• banlag
  • newspaper
  • epaper

ঢাকা , শুক্রবার, ০৫ জুন ২০২০

 

ধানমন্ডিতে জোড়া হত্যাকাণ্ডে মৃতদের শরীরে একাধিক জখম : সন্দেহের তীর নতুন গৃহকর্মীর দিকে

নিউজ আপলোড : ঢাকা , শনিবার, ০২ নভেম্বর ২০১৯

সংবাদ :
  • নিজস্ব বার্তা পরিবেশক
image

রাজধানীর ধানমন্ডিতে খুন হওয়া গৃহকর্ত্রী আফরোজা বেগম ও গৃহকর্মী দিতির শরীরে একাধিক জখমের চিহ্ন পেয়েছে ময়নাতদন্তকারী চিকিৎসক। তিন সদস্যের বোর্ড গঠন করে ২ নভেম্বর শনিবার দুই মরদেহের ময়নাতদন্ত করা হয়। বোর্ডের প্রধান ছিলেন ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের ফরেনসিক বিভাগের বিভাগীয় প্রধান সহযোগী অধ্যাপক ড. সোহেল মাহমুদ। সঙ্গে ছিলেন প্রভাষক প্রদীপ বিশ্বাস ও কবির সোহেল। ময়নাতদন্ত শেষে কবির সোহেল জানান, নিহত দুইজনের শরীরে ছুরিকাঘাতের একাধিক জখম ছিল। আফরোজা বেগমের পেটে, বুকে ছুরিকাঘাত করা হয়। এর মধ্যে একটি আঘাত তার কিডনি ভেদ করে। এতে অতিরিক্ত রক্তক্ষরণে তার মৃত্যু হয়। গৃহকর্মীর ক্ষেত্রে তিনি বলেন, তাকেও ছুরিকাঘাত করা হয়। তবে গলা কাটার কারণেই তার মৃত্যু হয়েছে।

এদিকে শনিবার সন্ধ্যা ৭টা পর্যন্ত এ ঘটনায় মামলা হয়নি। ঘটনার দুইদিনেও কোনো কূল-কিনারা করতে পারেনি পুলিশ। জিজ্ঞাসাবাদের জন্য দুই জনকে পুলিশ হেফাজতে নেওয়া ছাড়া নতুন কোনো অগ্রগতি নেই। তবে নিহতের পরিবার ও পুলিশের সন্দেহ, ঘটনার দিন কাজ নিতে আসা নতুন গৃহকর্মী এই হত্যাকাণ্ড ঘটিয়েছে। ঘটনার পর থেকে তার সন্ধানও পাওয়া যাচ্ছে না।

ধানমন্ডি থানার ওসি আবদুল লতিফ জানান, ওই গৃহকর্মীকে ধরতে অভিযান চলছে। পাশাপাশি জিজ্ঞাসাবাদের জন্য তারিমের শ্বশুরের ব্যক্তিগত সহকারী (পিএস) বাচ্চু ও বাড়ির ইলেকট্রিশিয়ান বেলায়েতকে আটক করা হয়েছে। আমরা জানতে পেরেছি, বাচ্চুই নতুন গৃহকর্মীকে নিয়ে এসেছিল। সার্বিক আলামত বিবেচনায় নিয়ে জোড়া খুনের ঘটনায় নতুন গৃহকর্মীকেই সন্দেহ করা হচ্ছে। সে একাই কাজটি করেছে নাকি তার সঙ্গে আরো কেউ জড়িত ছিল, এসব বিষয় খতিয়ে দেখা হচ্ছে। সিসিটিভি ফুটেজ থেকে গৃহকর্মীর ছবি সংগ্রহ করা হয়েছে। তাকে ধরার জন্য আমরা চেষ্টা চালাচ্ছি।

ময়নাতদন্তের পর শনিবার দুপুরের পর ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের মর্গে আসেন আফরোজা বেগমের ভাগিনা এম এ করিম। তিনি জানান, স্থানীয় মসজিদে আফরোজার প্রথম জানাজা শেষে লাশ ঢাকায় রাখা হয়। নিহতের নাতি লন্ডন থেকে আসার পর মরদেহ গ্রামের বাড়ি গফুরগাঁও দাফন করা হবে। পরিবারের সবাই শোকে থাকায় শনিবার সন্ধ্যা পর্যন্ত এ ঘটনায় মামলা করেনি। তারা মামলা করবেন। তবে কে বা কারা ঘটনাটি ঘটিয়েছে তা এখনো নিশ্চিত নয় তারা।

