছে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)।

দুদকের সহকারী পরিচালক গুলশান আনোয়ার প্রধান বাদী হয়ে উত্তরা থানায় মামলা করেন। মামলার অন্য আসামিরা হলেন স্টার সিরামিকস প্রাইভেট লিমিটেডের পরিচালক সৈয়দ এ কে আনোয়ারুজ্জামান ও স্টার সিমাকসের পরিচালক এবং আরএকে কনজিউমার প্রডাক্টস লিমিটেডের সাবেক পরিচালক মো. আমির হোসাইন।

দুদক সূত্র জানায়, মোসাদ্দেক আলী ফালু, একরামুজ্জামান, আনোয়ারুজ্জামান, আমির হোসাইন ২০১০ সালে দুবাইয়ে আল মদিনা ইন্টারন্যাশনাল লিমিটেড, থ্রি স্টার লিমিটেড, ডেভেলমেন্ট ইইউই নামে অফশোর কোম্পানি খোলেন এবং বাংলাদেশে ‘দুর্নীতির মাধ্যমে’ অর্জিত ১৮৩ কোটি ৯২ লাখ টাকা দুবাইয়ে পাচার করেন। দুবাইয়ে ওই অর্থ উপার্জনের কোনো উৎস তারা দেখাতে পারেননি। ওই অর্থ কীভাবে উপার্জন করা হয়েছে, এর কোনো তথ্য-প্রমাণ তাদের কাছে নেই। দুবাইয়ে ব্যবসা-বাণিজ্য করার কথা তারা বাংলাদেশ ব্যাংককে কখনও জানাননি বা কোনো ধরনের অনুমতি নেননি। মোহাম্মদ মোসাদ্দেক আলী, এসএকে একরামুজ্জামান ও সেয়দ এ কে আনোয়ারুজ্জামান, মো. আমির হোসাইন দুর্নীতির মাধ্যমে বাংলাদেশে শত শত কোটি টাকার অবৈধ সম্পদ গড়ে তোলেন এবং ওইসব অবৈধ সম্পদ বিভিন্ন অবৈধ পন্থায় দুবাইয়ে পাচার করেন ও পাচারকৃত টাকা স্থানান্তর বা রূপান্তরের মাধ্যমে নিজেদের ভোগদখলে রেখে এর অবৈধ প্রকৃতি, উৎস, অবস্থান গোপন বা এর ছদ্মাবরণে পাচার অথবা পাচারের অপরাধ করেছেন।

মামলার এজাহারে বলা হয়েছে, মোসাদ্দেক আলী, ব্যবসায়ী এসএকে একরামুজ্জামান ও সৈয়দ এ কে আনোয়ারুজ্জামান পরস্পরের পরিচিত ও ঘনিষ্ঠ। এসএকে একরামুজ্জামান, সৈয়দ এ কে আনোয়ারুজ্জামান ও মোহাম্মাদ মোসাদ্দেক আলী ২০১০ সালে দুবাইয়ে বিভিন্ন অপসোর কোম্পানি খোলেন। এর মধ্যে উল্লেখ্যযোগ্য হচ্ছে মোহাম্মাদ মোসাদ্দেক আলীর শতভাগ মালিকানাধীন ‘আল মদিনা ইন্টারন্যাশনাল লি.’। এতে তার প্রাথমিক বিনিয়োগ ১০ হাজার এইডি এবং মোহাম্মাদ মোসাদ্দেক আলী, এসএকে একরামুজ্জামান ও সৈয়দ এ কে আনোয়ারুজ্জামানের যৌথ মালিকানাধীন ‘থ্রি স্টার লি.’ নামীয় কোম্পানি।

ওয়াসার ১১ খাতে দুর্নীতি চিহ্নিত করেছে দুদক

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক

image

সীমাহীন দুর্নীতির কারণে ঢাকা ওয়াসা থেকে কাক্সিক্ষত সেবা পাচ্ছেন না গ্রাহকরা। সুপেয়

সরকারি সম্পদ ব্যক্তিগত প্রয়োজনে ব্যবহারের মাধ্যমে অর্থ আত্মসাত করায় দুদকের মামলা

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক

image

বিদ্যুৎ উন্নয়ন বোর্ডের পদস্ত কর্মকর্তাদের জন্য জরুরী প্রয়োজনে রাখা দুটি গাড়ি ক্ষমতার অপব্যবহার করে পদস্ত কর্মকর্তাদের জন্য রাখা নিজেরা

ডিআইজি মিজান ও দুদকের বাছিরের বিরুদ্ধে মামলা

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক

image

৪০ লাখ টাকার ঘুষ লেনদেনের অভিযোগে সাময়িক বরখাস্ত পুলিশের ডিআইজি মিজানুর রহমান ও দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) পরিচালক

sangbad ad

স্বামী-স্ত্রীর কোটি টাকার ডিপ্লোমা বাণিজ্য

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক

image

ভুয়া চারুকলা ডিপ্লোমা ইনস্টিটিউট, ইউনিভার্সিটি, মেডিকেল ট্রেনিং ইনস্টিটিউট, ইঞ্জিনিয়ারিং কলেজ, বিএড কলেজ, প্যারামেডিকেল

২৭ লাখ টাকাসহ চাকরিচ্যুত পুলিশ কর্মকর্তা গ্রেফতার

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক

image

রাজধানীর হাতিরঝিল থেকে চাকরিচ্যুত এক সহকারী এএসআইকে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব-৩। তার নাম কবির হোসেন শেখ (৩৮)। ১৫ জুলাই

অবৈধ সম্পদ ডিসিসির সাবেক প্রকৌলীর বিরুদ্ধে মামলা হচ্ছে

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক

image

পাঁচ কোটি টাকার জ্ঞাত আয়বহির্ভূত সম্পদ অর্জনের অভিযোগে অবিভক্ত ঢাকা সিটি করপোরেশনের (ডিসিসি) সাবেক অতিরিক্ত প্রধান

নিজেকে বাঁচাতে আরেক অডিও’র কথা বলে ৫ জনকে দায়ী করলেন বাছির

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক

image

এবার নিজেকে বাঁচাতে আরও ৫ জনকে জড়িয়ে অভিযোগ করেছেন বরখাস্ত দুদক পরিচালক খন্দকার এনামুল বাছির। এতে তিনি দাবি করেছেন

এসকে সিনহাসহ ১১ জনের বিরুদ্ধে দুদকের মামলা

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক

image

ফারমার্স ব্যাংক (বর্তমানে পদ্মা ব্যাংক) থেকে ক্ষমতার অপব্যবহার করে অবৈধভাবে ৪ কোটি টাকা ঋন নিয়ে তা আত্মসাৎ ও পাচারের

ঘুষ লেনদেন ও অনিয়মের অভিযোগে জাতীয় গৃহায়ন কর্তৃপক্ষের প্রধান কার্যালয়ে দুদকের অভিযান

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক

image

প্লট ও ফ্ল্যাট বরাদ্দে অনিয়ম, নামজারি ও রেজিস্ট্রিশনে ঘুষ লেনদেনের অভিযোগে জাতীয় গৃহায়ন কর্তৃপক্ষের প্রধান কার্যালয়ে অভিযান

sangbad ad