খবর পেয়ে শুক্রবারই ঢাকায় আসেন নিহত গৃহকর্মীর দুই ভাই। শনিবার দুপুরের পর ঢামেক হাসপাতাল মর্গে দিতির লাশ নিতে আসেন তারা। এ সময় দিতির ভাই মো. জসিম জানান, তাদের বাড়ি ময়মনসিংহের পাগলায়। গৃহকর্ত্রী আফরোজা বেগমের বাড়িও ওখানে। প্রায় সাড়ে চার বছর ধরে দিতি আফরোজার বাসায় কাজ করে আসছিল। সর্বশেষ গত ঈদে দিতি বাড়ি যায়। এরপর আর যায়নি। আফরোজা বেগম বলছিলেন, দিতিকে বিয়ে দিবেন। জামাইকে তাদের নিজস্ব একটি প্রতিষ্ঠানে চাকরিও দিবেন। তারা এর আগে অনেক গৃহকর্মীকে এভাবে বিয়ে দিয়েছেন, জামাইকে চাকরিও দিয়েছেন। কিন্তু দিতি এর আগেই চলে গেছে! তবে ঘটনার সঙ্গে নতুন গৃহকর্মীকে সন্দেহ করা হলেও তার নাম-ঠিকানা কিছুই জানতে পারেনি পুলিশ। প্রাথমিকভাবে সিসিটিভির ফুটেজ সংগ্রহ করেছে পুলিশ। এতে দেখা যায়, ওই গৃহকর্মী ওই দিন সন্ধ্যায় ওই বাড়ি থেকে বের হচ্ছে। সিসিটিভির ফুটেজের ক্লু ধরে পুলিশ এগোচ্ছে। তবে প্রতিবেশী অনেকে বলছেন, শুধু গৃহকর্মীর একার পক্ষে এমন জোড়া খুন সংঘটিত করা সম্ভব নয়।

তবে এসব বিষয় মাথায় নিয়ে পুলিশ বিষয়টি তদন্ত করছে বলে জানান ধানমন্ডি জোনের সহকারী পুলিশ কমিশনার (এসি) আব্দুল্লাহ আল কাফি। তিনি বলেন, বাচ্চু ও বেলায়েতকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে। বাচ্চু নতুন গৃহকর্মীকে আনলেও সে আগ থেকে তাকে চিনতো না। খুনের সঙ্গে বাচ্চুর সংশ্লিষ্টতা এখনো পাওয়া যায়নি। বিষয়টি তদন্তের পর জানা যাবে। এদিকে ভবনের নিরাপত্তাকর্মী আতিক জানান, বাচ্চু, তিন সিকিউরিটি গার্ড, একজন ক্লিনার এবং একজন বৈদ্যুতিক মিস্ত্রিকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য নিয়ে গেছে পুলিশ। শুক্রবার রাতে ধানমন্ডির ২৮ নম্বর সড়কের ২১ নম্বর বাসার পঞ্চম তলার একটি ফ্ল্যাট থেকে আফরোজা বেগম ও তার গৃহকর্মী দিতির মরদেহ উদ্ধার করা হয়। ওই বাসায় আফরোজা বেগম ও গৃহকর্মী দিতি থাকতেন। এর উপরের তলায় অর্থাৎ পঞ্চম তলায় নিহত আফরোজার মেয়ে দিলরুবা থাকনে।

বাম জোটের অভিযোগ: সরকার মালিকদের স্বার্থ রক্ষায় বাস ভাড়া বাড়িয়েছে

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক

image

বাম গণতান্ত্রিক জোটে নেতৃবৃন্দ অভিযোগ করেছেন, সরকার সম্পূর্ন অনৈতিক ও অন্যায়ভাবে একতরফা

পুরোনো চেহারায় রাজধানী

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক

image

সেই পুরোনো চেহারায় ফিরেছে রাজধানী। জীবিকার তাগিদে পুরোদমে কর্মব্যস্ত হয়ে পরেছে রাজধানীবাসী।

বাড়ি ভাড়া ৫০ শতাংশ মওকুফের দাবিতে প্রধানমন্ত্রীর কাছে স্মারকলিপি

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক

image

আপদকালীন সময়ের জন্য বাড়ি ভাড়া ৫০ শতাংশ মওকুফ করাসহ ১১ দফা দাবিতে প্রধানমন্ত্রীর কাছে স্মারকলিপি দিয়েছে ভাড়াটিয়া অধিকার রক্ষা কমিটি (ভার্ক)। রোববার ৩১ মে সংগঠনটির যুগ্ম আহ্বায়ক জসি সিকদারের নেতৃত্বে তিন সদস্যের একটি প্রতিনিধি দল প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে গিয়ে স্মারকলিপিটি হস্তান্তর করেন।

sangbad ad

মুক্তিযুদ্ধ জাদুঘরের ট্রাস্টি মফিদুল হকের মায়ের মৃত্যু

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক

image

প্রাবন্ধিক-সংস্কৃতিকর্মী, মুক্তিযুদ্ধ জাদুঘরের ট্রাস্টি মফিদুল হক-এর মা জোবেদা হক আজ ২৮ মে বৃহস্পতিবার ভোর চারটায় ল্যাবএইড হাসপাতলে মৃত্যুবরণ করেছেন। মৃত্যুকালে তাঁর বয়স হয়েছিল ৯৬ বছর।

ইউনাইটেডে আগুন: ফায়ার সার্ভিসের তদন্ত কমিটি গঠন

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক

image

ঢাকার গুলশানের ইউনাইটেড হাসপাতালে অগ্নিকাণ্ডে কোভিড-১৯ ইউনিটের পাঁচ রোগীর মৃত্যুর ঘটনায় ফায়ার সার্ভিসের পক্ষ থেকে চার সদস্যের একটি তদন্ত কমিটি করা হয়েছে। উপ-পরিচালক দেবাশীষ বর্ধনের নেতৃত্বে গঠিত এই কমিটিতে সদস্য হিসেবে আছেন ফায়ার ব্রিগেড ট্রেনিং সেন্টারের ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ বাবুল চক্রবর্তী, উপ সহকারী পরিচালক নিয়াজ আহমেদ এবং বারিধারার জ্যেষ্ঠ স্টেশন অফিসার মো. আবুল কালাম আজাদ।

ইউনাইটেড হাসপাতালে অগ্নিকাণ্ডে পাঁচ রোগীর মৃত্যু

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক

image

ঢাকার গুলশানের ইউনাইটেড হাসপাতালে অগ্নিকাণ্ডে করোনাভাইরাসের পাঁচ রোগীর মৃত্যু হয়েছে বলে জানিয়েছে ফায়ার সার্ভিস। বুধবার রাতে বেসরকারি হাসপাতালটির নিচের প্রাঙ্গণে করোনাভাইরাসের রোগীদের জন্য খাটানো তাঁবুতে আগুন লাগে। সোশাল মিডিয়ায় ছড়িয়ে পড়া নানা ভিডিওতে দেখা যায়, বেসরকারি হাসপাতালটির নিচের প্রাঙ্গণে দাউ দাউ করে আগুন জ্বলছিল। ফায়ার সার্ভিসের নিয়ন্ত্রণ কক্ষে দায়িত্বরত কর্মকর্তা কামাল হোসেন রাত সাড়ে ১০টায় বলেন, ইউনাইটেড হাসপাতালের নিচতলায় রাত ৯টা ৫৫ মিনিটে আগুন লেগেছিল। আমাদের ৩টি ইউনিট তা নিয়ন্ত্রণে এনেছে।

গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের কিটের ক্লিনিক্যাল ট্রায়াল স্থগিত

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক

image

ওষুধ প্রশাসন অধিদপ্তরের অনুরোধে গণস্বাস্থ্য কেন্দ্র উদ্ভাবিত জিআর কভিড-১৯ টেস্ট কিটের ক্লিনিক্যাল ট্রায়াল স্থগিত করা হয়েছে। সোমবার রাতে জিআর কভিড-১৯ ডট ব্লোট প্রকল্পের কো-অর্ডিনেটর ডা. মুহিব উল্লাহ খন্দকারের সই করা এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে এই তথ্য জানানো হয়েছে।

করোনায় সানবিমস স্কুলের প্রতিষ্ঠাতা নিলুফার মঞ্জুরের মৃত্যু

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক

image

করোনায় সানবিমস স্কুলের প্রতিষ্ঠাতা নিলুফার মঞ্জুরের মৃত্যু প্রাণঘাতী করোনায় আক্রান্ত হয়ে সানবিমস স্কুলের অধ্যক্ষ নিলুফার মঞ্জুর মারা গেছেন (ইন্নালিল্লাহি… রাজিউন)। আজ মঙ্গলবার ২৬ মে ভোরে সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালে (সিএমএইচ) চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান তিনি।

সৈয়দ মঞ্জুর এলাহী ও স্ত্রী নিলুফার করোনায় আক্রান্ত

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক

image

বাংলাদেশের অন্যতম শীর্ষ ব্যবসায়ী তত্ত্বাবধায়ক সরকারের সাবেক উপদেষ্টা সৈয়দ মঞ্জুর এলাহী এবং তার স্ত্রী সানবিমস স্কুলের প্রতিষ্ঠাতা অধ্যক্ষ নিলুফার মঞ্জুর করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন। তাদের ছেলে সৈয়দ নাসিম মঞ্জুর শনিবার রাতে বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমকে বলেন, আম্মা সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালে (সিএমএইচ) চিকিৎসাধীন আছেন। আর বাবা বাসাতেই চিকিৎসা নিচ্ছেন।

sangbad ad